ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার ৫টি সেরা প্ল্যাটফর্ম

Level 2
১ম বর্ষ, সরকারি দোহার-নবাবগঞ্জ কলেজ, নবাবগঞ্জ

কেমন আছেন সবাই? আশাকরি সবাই ভাল আছেন, আপনাদের দোয়ায় আমিও ভালো আছি। আজকে আমি আপনাদের জন্য ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করার ৫টি সেরা প্ল্যাটফর্ম নিয়ে হাজির হয়েছি। আজকের ডিজিটাল যুগে, একটি ওয়েবসাইট থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ব্যক্তিগত ব্র্যান্ডিং, ব্যবসা প্রচার, বা অনলাইনে উপস্থিতি তৈরি করার জন্য, একটি ওয়েবসাইট আপনাকে বিশ্বের কাছে নিজেকে তুলে ধরার সুযোগ করে দেয়।

কিন্তু, একটি আকর্ষণীয় ও প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করা অনেক ব্যয়বহুল এবং কষ্টদায়ক হতে পারে, বিশেষ করে যদি আপনার কোন কোডিং অভিজ্ঞতা এবং প্রয়োজনীয় বাজেট না থাকে।

কিন্ত মজার বেপার হলো, বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে আপনি কোনো খরচ ছাড়াই একটি আকর্ষণীয় ও পূর্ণাঙ্গ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। বাজারে বেশ কিছু ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যারা আপনাকে কোডিং জ্ঞান ছাড়াই ফ্রিতে সহজেই একটি আকর্ষণীয় এবং প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করতে সাহায্য করবে।

আজকে আমি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির ৫টি সেরা প্ল্যাটফর্ম নিয়ে আলোচনা করবো। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে আসুন বিস্তারিত শুরু করি।

১. Wix (উইক্স):

Wix-এ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

আপনি যদি ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার কথা ভাবে থাকেন, তাহলে Wix আপনার জন্য একটি দারুণ এবং প্রথম অপশন হতে পারে। কিন্তু Wix ঠিক কী, এবং এটি কীভাবে কাজ করে? আসুন, এই জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মের ব্যাপারে এক ঝলক দেখি এবং আপনার নিজের ওয়েবসাইট তৈরির প্রথম কদম নেওয়ার পথকে কিছুটা আলোকিত করি।

২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত Wix মূলত একটি ক্লাউড-ভিত্তিক ওয়েবসাইট নির্মাতা প্ল্যাটফর্ম। যেখানে কোডিংয়ের জটিলতা এড়িয়ে, আপনি আপনার স্বপ্নের ওয়েবসাইটটি সহজেই বাস্তবায়ন করতে পারেন। Wix-এর সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হলো এর ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ ইন্টারফেস। ঠিক যেমন করে ছোটবেলায় খেলনা দিয়ে খেলতেন, ঠিক তেমনি এখানেও বিভিন্ন উপাদান যেমন টেক্সট, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি সহজেই টেনে এনে পছন্দমতো সাজিয়ে আপনার ওয়েবসাইটের পৃষ্ঠা গড়ে তুলতে পারবেন। মজার ব্যাপার হলো, এতে কোনো প্রগ্রামিং জ্ঞান লাগে না, শুধু আপনার সৃজনশীলতা এবং মনের রং-ই যথেষ্ট।

কিন্তু মনে রাখবেন, বিনামূল্যে সংস্করণে Wix এর কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। উদাহরণস্বরূপ, আপনার নিজের ডোমেইন নাম ফ্রীতে ব্যবহার করতে পারবেন না, এবং Wix এর নিজেস্ব বিজ্ঞাপনগুলি আপনার ফ্রি ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত করবে। তবে, প্রিমিয়াম প্ল্যানে আপগ্রেড করলে আপনার এই সীমাবদ্ধতাগুলি দূর হয়ে যাবে এবং আপনি আরও বেশি ফিচার যুক্ত করতে পারবেন।

তাই, আপনি যদি কোনো কোডিংয়ের ঝামেলা ছাড়াই আপনার নিজের একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান, তাহলে Wix আপনার জন্য একটি চমৎকার পছন্দ হতে পারে।

২. Squarespace (স্কোয়ারস্পেস):

Squarespace-এ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

আজকের ডিজিটাল যুগে, অনলাইন উপস্থিতি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু কোডিং জ্ঞান ছাড়া কিভাবে একটি পেশাদার ওয়েবসাইট তৈরি করবেন? এর উত্তর হলো Squarespace (স্কোয়ারস্পেস)। Wix এর পরেই আমার চোখে সবথেকে গ্রহণযোগ্য এবং একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিল্ডিং প্ল্যাটফর্ম হলো স্কোয়ারস্পেস। এটি আপনাকে কোন ঝামেলা ছাড়াই একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে সাহায্য করবে।

২০০৩ অ্যান্টনি ক্যাসালেনার হাতে প্রতিষ্ঠিত এটি একটি ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ ওয়েবসাইট বিল্ডিং এবং হোস্টিং কোম্পানি। Squarespace-এর মূলনীতি হলো এর সহজতা এবং নান্দনিকতা। এর ব্যবহারকারী-বান্ধব ইন্টারফেসটি কোনো প্রাক-অভিজ্ঞান ছাড়াই ব্যবহার করা যায়। ড্রাগ-এবং-ড্রপ ফিচারের সাহায্যে আপনি টেমপ্লেট, টেক্সট, ছবি এবং ভিডিও যোগ করে মিনিটেই আপনার জন্য একটি ওয়েবসাইট গড়ে তুলতে পারবেন।

যারা ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির সুবিধা খুজছেন তাদের সবার কাছেই স্কোয়ারস্পেস অনেক আকর্ষণীয়। Squarespace-এর ফ্রি প্ল্যান আপনাকে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে, একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ স্টোরেজ পেতে এবং একটি কাস্টম ডোমেইনও সংযুক্ত করতে দেয়। তবে মনে রাখবেন, ফ্রি প্ল্যানের মধ্যে কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে।

আপনি যদি একটি পুরোপুরি কাস্টমাইজযোগ্য ওয়েবসাইট, আরও স্টোরেজ, ই-কমার্স কার্যকারিতা, এবং Squarespace এর ব্র্যান্ডিং ছাড়াই একটি কাস্টম ডোমেইন চান, তাহলে প্রিমিয়াম প্ল্যানগুলিতে আপগ্রেড করতে পারেন।

৩. Weebly (উইবলি):

Weebly-এ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার আরও একটি দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্ম হলো Weebly (উইবলি)। Weebly আপনার জন্য একটি দুর্দান্ত অপশন হতে পারে। কিন্তু Weebly ঠিক কী, আর এটি কীভাবে কাজ করে? চলুন, এই জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

২০০৬ সালে ব্লক, ইনকর্পোরেটেড দ্বারা প্রতিষ্ঠিত, এটি একটি ওয়েবসাইট হোস্টিং সেবা সমন্বিত একটি "drag-and-drop" ওয়েবসাইট নির্মাতাকারী প্রতিষ্ঠান। যা কোনো কোডিং জ্ঞান ছাড়াই ব্যবহারকারীদের আকর্ষণীয় ও কার্যকর ওয়েবসাইট তৈরি করতে সহায়তা করে। ব্যবহারকারী-বান্ধব ইন্টারফেস এবং প্রচুর ডিজাইন টেম্পলেটের সাহায্যে আপনি সহজেই ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট, পোর্টফোলিও, এমনকি ব্লগও Weebly এর মাধ্যমে তৈরি করতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন, অন্যান্য ফ্রি ওয়েবসাইট নির্মাতাকারী প্রতিষ্ঠানের মতই উইবলিতেও ফ্রি প্লানে কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। Weebly-তে আপনি একটি ফ্রি ডোমেইন নাম এবং স্টোরেজ সহ একটি বেসিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। তবে প্রিমিয়াম প্ল্যানগুলিতে আরও বেশি ফিচার ও স্টোরেজ পাবেন। তবে ব্যক্তিগত ও ছোট ব্যবসার জন্য ফ্রি প্ল্যানটিও যথেষ্ট কার্যকর।

৪. WordPress.com (ওয়ার্ডপ্রেস):

WordPress.com-এ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার প্রশ্ন উঠলে WordPress-এর কথা বলবো না, এটা তো হয় না। কিন্তু ঠিক কী এই জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম এবং এটি কীভাবে কাজ করে? চলুন, আজকেই WordPress.com-এর রহস্য উন্মোচন করে ফেলি!

২০০৫ সালে অটোম্যাটিক কম্পানি দ্বারা প্রতিষ্ঠিত এটি একটি ব্লগ ও ওয়েব হোস্টিং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। যেখানে আপনি কোনো কোডিং জ্ঞান ছাড়াই সহজেই একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। অসংখ্য ডিজাইন টেম্পলেট এবং ইন্টারেক্টিভ ফিচারের সাহায্যে আপনি ব্যক্তিগত ব্লগ, ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট, এমনকি অনলাইন পোর্টফোলিও তৈরি করতে পারেন।

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির ক্ষেত্রে WordPress.com অন্যতম একটি মাধ্যম। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি! এতে আপনি একটি ফ্রি ডোমেইন নাম এবং স্টোরেজ সহ একটি বেসিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। তবে মনে রাখবেন, অন্যান্যের মত ফ্রি প্ল্যানেও কিছু সীমাবদ্ধতা আছে, যেমন এখানে আপনি কাস্টম ডোমেইন ব্যবহারের সুবিধা পাবেন না। WordPress.com-এরই একটি সাব-ডোমেইন ফ্রি প্লানে আপনাকে দেওয়া হবে। তবে প্রিমিয়াম প্ল্যানে গেলে এই সীমাবদ্ধতাটি দূর হয়ে যাবে এবং আরও বেশি ফিচার যুক্ত হবে।

৫. Blogger (ব্লগার):

Blogger-এ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি

আপনি যদি আমকে প্রশ্ন করেন, ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার এই ৫টি প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সবথেকে সেরা কোনটি? তাহলে আমি এক কথায় উত্তর দেব Blogger (ব্লগার)। ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির ক্ষেত্রে Blogger সবথেকে জনপ্রিয় ও সহজলভ্য একটি প্ল্যাটফর্ম।

১৯৯৯ সালে পাইরা ল্যাবস দ্বারা তৈরি ব্লগার একটি অনলাইন কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যা ২০০৩ সালে গুগল কিনে নেয় এবং পরবর্তীতে গুগল এটিকে বিনামূল্যে ব্লগিং ও ওয়েবসাইট হোস্টিং প্ল্যাটফর্ম হিসেবে উন্মুক্ত করে। কোনো কোডিং জ্ঞান ছাড়াই আপনি এখানে সহজেই ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। ব্যক্তিগত ব্লগ থেকে ছোট ব্যবসার ওয়েবসাইট, এমনকি অনলাইন পোর্টফোলিও, Blogger দিয়ে এই সব ধরনের ওয়েবসাইটই তৈরি করা সম্ভব।

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরির ক্ষেত্রে Blogger অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি প্ল্যাটফর্ম। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি। একটি ফ্রি ডোমেইন নাম (blogspot.com-এর একটি সাব-ডোমেইন হিসেবে) এবং স্টোরেজ সহ একটি বেসিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

মজার বিষয় হলো ব্লগারে কোন প্রিমিয়ার প্ল্যানই নেই। এখানে আপনি ফ্রিতেই একটি কাস্টম ডোমেইন ব্যবহারের সুবিধা পাবেন। আপনি চাইলে এখানে কাস্টম কোড লিখেও আপনার ওয়েবসাইটকে একটি প্রফেশনাল লুক দিতে পারবেন। আপনি জেনে অবাক হবেন TechCrunch, The Verge, Mashable, Engadget, Gizmodo সহ অসংখ্য ওয়েবসাইট আছে যেগুলোর যাত্রা এই Blogger এর মাধ্যমেই শুরু হয়েছিল।

শেষ কথা

উপরে আমি ৫টি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিল্ডিং প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এই প্ল্যাটফর্মগুলো আপনাকে কোডিং জ্ঞান ছাড়াই ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে সাহায্য করবে। কোন প্ল্যাটফর্মটি আপনার জন্য সেরা তা নির্ভর করে আপনার ব্যক্তিগত চাহিদা এবং পছন্দের উপর। তবে যদি আমকে প্রশ্ন করেন উপরে উল্লেখিত ৫ টি প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সেরা কোনটি। তাহলে আমি চোখ বন্ধ করে উত্তর দেব Blogger (ব্লগার) এর কথা। তবে আপনি যদি ই-কমার্স ব্যবসায়ী হন, তাহলে অবশ্যই Wix এর কথা বিবেচনা করুন।

তবে মনে রাখবেন, ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। আপনি যদি আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ, কার্যকারিতা এবং পেশাদারত্ব চান, তাহলে উপরে উল্লেখিত ৫টি প্ল্যাটফর্মের প্রিমিয়াম প্ল্যানগুলিতে আপগ্রেড করার কথা বিবেচনা করুন। অন্যথায় একজন ডেভলপারের স্বরনাপন্ন হয়ে কাস্টম সাইট তৈরির সিদ্ধান্ত গ্রহন করুন।

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে ইন্টারনেটে নিজের এবং ব্যবসার অবস্থান বিশ্ব বাজারে উন্মুক্ত করতে একটি ওয়েবসাইট থাকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। উপরে উল্লেখিত প্ল্যাটফর্ম এবং টিপসগুলি ব্যবহার করে আপনি আপনার স্বপ্নের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন এবং অনলাইনের মাধ্যমে বিশ্ব কাতারে আপনার উপস্থিতি গড়ে তুলতে পারেন।

Level 2

আমি ইমন সিকদার। ১ম বর্ষ, সরকারি দোহার-নবাবগঞ্জ কলেজ, নবাবগঞ্জ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 মাস 2 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 23 টি টিউন ও 6 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস