বুক রিভিউ লিখে শুরু করুন নিজের অনলাইন ইনকাম!

Level 6
শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর

বর্তমান সময়ে অনলাইন ইনকামের কতশত পথ যে খোলা আছে তা হয়তো আমরা জানি না। আর জানি না বিধায়ই নিজের অবসর সময়টাকে কাজে লাগিয়ে একটু বাড়তি আয়ের পথ খুঁজে বের করতে পারি না। তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই, আজকের টিউনের মাধ্যমে আমি খুব সহজ একটি অনলাইন ইনকামের পথ দেখিয়ে দেব। কাজটি হলো বুক রিভিউ করা। বর্তমানে ইন্টারনেটে বুক রিভিউ এর উচ্চ চাহিদা রয়েছে, তাই এই সেক্টরে কাজ করে খুব সহজেই আয় করতে পারবেন।

কনটেন্ট রাইটিং এর একটি গুরুত্বপূর্ণ শাখা বলা যায় বুক রিভিউ রাইটিং কে। এই সেক্টরে কাজ করে ইতোমধ্যেই সফল হয়েছেন অনেক কনটেন্ট রাইটার। বর্তমানে অনেকের কাছেই এটি একটি ফুল টাইম পেশা হিসেবে বিবেচিত। কেননা তারা এই কাজ থেকেই আশানুরূপ ইনকাম করতে পারছেন তা-ও আবার ঘরে বসে। চাইলে আপনিও পারেন বুক রিভিউ লিখে অনলাইনে ইনকাম শুরু করতে।

কীভাবে বুক রিভিউ করবেন, কোথায় কাজ পাবেন, এই কাজটি করতে কী কী প্রয়েজন হবে তার বিস্তারিত তথ্য নিয়ে আজকের টিউনটি সাজানো হয়েছে।

বুক রিভিউ কী?

বুক রিভিউ কী

কোনো একজন লেখকের বই পড়ে ঐ বই সম্পর্কে নিজের মতামত দেয়া, বইয়ের প্রেক্ষাপট ও ঘটনা সম্পর্কে ধারণা দেওয়া এবং বইটি পড়তে পাঠকদের আগ্রহী করে তোলার জন্য যে লেখা প্রকাশ করা হয় তাই বুক রিভিউ। মোটকথা আপনার রিভিউ লেখাটি পড়ে যেন পাঠক বুঝতে পারে বইটি কোন ক্যাটাগরির, বইটি পড়লে তাদের কী কাজে আসবে, বইয়ের মধ্যের রহস্য কী ইত্যাদি। মোটামুটি ভাবে যারা আউট বই পড়তে পছন্দ করে তাদের জন্য বুক রিভিউ খুব একটা কঠিন কাজ বলে মনে হবে না। এই রিভিউ লিখে আপনি বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্মে লেখা বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

যদিও আগে পাঠক নিজের ভালোলাগা থেকেই বই পড়ে রিভিউ করতো। তবে সেই রিভিউ গুলো খুব বেশি মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারতো না। কিন্তু প্রযুক্তির কল্যাণে এটি একটি কমার্শিয়াল রূপ ধারণ করেছে। আর দিনে দিনে বুক রিভিউ বিষয়টি খুব জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছে। বর্তমানে পাঠক কোনো একটি বই পড়ার আগে ইন্টারনেট সার্চ করে ঐ বইটির রিভিউ পড়ে নেয়। রিভিউ দেখে বইটি পছন্দ হলে তবেই তা পড়া শুরু করেন।

বুক রিভিউ করে আয় করার জন্য কী কী প্রয়োজন?

বুক রিভিউ করে আয় করার জন্য কী কী প্রয়োজন

একজন বুক রিভিউয়ার হওয়ার জন্য আপনার মধ্যে কিছু গুনাবলি থাকতে হবে। যে কেউ চাইলেই বুক রিভিউ লিখতে পারে না। পাশাপাশি আপনি যেহেতু অনলাইন প্লাটফর্মে কাজ করবেন এজন্য আপনার আরও কিছু ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট প্রয়োজন পড়বে। তাহলে চলুন জেনে নেই প্রফেশনাল ভাবে বুক রিভিউ করার জন্য আপনার কী কী প্রয়োজন পড়বে।

১. পড়ার অভ্যাস

বুক রিভিউ লেখার জন্য প্রথমেই আপনাকে একজন ভালো পাঠক হতে হবে। আপনার যতো ভালো পড়ার অভ্যাস থাকবে ততোই পারফেক্ট রিভিউ লিখতে পারবেন। বই পড়ার অভ্যাস না থাকলে এই সেক্টরে আপনি কখনোই ভালো কারতে পারবেন না। মনে রাখবেন, কাজের তাগিদে বই পড়া আর ভালোবেসে বই পড়া দুটো কিন্তু এক বিষয় না। আপনার যদি বইয়ের প্রতি ভালোবাসা না থাকে তবে বুক রিভিউ লেখা আপনার পক্ষে সম্ভব হয়ে উঠবে না।

২. যথেষ্ট ধৈর্য্য

বুক রিভিউ করা খুব সময়সাপেক্ষ একটি কাজ। আপনাকে প্রথমে একটি বই খুব ভালোভাবে পড়তে হবে। সাধারণ ভাবে না, বরং খুব মনোযোগ সহকারেই পড়তে হবে৷ এরপর লেখক, লেখার প্রেক্ষাপট, মুদ্রণের সময় ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করতে হবে। এরপর নিজের চিন্তাশক্তির প্রয়োগ করে চমৎকার একটি রিভিউ লিখতে হবে। এই পুরো প্রসেস টি সম্পন্ন করতে বেশ লম্বা সময় ধরে আপনাকে কাজ করতে হবে, আর এজন্য প্রচুর ধৈর্যশক্তির প্রয়োজন।

৩. লেখার অভ্যাস

বুক রিভিউ মূলত লেখালেখির সাথে সম্পর্কযুক্ত। একটি চমৎকার রিভিউ লিখতে হলে আপনার লেখালেখির হাত ভালো থাকতে হবে। তাই নিয়মিত লেখালেখির চর্চা থাকলে তবেই এই সেক্টরে ভালো করতে পারবেন। কেননা এখানে আয়ের মূল উৎসই হচ্ছে আপনার লেখা।

৪. কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন

আপনি রিভিউ লেখা থেকে শুরু করে তা বিক্রি বা পাবলিশ করার সকল কাজ ডিজিটাল মাধ্যমে করবেন। তাই আপনার অবশ্যই একটি কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন প্রয়োজন হবে৷ তবে লেখালেখির ক্ষেত্রে স্মার্টফোনে কাজ করাটা একটু কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে।

৫. ইন্টারনেট কানেকশন

ক্লায়েন্ট এর সাথে যোগাযোগ স্থাপন এবং লেখা হস্তান্তর করার জন্য আপনার ডিভাইসে ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে৷ তাছাড়া মার্কেটপ্লেস থেকে কাজ সংগ্রহ করার জন্য আপনাকে দিনের বেশিরভাগ সময়ই ইন্টারনেটে সংযুক্ত থাকতে হবে।

৬. পর্যাপ্ত বই

বুক রিভিউ করার জন্য আপনাকে আগে নির্দিষ্ট বইটি পড়তে হবে। এজন্য আপনার কাছে পর্যাপ্ত বই থাকতে হবে৷ এক্ষেত্রে আপনাকে প্রতিটি বই রিভিউ করার জন্য কিছুটা ইনভেস্ট করতে হবে। অফলাইন বা অনলাইন থেকে আপনি বইটি ক্রয় করতে পারবেন।

তাছাড়া কিছু কিছু বইয়ের সফট কপি অনলাইনে বিনামূল্যে পাওয়া যায়। পিডিএফ আকারে, প্লে স্টোরে অ্যাপস আকারে, কিংবা গুগলে ব্লগ আকারে অনেক বই আপনি ফ্রি তে পেয়ে যাবেন। ফলে আপনার খরচ কিছুটা বেঁচে যাবে। তবে সব ধরনের বই বিনামূল্যে এভেইলএবেল থাকে না।

উপরোক্ত গুনাবলি ও ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট গুলো থাকলে আপনি বুক রিভিউয়ার হিসেবে কাজ শুরু করতে পারবেন। আর রিভিউ লিখে আয় কীভাবে করবেন তা ধারাবাহিক ভাবে বর্ননা করা আছে।

বুক রিভিউ কীভাবে করবেন?

বুক রিভিউ কীভাবে করবেন

আসলে বুক রিভিউ করার জন্য কোনো ধরাবাঁধা নিয়ম নেই। তাই বুক রিভিউ শেখার মতো কোনো বিষয়ও না। আপনি আপনার ইচ্ছামতো বইয়ের রিভিউ লিখতে পারেন। তবে কিছু বিষয় মাথায় রেখে বুক রিভিউ করলে তা তুলনামূলক সুন্দর হয়৷

যেমন লেখা খুব বেশি বড় করা যাবে না। আপনি বইটি পড়ে কী বুঝলেন, কী শিখলেন, আপনার অনুভূতি কোমন তা অল্প কথায় চমৎকার ভাবে ফুটিয়ে তুলতে হবে৷ তবে হুবহু বইয়ের ঘটনা প্রকাশ করে দেয়া যাবে না। সমাপ্তি তে কী ছিল, কী ঘটেছিল তার পুরোপুরি বর্ণনা না করে এটা রহস্য আকারে রাখতে হবে। ফলে পাঠক আপনার রিভিউ পড়ে মূল বই পড়ার আগ্রহ খুঁজে পাবে।

সাথে বইয়ের লেখকের সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করতে করতে হবে। বইটি যদি অনুবাদ হয় তবে অনুবাদকের সম্পর্কে কিছু কথা রাখতে হবে। মূল রিভিউ এর পরে এই বিষয়গুলো রাখা উচিত। পাশাপাশি বইয়ের কোনো ফ্রি সফট কপি থাকলে তা-ও উল্লেখ করে লিংক দিয়ে দিতে পারেন। এতে পাঠক সহজেই বইটি পড়তে পারবে।

মোটকথা আপনার রিভিউ পড়ে যাতে পাঠক একটা বই সম্পর্কে শতভাগ নির্ভুল তথ্য পায় এটা নিশ্চিত করতে হবে৷ সেই সাথে ব্যক্তিগত রেটিং যুক্ত করতে পারেন৷ এভাবে নিজের মতো করে একটি আকর্ষণীয় বুক রিভিউ লিখে তা ভালো মূল্যে বিভিন্ন উপায়ে অনলাইনে বিক্রয় করতে পারবেন।

বুক রিভিউ করে কীভাবে আয় করবেন?

বুক রিভিউ করে কীভাবে আয় করবেন

বুক রিভিউ সঠিক ভাবে লিখতে পারলে আপনার ইনকাম নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। বেশ কয়েকটি উপায়ে আপনি বুক রিভিউ লিখে আয় করতে পারেন৷ এখানে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি উপায় তুলে ধরা হলো।

১. লোকাল ক্লায়েন্ট এর কাজ করে

সোস্যাল মিডিয়ায় আমাদের দেশীয় অনেক কনটেন্ট রাইটিং গ্রুপ রয়েছে৷ সোস্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে গিয়ে সার্চ করলেই এই গ্রুপ গুলো আপনি পেয়ে যাবেন৷ এসব গ্রুপে অনেক ক্লায়েন্ট আছে যারা বুক রিভিউ রাইটার খুঁজে থাকেন৷ তাদের কাছ থেকে কাজ পেতে আপনার খুব বেশি ফর্মালিটিস এর প্রয়োজন হবে না৷ আগে রিভিউ করেছেন এমন কিছু কাজ ডেমো হিসেবে দেখিয়ে আপনি নিজের যোগ্যতার প্রমান দিতে পারবেন৷

এরপর আপনার লেখা দেখে ক্লায়েন্ট এর পছন্দ হলে নিয়মিত তার কাছ থেকে নানান ধরনের বুক রিভিউ এর কাজ পাবেন। তারা সাধারণত নিজের ওয়েবসাইটে লেখাগুলো প্রকাশ করার জন্য লোকাল রাইটার এর কাছ থেকে নির্দিষ্ট সম্মানীর বিনিময়ে লেখা ক্রয় করে। বুক রিভিউ এর কাজ পাওয়ার সব থেকে সহজ উপায় এটি।

২. নিজের ব্লগ সাইটে লেখা প্রকাশ করে

আপনি নিজেই একটি ব্লগ ওয়েবসাইট চালু করতে পারেন৷ এই সাইটে নিয়মিত লেখালেখি করলে পর্যাপ্ত ট্রাফিক পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। যেহেতু পাঠক বই পড়ার আগে গুলগ সার্চ করে রিভিউ পড়ে নেয়, তাই আপনার সাইটে পাঠক আসবে রিভিউ পড়ার জন্য। সাইট পপুলার হয়ে গেলে এখান থেকে মোটামুটি ভালো একটা এমাউন্ট নিয়মিত আয় করতে পারবেন।

৩. ইউটিউব চ্যানেল এর মাধ্যমে

আপনি যে বুক রিভিউ গুলো লিখছেন এগুলো ইউটিউব ভিডিওর স্ক্রিপ্ট হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। বুক রিভিউ সম্পর্কিত একটি ইউটিউব চ্যানেল ওপেন করে বুক রিভিউ ভিডিও তৈরি করতে পারেন। অনেকেই গুগল সার্চ না করে কিছু জানার হলেই ইউটিউব সার্চ করে। এক্ষেত্রে আপনার চ্যানেলে নিয়মিত যথেষ্ট ভিউ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর ইউটিউব চ্যানেল রানিং করতে পারলে এখান থেকে বেশ ভালো পরিমাণ আয় করা সম্ভব এটা তো কমবেশি আমরা সকলেই জানি।

৪. ফ্রিল্যান্সিং করে

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে বুক রিভিউ এর কাজ পাওয়া যায়। চাইলে বুক রিভিউ স্কিল কে কাজে লাগিয়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে বিভিন্ন ভাষার বইয়ের ইংরেজি ভার্সন সংগ্রহ করে পড়তে হবে এবং ইংরেজিতে রিভিউ করতে হবে। এক্ষেত্রে দক্ষতা যেমন বেশি প্রয়োজন ঠিক তেমনই সম্মানী-ও আবার বেশি পাওয়া যাবে।

সঠিকভাবে রিভিউ লিখতে পারলে ও পাঠক আকৃষ্ট করতে পারলে উপরোক্ত যে কোনো উপায়ে আপনি বেশ ভালোই আয় করতে পারবেন। তাই সুবিধামতো যে কোনো একটি সেক্টরে কাজ করার পরিকল্পনা তৈরি করে কাজ শুরু করতে পারেন।

শেষকথা

আপনি যদি একজন নিয়মিত বই পাঠক হয়ে থাকেন তাহলে অনলাইন ইনকামের এই উপায়টি শুধুমাত্র আপনার জন্য। নিজের সৃজনশীলতা কাজে লাগিয়ে শুরু করুন ক্যারিয়ার গঠন। আশাকরি টিউনটি ভালো লেগেছে। অনলাইন ইনকাম এর এমন নতুন নতুন আইডিয়া পেতে আমাকে ফলো করে রাখতে পারেন৷ ধন্যবাদ।

Level 6

আমি শারমিন আক্তার। শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 98 টি টিউন ও 29 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস