ব্লগিং কি? ব্লগিং করতে হলে কি করতে হবে?

ব্লগিং কি? 

ব্লগিং হচ্ছে একটি মুক্ত পেশা। আপনার নিজের একটি ব্লগ চালু করে আজই লেখা শুরু করতে পারেন যদি আপনার লেখালেখি করতে ভালো লাগে।

বর্তমানে বাংলা ভাষায় লেখালেখি করে অনেকেই খুব ভালো পরিমাণ অর্থ উপার্জন করছেন চাইলে আপনিও পারবেন। 

এজন্য প্রথমে আপনাকে একটি ব্লগ শুরু করতে হবে এবং আপনার ব্লগের বিষয়টি নির্বাচন করে ওই বিষয়ে লেখালেখি করলে ভালো হবে।

তবে ব্লগিং পেশা চালু করতে হলে আপনাকে প্রাথমিক কিছু ইনভেস্টমেন্ট প্রয়োজন রয়েছে।  আপনি চাইলে গুগল ব্লগস্পট থেকে শুরু করতে পারেন।

তবে বর্তমানে বেশিরভাগ লোকের এই কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করার জন্য ডোমেইন এবং হোস্টিং ক্রয় করে তারপর ব্লগিং শুরু করে থাকেন।

ব্লগিং করতে হলে কি করতে হবে?

ব্লগার হতে হলে আপনি প্রথমেই আপনার মধ্যে লেখালেখি করার অভিজ্ঞতা রয়েছে কিনা তা যাচাই করুন অথবা নিজে আজি ব্লগ টিউন লেখা শুরু করে দিন।

এমন অনেকেই রয়েছেন তারা ব্লগ শুরু করে কিছুদিন পরে তাদের কাছে মনে হয় যে তাদের লেখালেখি করতে ভাল লাগছে না।

তাছাড়া ব্লগিং শুরু করার সাথে সাথেই অনেক ব্লগিং করে দ্রুত টাকা আর চিন্তা করে থাকেন তাই তাদের ব্লগিং ক্যারিয়ারকে লম্বা সময় পর্যন্ত চলে না।

ব্লগিং করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ধৈর্য ধারণ করতে হবে। এমন অনেক সফল ব্লগার রয়েছেন যাদের প্রথম ব্লগিং শুরু করে তার এক থেকে দেড় বছর কাজ করেও কোন ধরনের অর্থ উপার্জন করতে পারেন নি।

তথাপিও তারা ব্লগিংকে কন্টিনিউ করেছেন, ব্লগিং শিখেছেন এবং নিজেদেরকে ব্লগার হিসেবে প্রস্তুত করেছেন।  

আপনার যদি কোন বিষয়ে খুব বেশি দিন ব্লগ লিখতে ভালো নলাগে এবং আপনি যদি খুব তাড়াতাড়ি আয় করতে চান তবে অবশ্যই ব্লগিং পেশা আপনার জন্য উপযুক্ত নয়।

তবে হা আপনার লেখালেখি প্রতি কিরকম আগ্রহ রয়েছে এই বিষয়টি আপনাকে একজন সফল ব্লগার বানাতে পারে। সেই সাথে ব্লগিং পেশায় নানা ক্ষেত্রে আপনাকে ধৈর্যের পরীক্ষা তো দিতেই হবে।

  • ব্লগ সাইটে নানা সময়ে বিভিন্ন ছোটখাটো সমস্যা হয়ে থাকে ছোটখাটো সমস্যা গুলিতে ধৈর্য ধারণ করতে হবে।
  • ব্লগের প্রধান উপাদান হচ্ছে কন্টেন্ট। ব্লগে রেগুলার কন্টেন্ট পাবলিশ করতে হবে।
  • তারাতারি সাইটে ভিজিটর নিয়ে ছিন্তা করা যাবে না। 

সঠিক নিয়মে টিউন লিখলে একসময় আপনার লেখাগুলো গুগলের প্রথম পেজে রেঙ্ক হবে, আপনার ওয়েবসাইটে পর্যাপ্ত পরিমান ভিজিটর আসবে এবং প্রতি মাসে একটি ভালো পরিমাণ টাকা আপনি ব্লগ থেকে আয় করবেন এমন উদ্দেশ্য নিয়েই অনেকে ব্লগিং করে থাকেন।

আপনিও এমনটা ছিন্তা করতে পারেন কোন সমস্যা, বর্তমানে এমন অনেক উদাহরণ রয়েছে যারা ব্লগিংকে নিজের পেশা হিসেবে কাজ করছে।

আসলে ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম এখন রকেট তৈরির মত কিছু নয়, ফ্রিতে এখন ব্লগ তৈরি করেই টাকা আয় করা যায়।

অনেক ব্লগার তাদের জীবনের যাবতীয় খরচ তারা ব্লগিং থেকে উপার্জিত টাকা থেকেই ব্যয় করে থাকেন। 

আপনি যদি মনে করেন যে আপনি ব্লগিং শুরু করতে চাচ্ছেন তবে নির্দ্বিধায় করে ফেলুন।  শুরুতে আপনি গুগল BlogSpot ব্যবহার করে একটি ফ্রি ব্লগ খুলতে পারেন।

এছাড়াও আপনি যদি নিজের লেখালেখির স্কিল কে প্রথমে দেখতে চান তবে অবশ্যই আপনি বিভিন্ন ব্লগ গুলোতে নিজের লেখা জমা দিতে পারেন।

বাংলাদেশে এমন অনেক সাইট রয়েছে যারা বর্তমানে কনটেন্ট রাইটারকে লেখার জন্য পারিশ্রমিক দিচ্ছে।

আপনি চাইলে ব্লগ টিউন লেখার কাজটি ফ্রি করতে পারেন আপবার লেখার অভ্যাস তৈরি করতে এবং আপনি চাইলে টাকার বিনিময়ে ব্লগ লিখতে পারেন।  এটা একান্তই আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার।

তবে বর্তমানে ব্লগ লিখে আয় করার উপায় যারা খুঁজছেন তাদের অনেক সুযোগ রয়েছে। 

একটি ব্লগে বিভিন্ন উপায়ে মনিটাইজ করার মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। 

এখনে আপনি নিজেই নিজের ব্লগ তৈরি করার নিয়ম? সম্পর্কে জানতে পারেন।

Level 1

আমি মোঃ আমিনুল ইসলাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 1 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Telecom Offer and Mobile banking and all about online earning all knowledge in Bangla. https://digitaltuch.com/


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস