Limit Reservable Bandwidth কী? উইন্ডোজের ইন্টারনেট স্পিডের জন্য কি এই সেটিং পরিবর্তন করা উচিত?

Level 12
কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা

আমাদের মধ্যে হয়তোবা অনেকেই কম্পিউটার ব্যবহার করি এবং আমাদের কাজের প্রয়োজনে প্রতিদিন ইন্টারনেট ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু, আপনাদের পিসিতে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনি কি কখনো সমস্যায় পড়েছিলেন? আমাদের পিসিতে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে সবচাইতে বড় সমস্যা হতে পারে ইন্টারনেটের ধীরগতি। দেখা যায় যে, আমাদের পিসিতে পর্যাপ্ত স্পিডের ইন্টারনেট সংযোগ থাকা সত্ত্বেও, অনেক সময় ইন্টারনেট ধীরগতি হয়।

এছাড়াও, অনেক সময় দেখা যায়, আমাদের অজান্তেই Windows Update নিচ্ছে এবং যার ফলে অনেক পরিমাণ ব্যান্ডউইথ খরচ হচ্ছে। আমাদের পিসিতে এসব সমস্যাগুলো আসলে কিসের কারণে হয়?

আজকের এই টিউনটিতে আমি এইসব বিষয়গুলো নিয়েই আলোচনা করব। আপনার পিসিতে কেন Limit Reservable Bandwidth রাখা হয়, এটি কীভাবে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন এর গতিকে প্রভাবিত করে, কীভাবে এটি পরিবর্তন করা যায় এবং এটি আপনার উইন্ডোজের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ, সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা পাবেন আজকের এই টিউনটিতে।

এখানে আপনাকে প্রথমে বলে রাখি যে, আমাদের কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট একটি ব্যান্ডউইথ Reserve অবস্থায় থাকে। অর্থাৎ, এই পরিমাণ ব্যান্ডউইথ আপনার স্বাভাবিক ইন্টারনেট ব্রাউজিং এর ক্ষেত্রে কাজে আসে না। বরং এর বাহিরের ব্যান্ডউইথ গুলো আপনি ব্যবহার করতে পারেন। আর এই বাকি ব্যান্ডউইথ টি বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনের ইন্টারনেটের সাথে সংযোগ এবং সেগুলো আপডেট করার জন্য কাজ করে। তবে, আপনি কিন্তু এই সীমা পরিবর্তনও করে দিতে পারবেন; আর এতে করে কোন একটি নির্দিষ্ট কাজে আপনি সম্পূর্ণ ইন্টারনেট স্পিড ব্যবহার করতে পারবেন।

কিন্তু, এই Reservable Bandwidth টি সবসময় Reserve অবস্থায় থাকে না; প্রয়োজনীয় সময়ে এটি ঠিকই আমাদের মূল ইন্টারনেট ব্রাউজিং এর ক্ষেত্রে কাজে লাগে। যাইহোক, এবার তবে কম্পিউটারের রিজার্ভ ব্যান্ডউইথ সম্পর্কে মূল আলোচনায় চলে যাওয়া যাক।

Limit Reservable Bandwidth কী?

Limit Reservable Bandwidth কী?

আমরা এটি সবাই জানি যে, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার বা আইএসপি আমাদের ইন্টারনেটের ব্যান্ডউইথ নিয়ন্ত্রণ করে। অর্থাৎ, তারা আমাদের রাউটারের ইন্টারনেট স্পিড কমিয়েও দিতে পারে আবার বাড়িয়ে ও দিতে পারে। আপনার আইএসপি আপনাকে যে ব্যান্ডউইথ দেয়, এটির ওপর আপনার কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। শুধুমাত্র আপনি যদি তাদের প্যাকেজ পরিবর্তন করেন, তাহলেই আপনি কম অথবা বেশি ইন্টারনেট স্পিড পেতে পারেন। এবার আপনি যখন রাউটার থেকে আপনার কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন, তখন আপনার কম্পিউটারটি কিন্তু আপনাকে সম্পূর্ণ ইন্টারনেট স্পিড ব্যবহার করতে নাও দিতে পারে।

আপনার কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও কিছু লিমিট রয়েছে। আর এই লিমিট টি উইন্ডোজের সেটিং-এ Built-in ভাবে সেট করা থাকে এবং যা আপনার ইন্টারনেটের গতিকে প্রভাবিত করে।

নেটওয়ার্কের ব্যান্ডউইথ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য উইন্ডোজ Quality of Service (QoS) Packet Scheduler ব্যবহার করে। এটি High Priority কাজ গুলোর জন্য ব্যান্ডউইথ রিজার্ভ করে। যেমন: কম্পিউটারে অন্যান্য কাজের তুলনায় Windows Update ব্যান্ডউইথের একটি উল্লেখযোগ্য পরিমাণ নিয়ে থাকে। ডিফল্ট ভাবে Windows এর Settings-এ ২০% ব্যান্ডউইথ High Priority কাজ গুলোর জন্য রিজার্ভ করা থাকে, আর আমাদের অন্যান্য কাজগুলোর জন্য ৮০% ব্যান্ডউইথ Available থাকে।

Windows এর ডিফল্ট সেটিং-এ যে ২০% ব্যান্ডউইথ সংরক্ষণ অবস্থায় থাকে, আমরা সেই ব্যান্ডউইথ কোন স্বাভাবিক কাজে ব্যবহার করতে পারি না, যদি সেই মুহূর্তে উইন্ডোজ আপডেট হয়। এই ব্যান্ডউইথ টি শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কাজের জন্য ব্যবহার করার জন্য সংরক্ষণ অবস্থায় থাকে। আমাদেরকে শুধুমাত্র সেই ৮০% ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করতে হয়।

তবে, এখানে আপনাকে আরো বলে রাখি যে, যখন আপনার পিসিতে কোন High Priority কাজ চলবে না, তখনই শুধুমাত্র এই ২০ শতাংশ ব্যান্ডউইথ আপনার পিসির সমস্ত অ্যাপের জন্য Available হবে।

যাইহোক, আপনি যদি ইন্টারনেট স্পিড সংক্রান্ত বিষয়গুলো নিয়ে ইউটিউবে অনুসন্ধান করেন, তাহলে অনেকেই আপনাকে এই লিমিট টি ০% এ আনার পরামর্শ দিবে। তারা এখানে এটি বলবে যে, আপনি যদি এটি ০% এ কমিয়ে আনেন, তাহলে আপনার ইন্টারনেটের গতি বাড়বে এবং আপনার পিসি সর্বদা ১০০% ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করতে পারবে; যদি না আপনার পিসিতে কোন উচ্চ অগ্রাধিকারমূলক কাজের জন্য সেই ব্যান্ডউইথের প্রয়োজন হয়। তবে, আপনি আপনার পিসিতে এই লিমিট কতটা সেট করবেন, সেটি আপনার ইচ্ছা।

মূল কথা হলো যে, আপনি যদি এই Settings টি ০ শতাংশে নেমে আনেন, তাহলে আপনি সাধারণ কাজগুলোর জন্য ইন্টারনেট স্পিড ১০০ শতাংশ উপভোগ করতে পারবেন। তবে আপনার পিসিতে যখন High Priority কাজগুলো চলতে থাকবে, তখন আপনাকে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। যাইহোক, আপনি যদি এখন এই Reserve Bandwidth এর Setting-টি পরিবর্তন করতে চান, তবে আপনাকে Limit Reservable Bandwidth সেটিং টি পরিবর্তন করতে হবে।

কীভাবে Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করবেন?

কীভাবে Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করবেন?

আপনি আপনার পিসিতে বেশ কয়েকটি উপায়ে Reserve Bandwidth সেটিং টি পরিবর্তন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনি Local Group Policy Editor, Registry Editor এবং Windows Setting থেকে এটি পরিবর্তন করতে পারবেন।

আপনি এসব উপায় গুলোর মাধ্যমে আপনার পিসির ব্যান্ডউইথ এর সীমা পরিবর্তন করতে পারবেন। আর উইন্ডোজের সেটিং ব্যবহার করেও Limit Reservable Bandwidth নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে, তবে এটি দিয়ে সব কাজ করা যাবে না। আপনি চাইলে সেটিং থেকে এই সীমা আরও বাড়িয়ে দিতে পারেন অথবা কমিয়ে দিতে পারবেন।

যাইহোক, আপনি যদি সমস্ত High-priority কাজগুলোর জন্য ব্যান্ডউইথ নিয়ন্ত্রণ করতে চান, তাহলে Local Group Policy Editor অথবা Registry Editor ব্যবহার করুন। চলুন এবার দেখে নেওয়া যাক, কীভাবে আপনি এই সেটিংটি পরিবর্তন করবেন এবং আপনার মনের মত করে Bandwidth Limit সেট করবেন।

কীভাবে Group Policy Editor এর সাহায্যে Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করবেন?

আপনি যদি Windows Home এ থাকেন, তাহলে আপনাকে এটি বন্ধ করার জন্য Registry Editor অথবা Group Policy Editor এর মধ্যে থেকে যেকোনো একটি বেছে নিতে পারেন।

আমরা যেহেতু প্রথমে Group Policy Editor এর মাধ্যমে এই সেটিং এ যাব, সেজন্য পিসির বাম সাইড থেকে Windows আইকনে ক্লিক করে Edit group policy সার্চ করব এবং এখান থেকে Edit group policy টি Open করব।

এখান থেকে Edit group policy ওপেন করার পর, বাম পাশ থেকে Computer Configuration > Administrative Template > Network > QoS Packet Scheduler অপশনগুলোতে চলে যান।

Group Policy Editor এর সাহায্যে Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন

এবার এখান থেকে আপনি যখন QoS Packet Scheduler অপশনটির উপর একটি ক্লিক করবেন, তখন ডান পাশে আপনি Limit Reservable Bandwidth নামের একটি অপশন দেখতে পাবেন। এরপর আপনি যখন এখানে মাউসের Left button দিয়ে ডাবল ক্লিক করবেন, তখন এটি ওপেন হবে এবং এখান থেকে আপনি এই সেটিংটি পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে, আপনার ক্ষেত্রে এখানে Not configured অপশন সিলেক্ট করা থাকতে পারে; আপনি এখান থেকে এটি Enable করে দিন।

Bandwidth Limit set

যখন উপর থেকে এটি Enable করে দিবেন, তখনই আপনি Bandwidth Limit পরিবর্তন করতে পারবেন। যাইহোক, আপনি এবার এখান থেকে আপনার ইচ্ছামত ব্যান্ডউইথ লিমিট সেট করে দিন। আপনি এখানে যে সংখ্যাটি লিখে দিবেন, সেটি এখানে পারসেন্টেন্স (%)হিসেবে সেট হবে।

সবশেষে, এখান থেকে এটি সংরক্ষণ করার জন্য Apply এবং Ok তে ক্লিক করুন।

আর আপনি যদি কখনো মনে করেন এটি পরিবর্তন করবেন, তাহলে পরবর্তীতে আবার একই সেটিং-এ এসে এটি কনফিগার করতে পারেন।

কীভাবে Registry Editor এর মাধ্যমে Limit Reservable Bandwidth এর সেটিং পরিবর্তন করবেন?

আর আপনি চাইলে Group Policy Editor বাদ দিয়ে, Registry Editor এর মাধ্যমে ও এই ব্যান্ডউইথ লিমিট পরিবর্তন করতে পারেন। যাইহোক, Registry Editor এর মাধ্যমে Bandwidth Limit সেট করার জন্য আপনার কম্পিউটারের Start Menu-তে গিয়ে Registry Editor লিখে সার্চ করুন।

এরপর আপনি যখন Registry Editor টি Open করবেন, তখন আপনাকে কষ্ট করে বিভিন্ন ফাইল এর ভেতরে ম্যানুয়ালি যেতে হবে না। এজন্য আপনি নিচের এই লেখাটি কপি করে উপরের নেভিগেশন বারে পেস্ট করুন এবং তারপর কী-বোর্ড থেকে Enter চাপুন। আর তাহলেই আপনাকে কাঙ্ক্ষিত একটি পেজে নিয়ে আসবে।

Computer\HKEY_LOCAL_MACHINE\SOFTWARE\Policies\Microsoft\Windows

এরপর আপনি এখান থেকে Psched নামে একটি Value খুঁজুন। তবে, আপনি যদি এখানে থাকা ফাইলগুলোর তালিকার মধ্য থেকে এই লেখাটি খুঁজে না পান, তাহলে এখানকার ফাইলের যেকোন একটি ফাঁকা জায়গায় মাউসের রাইট বাটন ক্লিক করুন। মাউসের রাইট বাটনে ক্লিক করার পর New অপশনে গেলে, DWORD (32-bit) Value নামের একটি অপশন দেখতে পাবেন; আপনি এবার এটি সিলেক্ট করুন।

Registry Editor এর মাধ্যমে Limit Reservable Bandwidth এর সেটিং পরিবর্তন

তারপর, এখানে একটি ফাইল তৈরি হবে এবং যেটি আপনাকে এডিট করতে বলবে, তারপর আপনি এটি Edit করে Psched লিখে দিন। এরপর আপনি যখন এই ফাইলটি ডাবল ক্লিক করে Open করবেন, তখন এখানে Value data এর মান 0 দেখতে পাবেন। তার মানে হল যে, এটি নির্দেশ করছে, কোন High Priority কাজের জন্য আপনার ব্যান্ডউইথের (0%) ও সংরক্ষিত থাকবে না। আপনি চাইলে এই মানটিকে 0 হিসেবেই রাখতে পারেন, যদি আপনি সবসময় আপনার পিসির সমস্ত অ্যাপস গুলোর জন্য Full Bandwidth খরচ করতে চান।

Registry Editor to Bandwidth Limit setting

আর অন্যদিকে, আপনি এখানে বিভিন্ন সংখ্যা লিখে এই মান পরিবর্তন করতে পারেন। আপনি এখানে যেই সংখ্যাটি লিখবেন, এটি (%) হিসেবে সেট হবে। উদাহরণস্বরূপ আপনি যদি মনে করেন, আপনার পিসিতে উচ্চ অগ্রাধিকারমূলক কাজগুলোর জন্য মোট ব্যান্ডউইথের ১০% খরচ করবেন, তাহলে এখানে 10 লিখে Save করুন।

আর পরবর্তীতে আপনি যদি কখনো আবার এটি পরিবর্তন করতে চান, তাহলে একইভাবে একই সেটিং-এ এসে এটির সংখ্যা পরিবর্তন করে দিতে পারেন। আর আপনি যদি আপনার উইন্ডোজ কম্পিউটারের জন্য ডিফল্ট সেটিং রেখে দিতে চান, তাহলে এখান থেকে 20% সেট করে দিতে পারেন। এটি Windows এর জন্য ডিফল্ট Reserve Bandwidth সেটিং।

কম্পিউটারের Settings এর মাধ্যমে কীভাবে Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করবেন?

আপনি যদি বেশি ঝামেলায় যেতে না চান এবং Windows file অপশন গুলোতে গিয়ে এই লিমিট পরিবর্তন করতে না চান, তাহলে আপনার জন্য সহজ সমাধান হচ্ছে সেটিং থেকে Bandwidth Limit পরিবর্তন করা। যাইহোক, আপনি Setting App ব্যবহার করে আপনার উইন্ডোজ আপডেট এর জন্য সংরক্ষিত Bandwidth Limit টি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন যে, এই পদ্ধতিতে আপনি শুধুমাত্র উইন্ডোজ আপডেটের জন্য সংরক্ষিত Reserve Bandwidth টির সেটিং পরিবর্তন করতে পারবেন। এই পদ্ধতিতে আপনি উপরের দেখানো বিষয়গুলোর মত High Priority কাজের জন্য বরাদ্দ Bandwidth Limit কিন্তু পরিবর্তন করতে পারবেন না।

যাই হোক, আপনি এবার আপনার পিসির Setting-এ যাবার জন্য কীবোর্ড থেকে Win + I বাটন প্রেস করুন অথবা Manually সেটিং-এ চলে যান। এরপর এখান থেকে Update & Security অপশনে চলে যান এবং তারপর Windows Update > Advance options > Delivery Optimization > Advance options অপশন গুলোতে নেভিগেট করুন।

 

এরপর আপনি এখানে চারটি অপশন দেখতে পাবেন। যেখানে আপনি প্রত্যেকটি অপশনের বিষয়বস্তু গুলোকে পরিবর্তন করার জন্য সেটির বাম পাশের বক্সটিতে টিক মার্ক দিয়ে দিন এবং তারপর মাউস দিয়ে ইচ্ছামত সেগুলো কমিয়ে কিংবা বাড়িয়ে দিন।

এখানে থাকা সমস্ত অপশন গুলো মূলত আপনার পিসির Windows Update সংক্রান্ত বিষয় গুলোর জন্য। এখানে উইন্ডোজ আপডেট এর বাহিরের High Priority অ্যাপস গুলোর জন্য কোন Settings নেই। তবে, আপনি চাইলেও উপরে আলোচনা করা দুইটি অপশন ফলো করে সেই কাজটি করে নিতে পারেন।

আপনার কম্পিউটারে কি Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করা উচিত?

কম্পিউটারে কি Limit Reservable Bandwidth পরিবর্তন করা উচিত

আপনাদের কম্পিউটারে অনেক সময় ইন্টারনেটের ধীরগতি দেখা দেয়। আর এসময় আপনি যদি ইউটিউবে অথবা গুগলে অনুসন্ধান করেন, তাহলে তাদের মধ্যে অনেকেই হয়তোবা আপনাকে এখান থেকে Limit Reservable Bandwidth কমিয়ে ফেলার পরামর্শ দিবে। এখানে তাদের যুক্তি হলো, এটি কমিয়ে দিলে আপনি আপনার ব্যান্ডউইথের ১০০% ব্যবহার করতে পারবেন। যদিও তাদের কথাটি ঠিক, তবে এটি পুরোপুরি সত্য নয়। কেননা, অনেকেই বলতে পারে যে, এখানে যদি ডিফল্ট সেটিং হিসেবে ২০% সেট করা থাকে, তাহলে আপনার কম্পিউটারে আপনি সর্বদা ২০% ব্যান্ডউইথ কম পাবেন।

এখানে এই কথাটি কিন্তু মোটেও সত্য নয়। মনে রাখবেন যে, Reserved Bandwidth এর এই অংশটুকু কিন্তু Permanently unavailable নয়। অর্থাৎ, এখানে আপনি যে ব্যান্ডউইথটি সেট করে দিবেন, এটি কিন্তু সব সময় সংরক্ষিত অবস্থায় থাকবে না। যখন আপনার Windows-এ কোন High-priority কাজ সম্পাদন হবে না, তখন আপনি আপনার ইন্টারনেটের ১০০% ব্যান্ডউইথ ই ব্যবহার করতে পারবেন।

যদি আপনার কাছে এই Reserve Bandwidth পরিবর্তন করার অন্য কোনো কারণ থাকে, তাহলে আপনি সে অনুযায়ী এটি পরিবর্তন করতে পারেন। এই Reserved Bandwidth টি কেন ব্যবহার হয়, সেটি সম্পর্কে আমি আলোচনা করলাম। আপনার যদি মনে হয়, যেকোন কারণে আপনার এটি পরিবর্তন করা উচিত, তাহলে সেটি করতে পারেন।

আর আপনি যদি আপনার ইন্টারনেটের গতি বাড়ানোর জন্য Reserve Bandwidth পরিবর্তন করতে চান, তাহলে আমি আপনাকে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়ানোর জন্য অন্য কোন পদ্ধতির উপর নির্ভর করতে বলব। কেননা, এই পদ্ধতিটির মাধ্যমে আপনি আপনার উইন্ডোজের Internet speed বাড়াতে পারবেন না।

শেষ কথা

উপরের আলোচনা থেকে আমি নিশ্চিত যে, এখন থেকে আপনি আপনার ইন্টারনেটের ব্যান্ডউইথ লিমিট কন্ট্রোল করতে পারবেন। তবে আপনি সবসময় মনে রাখবেন যে, আপনার পিসিতে দুর্বল ইন্টারনেটের মূল কারণ এই Default Bandwidth Limit নয়। এক্ষেত্রে, দুর্বল ইন্টারনেটের স্পিডের জন্য আপনার Computer-এ অথবা আপনার Wi-Fi এ অন্য কোন কারণও থাকতে পারে।

যাইহোক, আপনি তবে এখন থেকে Limit Reservable Bandwidth এর এই সেটিং টি পরিবর্তন করুন এবং আপনার কম্পিউটারে ইন্টারনেটের স্পিড পরীক্ষা করুন। ধন্যবাদ, আসসালামু আলাইকুম।

Level 12

আমি মো আতিকুর ইসলাম। কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 253 টি টিউন ও 87 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 47 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।

“আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।” —হযরত মোহাম্মদ (সঃ)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস