এখন থেকে আপনার ছবিটি অটোমেটিক এডিট হবে ডিএসএলআর ক্যামেরার মতো

Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

হ্যালো, বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই। আশা করছি আপনারা সকলেই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। বন্ধুরা আপনাদের মধ্যে অনেকেই নিজেদের ছবি এডিট করে থাকেন। সেসব বেশিরভাগ ছবি এডিট করার উদ্দেশ্য হচ্ছে পিছনের ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে সেই ছবিটিকে ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবির মত আকর্ষণীয় করে তোলা।

যেখানে আমাদের ছবিটি এডিট করার উদ্দেশ্য থাকে যে ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড কে কিছুটা ঝাপসা করে দেওয়ার। মোবাইল দিয়ে কিংবা কম্পিউটার দিয়ে সেই ছবিটি এডিট করতে আমাদের কিন্তু অনেক সময় চলে যায়। বন্ধুরা টিউনটি শুরু করার আগে প্রথমে আপনাদেরকে বলে নিচ্ছি যে, আজকের এই টিউনটিতে বলা কথাগুলো অনেক দীর্ঘ হলেও আপনার ছবিটির কাজ করার ক্ষেত্রে সেটি হবে অনেক সংক্ষিপ্ত সময়।

মোবাইল দিয়ে তোলা একটি ছবিকে ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবির মত করতে এবং সে ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করতে অনেক সময়ের প্রয়োজন পড়ে। যেখানে একটি ছবিকে পারফেক্ট ভাবে ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবির মত করতে প্রায় এক ঘন্টার মতো চলে যেতে পারে। কিন্তু আপনার এই কাজটি যদি মাত্র কয়েক মিনিটে হয়ে যায়, বলতে গেলে যদি দুই থেকে তিন মিনিটের মধ্যেই হয়ে যায় তবে ব্যাপারটি কেমন হয়?

নিশ্চয় এ বিষয়টি আপনাদের কাছে অনেক ভালো হবে। আমরা যখন স্বাভাবিকভাবে বিভিন্ন এডিটিং সফটওয়্যার দিয়ে আমাদের নিজেদের ছবি যেরকম ভাবে এডিট করে সেটিতে সময় এবং শ্রম অনেকটা বেশি লাগে। কিন্তু ভালো এডিটিং না জানলে সেখান থেকে কিন্তু ব্যাকগ্রাউন্ড কে ভালোভাবে রিমুভ করে আবার নতুন ব্যাকগ্রাউন্ডকে মানানসই করে লাগানো যায় না। বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে কোন একটি ফটো থেকে আপনি আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড কে রিমুভ করে দিয়ে তারপর সেই ছবির পেছনে কোন ছবি দিয়ে সেটিতে ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ইফেক্ট যুক্ত করবেন। যার ফলে সেই ছবিটি মনে হবে যেন এটি ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা।

শুধু তাই নয়। আপনাদের মধ্যে যারা স্টুডিওতে কাজ করেন, তারাও আজকের এই টিউনটির মাধ্যমে অনেক উপকৃত হতে পারবেন। স্টুডিওতে ক্যামেরা দিয়ে কোন ছবি তোলার পর সেটি কম্পিউটারে ফটোশপ দিয়ে ব্যাকগ্রাউন্ড টি পরিবর্তন করতে কয়েক মিনিট সময় চলে যায়। কিন্তু ফটোশপ দিয়ে যখন কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে পাল্টানো হয় তখন সেটি কিন্তু বোঝা যায় যে এ ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড কে পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে।

যেখানে ফটোশপ দিয়ে কোন ছবিতে ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করতে সেই মানুষের ছবির মাথার দিকে চুলের অনেকটা অংশ কেটে যায়। কেননা এখানে মেনু্য়ালি সেই ছবিটি কাটা হয়। মোট কথা বলতে গেলে ফটোশপ দিয়ে যদি কোন ছবিকে এডিট করতে হয় তবে সেখানে অনেক সময় চলে যায়। আপনি যদি কোন ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার প্রক্রিয়াটি ফটোশপ দিয়ে না জানেন তবে আজকের এ প্রক্রিয়াটি মাধ্যমে কোন ফটো থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করতে পারবেন একদম পারফেক্ট ভাবে। এছাড়া আপনি নিজের ফটো কিংবা অন্য কোন বস্তুর ব্যাকগ্রাউন্ডকেও পাল্টাতে পারবেন।

যদিও নিজের ছবি কিংবা কোনো বস্তু থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করার সফটওয়্যার প্লে স্টোরে রয়েছে। কিন্তু সেসব অ্যাপের মাধ্যমে ফটো থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করা গেলেও সেই ফটোতে পারফেক্ট ভাবে ব্যাকগ্রাউন্ড কে ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ঝাপসা করা যায় না। যে কাজটি কিন্তু আপনি এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে করতে পারবেন।

তবে আজকের দেখানো এই পদ্ধতিতে আপনি যদি কোনো ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে রঙ্গিন করতে চান তবে সেটি এক ক্লিকেই করে নিতে পারবেন এবং সেটি হবে ফটোশপ দিয়ে এডিট করার চাইতেও অনেক উন্নত। চলুন তবে কথা না বাড়িয়ে দেখে নেওয়া যাক যে এটি আপনি কিভাবে করবেন‌?

যেভাবে কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ডিএসএলআর দিয়ে তোলা ছবির মতো করবেন

কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে অথবা সেই ব্যাকগ্রাউন্ড ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবির মত করার প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত সহজ এবং আপনারা এটি সকলেই করতে পারবেন। এটি আপনি কিভাবে করবেন তা নিচে পর্যায়ক্রমে দেওয়া হলো। এজন্য অবশ্যই সম্পূর্ণ টিউনটি মনোযোগ দিয়ে দেখার অনুরোধ রইলো।

১. এজন্য আপনাদেরকে প্রথমে একটি ওয়েবসাইটে চলে যেতে হবে। এজন্য আপনাকে যে কোন একটি ব্রাউজার সিলেক্ট করে নিয়ে সেখানে গিয়ে সার্চ করতে হবে remove.bg লিখে। এটিই হচ্ছে সেই ওয়েবসাইটের ঠিকানা, যেখানে গিয়ে আপনাকে কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে ইছা মত পরিবর্তন এবং কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ডিএসএলআর ছবির মত করতে পারবেন।

তো, আমি এজন্য remove.bg ওয়েব সাইটটিতে প্রবেশ করছি। আপনারা চাইলে এই লিংকে ক্লিক করে ওয়েবসাইটিতে চলে যেতে পারেন।

Remove bg

২. ওয়েবসাইটটিতে চলে আসার পর ঠিক নিচের প্রথম চিত্রের মত দেখতে পাবেন। যেখানে আপনাকে একটি ফটো আপলোড করতে হবে। এই ফটোটি হচ্ছে, আপনি যে ফটো টির ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করবেন অথবা ব্যাকগ্রাউন্ড ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ঝাপসা করবেন সেটি এখানে আপলোড করে দিতে হবে।

পরীক্ষামূলক ভাবে আমি এখানে দেখানোর জন্য আমার একটি ছবি আপনাদেরকে এডিট করে দেখাবো। এজন্য ওয়েবসাইটটি থেকে 'Upload image' এ ক্লিক করতে হবে এবং তারপর আপনার মোবাইলের গ্যালারিতে নিয়ে যাবে, যেখান থেকে আপনার সেই ফটো টি সিলেক্ট করে দিতে হবে।

remove bg website

বন্ধুরা আপনাদের মধ্যে যারা কোন স্টুডিওতে কাজ করেন, যাদেরকে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ফটো এর ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করতে হয় তারা তাদের কম্পিউটার থেকে এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করে সেখান থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে নিয়ে পরবর্তী এডিট এর কাজগুলো করতে পারেন। মোবাইলে এবং কম্পিউটারে কাজ করার পদ্ধতি প্রায় একই।

৩. কোন একটি ফটো সিলেক্ট করে দেওয়ার পর সেটি এখানে আপলোড হবে। ফটোটি আপলোড হওয়া শেষ হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেই ফটো থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড টি ডিলিট হয়ে যাবে। মজার ব্যাপার হলো আপনার ফটো টিতে গিয়ে ব্যাকগ্রাউন্ডে এমনভাবে ডিলিট করা হবে যাতে কোনো খুঁত থাকে না। আপনার ফটো টি থেকে কোন জায়গা গুলো কে বাদ দেওয়া উচিত সেগুলো এই ওয়েবসাইট ই ঠিক করে দিবে। যেখানে আপনি আপনার মনের মত একটি ব্যাকগ্রাউন্ড মুক্ত ছবি উপহার পাবেন।

এখানে আপনি কোন মানুষের ছবি বাদে যেকোনো ধরনের ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ডকে আলাদা করতে পারেন। এখানে আপনি যদি কোনো লোগো থেকে তার ব্যাকগ্রাউন্ড ডিলিট করতে চান তবে সেটিও পারবেন, আবার কোন পশু প্রাণী এর ছবি থেকেও ব্যাকগ্রাউন্ড কে রিমুভ করে দিতে পারবেন। এখানে কোন ছবি আপলোড করা হলে সেটি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর মাধ্যমে ব্যাকগ্রাউন্ড এখানে কোন ছবি আপলোড করা হলে সেটি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর মাধ্যমে ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করে দেয়। যা সত্যিই অনেক মজাদার।

৪. ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করে দেওয়ার পর আপনি চাইলে সেই ছবিটিকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন যদি আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড মুক্ত ছবির প্রয়োজন পড়ে। অনেক সময় আমাদের বিভিন্ন লোগো কিংবা কোন বস্তুর ব্যাকগ্রাউন্ড মুক্ত ছবির প্রয়োজন পড়ে। আপনার যদি ব্যাকগ্রাউন্ড মুক্ত ছবির প্রয়োজন পড়ে তবে নিচের Download-এ ক্লিক করে সেটি ডাউনলোড করে রেখে দিতে পারেন।

তবে আমাদের এখানে ব্যাকগ্রাউন্ড মুক্ত কোন ছবির প্রয়োজন নেই। আমরা এখানে দেখব যে কিভাবে ব্যাকগ্রাউন্ড কে ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ঝাপসা এবং এক ক্লিকেই ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করা যায়। এটি করার জন্য নিচের দ্বিতীয় চিত্রে দেখানো উপরের Edit অপশনে ক্লিক করতে হবে।

৫. এবার আপনার ফটো এর ব্যাকগ্রাউন্ড ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ঝাপসা করার জন্য এখানে প্রথমেই কিছু অপশন দেখতে পাবেন। যেগুলোতে ক্লিক করার মাধ্যমে আপনার ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ডকে প্রয়োজনমতো ঝাপসা করে নিতে পারবে। এখানে খুব নিখুঁতভাবে আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা হয়ে যাবে। আপনার ছবিটির কোয়ালিটি যদি ভালো হয় এবং এখান থেকে যদি আপনি ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা করে নেন তবে দেখে বোঝার উপায় নেই যে এই ছবিটি মোবাইল দিয়ে তোলা নাকি কোন ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা।

৬. নিচের চিত্রে আমি আমার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কিছুটা ঝাপসা করে দিয়েছি। এখানে দেখতে পাচ্ছেন যে খুব সুন্দরভাবেই আমার ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা হয়ে গিয়েছে। আমি যে ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা করে দিয়েছি সেটি ছিল আমার ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি। তবে আপনি চাইলে নিচে কিছু ব্যাকগ্রাউন্ড যুক্ত ছবি রয়েছে যেগুলোকে আপনি আপনার ছবির পেছনে ব্যবহার করতে পারেন। কিভাবে এখান থেকে ছবি নিয়ে আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ডে যুক্ত করবেন সে ধাপটি নিচে দেওয়া হয়েছে।

৭. আপনার ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড-এ আকর্ষণীয় কিছু ছবি দেওয়ার জন্য নিচেই কিছু ছবি দেখতে পাবেন, যেখানে আপনার ছবিটির পেছনে সেই ব্যাকগ্রাউন্ড টি দেওয়া রয়েছে। এবার আপনি এখান থেকে দেখে দেখে আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনার ছবি সিলেক্ট করতে পারবেন। তবে এখানে যেসব ফটো গুলো দেওয়া রয়েছে সেগুলোর সমস্তই অনেক আকর্ষণীয়।

৮. তবে আপনি এখান থেকে যেসব ফটো গুলো আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড এর জন্য যুক্ত করবেন সেসবের ব্যাকগ্রাউন্ড ও blur বা ঝাপসা করে দিতে পারবেন। যে কারণে কেউ বুঝতেই পারবে না যে আপনি কোন জায়গায় দাঁড়িয়ে ছবি তুলেছেন, এতে করে আপনার ছবিটি অনেক আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। এই ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড এর জন্য ছবি নেওয়ার পাশাপাশি আপনি চাইলে আপনার গ্যালারি থেকে ছবি নিয়েও আপনার ব্যাকগ্রাউন্ডে যুক্ত করে দিতে পারেন। কিভাবে গ্যালারি থেকে ছবি নিয়ে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ডে যুক্ত করবেন সে ধাপটি নিচে দেওয়া হয়েছে।

৯. নিজের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড-এ ইচ্ছামত ছবি যোগ করার জন্য নিচের প্রথম চিত্রে দেখানো জায়গায়় 'Select Photo' অপশনে ক্লিক করতে হবে। যেখান থেকে আপনাকে আপনার মোবাইলের গ্যালারিতে নিয়ে যাবে এবং এখান থেকে আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এর জন্য যেকোনো একটি ফটো সিলেক্ট করে নিতে হবে। তো, আমি এখান থেকে একটি ফটো সিলেক্ট করে নেব, যেটি আমি আমার ছবিটি ব্যাকগ্রাউন্ড এ দিতে চাচ্ছি।

১০. এবার নিচের চিত্রে দেখতে পারছেন যে আমার সেই ছবিটির পেছনের অন্য একটি ব্যাকগ্রাউন্ড খুব সুন্দর ভাবে পরিবর্তন হয়ে গিয়েছে। যেখানে দেখে বোঝার উপায় নেই যে আমি এই ছবিটি কোথায় তুলেছি। এবার আপনি চাইলে এই ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড টিকেও ডিএসএলআর ক্যামেরার মত ঝাপসা করে দিতে পারেন।

১১. আপনি নিচের চিত্র দেখতে পাচ্ছেন যে আমার পরিবর্তিত ব্যাকগ্রাউন্ড টিকে ঝাপসা করে দেওয়া হয়েছে। এভাবে করে চাইলে আপনি আপনার আসল ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে অন্য একটি ছবি দিয়ে সেটির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা করে দিতে পারেন। যার ফলে আপনার ছবিটি আরো আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

Background blur

এ তো গেল ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে পাঠিয়ে দিয়ে সেটিতে অন্য একটি ব্যাকগ্রাউন্ড যুক্ত করে সেটি ঝাপসা করে দেবার প্রক্রিয়া। তবে আপনাদের মধ্যে যারা স্টুডিওতে কাজ করে থাকেন তারা চাইলেই এই ওয়েবসাইটটিকে ব্যবহার করে কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে খুব সহজেই নিমিষেই রঙ্গিন করে ফেলতে পারেন। কিভাবে এটি করবেন তা পরবর্তী ধাপগুলো তে আলোচনা করা হয়েছে।

১২. আপনি এর নিচে দেখতে পাবেন যে ছবিগুলোর পিছনে এক রঙের ব্যাকগ্রাউন্ড শো করছে। এবার আপনি যদি কোন ছবির রঙ্গিন কপি বের করতে চান তবে এগুলোর যেকোনো একটা রং সিলেক্ট করে তা করতে পারেন।

১৩. এছাড়া এখানকার নিচের color আইকনে ক্লিক করে ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ডকে পারফেক্ট ভাবে রঙ্গিন করতে পারবেন।

তো এগুলোই ছিল একটি ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে সঠিক ভাবে পরিবর্তন করে সেটি ঝাপসা করে দেওয়ার প্রক্রিয়া। তবে এসব কাজের পরে আমাদের দরকার সেই ছবিটিকে আমাদের মেমোরিতে সেভ করতে। যাতে করে পরবর্তীতে সেটি কোন কাজে ব্যবহার করতে পারি।

১৪. কোন একটি ছবির পূর্ণাঙ্গ কাজ করে সেটিকে মেমোরিতে সেভ করার জন্য আপনাকে ছবিটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। ছবিটি ডাউনলোড করার জন্য ওপরে একটি ডাউনলোড আইকন দেখতে পাবেন, যেমনটি আপনি নিচের প্রথম চিত্রে  দেখতে পাচ্ছেন। ওই আইকনে ক্লিক করার পর একটি পপআপ উইন্ডো আসবে সেখান থেকে 'Download Image' এ ক্লিক করার পর নিচের Download বাটনে ক্লিক করে সেটি ডাউনলোড করে নিবেন। তারপর আপনি সেখান থেকে সেই ছবিটি যে কোন মাধ্যমে শেয়ার কিংবা ব্যবহার করতে পারেন।

১৫. যেমনটি নিচে আপনি আমার ডাউনলোড করা ছবিটি দেখতে পারছেন। যেখানে আমি আমার ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড কে পাল্টিয়ে দিয়ে নতুন একটি ব্যাকগ্রাউন্ড দিয়ে সেটি ঝাপসা করে দিয়েছি।

বন্ধুরা এভাবে করে আপনি আপনার নিজস্ব ছবি কিংবা যে কোন ধরনের বস্তুর ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ডকে আলাদা করতে পারেন। এভাবে করে আপনি চাইলে আপনার কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড কে পাল্টিয়ে দিয়ে সেটিকে ডিএসএলআর ক্যামেরার ছবির মত করতে পারেন।

শেষ কথা

আমাদের সবারই সামর্থ্য নেই একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা কেনার। তবে অনেকের ইচ্ছা থাকে যে, তার মোবাইল দিয়ে তোলা ছবিটি যেন ডিএসএলআর ক্যামেরার মত হয়। আর এজন্য অনলাইন থেকে বিভিন্ন অ্যাপ ডাউনলোড করে এবং সেগুলোর মাধ্যমে নিজের ছবিটিকে আকর্ষণীয় করে তোলার চেষ্টা করে। তবে এই চেষ্টাটি করতে হয়তোবা অনেক সময় চলে যায় এবং যেখানেখানে সেই ছবিটি ও আকর্ষণীয় হয়না। তবে আপনি যদি উপরের দেখানো পদ্ধতিতে কোন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে দিয়ে সেটির ব্যাকগ্রাউন্ড ঝাপসা করে দেন তবে সেটি অনেকটা ডিএসএলআর ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবির মত হয়ে যাবে এবং এবং এতে করে আপনাদের সময় এবং শ্রম অনেকটা বেঁচে যাবে।

আপনি যদি আপনার ছবিকে এডিটিং করতে ভালবাসেন তবে এই ওয়েবসাইটটি থেকে আপনার ছবিটিকে এডিট করে দেখতে পারেন। আশা করছি ওয়েবসাইটটি আপনাদের অনেক উপকারে দেবে।

বন্ধুরা তবে আপনি আপনার তোলা ছবিটিকে এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ডিএসএলআর ক্যামেরার মত করে বানানোর চেষ্টা করুন এবং আমিও চলে যাই পরবর্তী কোন টিউন করার প্রস্তুতি নিতে, ইনশাআল্লাহ। পরবর্তী সেই টিউনটি সবার আগে দেখতে আমাকে ফলো করে রাখুন। যাতে করে আপনাদের জন্য আরো নতুন নতুন টিউন করার উৎসাহ পাই। তাহলে পরবর্তী টিউন দেখার আমন্ত্রণ জানিয়ে এখানেই শেষ করছি আজকের টিউনটি। আসসালামু আলাইকুম।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 120 টি টিউন ও 51 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 13 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস