ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে যেভাবে নিজের অনলাইন ব্যবসার মার্কেটিং করবেন

Level 6
শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সবথেকে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। এই সাইটে প্রতিনিয়ত মানুষ বিনোদন, যোগাযোগ, ব্যবসায়িক কার্যক্রম সহ বিভিন্ন উদ্যেশ্যে একটিভ থাকে। তাই ফেসবুককে কেন্দ্র করে অনেক অনেক অনলাইন ব্যবসা শুরু হয়েছে এবং সাফল্যের সাথে সেই সকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান নিজেদের কার্যক্রম পরিচানলা করছে। বর্তমানে বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ অনলাইন বিজনেস বলতে প্রথমেই ফেসবুক বিজনেস কে বুঝে থাকে।

ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে ফেসবুকের এই অত্যাধিক গুরুত্ব উপলব্ধি করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ব্যবসায়ীদের কার্যক্রম আর-ও একটু সহজ করতে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর ব্যবস্থা করেছে। ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর মাধ্যমে অনেক ছোট ছোট উদ্যোক্তা তাদের ব্যবসার বিপণন করছেন। শুধু যে ছোট ছোট উদ্যোক্তাদের জন্য ফেসবুক মার্কেটপ্লেস তা কিন্তু না। স্বনামধন্য বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান-ও এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ব্যবসায়ের সম্প্রসারণ ঘটাচ্ছে।

ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের এতো এতো জনপ্রিয়তা থাকা সত্বেও হয়তো এখনও অনেকেই জানেন না যে কীভাবে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস ব্যবহার করে পণ্যের মার্কেটিং করতে হয়। অনেকের হয়তো ফেসবুক এর কার্যকরী এই ফিচার সম্পর্কে ধারনাই নেই। আপনি যদি একজন অনলাইন ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন অথবা ভবিষ্যতে নিজের ব্যবসা পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন তাহলে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে আপনার অবশ্যই জেনে নেয়া দরকার। আজকের টিউনের মাধ্যমে জানতে পারবেন যে ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে আপনি কীভাবে বিজ্ঞাপণ দিতে পারবেন এবং কীভাবে বিজ্ঞাপণ এর গুনগুত মান উন্নত করতে পারবেন।

ফেসবুক মার্কেটপ্লেস কী?

ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের সংজ্ঞা

চলুন প্রথমেই ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর সাথে পরিচিত হয়ে নেয়া যাক। ফেসবুক মার্কেটপ্লেস হলো ফেসবুকের এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার যা শুধুমাত্র ফেসবুকে পণ্য ক্রয় বিক্রয় করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। অর্থাৎ ফেসবুকের মাধ্যমে অনলাইন কেনাকাটার একটি আলাদা ফিচার হলো ফেসবুক মার্কেটপ্লেস। অনলাইন ব্যবসায়ীরা ফেসবুকের অনেক ধরনের ফিচার ব্যবহার করে পণ্যের বিজ্ঞাপণ দিয়ে থাকে। তার মধ্যে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস উল্লেখযোগ্য একটি।

ফেসবুকের অন্যান্য ফিচার ব্যবহারের সময় ব্যবসায়ীরা সাধারণত একটি পেইড বিজ্ঞাপণ দিতে থাকে। কেননা এছাড়া পণ্যের বিজ্ঞাপণ জাতীয় কনটেন্ট এর রিচ একদমই কম হয়। অন্যদিকে ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দেয়ার জন্য আপনাকে এক টাকাও খরচ করতে হবে না। শুধুমাত্র সঠিক নিয়মে মার্কেটপ্লেসে প্রোডাক্ট যুক্ত করতে পারলেই হয়ে যাবে। এখান থেকে সম্ভাব্য ক্রেতা আপনার পণ্যটি খুঁজে বের করে অর্ডার করতে পারবে।

যেহেতু মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দিতে আপনার কোনো টাকা করচ হবে না তাই আপনার নিয়মিত একটু সময় ব্যয় করে মার্কেটপ্লেসে পণ্য যোগ করা উচিত। এখান থেকে যদি আপনি একটা অর্ডার কালেক্ট করতে পারেন ঐ একটাই আপনার লাভ। কেননা আপনি কোনো ইনভেস্টমেন্ট ছাড়াই এখানে মার্কেটিং করছেন। তবে আপনি যে কেবল একটা অর্ডার পাবেন এমনটাও কিন্তু না। নিয়মিত মার্কেটপ্লেসে পণ্য যুক্ত করলে এবং পণ্যের কোয়ালিটি ও মূল্যের মধ্যে সামঞ্জস্যতা থাকলে আপনি আশানুরূপ অর্ডার পাবেন।

তাহলে বুঝতেই পারছেন যে, ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নিজে থেকেই ফেসবুকে ক্রয় বিক্রয় করার জন্য মার্কেটপ্লেস নামক এই ফিচারটি তৈরি করেছে। অর্থাৎ ধরে নেয়া যেতে পারে যে, এই অপশনটি ব্যবহার করা প্রতিটি ফেসবুক ব্যবসায়ীদের জন্য খুবই জরুরি।

কীভাবে ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে প্রোডাক্ট যোগ করবেন?

যেভাবে ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে প্রোডাক্ট যোগ করবেন

এখন আপনাদের সাথে আমি একটি পূর্নাঙ্গ টিউটোরিয়াল শেয়ার করবো। এই টিউটোরিয়ালটি অনুসরণ করে আপনি খুব সহজেই ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে নিজের পণ্যের বিজ্ঞাপণ দিতে পারবেন। তাই দেরি না করে চলুন টিউটোরিয়ালটি শুরু করা যাক।

১. প্রথমেই আপনাকে ফেসবুকে প্রবেশ করতে হবে। ফেসবুক লাইট কিংবা মেইন ফেসবুক যে কোনো একটি App ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রবেশ করে নিন। আমি যেহেতু ফেসবুক লাইট ব্যবহার করি তাই ফেসবুক লাইটে প্রবেশ করে নিচ্ছি।

ফেসবুকে প্রবেশ

২. ফেসবুকে প্রবেশ করে নিজের ফেসবুক আইডিতে লগইন করে নিতে হবে। আমার আইডি আগে থেকেই লগইন করা ছিল তাই সরাসরি ফেসবুকের হোম পেইজে চলে এসেছি। হোম পেইজে আসার পরে মোবাইল স্ক্রিনের ওপরে ডানদিকের কোনায় চোখ রাখুন। থ্রি ডট চিহ্নের ঠিক নিচের দিকে একটি আইকন দেখতে পাবেন, এটি হলো ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর আইকন। এ পর্যায়ে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর আইকনে ক্লিক করতে হবে।

মার্কেটপ্লেসে প্রবেশ

৩. মার্কেটপ্লেস আইকনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনাকে ফেসবুক মার্কেটপ্লেস এর পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে দেখতে পাবেন অনেক অনেক পণ্যের ছবি ও বিজ্ঞাপণ। আপনার বিজ্ঞাপনটি-ও ঠিক এভাবে অন্যের কাছে পৌঁছে যাবে। এ পর্যায়ে স্ক্রিনের ওপরের দিকে লক্ষ করলে অনেক গুলো অপশন দেখতে পাবেন। সেখান থেকে 'বিক্রি' অথবা ইংরেজি ল্যাংগুয়েজ হলে 'Sell' নামক অপশনে ক্লিক করতে হবে।

বিক্রয় অপশন

৪. বিক্রি বা Sell অপশনে ক্লিক করলে আপনার সামনে নতুন একটি পেইজ চালু হবে। সেখানে আপনার পণ্যটি কোন বিভাগ বা ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত তা বাছাই করতে হবে, কী বিক্রি করছেন তা লিখতে হবে অর্থাৎ পণ্যের নাম লিখতে হবে, পণ্যের সঠিক দাম যোগ করতে হবে, আপনার লোকেশন যোগ করতে হবে, তারপরে আপনার পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য যোগ করতে হবে। প্রতিটি বিষয় যোগ করার জন্য আপনি আলাদা আলাদা অপশন পাবেন। স্ক্রিনশটে দেখে নিন আমি প্রয়োজনীয় সকল তথ্য ইতোমধ্যে যোগ করে ফেলেছি।

বিবরণ যোগ করা

৫. সবগুলো অপশনে সঠিক ভাবে সকল তথ্য যুক্ত করে মোবাইল স্ক্রল করে নিচের দিকে চলে যাবেন। এখানে 'ফটো যোগ করুন' নামে একটি অপশন পাবেন। এই অপশনে ক্লিক করে আপনি আপনার পণ্যের ছবি যোগ করবেন।

ছবি যোগ করা

৬. আমার ছবি যোগ করা শেষ। আপনার প্রয়োজন মতো আপনি বার বার 'ফটো যোগ করুন' অপশনে ক্লিক করে যে কয়টি ছবি যোগ করার প্রয়োজন তা করে নিতে পারবেন। ছবি যোগ করা শেষ মানেই বিজ্ঞাপণ সাজানোর কাজ শেষ। এ পর্যায়ে 'পাবলিশ করুন' নামক অপশনে ক্লিক করে বিজ্ঞাপনটি পাবলিশ করে দিতে হবে।

পাবলিশ করুন অপশন

৭. পাবলিশ করা হয়ে গেলে অটোমেটিক ভাবে আপনার সামনে অনেক গুলো গ্রুপের লিস্ট আসবে যেখানে আপনি আপনার বিজ্ঞাপনটি শেয়ার করতে পারবেন। আপনি যতো বেশি ক্রয় বিক্রয় গ্রুপে জয়েন থাকবেন লিস্টে ততো বেশি গ্রুপের তালিকা আসবে। যে সকল গ্রুপে আপনি আপনার বিজ্ঞাপনটি শেয়ার করতে চান ঐ সকল গ্রুপ সিলেক্ট করে 'শেয়ার করুন' অপশনে ক্লিক করে দিন। এতে করে আপনার বিজ্ঞাপনটি মার্কেটপ্লেস এর পাশাপাশি বিভিন্ন গ্রুপের জায়গা পাবে।

শেয়ার করুন অপশন

৮. অবশেষে আপনার বিজ্ঞাপনটি পাবলিশ করা হয়ে গেল। এখন আপনি যদি আপনার বিজ্ঞাপনটি দেখতে চান তাহলে পুনরায় মার্কেটপ্লেসের মূল পেইজে প্রবেশ করুন। এখানে বামপাশে উপরের দিকে তাকালে দেখতে পাবেন প্রোফাইল এর মতো একটি আইকন আছে। ঐ প্রোফাইল আইকন চিহ্নে ক্লিক করতে হবে।

প্রোফাইল আইকন

৯. প্রোফাইল আইকনে ক্লিক করার পরে আপনাকে একটি নতুন পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে। মার্কেটপ্লেসে এই পর্যন্ত আপনি যতোগুলো বিজ্ঞাপণ দিয়েছেন তার সবগুলোর তালিকা আপনি এখানে পাবেন। এইমাত্র যে বিজ্ঞাপনটি দিয়েছেন তার ওপরে ক্লিক করুন।

বিজ্ঞাপণ এর তালিকা

১০. এখন আপনি নিজের বিজ্ঞাপনটি আপনার স্ক্রিনে দেখতে পারবেন। চাইলে এখান থেকে বিজ্ঞাপনটি এডিট করতে পারবেন। আমি ইতোমধ্যে আমার বিজ্ঞাপনটি দেখতে পাচ্ছি।

বিজ্ঞাপণ এর মূল চিত্র

এভাবেই আপনি ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে আপনার পণ্যের বিজ্ঞাপণ দিতে পারেন। বিজ্ঞাপণ দেখে কেউ আপনার পণ্যটি কিনতে চাইলে ক্রেতা সরাসরি আপনাকে ইনবক্স করতে পারবে। ক্রেতার Message টি সরাসরি আপনার চ্যাটবক্সে পৌঁছে যাবে। সবশেষে ক্রেতার সাথে বিস্তারিত সকল আলোচনা করে আপনি আপনার পণ্যটি বিক্রয়ের জন্য অর্ডার গ্রহন করতে পারবেন।

ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে বিক্রয় বৃদ্ধি করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ৫ টি টিপস

ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে বিক্রয় বৃদ্ধির টিপস

মার্কেটপ্লেসে তো অনেক অনেক বিজ্ঞাপণ প্রতিনিয়ত যুক্ত হয়, কিন্তু সকলেই কি আশানুরূপ ভাবে ক্রেতা পায়? অবশ্যই না। কারণ মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দেয়ার সময় কিছু বিষয়ের ওপর গুরুত্ব না দিলে তা কখনোই আশানুরূপ ফলাফল নিয়ে আসবে না। তাই চলুন মার্কেটপ্লেসে বিক্রয় বৃদ্ধি করার জন্য ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

১. পণ্যের সঠিক মূল্য যোগ করুন

মার্কেটপ্লেসে প্রবেশ করলে দেখবেন বেশিরভাগ বিজ্ঞাপণে পণ্যের মূল্য দেয়া থাকে ২ টাকা, ৫ টাকা কিংবা একদম ফ্রি। এটা দেখার সাথে সাথে যে কেউ ঐ বিক্রেতার ওপর নেগেটিভ চিন্তাভাবনা করবে। কেননা এখানে পণ্যের সঠিক মূল্য নির্ধারণ করা হয়নি।

অনলাইন বা অফলাইন যে কোনো কেনাকাটার ক্ষেত্রে ক্রেতা সবার আগে ঐ পণ্যের সঠিক মূল্যাটি জানার চেষ্টা করে। মূল্যের ওপর নির্ভর করে বিবেচনা করা হয় যে একজন ক্রেতা পণ্যটি কিনবে কিনা। তাই প্রথমেই ক্রেতাকে পণ্যের মূল্য সম্পর্কে সঠিক ধারনা দিতে হবে। যখন ক্রেতা আপনার বিজ্ঞাপনটি দেখার পরে মনে করবে যে প্রোডাক্ট হিসেবে দাম সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং তার সাধ্যের মধ্যে ঠিক তখনই সে আপনার পণ্যদি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে চাইবে। ফলে সম্ভাব্য ক্রেতা আপনার বিজ্ঞানের ওপরে ক্লিক করে বিজ্ঞাপণের মধ্যে প্রবেশ করবে এবং ভালো লাগলে অর্ডার কনফার্ম করবে।

তাহলে বুঝতেই পারছেন যে বিজ্ঞাপণের সাথে পণ্যের সঠিক মূল্য নির্ধারণ করাটা কতোটা গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দেয়ার সময় নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার পণ্যের সঠিক মূল্য সংযুক্ত করা হয়েছে।

২. বিজ্ঞাপণে একটি আকর্ষনীয় ও পূর্নাঙ্গ বিবরণ যোগ করুন

মার্কেটপ্লেসে পণ্য যোগ করার সময় বিবরণ বা Description নামে একটি অপশন পাবেন। এখানে আপনার পণ্য সম্পর্কে যাবতীয় সকল তথ্য খুব আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করবেন। এটাই হবে ক্রেতা আকর্ষণ করার জন্য আপনার মূল হাতিয়ার। একজন ক্রেতা আপনার পণ্যটি কেন কিনবে, কী কী সুবিধা পাবে, পণ্যটির কোয়ালিটি কেমন হবে, গ্যারান্টি বা ওয়ারেন্টি আছে কিনা ইত্যাদি সকল বিষয় খুবই স্পষ্ট ভাবে বিবরণে তুলে ধরবেন। পাশাপাশি প্রোডাক্ট ডেলিভারি পদ্ধতি, ডেলিভারি চার্জ, ডেলিভারির সময় ইত্যাদি স্পষ্ট ভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করবেন।

একজন অনলাইন ক্রেতা হিসেবে মার্কেটপ্লেসের পণ্য দেখার সময় আমি ডেসক্রিপশন খুব ভালোভাবে খেয়াল করি। যদি সকল তথ্য দেখে বিক্রেতাকে বিশ্বাসযোগ্য মনে হয় তবেই তার কাছে পণ্য অর্ডার করি। আমার মতো প্রায় সকল ক্রেতাই যে কোনো পণ্য অর্ডার করার আগে পণ্যের সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য যাচাই করার জন্য ডেসক্রিপশন চেক করে থাকে৷ তাই এই ডেসক্রিপশন এর তথ্য যতো বেশি থাকবে সম্ভাব্য ক্রেতা ততোটাই আকৃষ্ট হবে।

তবে অবশ্যই শতভাগ অরিজিনাল তথ্য দিয়ে বিবরন লিখতে হবে। হতে পারে একই ক্রেতার রেফারেন্সে আপনার আর-ও কয়েকজন ক্রেতা আসতে পারে। তাই কাজে ও কথায় মিল থাকা সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

৩. আকর্ষণীয় ও আসল ছবি ব্যবহার করুন

মার্কেটপ্লেসের বিক্রেতার ওপর অনেকেই আস্থা রাখতে পারে না কারণ তাদের পণ্যের ছবি আসল হয় না। অনলাইনে খুবই পরিচিত এবং বহুল ব্যবহৃত ছবিগুলো ব্যবহার করে বিজ্ঞাপণ পরিচালনা করা হয়। এতো এতো ফেইক ছবির ভীড়ে যখন আপনার বিজ্ঞাপণের ছবিটি অথেনটিক হবে তখন তো আপনার বিজ্ঞাপণ সবার নজর কাড়বেই। তাই নিজে প্রোডাক্ট স্টক করে নিজের হাতে থাকা ডিভাইস বা ক্যামেরা ব্যবহার করে ছবি তুলে তা বিজ্ঞাপণের কাজে ব্যবহার করুন। অনলাইন থেকে ডাউনলোড করা ছবি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

অথেনটিক ছবি ব্যবহার করার পাশাপাশি ছবি আকর্ষণীয় করতে হবে। যেহেতু পণ্যের ছবি দেখেই ক্রেতা পণ্যটি ক্রয় করতে আগ্রহ প্রকাশ করবে তাই ছবি এতোটাই আকর্ষণীয় করুন যে দেখার সাথে সাথেই যেন সকলের চোখ আটকে যায়। ছবি তোলার স্টাইল, ব্যাকগ্রাউন্ড, কালার কম্বিনেশন সব কিছুই চমৎকার হতে হবে।

যেহেতু ছবির মাধ্যমেই আপনার পণ্যের বিপনন করবেন তাই মার্কেটপ্লেসে ছবি যোগ করার সময় নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার ছবিটি শতভাগ ইউনিক ও আকর্ষণীয়।

৪. বেশি বেশি ক্রয় বিক্রয় গ্রুপে যুক্ত হতে থাকুন

মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ সাজিয়ে পাবলিশ করার পরে কিন্তু এই বিজ্ঞাপনটি বিভিন্ন ক্রয় বিক্রয় গ্রুপে শেয়ার করার অপশন থাকে। আপনি যতো বেশি গ্রুপে যুক্ত থাকবেন ততো বেশি আপনার বিজ্ঞাপনটি শেয়ার করতে পারবেন। তাই এমন সব ক্রয় বিক্রয় গ্রুপ খুঁজে বের করুন যেখানে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের একটি রমরমা পরিবেশ বিদ্যমান। প্রতিনিয়ত এই ধরনের গ্রুপ গুলোর সাথে যুক্ত হতে থাকুন।

ক্রয় বিক্রয় গ্রুপে আপনার বিজ্ঞাপনটি ছড়িয়ে পড়ার মাধ্যমে আরও বেশি সম্ভাব্য ক্রেতার কাছে আপনার পণ্যটি পৌছে যাবে। ফলে আপনার বিক্রয়ের সম্ভাবনা বাড়বে। এক্ষেত্রে খেয়াল করুন, আপনার বিজ্ঞাপণ মার্কেটপ্লেসে তো থাকবেই তার পাশাপাশি অন্যান্য বিক্রয় গ্রুপেও নিজের জায়গা করে নেবে। তাই সর্বোচ্চ সংখ্যক ক্রয় বিক্রয় গ্রুপে যুক্ত হওয়ার চেষ্টা করুন।

৫. মার্কেটপ্লেস থেকে কোনো ক্রেতার Message আসলে সাথে সাথে উত্তর দিন

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অনলাইন ব্যবসায়ীদের জন্য এতো চমৎকার একটি ফিচার তৈরি করেছে অথচ দুঃখের বিষয় হলো এখানকার অধিকাংশ বিক্রেতা-ই ফেইক। তাই মার্কেটপ্লেসের বিক্রেতাদের নিয়ে সাধারণ পাবলিক এর মনে অনেক সংশয় থাকে। তারপরেও আকর্ষনীয় বিজ্ঞাপণ দেখলে ক্রেতা আপনাকে নক করবে। যে কোনো ক্রেতা চায় সাথে সাথে Message এর উত্তর পেতে। এক্ষেত্রে কয়েকদিন পরে ক্রেতার Message এর রিপ্লাই করলে সে ধরেই নিবে যে আপনি একজন ফেইক সেলার।

তাই মার্কেটপ্লেসে আপনার প্রোডাক্ট যুক্ত করা থাকলে অবশ্যই নিজের চ্যট বক্সের দিকে ভালোভাবে নজর রাখুন। আর ক্রেতা আপনার বিজ্ঞাপণ দেখে আকৃষ্ট হয়ে আপনাকে Message করার পরেও তার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে ফেলতে পারে৷ ঐ ক্রেতাকে কথার মাধ্যমে কীভাবে কনভেন্স করে পণ্যটি বিক্রয় করবেন তার পুরো দায়িত্ব কিন্তু আপনার হাতে। সুতরাং ক্রেতার সাথে কথোপকথন সম্পন্ন করার ব্যাপারে আপনার অবশ্যই সচেতনতা অবলম্বন করা জরুরি। আর ক্রেতার প্রতিটি Message এর উত্তর চেষ্টা করবেন মিনিটের মধ্যেই দিতে।

আশাকরি উপরোক্ত টিপস গুলো ফলো করলে মার্কেটপ্লেসে থেকে আপনি আশানুরূপ অর্ডার পাবেন।

কেন ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে পণ্যের মার্কেটিং করবেন?

কেন ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে পণ্যের মার্কেটিং করবেন?

অনেকের মনেই হয়তো ইতোমধ্যে প্রশ্ন জেগেছে যে ফেসবুকের এতো এতো ফিচার থাকতে কেন মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমেই বিজ্ঞাপণ দিতে হবে। একটু সাধারণ ভাবে চেষ্টা করলেই কিন্তু আপনি আপনার প্রশ্নের উত্তরটি পেয়ে যাবেন। কারন ফেসবুক মার্কেটপ্লেসের ডিজাইন করাই হয়েছে মূলত ক্রয় বিক্রয় এর জন্য। আর এজন্যই কোনো ক্রেতা তার প্রয়োজনীয় পণ্যটি খুঁজে পেতে সবার আগে মার্কেটপ্লেসে ঢুকবে। এক্ষেত্রে দেখুন আপনি কিন্তু ক্রেতার কাছে যাচ্ছেন না বরং ক্রেতা আপনাকে মার্কেটপ্লেসে থেকে খুঁজে বের করছে।

দ্বিতীয়ত, মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দেয়ার জন্য আপনার কোনো প্রকার ইনভেস্ট করতে হচ্ছে না। আপনি আপনার সুবিধা মতো যে কোনো পণ্যের বিজ্ঞাপণ দিতে পারছেন একেবারে বিনামূল্যে। এই ফ্রি সুযোগ ছেড়ে দেয়ার তো কোনো মানেই হয় না। যেখানে ফেসবুক পেইজের বিজ্ঞাপণ বুস্ট করতে আপনাকে টাকা গুনতে হবে সেখানে এমন ফ্রি বিজ্ঞাপণ এর সুযোগ ছেড়ে দেয়াটা বেকামি বৈ আর কিছুই না। হ্যাঁ মানছি যে পেইজের বিজ্ঞাপণ বুস্ট করলে বিক্রি বেশি হবে। কিন্তু ফ্রীতে যদি এখান থেকে একটা অর্ডার আসে তাহলে সেই একটা অর্ডার-ই তো আপনার জন্য বোনাস পয়েন্ট।

এছাড়া মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপণ দেয়ার জন্য আপনাকে আলাদা করে কোনো বিজনেস পেইজ খুলতে হবে না। নিজের রেগুলার ফেসবুক প্রোফাইল থেকেই মার্কেটপ্লেস পরিচালনা করতে পারবেন৷ তাই বাড়তি কোনো ঝামেলা পোহাতে হবে না।

তাই অন্যান্য ফিচার এর পাশাপাশি মার্কেটপ্লেসে প্রতিদিন কমপক্ষে ১ টি করে বিজ্ঞাপণ পাবলিশ করতে পারেন।

শেষকথা

আশাকরি ফেসবুক মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে ইতোমধ্যে একটি ক্লিয়ার ধারনা পেয়ে গেছেন৷ টিউটোরিয়ালটি ফলো করে আজ থেকেই মার্কেটপ্লেসে নিজের পণ্যের বিজ্ঞাপণ দেয়া শুরু করুন। আশাকরি ভালো কিছু হবে।

টিউনটি ভালো লাগলে একটি জোসস করে দিন প্লিজ। এই বিষয়ক আর-ও কোনো প্রশ্ন থাকলে টিউনমেন্ট করে জানাতে পারেন৷ অনলাইন বিজনেস ও অনলাইন আর্নিং সম্পর্কিত নতুন নতুন টিউন পেতে আমাকে ফলো দিয়ে রাখতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

Level 6

আমি শারমিন আক্তার। শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 4 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 88 টি টিউন ও 29 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস