উইন্ডোজ ১০ ফাইনাল রিলিজ হলেই কি মাইগ্রেট করা উচিত? সুবিধা অসুবিধা জানতে হবে না?

Level 7
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা
————————–— بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ ————————–—

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি, সবাইকে আমার আন্তরিক সালাম এবং শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি সদ্য রিলিজ হওয়া উইন্ডোজ ১০ আমাদের প্রযুক্তিময় জীবনের সাথে কতোটা সামঞ্জস্যপূর্ণ সে সম্পর্কিত আমার আজকের টিউন।

২৯ জুলাই, বহুপ্রতিক্ষিত উইন্ডোজ ১০ এর রিলিজ হওয়ার দিন। নতুনকে উপভোগ করার, নতুন কে স্বাগত জানানোর মাহেন্দ্রক্ষণ। এই দিনের জন্য অপেক্ষা যেন শেষ হতেই চায়নি। অবশেষে সেই দিন আসলো, পিসি ব্যবহারকারীদের জীবনে এলো ঈদের মতো আনন্দ। উইন্ডোজ আপগ্রেড করার ধুম পড়ে যাওয়ার কথা। বুঝে কিংবা না বুঝে সবাই এখন উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে মাইগ্রেট করবে। কিন্তু যে উৎসাহ এবং উদ্দিপনার কারনে আপনি উইন্ডোজ ১০ এ মাইগ্রেট করতে যাচ্ছেন সেই উইন্ডোজ ১০ আপনার সাথে কতোটা সামঞ্জস্যপূর্ণ যেটা একবার ভেবে দেখেছেন? আপনি কম্পিউটারে যে ধরনের কাজ করেন উইন্ডোজ ১০ সেই কাজের জন্য কতোটা সহায়ক হবে সেটা জানেন? উইন্ডোজের নতুন ভার্সনে পুরোপুরি মাইগ্রেট করার আগে আপনাকে এই বিষয়গুলো জানাতেই আমার আজকের আয়োজন। যদিও উইন্ডোজ ১০ নিত্যনতুন সুবিধা সম্বলিত উইন্ডোজ এর সর্বশেষ সংস্করণ কিন্তু এই সংস্করণ থেকে বাদ পড়েছে উইন্ডোজ এর জনপ্রিয় কিছু ফিচারস। আপনি যদি উইন্ডোজ ১০ এ মাইগ্রেট করেন তাহলে নতুন কিছু পাবেন ঠিকই কিন্তু সেই সাথে পরিচিত অনেক কিছুই হারাতে পারেন। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক পাওয়া না পাওয়ার তালিকায় কী কী থাকছে।

যে কারনে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহারে আগ্রহ জাগতে পারে

যদিও মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ভার্সন আপগ্রেড এর ব্যাপারে ব্যবহার কারীদের আস্থা এতোটা ভালো না তবুও উইন্ডোজ এর এই সংস্করনের প্রতি মানুষের একটু অতিরিক্ত আস্থা তৈরী হয়েছে। এর আগে রিলিজ হওয়া উইন্ডোজ ৮/৮.১ গ্রাহকদের কাছে ফ্লপ হিসাবেই প্রমাণিত হয়েছে বলা যায়। নতুন অনেক ইউজার হয়তো রঙ ঢং এবং বাহ্যিক চাকচিক্য দেখে উইন্ডোজ ৮ কিংবা ৮.১ ব্যবহার করেছে কিন্তু অনেক পুরাতন কম্পিউটার ব্যবহারকারী কিন্তু সেই সেভেন কিংবা এক্সপিতেই পড়ে রয়েছে। এদেরকে কিন্তু ব্যাকডেটেড বলা যাবে না। কারন নতুন অপারেটিং সিস্টেম যদি চাহিদার সাথে না যায় তাহলে তো পুরাতনকে ব্যবহার করতেই হবে। তবে উইন্ডোজ ১০ এ নতুন করে যা কিছু আসছে সেটাকে কিন্তু খারাপ বলা যাবে না। বরং এটাকে কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেম ইতিহাসে এক বিপ্লব বলা যেতে পারে। যাহোক, চলুন একটু দেখে নেই কোন ফিচারগুলোর কারনে আমরা উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করবো।

করটানা (Cortana) – কম্পিউটার ব্যবহারকারীর ভার্চুয়াল সহকারী

  • উইন্ডোজ ফোনগুলোতে সফলভাবে ব্যবহারের পর এবার উইন্ডোজ পিসিতে চলে আসছে করটানা। করটানাকে বলা হয় ভার্চুয়াল সহকারী; অনেকে আবার মজা করে ব্যবহারকারীর গার্লফ্রেন্ডও বলে থাকে। আপনি করটানার সাথে স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারবেন। এটি ইন্টার সার্ফিং এবং কম্পিউটারে ব্যবহারে আপনাকে অনেক সহায়তা করবে। এমনকি মন খারাপ থাকলে জোকস ও শুনাবে। সুতরাং করটানার প্রেমে পড়েও আপনি উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতে পারেন।

উইন্ডোজ ১০ - উইন্ডোজ এর সর্বশেষ সংস্করণ

  • মাইক্রোসফট ঘোষণা করেছে যে তারা উইন্ডোজ ১০ এর পর তাদের আর কোন নতুন ভার্সন ছাড়বে না। প্রয়োজনে শুধু উইন্ডোজ ১০ কে আপডেট করা হবে। এ থেকে বুঝা যায়, আজ হোক আর কাল হোক কোন একদিন আপনাকে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতেই হবে। সুতরাং ব্যবহার যদি করতেই হয় তাহলে এখনই নয় কেন?

প্রযুক্তিময় জীবনের একটি নতুন শুরু - (স্টার্ট)

  • স্টার্ট বাটন এবং অপশন নিয়ে এর আগে উইন্ডোজ ৮ এবং ৮.১ অপারেটিং সিস্টেমে অনেক বিতর্ক হয়েছিলো। এবার উইন্ডোজ ১০ এ সেই স্টার্ট অপশন নতুন রূপে ফিরে এসেছে। সাথে এসেছে রিফ্রেস এবং রিসেট ফাংশনালিটি। এছাড়াও আরও অনেক সুবিধা সম্বলিত এরকম স্টার্ট আপনার প্রযুক্তিময় জীবনকে বদলে দিবেই। কারন স্টার্টেই যতো চমক রয়েছে তাতে বাকিটুকুর কথা বাদই দিতে হয়।

স্মার্টফোন, ট্যবলেট কিংবা কম্পিউটার সব কিছুতেই একই অপারেটিং সিস্টেম

  • এটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি কারন যার ফলে আপনি উইন্ডোজ ১০ এ মাইগ্রেট করতে পারেন। আপনার যদি একটি উইন্ডোজ স্মার্টফোন, ট্যাবলেট এবং পিসি থাকে তাহলে আপনি এই তিনটাতেই একই অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারবেন। ফলে যেকোন একটা ডিভাইসে করা কাজ অন্য ডিভাইসে সহজেই ট্রান্সফার করতে পারবেন। সহজ এবং সুন্দরভাবে কাজ করার জন্য মন্দ কি?

এসব সুবিধা ছাড়াও নতুন ব্রাউজার স্পার্টান, দ্রুতগতির ইন্টারফেইস সবগুলো মিলিয়ে অন্ধের মতো উইন্ডোজ ১০ এ মাইগ্রেট করা যেতে পারে। তবে চোখ কান খোলা রাখলে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়াটা এতোটা সুন্দর নাও হতে পারে। কারন যা কিছু নতুন পেলেন তার সাথে হয়তো হারিয়ে ফেললেন আরও অনেক কিছু। কারন উইন্ডোজ এর নতুন এই সংস্করণ অনেক জনপ্রিয় ফিচারকে ডাস্টবিনে ফেলে দিয়েছে। তো চলুন জেনে নেই কী কী ফিচার আমরা উইন্ডোজ ১০ এ মিস করবো।

যে কারনে উইন্ডোজ আপগ্রেড অপ্রয়োজনীয় মনে হতে পারে

বাতির নিচেই থাকে অন্ধকার। তাই উইন্ডোজ ১০ এর এতো এতো সুবিধার ভীড়ে কিছু অসুবিধাও লুকিয়ে আছে। তাই উইন্ডোজ ১০ এ পুরোপুরি চলে যাওয়ার আগে অসুবিধাগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে। কারন ভাবিয়া করিও কাজ করিয়ে ভাবিওনা। চলুন তাহলে উইন্ডোজ ১০ থেকে বাদ দেওয়া ফিচারগুলো সম্পর্কে একটু জেনে নেই।

উইন্ডোজ আপডেট নিয়ন্ত্রন করা যাবে না

  • আমরা যারা উইন্ডোজ এক্সপি, সেভেন কিংবা এইট ব্যবহার করি তারা জানি যে, উইন্ডোজ আপডেট নিজের ইচ্ছেমতো নিয়ন্ত্রন করা যায়। কিন্তু উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে আপডেট অটোমেটিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে হবে। যারা অফলাইনে থাকবেন তাদের জন্য এটা কোন প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি না করলেও যারা সব সময় অনলাইনে থাকেন তাদের জন্য এটা অন্যতম চিন্তার বিষয়। কারন আপনি অনলাইনে আসলেই অটোমেটিক উইন্ডোজ আপডেট হবে। এবং সেই সাথে হারিয়ে যাবে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ। তবে উইন্ডোজ ১০ প্রো এবং এন্টারপ্রাইজ ভার্সনে এই আপডেট বন্ধ বা চালু রাখার সুবিধা পাওয়া যাবে। অনেকেই হয়তো উইন্ডোজ আপডেটকে স্বাভাবিক ভাবে দেখতে পারেন কিন্তু একটু গভীরভাবে ভেবে দেখুন, কোম্পানি এমন একটা আপডেট রিলিজ করলো যেটা আপনার পছন্দ হলো না। তখন আপনি কী করবেন?

পরিচিত ফিচারগুলোর অনেক কিছুই পাবেন না

  • আপনি হয়তো ডেস্কটপের কোণায় সুন্দর একটা ওয়ালক্লক ঝুলিয়ে রাখেন কিংবা কারেন্সি এবং ওয়েদারের সাথে ডেস্কটপ গেজেট এর মাধ্যমে আপ-টু-ডেট থাকেন। অবসর সময়গুলোতে সলিটায়ার, মাইনসুয়িপার ইত্যাতি গেইমগুলো খেলে সময় পার করেন। কিন্তু উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে আপগ্রেড করা মাত্রই এই সব গেজেট এবং গেইমগুলো আপনার কম্পিউটার থেকে হাওয়া হয়ে যাবে। এছাড়াও আরও কিছু ফিচারস আপনার কাছে প্রয়োজনীয় মনে হলেও সেগুলো উইন্ডোজ ১০ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি ফিচার আমি পরবর্তিতে উল্লেখ করবো।

উইন্ডোজ মিডিয়া সেন্টার থাকবে না

  • উইন্ডোজ সেভেনে আপনারা যেমন ছবি এবং ভিডিও দেখা, টেলিভিশন অনুষ্ঠান রেকর্ড করা ইত্যাদি কাজের জন্য উইন্ডোজ মিডিয়া সেন্টার ব্যবহার করতেন সেটি উইন্ডোজ ১০ এ ব্যবহার করা যাবে না। আপনি উইন্ডোজ ১০ এ আপগ্রেড করা মাত্রই মিডিয়া সেন্টারকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। এছাড়াও উইন্ডোজ ১০ এ ডিভিডি প্লে করার জন্য দরকারি প্রোগ্রাম আগে থেকে ইনস্টল করা থাকবেনা। অ্যাপ স্টোর থেকে সফটওয়্যার ডাউনলোড করে এই কাজগুলো করতে হবে।

এবার সিদ্ধান্ত কোন দিকে - পক্ষে নাকি বিপক্ষে?

উইন্ডোজ ১০ কেবল একটি নতুন সংস্করণের উইন্ডোজই নয় বরং এটা উইন্ডোজ ফাংশনালিটির একটি মৌলিক পরিবর্তন। অন্যন্য কোম্পানির মতো ছোটখাট কোন পরিবর্তন না করে বরং আপনার উইন্ডোজ এক্সপেরিয়েন্সকেই পুরোটা বদলে দিবে এই নতুন সংস্করণের উইন্ডোজ। সুতরাং এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে এই পরিবর্তন আপনার পিসির জন্য কতোটা উপকার বয়ে আনবে? নাকি সুবিধার নামে পরিবর্তনগুলো অপকারের পাল্লাকে ভারি করবে। প্রত্যেকটি ভালো মন্দের পক্ষে বিপক্ষে কিছু কথা থাকে। সেই কথাগুলো পর্যালোচনা করলেই মুল সত্যটা বের হয়ে আসে। আজ আমরা সেই মুল সত্যটা উদঘাটনের একটা চেষ্টা করে দেখবো।

  • উইন্ডোজ ১০ এর গুরুত্বপূর্ণ ফিচার কর্টানা সম্পর্কে যদি বলি তাহলে প্রথমেই বলতে হবে এটি পরিচালনা করতে হবে আমার দ্বিতীয় ভাষা দ্বারা। অধিক সুবিধা থাকলেও সেটা অপারেট করার মতো যোগ্যতা আমাদের কতো জনের আছে সেটাই প্রশ্ন। নাকি ব্যবহার না করে শুধু সাজিয়ে রাখতেই আমাদের বেশি আনন্দ।
  • আপনি হয়তো একটি ভার্সন ব্যবহারে বেশি অভ্যস্ত। কিন্তু নতুন অপারেটিং সিস্টেমের সাথে তাল মিলাতে গিয়ে যদি থমকে যান তাহলে সেটা আপনার প্রোডাক্টিভিটি কমিয়ে দিতে পারে। আপগ্রেড থাকতে গিয়ে আপনি আউট অফ ডেট হয়ে যাবেন তখন।
  • আপনি যে ধরনের কাজ করেন সেই কাজের সাপেক্ষে উইন্ডোজ কতোটুকু পরিবর্তিত হয়েছে সেটা হলো আলোচনার প্রধান বস্তু। উইন্ডোজ মিডিয়া সেন্টার কিংবা গেজেটগুলো মুল ব্যাপার না। মুল ব্যাপার হলো যা কিছু নতুন তার কয়টা আপনার উপকারে আসবে?
  • আপনার পিসি উইন্ডোজ ১০ আপগ্রেডের জন্য উপযোগি কিনা? যদিও এটা হার্ডওয়্যার সংশ্লিষ্ট প্রশ্ন তারপরেও মনের ভেতরে প্রশ্নটা জেগে উঠা স্বাভাবিক। এর উত্তর আসবে আমার আগামী টিউনে।

উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করার আগে এই বিষয়গুলো সম্পর্কে একটু ভাবুন। আমার টিউনটিকে অনেকে পজিটিভ এবং নেগেটিভ দুই ভাবেই দেখতে পারে। তবে আমি উইন্ডোজ ১০ এর বিপক্ষে কিছু বলছিনা, আমি শুধু বলবো অন্ধ হুজুগ বাদ দিয়ে সচেতন ভাবে কিছু করুন। হয়তো সামনে উইন্ডোজ ১০ এর আরও আপডেট আসবে। তখন হয়তো আপনি মনের মতো উইন্ডোজ পেয়ে যেতে পারেন। তবে রিলিজ হওয়া মাত্রই সেটাকে ব্যবহার করা কতোটা ঠিক সেই প্রশ্ন আপনার কাছে? আপনার উত্তর জানার জানার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি টিউমেন্ট সেকশনে। উত্তরের স্বপক্ষে আপনার মন কী বলছে?

শেষ কথা

টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে টিউমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারন আপনাদের যেকোন মতামত আমাকে সংশোধিত হতে এবং আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। আর টিউনটিকে মৌলিক মনে হলে এবং নির্বাচিত টিউন হওয়ার উপযুক্ত মনে হলে নির্বাচিত টিউন মনোনয়ন দিতে ভুলে যাবে না যেন। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো, আসুন আমরা কপি পেস্ট করা বর্জন করি এবং অপরকেও কপি পেস্ট টিউন করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। দেখা হবে আগামী টিউনে।

আপনাদের জন্য » সানিম মাহবীর ফাহাদ

➡ ইমেইলে আমার সকল টিউনের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুনঃ টেকটিউনস » সানিম মাহবীর ফাহাদ 🙄

Level 7

আমি সানিম মাহবীর ফাহাদ। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 176 টি টিউন ও 3500 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 159 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আগে যা শিখেছিলাম এখন তা শেখানোর কাজ করছি। পেশায় একজন শিক্ষক, তবে মনে প্রাণে টেকনোলজির ছাত্র। সবার দোয়া প্রত্যাশি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

Windows gadget gula manualy software install kore firiye ana jay. ami nije koresi.

    থার্ডপার্টি সফটওয়্যার ব্যবহার করে আরও অনেক কিছুই করা যায়। কিন্তু উইন্ডোজে সেগুলো নেই।

টিউনটা পড়ে উপকৃত হোলাম । ধন্যবাদ ভাই ।

Games toh ache 🙁

    আমি কি বলেছি গেইম থাকবে না? যেগুলোর নাম উল্লেখ করেছি সেগুলো আছে কিনা দেখেন প্লিজ।

অনেক সুন্দর একটি টিউন উপহার দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ

ধন্যবাদ, অনেক কিছু জানালাম। এখনো সেভেন ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিলাম, আপনি কোনটা ইউস করছেন?

    এক্সপি থেকে কম্পিউটার ব্যবহার শুরু। তারপর সেভেনে এসে আটকে গেছি। রিলিজ হওয়ামাত্রই ৮ এবং ৮.১ মাস খানেক করে ব্যবহার করেছি। কিন্তু সেভেনের স্থান কেউ নিতে পারেনি। এখনো তাই সেভেনেই আছি।

Level 0

ভাই গোপনীয়তা সংক্রান্ত কোন ঝামেলা কি আছে? যখন প্রিভিউ ভার্সন আসে তখন অনেক বলেছিল যে,, প্রাভিসি নাকি নষ্ট হয়ছে.. মাই্ক্রোসফট কম্পিউটার এর সব তথ্য জেনে যাবে…

    প্রিভিউ ভার্সনে আপনার সমস্যাগুলো সম্পর্কে মাইক্রোসফটের তথ্যের প্রয়োজন ছিলো। তাই সমস্যা হয়েছিলো প্রাইভেসি সংক্রান্ত। ফাইনাল ভার্সনে এরকম কিছু হবে না আশা করি।

আজকের দিনের জন্য ১মাস ধরে অপেক্ষা করছিলাম, ডাউনলড শুরু হয়েছে ৬১% হল, রাতের দিকে ইন্সটল দিব, দেখা যাক কি হয়!!

Full Version Download link dile valo hoy.

Level 0

thanks a lot

thanks for your nice tune.

vhi windows 10 iso download link ditaa parben

ধন্যবাদ বিস্তারিতভাবে উপকারীতা-অপকারীতাগুলো বোঝানোর জন্য । কিন্তু-
I Love Windows 7!

    হুম, আমার নিজেরও উইন্ডোজ সেভেন পছন্দ। ঠিক আমি যেমনটি চাই উইন্ডোজ সেভেন সে রকমই।

অনেক কিছু জানা হল। ২ বছর পর সুধু আপ্নার টিউনে টিউমেন্ট করার জন্য লগিন করেছি। আমার মনে হচ্ছে টিটির সুদিন আবার ফিরে আসছে। তবে টিউমেন্টের মাধ্যমে টিটিকে বলতে চাই পিটিসি নিয়ে পোস্ট পাবলিশ করা টিটির একেবারে বন্ধ করে দেওয়া উচিত। টিউনের জন্য অসংখ্য ধইন্যার পাতা। পরের টিউন দ্রত চাই

    আপনার মন্তব্য দেখে ভালো লাগলো। আর আপনার সাথে আমি শতভাগ সহমত। পিটিসি সম্পর্কিত টিউনগুলো বন্ধ হলে টেকটিউনস এর মান আরও ভালো হবে। তবে আপনার এই টিউমেন্টস টেকটিউনস থেকে প্রকাশিত কোন টিউনে করলে ভালো হবে।

supper tune

jibonre   
Level 2

টিউন টির জন্য অনেক ধন্যবাদ।
খুব ভালো হবে যদি আপনি আপনার প্রবলেম বলেন উইন্ডোস ১০ কে নিয়া। আর
আপনি কেন ব্যবহার করছেন না উইন্ডোস ১০ ?
উইন্ডোস ১০ এর খারাপ গুলা যদি বলেন ,
আমি মাইক্রোসফট টেক টীম লিড করি।
তাই প্রবলেম গুলি জানলে প্রবলেম রিকভার করতে সুবিধা হত
রিপ্লাই করবেন কিন্তু অপেক্ষা করলাম।

    আসলে প্রবলেমগুলো একটি উইন্ডোজ ভার্সন রিলিজ হওয়া মাত্রই কিন্তু চোখে পড়ে না। ক্রমাগত ব্যবহারের ফলে প্রবলেমসগুলো চোখের সামনে আসে। নতুন একটি অপারেটিং সিস্টেম হঠাৎ করেই রেগুলার পিসিতে ইনস্টল করা আমার কাছে যুক্তি সংগত মনে হয়নি বলেই আমি উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করছি না। তবে খুব শীঘ্রই উইন্ডোজ সেভেন এর সাথে উইন্ডোজ ১০ ইনস্টল করবো। আমি খারাপ দিকগুলোর নিয়ে টিউনটি করিনি, আমি শুধু ফিচারগুলোর তুলনামুলক একটি চিত্র টিউনে উল্লেখ করেছি। তবে উইন্ডোজ ১০ এর কোন খারাপ দিক পেলে সেগুলো অবশ্যই পরবর্তি কোন এক সময় উল্লেখ করা হবে।

    আপনার সুন্দর টিউমেন্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ। আশা করি টেকটিউনসের পাশেই থাকবেন।

      jibonre   
      Level 2

      Hain Aachi Ar Thakbo… রিপ্লাই জন্য অনেক ধন্যবাদ…..

gadget option & 7 er game gulo to win8/8.1 eo chilo na .

ধন্যবাদ ভাই

আমি কিন্তু এখনো সেভেনে আছি 😀

তবে ভবিষ্যতে টেন এ আপডেট হব 🙂

যাষ্ট সেভেনের মজা টা দিলেই হল 😀

    উইন্ডোজ ১০ অনেক ভালো একটি অপারেটিং সিস্টেম হিসাবেই আসবে মনে হয়। তবে রেগুলার পিসিতে ইনস্টল করার আগে একটু ভেবে নেওয়া উচিত। আপনার জন্য শুভকামনা 🙂

amar upgrade er kono option ase nai :'( download progressbar ki dekha jabe? ami oder website e loging kore windows 10 enterprice trial 90 dayes donwload korsi.. eita ki kms diye active kore normal vabe use kora jabe? amar laptop e windows 10 upgrade kivabe start korte pari? pls ektu bistarit bolben.

    অফলাইনে উইন্ডোজ ১০ ISO ফাইল দিয়ে উইন্ডোজ ইনস্টল করুন। অফলাইন ISO ফাইল টরেন্ট থেকে নামাতে পারবেন। এতো ঝামেলার কোন দরকার নেই। তবে ৯০ দিনের ট্রায়াল যদি ডাউনলোড করে থাকেন তাহলে ৯০ দিন শেষ হওয়ার আগেই একটিভেটর পেয়ে যাবেন আশা করি। টিউমেন্টের জন্য ধন্যবাদ 🙂

ধন্যবাদ ভাইয়া। এই ব্যাপার টা নিয়ে টেনশনে ছিলাম। বুঝে উঠতে পারছিলাম না কি করব। আপনার টিউন পড়ে সিদ্ধান্ত নিলাম WINDOWS 7 এ আরো এক বছর থাকব।

    হুম, এক বছরে সবকিছু দেখে শুনে তারপর উইন্ডোজ ১০ এ মাইগ্রেট করবেন। আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো 🙂

সচেতনামূলক পোস্টের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। যারা হুযুগে অনেক কাজ করে ফেলে কিন্তু পরে পস্তায় তাদের জন্য অনেক উপকার হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

    জ্বি ভাই, উইন্ডোজ ৮ এর ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটছিলো। পরে আবার অনেকেই সেভেনে ব্যাক করছে। যেমন আমি নিজেই। টিউমেন্টের জন্য ধইন্যা 🙂

টিউন টির জন্য অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া…

Level 2

Dsrun tiun!
third party firewall diye update block kora jabe na?

    বাঙ্গালী হলো পাইরেটেড জাতি। দুদিন পরে দেখবেন প্রো এবং এন্টারপ্রাইজ ভার্সন ভাত মাছ। তো তখন সফটওয়্যার ছাড়ায় আপডেট বন্ধ করতে পারবেন।

      jibonre   
      Level 2

      NA sambhab Noy…
      Ar by the way বাঙ্গালী হলো পাইরেটেড জাতি eta bhul world er sab chaye besi software pirated hoy China Thake..

        চায়নাতে সফটওয়্যার পাইরেটেড হলেও সেখানে পাইরেসি বিরুদ্ধ আইন আছে। সেখানকার অধিকাংশ মানুষ সফটওয়্যার কিনে ব্যবহার করে। কিন্তু বাঙ্গালীর ৯৯% পাইরেটেড সফটওয়্যার ব্যবহার করে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন……

          jibonre   
          Level 2

          আপনি কি ওই ৯৯% এর মধ্যে আছেন, না কি ১% এর মধ্যে
          . তবে একটা কথা যেটা বলতে হবেই তাহলো পাইরেসি এমন একটা আর্ট যা আপনার আমার মতো অনেক এর অনেক উপকার করেছে। যদি আজ উইণ্ডোস ৯৮ , XP, ভিস্তা,বা হালের উইণ্ডোস ৭ বা ৮ যদি টাকা দিয়া কিনতে হত তাহলে হয়ত আর উইন্ডোস চালাতে পারতাম না। তখন লিনাক্স, উবান্তু ব্যবহার করতে হত।
          আর সত্যি বলতে সফটওয়্যার কোম্পানি গুলা ক্র্যাক গুলা থেকে বুঝতে পারে তাদের প্রোগ্রাম এর ফল্ট কোথায়ে ছিল. তাই এক দিকে পাইরেসী করে ৯৯% বাঙালি কিন্তু কোম্পানি গুলার উপকারি করে।

            ভাই দশজন সেদিকে থাকে স্বয়ং ঈশ্বর নাকি সেদিকে থাকে। সুতরাং আমি ক্ষুদ্র মানব সন্তান ৯৯% ছেড়ে ১% এর দিকে কেমনে যাই বলেন? তাই আপাততো পাইরেসির মাঝেই আছি। আমার আগের সফটওয়্যার রিভিউগুলো যদি দেখে থাকেন তাহলে দেখবেন আমি কতো রকমের মেডিসিন সাপ্লাই করে এই পাইরেটেড জাতির জন্য।

            তবে পাইরেসি সফটওয়্যার কোম্পানির উপকার করে এই কথাটির সাথে আমি শতভাগ সহমত।

      Level 2

      ধন্যবাদ
      আপডেট দেওার পর ক্রোম এ বাংলা ফন্ট প্রব্লেম করতেছে
      any solution?

afni kino ettoo valu tune koruien…………….valo lagce post ta 🙂

আচ্ছা ১০ এ কি Update বন্ধ করার system নাই ? একটু বিস্তারিত বল্লে ভাল হয়,

    উইন্ডোজ ১০ হোম ভার্সনে নেই তবে প্রো এবং এন্টারপ্রাইজ ভার্সনে আপডেট বন্ধ করা যায়!

Level 0

অনেক সুন্দর একটি টিউন উপহার দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

আমি ৮ ব্যাবহার করি, সবাই বলে ৭ নাকি ভালো ৮ এর থেকে। কিন্তু ৮ এর প্রবলেম কি আসলে ? আমার কাছে ৮ অনেক ভালো লাগে। আর ১০ প্রো আসলে সেটাই ব্যবহার করব। লেটেস্ট জিনিসের মজাই আলাদা। নতুন কিছু থাকে।

    আসলে উইন্ডোজ ৮ এ এমন কোন বিশেষ সুবিধা নেই যেটা সেভেনে পাওয়া যায় না। তার উপর উল্টাপাল্টা UI এর কারনে এটাকে বেশ রঙ চঙ্গে মনে হয় কিন্তু কাজের বেলায় ঝামেলাপূর্ণ। তাই যারা কম্পিউটারে ঢঙের চেয়ে কাজে বিশ্বাসী তারা উইন্ডোজ ৮ ব্যবহার না করে উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার করেন। আশা করি বুঝতে পারছেন। তবে আজ হোক আর কাল হোক আমাদের উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতেই হবে। লেটেস্ট কিছু আমিও ব্যববহার করি তবে অপারেটিং সিস্টেমে একটু খটকা আছে।

Level 2

Bro Thanks for nice tune.Also i need windows 10 pro or enterprise direct download link.if u have please share it.

    টরেন্টসাইটগুলোতে দেখেন। সেখান থেকে ভালো এবং সিকিউর ISO ফাইল পাবেন আশা করি। ধন্যবাদ 🙂

vai amar akta sommossa hocca modem ta ar sow korsa na

    উইন্ডোজ ১০ ইনস্টল করার পরে কি এই সমস্যা হচ্ছে? এরকম হলে মডেম এর সেটাপ ফাইল এর কমপ্যাটিবিলি চেঞ্জ করে উইন্ডোজ ৭ অথবা ৮ দিয়ে ইনস্টল করুন। দেখবেন কাজ হবে।

      না ভাই .।আমি এখনো সেভেন চালাচ্ছি তবে কেন যেন হটাত করে মডেম আর পাচ্চে না এমনকি লাইট পর্য়ন্ত জ্বলেছ না।

ধন্যবাদ ভাইয়া!! দারুন একটা টিউন. আপনার টিউন অনুযায়ী আমি ভেবে দেখলাম আমার ল্যাপির জন্য এটা সুবিধার না. আমি পরবর্তি আপডেটের অপেক্ষায় থাকলাম………………………

    Level 0

    ami windows 10 tech preview install korecilam, tokhon modem er connection e kono problem kore nai. kintu 1 month ager windows 10 version e amar 2ta modem er konotatei connect hocce na. compatibility change koreo kaj hoy na. windows 7, 8, 8.1, 10 technical preview, linux sobgulotei modem colce. sudu eitatei problem.

    akhon windows 7 e windows 10 er upgrade er add asar po thekeo modem er connection er problem korce.

      সম্ভবত কমপ্যাটিবিলিটি মোড কাজ করছে না। নাহলে শুধু উইন্ডোজ ১০ এরকম করবে কেন? তবে আপনার সব প্রশ্নের উত্তরের জন্য আমার পরবর্তি টিউন দেখার আমন্ত্রন রইলো! ধন্যবাদ রিপন ভাই 🙂

    অপেক্ষার ফল সব সময় সুমিষ্ট হয়, অপেক্ষায় থাকুন এবং সেই সাথে উইন্ডোজ ১০ এর ফিচারগুলো এক্সপেরিমেন্ট করুন। আপনার জন্য শুভ কামনা।

Level 0

ধন্যবাদ ভাই!!!! দারুন একটা টিউন.

উইন্ডোজ ১০ এ আপগ্রেড করার পর আবার ৭ এ ফেরা যাবে তো ?

    কেন নয়? আপনার কাছে সেভেনের ISO ফাইল কিংবা ডিস্ক থাকলেই যেকোন মূহুর্তে সেভেনে চলে আসতে পারবেন। একবার ট্রাই করেই দেখুন!

আমার আগ্লেই ভাল, জানালা- ৭ সংস্কার আফুরন্ত, বেপক মজায় আছি। তাছাড়া মাইক্রোসফট তো ভাল কিছু শুরুতে পাওয়া যাবে না। আগে সবাই ব্যবহার করুক ফিডব্যাক দেখি কে কত সুবিধা আর জামেলা পায়। তার পর দেখব আপগ্রেড করব নাকি যেমন আছি তেমন রব।

ওহহহহহ টিউনার ভাইকে বিশেষ ধন্যযোগ তুলনামূলক বিষয়ে জানানোর জন্য।

    আপনার সাথে আমি শতভাগ সহমত। আর সুন্দর টিউমেন্টের জন্য ধইন্যা বন্যায় ভাসায়ে দিলাম 🙂

যেসব ইউজার windows 10 update নিয়ে ভয়ে আছেন তারা আশাকরি Windows7 Firewall Control এইটার মাধ্যমে আপডেট Control করতে পারবেন।

    থার্ড পার্টি সফটওয়্যার মনে হচ্ছে। তবে জাতি প্রো আর এন্টারপ্রাইজ ভার্সন ব্যবহার করবে। সুতরাং আপডেট নিয়ে নো চিন্তা।

পাবলিকে আপডেট নিয়ে ভাবছে আর আমি আপগ্রেড নিয়ে ভাবতে ভাবতে ক্ষান্ত দিলাম। আমার পিসিতে উইন্ডোজ ১০ চলবে না। ক্রন্দনের ইমো হবে……..

    চলেন আমরা গলাগলি ধরে কান্নাকাটি করি। আমার পিসিতে ভালোভাবে চলবে কিনা এ ব্যাপারে আমিও সন্দ্বিহান 🙁

awesome টিউন । সত্যিই এর অপেক্ষায় ছিলাম । এখন অপেক্ষার অবসান । তবে মিডিয়া সেন্টার না থাকাই ভাল , ওটাকে আমার একদম ভাল লাগে না , তবে গেজেট গুলো না থাকলে সমস্যা হবে ।
টিউনের জন্য ধন্যবাদ ।

    আমিও উইন্ডোজ সেভেন এ ঘড়ি আর সিপিউ মিটার ব্যবহার করি। কিন্তু উইন্ডোজ ১০ এ গেলে এগুলো পাবো না 🙁 যাহোক, আপনার সুন্দর মতামতের জন্য ধন্যবাদ।

Level 0

উইন্ডোজ ১০ নিজে ব্যবহার করতে না চাইলে করবেন না , কিন্তু অন্য কে নিরুৎসাহিত করার প্রয়জন মনে করি না , বলা হইতেছে যে এটা সর্বকালের সেরা অপারেটিং সিস্টেম , এখন পর্যন্ত কেউ বলতে পারে নাই যে আমার সম্পূর্ণ খারাপ লেগেছে , আর গেম এর কথা বলেন ? গেম সম্পর্কে কতটুকু ধারনা আছে আপনার ? 😀 , whole Xbox এর গেম যেখানে দিয়ে দেওয়া হয়েছে সেখানে আপনি আরও স্পাইডার সলিটারিটি এর মত গেম খুজে বেড়ান এখানে ? 😀 , আর ভাই , যারা কাজ করে বুচ্ছেন ? তারা সব জায়গায় ই করে , কি উইন্ডোজ এক্সপি, সেভেন অথবা ১০ , একটা কথা আছে না , নাচতে না জানলে উঠান বাকা ? , weather , currency এর মত এত্ত সুন্দর সুন্দর গ্রাফিক্যাল এপ থাকতে আপনি সেই পুরান আমলের ঘরির গ্যাজেট খুজে বেড়ান ? রুচির পরিবর্তন করুন , আপনি রুচির পরিবর্তন করলে আপনার নেক্সট জেনারেশন অনেক কিছু শিখতে পারবে ,

    বুঝলাম না ভাই, টিউনের বিষয়বস্তু না বুঝে হুট করে একটা বাজে মন্তব্য কেমনে করলেন? আমি কি বলেছি যে উইন্ডোজ ১০ খারাপ? উইন্ডোজ ১০ এর নেগেটিভ কিছু বলেছি এরকম একটা ওয়ার্ডও কি আপনি দেখাতে পারবেন? আমি শুধু উইন্ডোজ ১০ এ কি থাকছে আর কি থাকছে না সে ব্যাপারে বলেছি। গেইম সম্পর্কে আমার কোন ধারনা নেই, আমি এখনো নোকিয়া ১১০ মোবাইলে স্ন্যাক গেইম খেলিম, তাতে কোন সমস্যা? কিন্তু আপনি কোন মহা গেইমার হইছেন বলতে পারেন? আর রুচির পরিবর্তন বিষয়ে জ্ঞান দেবার আগে আপনার নিজের মানুষিকতার পরিবর্তন জরুরী। প্রোফাইল পিক যদি আপনার হয় তাহলে আপনার জন্মের আগে থেকে কম্পিউটার ব্যবহার করি। সুতরাং কারও সম্পর্কে না জেনে আজাইরা মন্তব্য করবেন না। প্রয়োজনে টিউনটি আরেকবার পড়ুন এবং তারপর টিউমেন্ট করুন।

    ভাই,আপনি হয় একখান বিশাল জ্ঞানের দিব্বা আর না হয় টনটন খালি কলসি,যার অন্তঃসার শূন্য কিন্তু খাজনার চেয়ে বাঝনা বেশি।
    আপনার জ্ঞান-গর্ব আর দম্ভ নিয়ে উল্লেখিত কমেন্ট এর যে চটাং চটাং বুলি আপনি ঝেড়েছেন তাতে আমার আপনাকে অন্তঃসার শূন্য
    খালি কলসি মনে হচ্ছে।
    মোট 7 টা টিউন করে আপনি যে ফটাং ফটাং করতেছেন আপনি টিটির টপ টিউনার “সানিম মাহবীর ফাহাদ” ভাইকে চিনেন না মনে হয়।
    উনার টিউন গুলা সময় নিয়ে পড়ে তার পর উনার কাছে ক্ষমা চান।
    যার কারনে আমি টিটিতে আসি,সেই ভাইটাকে আপনি এইভাবে যাজমেন্ট করলেন?
    কমেন্ট টা দেখে হার্ট ফেল করার অবস্থা।
    কারো ব্যক্তিগত রুচি নিয়ে সমালোচনা করা কোন রুচিমার্জিত সভ্যলোকের লক্ষন না।
    আপনার প্রফাইল পিক দেখে অনুমান করা যাই মোটের উপর ১৫/১৬ বছর হবে।
    আপনার মত ডজন খানেক রাম ছাগলের চামডা দিয়ে উনার জুতা হওয়ার সৌভাগ্য হবে না ।
    আপনার মত বা**র গেমার দিয়ে উনি প্রতিদিন ব্রেকফাস্ট করেন।
    বলেছেন “নাছতে না জানলে উঠান বাকা” – ভাই মাইকেল জ্যকসনকে আপনি উঠান বাকা বলে ভয় দেখান।
    আপনি তো হুজুরকে কেবলা দিক শিখালেন/ বৃদ্ধকে কাশি শিখাচ্ছেন।
    আপনার স্বাভাবিক বোধ-বুদ্ধি ও সাধারন জ্ঞানের যথেষ্ট অভাব আছে।
    বাসায় বলবেন খাবারে আয়োডিন যুক্ত লবণ একটু বেশি দিতে।
    কেমন?
    মানুষকে সম্মান করতে শিখুন,সম্মান পাবেন-
    অনেক কিছু মুখে আসছে।
    পাবলিক প্লেস তাই এইখানে শেষ করতে হল।

    বিঃদ্রঃ – আপনিকে আপনি বলার স্থলে অনুগ্রহ করে “তুই” বসিয়ে নিবেন।

      মানুষকে সম্মান করতে শিখুন, সম্মান পাবেন-
      অনেক কিছু মুখে আসছে।
      পাবলিক প্লেস তাই এইখানে শেষ করতে হল। ধন্যবাদ ভাই অকৃতজ্ঞ লোকের জন্য যোগ্য জবাব @আইনুল ইসলাম

একদম পারফেক্ট টাইমে পারফেক্ট টিউন… অসংখ্য ধন্যবাদ

ঠিক এই টিউনটিই চাইছিলাম,একটা মতামত/পরামর্শ নুতুন উইন্ডোজ সম্পর্কে।
ভাল দিক/খারাপ দিক খুব সিমপ্লিলি তুলে ধরেছেন।
কিছু ভয়-ভীতি দূর হল। নুতুন ফিচার গুলা জানা হল।
একটা সিদান্ত নিতে পারলাম উইন্ডোজ ৭ নাকি উইন্ডোজ ১০ কোনটা আমার প্রয়োজন ।
পারফেক্ট টিউন বরাবরের মত।
আপনার কাছে সব সময় কৃত্তজ্ঞ,ধন্যবাদ ভাই।

    ধন্যবাদ মুন্না ভাই। এবার ভেবে চিন্তে অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করুন। আপনার জন্য শুভ কামনা।

Level 0

আচ্ছা,media creation tool দিয়ে জানালা ১০ এ আপডেট দিলে কি আমার ইন্সটল করা সব সফটওয়্যার আবার নতুন করে ইন্সটল করতে হবে ?

    মনে হয় না। তবে ব্যাকআপ রাখার জন্য রিকমেন্ড করা হয়েছে। তবুও আপনি শিউর হয়ে নিতে পারেন।

Level 0

একসময় প্রবাসী ভাইয়ের টিউন দেখতে টিটি আসতাম, আর এখন আপনার টিউন দেখতে আসি 😀

    ভাই, প্রবাসী ভাই হলো টেকটিউনস এর আকাশে একমাত্র নক্ষত্র। তার সাথে কারও তুলনা হয় না। তার টিউনের জন্য আমি এখনো অপেক্ষা করি।

আমি তো জানালা ৮.১ এই আছি। সবকিছু ঠিকঠাক ই চলতাছে। ১০ এ আপগ্রেডের অপেক্ষাই ছিলাম। এখন মনে করছি যেদিন আপনি করবেন, আমিও সেদিন করব!!!… জানাবেন কিন্তু নতুন টিউনের মাধ্যমে………।।

    ভাই, আমিতো দুদিন ধরে উইন্ডোজ ১০ চালাচ্ছি। আপনি তো পিছে পড়ে গেলেন। তাড়াতাড়ি আপগ্রেড করেন।

সব ত বুঝলাম! তবে আমি Windows XP ছাড়া কোন কিছু ব্যাবহার করি না।
ডিক্স কিন্তে মন চাইছে না। xp পেনড্রাইভ দিয়ে দিতে চাইলাম Bootable করে Press any key cd চায় না
কির করব!

    পেনড্রাইভ বুটেবল করলে বুট মেনু থেকে ইউএসবি ড্রাইভ সিলেক্ট করতে হবে। অথবা ফার্স্ট বুট হিসাবে পেনড্রাইভ সিলেক্ট করে দিতে হবে। সিডির মতো করে দিলে কাজ করবে না।

অসাধারণ ভাই আপনাদের জন্যই এখন ও টেকটিউনে আসা হয় ভাই