কারেন্ট আগে না কি ভোল্টেজ আগে? ওহমস ল এর উৎকৃষ্ট উদাহরন

ডিম আগে নাকি মুরগী? এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর না মিললেও কারেন্ট আগে না কি ভোল্টেজ আগে এর উত্তর নিশ্চয় আছে, আজকে আমরা এই কারেন্ট, ভোল্টেজ ও এদের সাথে সম্পর্ক যুক্ত অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে আলচনা করব এবং কারেন্ট আগে নাকি ভোল্টেজ তা জানার চেষ্টা করব। তাহলে কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক.

বিষয়টি ভাল ভাবে উপলব্ধি করার জন্য আপনার কিছু বিষয়ে পরিষ্কার জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। সময় পেলে এখান থেকে জেনে আসবেন। এছাড়াও যে বিষয় গুলো একেবারে না জানলেই নয় সেগুলো নিচে আলচনা করা হল।

কারেন্ট কি?
অনেকেই হয়তো মনে করবেন এ আর এমন কি? আমরা যার মাধ্যমে লাইট, ফেন, টিভি, মোটর ইত্যাদি চালাই তা ই কারেন্ট। অনেকটা ঠিক হলে ও আসলে পুরাপুরি এটা ঠিক নয়। বিদ্যুৎ আর কারেন্ট এক জিনিস নয়। বিদ্যুৎ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাইলে এখান থেকে জেনে নিন। যাই হোক টপিকে আসা যাক।

ইলেকট্রন বা চার্জ এর প্রবাহের হারকেই কারেন্ট বলে। অর্থাৎ নির্দিষ্ট কোন সময়ে কোন পরিবাহির ভেতর দিয়ে যে পরিমান চার্জ বা ইলেকট্রন প্রবাহিত হয় তাকেই কারেন্ট বলে।

সংজ্ঞা থেকে স্পষ্ট বুঝা যাই এখানে ইলেকট্রনকে এক স্থানে যেতে হবে, তাই কারেন্ট শুধু চল বিদ্যুতেই থাকে কিন্ত স্থির বিদ্যুতে কারেন্ট থাকে না।

ভোল্টেজ কি?
ভোল্টেজ হল তড়িৎ চালক বল। অর্থাৎ ইলেকট্রন কোথায় থেকে কোথায় যাবে ও কত গতিতে যাবে তা ভোল্টেজের উপর নিরভর করে। মনে করুন একটা ফুটবল কে মাটিতে রাখা আছে। ফুটবলটি তখনি চলতে শুরু করবে যখন কোন বল প্রয়োগ করা হবে। ফুটবলটির গতি ও দিক নিরভর করবে বলের উপর। তাই কারেন্টের গতি, পরিমান ও দিক নিরভর করবে ভোল্টেজের উপর। বিষয়টা আরো একটু পরিষ্কার করা যাক।

উপরের ফটো থেকে আপনারাই বলুন পানি কোন পাত্র থেকে কোন পাত্রে যাবে? অবশ্যই ক থেকে খ পাত্রে যাবে। এখানে পানি কোন পাত্র থেকে কোন পাত্রে ও কত গতিতে যাবে তা নিরভর করবে পাত্রের পানির উচ্চতার উপর, পানির পরিমান কোন পাত্রে বেশি তার উপর নিরভর করে না। তেমনি কারেন্ট ও কোন দিক থেকে কোন দিক ও কত গতিতে যাবে তা চার্জের উপর নিরভর করে না ভোল্টেজের উপর নিরভর করে। কিন্তু ভাল ভাবে লক্ষ করে দেখেন পানির গতি শুধু পানির উচ্চতার উপর নির্ভর করে না, পাইপ এর প্রশস্ততার উপর ও অনেকটা নির্ভরশীল। তেমনি কারেন্টের গতি ও শুধু ভোল্টেজের উপর নির্ভর করে না, এর জন্য বাধা বা রেজিস্টেন্স এর উপর ও নির্ভর করে। এখন দেখা যাই যে পানির পাইপের প্রস্থ বা পরিবাহির রেজিস্টেন্স সময়ের সাথে বা প্রবাহের সাথে কমে না বা বাড়ে না কিন্তু পানির উচ্চতা বা ভোল্টেজ সময়ের সাথে বা প্রবাহের সাথে এক দিকে কমে আর অন্ন দিকে বাড়ে অর্থাৎ পার্থক্য কমে যায়। যেহেতু রেজিস্টেন্স এর সময়ের সাপেক্ষে কোন পরিবর্তন হয় না তাই এটি একটি ধুরুবক। আমরা আর ভাল ভাবে লক্ষ করি, পানির উচ্চতা বাড়লে প্রবাহ বাড়ে আর উচ্চতা কমলে প্রবাহ কমে। তেমনি ভোল্টেজ বাড়লে বিদ্যুৎ প্রবাহ বা কারেন্ট বাড়ে আর ভোল্টেজ কমলে কারেন্ট কমে। আর এই কথাটিই ওহম সাহেব তার বিখ্যাত সূত্রটিতে বলে গেছেন, কোন আবদ্ধ বর্তনীতে প্রবাহিত কারেন্ট ও তড়িৎ চালক বল পরস্পর সমানুপাতিক। অর্থাৎ, V α I বা, V = IR বা, I = V/R বা, R = V/I
[বিঃদ্রঃ কারেন্ট সব সময় উচ্চ ভোল্টেজ থেকে নিন্ম ভোল্টেজে প্রবাহিত হয়]

ভোল্টেজ ও কারেন্টের উৎপত্তি কিভাবে?
প্রত্যেক পদার্থই অসংখ্য অনু ও পরমানু দ্বারা গঠিত। আর পরমানুতে ইলেকট্রন বিদ্যমান। আর আমরা জানি ইলেকট্রনের প্রবাহের হারই কারেন্ট, আর এই ইলেকট্রন তখনি প্রবাহিত হবে যখন কোন বল তাকে ধাক্কা দেবে বা চাপ দেবে, অর্থাৎ কারেন্ট প্রবাহের জন্য ভোল্টেজ প্রয়োজন। আর প্রয়োজন একটা আবদ্ধ বর্তনী। আর এই ভোল্টেজ উৎপাদনের জন্য বাহিরে থেকে শক্তি প্রদান করতে হয়।

জেনারেটর, সৌর বিদ্যুৎ বা ব্যাটারি সব কয়টি উৎস থেকেই আমরা দেখতে পাই, প্রথমে ভোল্টেজ বা বিভব পার্থক্য সৃষ্টি হয়, এর পর যখন কোন পরিবাহি বা লোড দ্বারা সার্কিট আবদ্ধ করা হয় তখন বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয়।

উপরের এতসব আলচনা থেকে এটা স্পষ্ট যে, ভোল্টেজ আগে ও কারেন্ট পরে।

টিউন টি ভাল লাগলে লাইক ও শেয়ার করবেন।
এমনই মজাদার ও কাজের অ্যারো সব টিউন ও ভিডিও পেতে আমার ব্লগ, ইউটিউব চেনেলফেসবুক ভিজিট করুন।
[এই টিউনটি একই সাথে প্রকাশিত হয়েছে ল্যাবইইই ডট কম এ]

Level 0

আমি ছায়াদ আহম্মেদ আব্দুল্লাহ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস