Watermark WS – এবার অনলাইনেই ছবি অথবা ভিডিও তে যোগ করুন ওয়াটারমার্ক!

Level 28
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

টেকটিউনস কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আমি হটাৎ করে ভাবলাম বিভিন্ন কোম্পানির খোঁজ খবর অনেক নেয়া হয়েছে এখন আলাদা কোন টিউন করা যাক। মাথায় আসলো অনলাইনের কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের নিয়ে কোন কিছু একটা লেখা যাক। হ্যাঁ। চলুন আজকে আমরা আলোচনা করব কিভাবে অন্যের হাত থেকে আপনার সম্পত্তি রক্ষা করবেন।

বর্তমানে অনলাইনে এমন হাজার হাজার লোক আছে যারা অন্যের কন্টেন্ট নিজের নামে চালিয়ে দেয়। আমরা যদি একটু চিন্তা করি তাহলে বুঝতে পারব এটা কতটা হতাশাজনক। যেকোনো একটি আর্টিক্যাল লেখতে কত সময় ব্যয় করতে হয়, একটি ভাল মানের ছবি তুলতে কি পরিমাণে পরিশ্রম করতে হয় এবং একটি ইলেস্ট্রেশন করতে কি পরিমাণ মেধা দিতে হয় এটা যারা করে তারাই জানে। আমি নিজেও এই সমস্যায় অনেক বার পরেছি। তাদের মেইল করা পারসোনালি মেসেজ করে ডিলিট করতে বলা ইত্যাদি। তাই একটা প্রশ্ন থেকে যায় কিভাবে একজন ক্রিয়েটর তার কন্টেন্ট চুরির হাত থেকে রক্ষা করবে।

সহজ একটি সমাধান আছে, সেটি হচ্ছে আপনি আপনার তুলা ছবিতে ওয়াটার মার্ক লাগিয়ে দিন। যদিও এটা করার জন্য সফটওয়্যার পাওয়া যায় তারপরেও বেশিরভাগ অনলাইন টুল ব্যবহার করে।

Watermark.ws কি?

আজকে আমি আপনাদের কাছে Watermark.ws এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব যার মাধ্যমে সহজেই আপনার ছবিতে লোগো ওয়াটার-মার্ক ব্যবহার করতে পারবেন। অনলাইন এই টুলটি ব্যবহার খুবই সহজ, আপনাকে আলাদা সফটওয়্যার ডাউনলোড বা ইন্সটল করতে হবে না ব্রাউজারের মাধ্যমেই করে ফেলতে পারবেন ওয়াটার-মার্ক বানানোর যাবতীয় কাজ। এই টুলটি শুধু মাত্র ওয়াটার-মার্ক বানানোর জন্যই তৈরি করা হয়েছে যার মাধ্যমে আপনি লোগোকে এড-জাস্ট করা, সাইজ বাড়ানো কমানো, ট্রান্সপারেন্সি যোগ করা সহ আরও কাজ করতে পারবেন।

ফ্রি ইউজাররা একসাথে একটির বেশি ফাইলে ওয়াটার-মার্ক করতে পারবেন না। ভাল হয় যদি পেইড ইউজার হয়ে যান। পেইড ভার্সনের মাধ্যমে আপনি চাইলে ভিডিওতেও ওয়াটার-মার্ক যুক্ত করতে পারবেন। এটি বছরে আপনার কাছ থেকে মাত্র ৮.১৭ ডলার চার্জ করবে।

Watermark.ws

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ Watermark.ws

কিভাবে ব্যবহার করবেন

চলুন দেখা নেয়া যাক কিভাবে এই অনলাইন ওয়াটারমার্ক টুল দিয়ে কাজ করবেন।

ধাপ ১

Watermark.wsএর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ক্লিক করুন। প্রথমেই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। চাইলে গুগল, ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে সাইন আপ করতে পারেন অথবা ইমেইল পাসওয়ার্ড দিয়েও রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন।

ধাপ ২

এবার আপনি আপনার পছন্দের ছবি বা ভিডিও সিলেক্ট করুন এবং Watermark.ws এর সার্ভারে আপলোড করে দিন। চাইলে আপনার ক্লাউড সার্ভার, ফেসবুক থেকেও ভিডিও নিতে পারেন অথবা কম্পিউটার থেকে সরাসরি আপলোড করতে পারেন।

ধাপ ৩

আপলোড করা শেষ হলে এটি আপনার ভিডিও বা ছবিকে তে দেখাবে। আপনি এডিট করার পর সহজেই আবার ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

এবার আপনি যে যে ফাইল গুলো এডিট করতে চান তা সিলেক্ট করুন এবং Edit selected এ ক্লিক করুন।

ধাপ ৪

ওয়াটার-মার্ক করার আগে আপনি চাইলে ছবি গুলোকে ক্রপ, রোটেশন, ফিল্টার যোগ করতে পারবেন। ফাইনালি Watermark এ ক্লিক করুন এবং দুটি অপশন, Text, Logo থেকে আপনার প্রয়োজন মত নির্বাচন করুন।

লোগো সিলেক্ট করলে সাধারণ লোগো ম্যাকারের মতই সেটার পজিশন, সাইজ, ট্রান্সপারেসি, ব্যাক গ্রাউন্ড নিজের মত পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। প্রয়োজন মত এডিট হয়ে গেলে তা ছবিতে দেখাবে। এটা দেখতে প্রফেশনাল ওয়াটার-মার্কের মতই মনে হয়।

আমি যা করেছি মনে এটা বেশি অগোছালো হয়ে গেছে। আপনি চাইলে আপনার পছন্দ মত ছবিতে নিচে বা কোনা যোগ করতে পারেন যাতে দেখতে সুন্দর লাগে।

ধাপ ৫

যখন আপনার ওয়াটার-মার্ক করা শেষ এখন আপনার ডাউনলোড করার পালা। আমি আগেই বলেছি ফ্রি ইউজার একটি ছবি অথবা ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। Watermark.ws এর প্রোসেসিং স্পীড মোটামুটি ভালই লেগেছে আমার কাছে। এই টুলের একটি সুবিধা হচ্ছে এটা ব্যবহারের আগেই পেমেন্ট ইনফো দিতে হয় না। আগে ব্যবহার করুন ভাল লাগলে পেমেন্ট করুন।

কেন এই  Watermark.ws টুলটি ব্যবহার করবেন

চলুন জেনে নিই দারুণ Watermark.ws এর কিছু সুবিধা

  • কোন ধরনের সফটওয়্যার ইন্সটল ছাড়া সহজেই ভিডিও, ছবিতে ওয়াটার-মার্ক যোগ করতে পারবেন
  • একই সাথে Txt অথবা logo যেকোনোটি ব্যবহার করতে পারবেন।
  • ওয়াটার-মার্ক করার পাশাপাশি ফাইল ক্রপ, রোটেশন, সাইজ ইত্যাদি করতে পারবেন।

শেষ কথা

আমার ব্যক্তিগত ভাবে অনলাইন টুলটি ভাল লেগেছে। অনলাইনে অনেক টুল থাকলেও এখানে ওয়াটার-মার্ক করে ভাল মজা পেয়েছি৷ এডিটিং এবং প্রোসেসিং স্পীড অন্যদের চেয়ে ভাল ছিল।

পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন। আমাদের সমসাময়িক যে সংকট চলছে এর থেকে রক্ষা পেতে সবাই সচেতন থাকবেন কারণ আপনার সচেতনতাই পারে আমাদের সবাইকে খারাপ অবস্থা থেকে বাচাতে। সবাই বাসায় থাকুন আর আল্লাহর উপর ভরসা রাখুন, আল্লাহ হা-ফেজ।

Level 28

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 480 টি টিউন ও 186 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 56 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস