মোবাইলের মাধ্যমে স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করে খুলুন নিজের ইউটিউব চ্যানেল

টিউন বিভাগ টিউটোরিয়াল
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 6
শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে টাকা আয় করার ইচ্ছে কমবেশি সবারই হয়। কিন্তু ভিডিও তৈরি করার জন্য চাই ভালো একটি ক্যামেরা বা মোবাইল ফোন৷ কেননা ভিডিওর পিক্সেল কোয়ালিটি ভালো না হলে কোনো ভাবেই তা দর্শক আকর্ষণ করবে না৷ আবার ভিডিও করতে হলে তো ক্যামেরার সামনে না এসে ভিডিও তৈরি করা যাবে না। এমন হাজারটা সমস্যা মোকাবিলা করে হয়তো আর এই দিকে আগানোই হয় না অনেকের।

তবে আপনি চাইলে একটি সাধারণ মানের স্মার্টফোন দিয়ে খুব সহজেই ভিডিও তৈরি করতে পারবেন তা-ও আবার ক্যামেরার সামনে না এসে। হ্যাঁ, এই সকল সমস্যার সমাধান করতে পারবে শুধুমাত্র একটি মোবাইল App। স্ক্রিন ভিডিও রেকর্ডার এর মাধ্যমে আপনি মোবাইলের স্ক্রিন ভিডিও করে খুব সহজেই একটি ভালো কনটেন্ট তৈরি করতে পারবেন। ফলে আপনার ভালো ক্যামেরার কোনো প্রয়োজন পড়বে না আর আপনাকে ক্যামেরার সামনেও আসতে হবে না। তাহলে বুঝতেই পারছেন শুধুমাত্র একটি মোবাইল App দিয়ে আপনার ইউটিউব চ্যানেল Grow করতে পারবেন খুব সহজেই।

আজকের টিউনে আমি আপনাদেরকে দেখাবো কীভাবে স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করতে হয়।

স্ক্রিন ভিডিও কী?

স্ক্রিন ভিডিও

স্ক্রিন ভিডিওর সাথে হয়তো কমবেশি আমরা সবাই পরিচিত। সোস্যাল মিডিয়ায় প্রায় সময়ই হয়তো আপনারা অনেক ভিডিও দেখবেন যেখানে সরাসরি মোবাইল স্ক্রিনের সবকিছু Show করা হয়। শুধু মোবাইল ফোন না, ল্যাপটপ বা কম্পিউটার এর স্ক্রিনের সকল কার্যকলাপ ভিডিও রেকর্ডিং এর মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয় স্ক্রিন ভিডিওতে। আর এই স্ক্রিনের ভিডিও কিন্তু অন্য কোনো ডিভাইস বা ক্যামেরার মাধ্যমে করা হয় না, সরাসরি ডিভাইস এর স্ক্রিনের ভিডিও চিত্র রেকর্ড করে তা ঐ ডিভাইস এর গ্যালারিতেই সংরক্ষণ করা হয়।

মোটকথা কোনো ডিভাইস এর স্ক্রিনে সংঘটিত কার্যকলাপ ঐ ডিভাইসের মাধ্যমেই ভিডিও করার প্রক্রিয়া হলো স্ক্রিন ভিডিও। আর বর্তমানে অনেক বড় বড় স্বনামধন্য ইউটিউবার ও কনটেন্ট ক্রিয়েটর এই স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করে নিজের পপুলারিটি ধরে রেখেছে। তাই চাইলে আপনিও খুব সহজেই স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করে নিজের ইউটিউব চ্যানেল দাঁড় করাতে পারবেন।

স্ক্রিন ভিডিও তৈরির টিউটোরিয়াল

টিউটোরিয়াল

এখন আমি আপনাদেরকে দেখাবো যে কীভাবে আপনি মোবাইল এর মাধ্যমে স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করবেন। খুব সহজ কয়েকটি স্টেপ ফলো করলেই আপনি মোবাইলের স্ক্রিন ভিডিও করতে পারবেন এবং তার সাথে নিজের ভয়েস এড করতে পারবেন।

১. প্রথমেই আপনাকে Play Store এ ঢুকে সার্চ অপশনে লিখতে হবে Screen Video Recorder।

প্লে স্টোরে ঢুকে সার্চ করতে হবে

২. এটি লিখে সার্চ করলে দেখবেন স্ক্রিন ভিডিও করার জন্য অনেক গুলো Mobile App একই সিরিয়ালে রয়েছে। সেখান থেকে আমি একটি App সিলেক্ট করে নিচ্ছি।

App সিলেক্ট করতে হবে

৩. App সিলেক্ট করে Install অপশনে ক্লিক করে App টি নিজের মোবাইলে ডাউনলোড করে নিতে হবে।

Install অপশনে ক্লিক করতে হবে

৪. এরপর হোম স্ক্রিনে চলে যাবেন। দেখবেন আপনার মোবাইলের হোম পেইজে App টি চলে এসেছে। এখন ঐ App এর ওপরে ক্লিক করে ভেতরে প্রবেশ করতে হবে।

হোম স্ক্রিনে চলে যাবেন

৫. App এর মধ্যে প্রবেশ করলে অনেক আইকন ও লেখা দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Not This Time লেখার ওপরে ক্লিক করতে হবে। এরপর App টি ফোনে চলমান রাখার জন্য কয়েকটি Allow অপশন আসবে। সবগুলো অপশন Allow করে দিলেই আপনার কাজ শেষ।

Not This Time লেখার ওপরে ক্লিক করতে হবে

৬. এরপর আপনার App টি ভিডিও রেকর্ড করার জন্য প্রস্তুত। এরপর আপনি যতোবারই App এর মধ্যে প্রবেশ করবেন তখন Record লেখা একটি আইকন দেখতে পাবেন। ঐ আইকনে ক্লিক করলে আপনার মোবাইলের স্ক্রিন রেকর্ড হওয়া শুরু করবে।

Record লেখা একটি আইকন পাবেন

৭. নিচের স্ক্রিনশট দেখে নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন আমার মোবাইলে অলরেডি স্ক্রিন রেকর্ডিং শুরু হয়ে গেছে। আর এই মুহূর্তে ঐ App থেকে বের হয়ে গেলেও রেকর্ডিং কিন্তু চলতেই থাকবে যতক্ষণ না আপনি সেটা বন্ধ করবেন।

রেকর্ডিং হচ্ছে

এভাবে আপনি খুব সহজেই স্ক্রিন ভিডিও করতে পারবেন। আশাকরি পুরো বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

কোন টপিক এর ওপর স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করবেন?

যে টপিক এর ওপর স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করবেন

স্ক্রিন ভিডিও তৈরি করার নিয়ম তো শেখা হলো। এখন প্রশ্ন হতে পারে যে কোন কোন টপিক এর ওপরে আপনি ভিডিও তৈরি করবেন। যেহেতু মোবাইল এর স্ক্রিন শেয়ার করে কনটেন্ট তৈরি করতে হবে সেক্ষেত্রে অবশ্যই মোবাইলের মাধ্যমে করা যাবে এমন কোনো কাজকে আপনার ভিডিও টপিক হিসেবে সিলেক্ট করতে হবে৷ এখানে কিছু ভিডিও টপিক সম্পর্কে আইডিয়া দেয়া হলো৷ আপনার পছন্দ ও পারদর্শিতার ওপর নির্ভর করে যে কোনো একটি টপিক বেছে নিতে পারেন।

১. App রিভিউ ভিডিও

মানুষ বিভিন্ন কাজের খাতিরে বিভিন্ন App সম্পর্কে জানতে প্রথমেই ইউটিউবে সার্চ করে। ইউটিউব এর রিভিউ ভিডিও দেখে ফাইনালি সিদ্ধান্ত নেয় যে App টি ডাউনলোড করবে কি না। তাই আপনি চাইলে বিভিন্ন App ইনস্টল করে তার ব্যবহার পদ্ধতি কার্যকারিতা, সমস্যা ইত্যাদি বিষয় তুলে ধরতে পারেন সরাসরি আপনার স্ক্রিন শেয়ার করে।

তবে অবশ্যই আপনাকে ট্রেন্ডি ও ব্যবহার উপযোগী App সম্পর্কে ভিডিও তৈরি করতে হবে। এবং এমন ভাবে রিভিউ তৈরি করতে হবে যাতে ঐ App এর ভালো খারাপ সকল দিক দর্শক স্পষ্টভাবে বুঝতে পারে। এভাবে আপনি একটি কোয়ালিটি সম্পন্ন ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

২. শিক্ষা বিষয়ক ভিডিও

বর্তমানে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার একটি শক্তিশালী হাতিয়ার হলো ইউটিউব। আগে যেমন কোনো গনিত বা যে কোনো সাবজেক্ট না বুঝলেই গাইড বই খুলে দেখত ঠিক তেমন ভাবে এখন কিছু না বুঝলেই ইউটিউবে এসে সার্চ করে। তাই পড়াশোনা বিষয়ক ভিডিও গুলো এখন ব্যপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। আপনি মোবাইল স্ক্রিনের ওপরেই যে কোনো পড়াশোনা বিষয়ক সমস্যার সমাধান করে তা ভিডিও করতে পারেন৷ যে কোনো টপিক সঠিক ভাবে বোঝানোর মতো দক্ষতা থাকলে আপনি খুব সহজেই এখান থেকে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারবেন।

৩. অডিও বুক তৈরি

বর্তমানে মোবাইল App বা পিডিএফ ফাইল আকারে বিভিন্ন বিখ্যাত বই অনলাইনে একদম ফ্রি তে পাওয়া যায়। এই সকল বই মোবাইলের স্ক্রিনে ওপেন করে বইয়ের স্ক্রিন ভিডিও রেকর্ডিং করে তার সাথে বই পড়ে ভয়েস এড করতে পারেন। এই যে বই ওপেন করে তার সাথে মিল রেখে ভয়েস যুক্ত করা হলো এটাই মূলত অডিও বুক। যারা বই পড়তে বিরক্ত বোধ করে তাদের জন্য এই অডিও বুক এর ইউটিউব ভিডিও গুলো বেশ জনপ্রিয়। তাই আপনি চাইলে মোবাইলের স্ক্রিন শেয়ার করে অডিও বুক তৈরি করতে পারেন।

তবে এক্ষেত্রে প্রথম শর্ত হলো সাহিত্যের প্রতি আপনার অগাধ ভালোবাসা থাকতে হবে। এবং সুন্দর কন্ঠে কথা বলার যোগ্যতা থাকতে হবে।

৪. গেমিং ভিডিও

গেমিং ভিডিও তৈরি করার একমাত্র উপায় হলো স্ক্রিন ভিডিও রেকর্ডিং। আপনার স্ক্রিন শেয়ার না করে গেমিং ভিডিও তৈরি করতে পারবেন না। যে কোনো গেইম কীভাবে খেলবেন, কতোটা পারদর্শিতার সাথে খেলতে পারবেন এই বিষয়ক বিভিন্ন টিপস শেয়ার করে ভিডিও তৈরি করতে পারেন৷ তবে এই টিপস গুলো গেমিং করতে করতেই শেয়ার করতে হবে। তাই আপনি যদি সাম্প্রতিক সময়ের জনপ্রিয় কোনো গেইম নিয়মিত খেলতে আগ্রহী থাকেন তাহলে গেমিং ভিডিও তৈরি করে আপনার ইউটিউব যাত্রা শুরু করতে পারেন৷ আর স্ক্রিন ভিডিও তৈরির সবথেকে জনপ্রিয় একটি বিষয়বস্তু কিন্তু এই গেমিং ভিডিও।

৫. টিপস এন্ড ট্রিকস ভিডিও

মোবাইল ফোনের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করার উপায় সম্পর্কিত ভিডিও তৈরি করতে পারবেন স্ক্রিন ভিডিওর মাধ্যমে। আমাদের হাতে থাকা মোবাইল ব্যবহার করে হয়তো অনেক অভিনব কাজ করা যায়। কিন্তু অনেকেই এই বিষয়গুলো সম্পর্কে জানে না। তাই কীভাবে নতুন নতুন ফিচার খুঁজে বের করে মোবাইলের সর্বোচ্চ সেবা নেয়া যায় সেই বিষয়ে অনেকেই সার্চ করেন ইউটিউবে। আপনি যদি মোবাইলের বিভিন্ন ফিচার সম্পর্কে বিস্তর ধারনা রাখেন তাহলে স্ক্রিন শেয়ার করে টিপস এন্ড ট্রিকস ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

বর্তমানে ইউটিউবে টিপস এন্ড ট্রিকস ভিডিও গুলোর ব্যপক জনপ্রিয়তা রয়েছে।

শেষকথা

যারা ক্যামেরার সামনে না এসে ভিডিও তৈরি করতে চান তাদের জন্য এই স্ক্রিন ভিডিও App টি অনেক উপযোগী একটি উপায়। এতে আপনার ক্যামেরা বা ভালো কোনো ডিভাইস এর জন্য এক টাকাও ইনভেস্ট করতে হবে না। আশাকরি আজকের টিউটোরিয়াল টিউনটি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে।

টিউনটি ভালো লাগলে একটি জোসস করবেন প্লিজ। এমন নতুন নতুন টিউটোরিয়াল ভিডিও পেতে আমাকে ফলো করে রাখতে পারেন। ধন্যবাদ।

Level 6

আমি শারমিন আক্তার। শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 4 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 88 টি টিউন ও 29 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস