হোয়াটসঅ্যাপে গোপন মেসেজ অটো ডিলিট হবে Self-Destructing ভয়েস মেসেজ পাঠিয়ে!

Level 12
কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা

আমাদের মধ্যে এমন অনেক WhatsApp ব্যবহারকারী রয়েছেন, যারা দীর্ঘ বাক্য টাইপ করার পরিবর্তে কথোপকথনের সময় ভয়েস মেসেজ পাঠাতে পছন্দ করেন। কিন্তু, আপনার পাঠানো এই ভয়েস মেসেজে অনেক সময় ক্রেডিট কার্ডের নাম্বার, গোপন তথ্য, আপনার পিন অথবা অন্য কোন ব্যক্তিগত তথ্যের মতো গোপনীয় বিষয় থাকতে পারে।

আর আপনি হয়তোবা এমন সব মেসেজের ক্ষেত্রে চাইবেন না যে, সেই মেসেজটি তার কাছে দীর্ঘ সময় ধরে থাকুক। আর এক্ষেত্রে আপনি চাইলে সেই মেসেজটি Delete Everyone করে ডিলিট করেও দিতে পারেন। কিন্তু, আপনি যতক্ষণ পর্যন্ত না সেটি ডিলিট করে দিচ্ছেন, সেটি কিন্তু ততক্ষণ পর্যন্ত অপর প্রান্তের ব্যক্তি বারবার প্লে করে শুনতে পারবে, ডাউনলোড করতে, ফরওয়ার্ড করতে, কিংবা অন্য কাউকে ও শোনাতে পারবে।

আপনি চাইলে, আপনার পাঠানো এই ভয়েস মেসেজটির অপব্যবহার রোধ করতে পারেন। আর এজন্য কৌশল হিসেবে হোয়াটসঅ্যাপের Self-Destructing অডিও ক্লিপ পাঠাতে পারেন।

WhatsApp তাদের ব্যবহারকারীদেরকে ফটো এবং ভিডিও পাঠানোর ক্ষেত্রেও একবার ভিউ করার ফিচারটি অফার করে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি যদি Self-Destructing ফিচারটি তে ক্লিক করা অবস্থায় কোনো ফটো বা ভিডিও কাউকে সেন্ড করেন, তাহলে সেই ব্যক্তি একবার সেটি ওপেন করার পর অটোমেটিকালি তা অদৃশ্য হয়ে যাবে। ‌আপনি আইফোন কিংবা অ্যান্ড্রয়েড যে ধরনের ফোনই ব্যবহার করেন না কেন, নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করে আপনি এই প্রাইভেসি ট্রিকস টি দেখুন।

কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপে Self-Destructing ভয়েস মেসেজ কাজ করে?

কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপে Self-Destructing ভয়েস মেসেজ কাজ করে?

কেউ যখন কনভারসেশনে ফটো, ভিডিও কিংবা অডিও ক্লিপ পাঠানোর সময় Self-Destructing সিলেক্ট করে, তখন অপর প্রান্তের ব্যক্তি সেই মেসেজটি একবার ওপেন করার পর কিংবা সেটি একবার প্লে করার পর অটোমেটিক্যালি তা WhatsApp থেকে ডিলিট হয়ে যায়। আপনি যদি ভয়েস মেসেজ পাঠানোর সময় Self-Destructing সিলেক্ট করে পাঠান, তাহলে সেই ব্যক্তি আপনার মেসেজটি অন্যদের সাথে Forward, Save অথবা Share করতে পারবেন না।

ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তাকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্য হোয়াসঅ্যাপ এর এই প্রচেষ্টা। যদিও উইন্ডোজ এবং ম্যাকে WhatsApp এর অনেক ফিচার রয়েছে, কিন্তু এই ফিচারটি এসব ডিভাইসের অ্যাপ এ কিংবা ওয়েবে কাজ করে না। হোয়াটসঅ্যাপের Self-Destructing ফিচারটি শুধুমাত্র মোবাইল অ্যাপে কাজ করে থাকে।

অ্যান্ড্রয়েডে Whatsapp ব্যবহারের সময় ভয়েস মেসেজ অটোমেটিক্যালি ডিলিট করার পদ্ধতি

অ্যান্ড্রয়েডে Whatsapp ব্যবহারের সময় ভয়েস মেসেজ অটোমেটিক্যালি ডিলিট করার পদ্ধতি

আপনি যখন একটি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন, তখন স্বাভাবিকভাবে হোয়াটসঅ্যাপের ভয়েস মেসেজ পাঠানোর অপশনেই Self-Destructing ফিচারটি রয়েছে। যা চালু করে ভয়েস মেসেজ পাঠালে আপনার পাঠানো মেসেজটি অপরপ্রান্তের ব্যক্তি একবার দেখলেই ডিলিট হয়ে যাবে। এজন্য আপনি অবশ্যই গুগল প্লে স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ এর লেটেস্ট ভার্সন টি আপডেট করে নিন।

১. এজন্য প্রথমে Whatsapp ওপেন করুন এবং কারো সাথে কনভারসেশন করার জন্য যান।

Whatsapp এর কনভারসেশন

২. এরপর, আপনি নিচের দিকে ডান কোনায় যে মাইক্রোফোন আইকন দেখতে পাচ্ছেন, সেখানে ক্লিক করে ধরে রেখে উপরের দিকে সোয়াইপ করুন। এখানে আপনি একটি লক আইকন দেখতে পাবেন, যেখানে নিয়ে গিয়ে এটি ছেড়ে দিতে হবে।

Whatsapp এ ভয়েস মেসেজ কনভারসেশন

৩. এখন আপনি আপনার ভয়েস মেসেজটি সম্পূর্ণ রেকর্ড করুন। ভয়েস মেসেজ টি সম্পূর্ণ রেকর্ড করা হয়ে গেলে, নিচের ডান কোণায় একটি বৃত্ত আইকনে (1) লেখা দেখতে পাবেন, যেখানে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে Self-Destructing ভয়েস মেসেজ

৪. এবার, এখানে ক্লিক করে নিচের Send বাটনে ক্লিক করে ম্যাসেজটি সেন্ড করুন।

হোয়াটসঅ্যাপে Self-Destructing ভয়েস মেসেজ পাঠানোর পদ্ধতি

৫. এখন, আপনি আপনার ফোনে এই ভয়েস মেসেজটি ওপেন করতে কিংবা সেটি প্লে করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে আপনি শুধুমাত্র সেটিতে ইমোজি রিয়েক্ট দিতে পারবেন।

হোয়াটসঅ্যাপে Self-Destructing পাঠানোর পর অবস্থা

যাইহোক, এখন অপরপ্রান্তের ব্যক্তির কাছে আপনার ভয়েস মেসেজটি যাবে এবং তিনি একবার সেটিতে ক্লিক করে ওপেন করলেই, পরবর্তীতে আর দ্বিতীয়বার সেটি ওপেন করতে পারবে না। অর্থাৎ, এক্ষেত্রে সেই মেসেজটি অটোমেটিক্যালি হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মুছে যাবে। ‌এমনকি আপনি Self-Destructing সিলেক্ট করে কোন ভয়েস মেসেজ বা ফটো পাঠালে, সেটি অন্য কাউকে শেয়ার করা কিংবা সে নিজে ডাউনলোডও করতে পারবে না।

আইফোনে Self-Destructing মোড সিলেক্ট করে ভয়েস মেসেজ পাঠান

আইফোনে Self-Destructing মোড সিলেক্ট করে ভয়েস মেসেজ পাঠান

আইফোন ব্যবহারকারীরা ও অ্যান্ড্রয়েড এর মত করেই ভয়েস মেসেজে Self-Destructing ব্যবহার করতে পারবেন। ‌ iPhone ব্যবহারকারীরা ও একইভাবে WhatsApp এ আসুন এবং কারো সাথে কনভাসেশন ওপেন করুন।

১. কনভাসেশন চালু করার পর আপনি একইভাবে নিচে মাইক্রোফোন এর আইকন দেখতে পাবেন, যে আইকনে ক্লিক করে আপনাকে উপরের দিকে সোয়াইপ করতে হবে।

২. এরপর, একইভাবে সেখানে থাকা লক আইকনে ক্লিক করুন।

৩. তারপর, একইভাবে এখানে থাকা বৃত্তের মাঝে (1) আইকনে ক্লিক করুন এবং Send অপশনে ক্লিক করে ম্যাসেজটি সেন্ড করুন।

আপনি Self-Destructing সিলেক্ট করে যাকে ভয়েস মেসেজটি পাঠাবেন, তিনি যদি সেই ভয়েসটি ওপেন করে, তাহলে আপনি এখানে Opened লেখা দেখতে পাবেন। আপনি কোন একক ব্যক্তিকে Self-Destructing পাঠানোর পাশাপাশি WhatsApp গ্রুপ মেসেজেও চাইলে এই ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন।

প্রাইভেসির জন্য কী Self-Destructing ফিচার কার্যকর সমাধান হতে পারে?

প্রাইভেসির জন্য কী Self-Destructing ফিচার কার্যকর সমাধান হতে পারে?

আপনি যদি Self-Destructing ফিচার ব্যবহার করে কোন ব্যক্তিকে ভয়েস মেসেজ, ফটো কিংবা ভিডিও পাঠান, তাহলে তিনি সেটি দেখার পরেই অটোমেটিক্যালি ডিলিট হয়ে যাবে। এমনকি সেই ব্যক্তির চাইলে ও আপনার মেসেজটি অন্য কাউকে ফরওয়ার্ড করা কিংবা তিনি নিজেও ডাউনলোড করতে পারবেন না।

এক্ষেত্রে ও কিন্তু এই ফিচারটি আপনার প্রাইভেসির জন্য একেবারে কার্যকর সমাধান নয়। কেননা, আপনি যাকে এই ট্রিক্সটি কাজে লাগিয়ে ভয়েস মেসেজ পাঠাবেন, তিনি চাইলে অন্য কোন ডিভাইস দিয়ে আপনার ভয়েসটি রেকর্ড করতে পারে। আবার, আপনার পাঠানো ইমেজ বা ভিডিওটি অন্য কোন ডিভাইস দিয়েও রেকর্ড করে রাখতে পারে।

তাই আপনি ভয়েস মেসেজ পাঠানোর সময় অডিও ক্লিপে কোন কিছু সম্পর্কে বাজে মন্তব্য করার সময় সতর্ক থাকুন। আর, হোয়াটসঅ্যাপে আপনার আরো প্রাইভেসির জন্য চাইলে Self-Destructing ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন, যা সবসময় আপনার পাঠানো ভয়েস মেসেজগুলো অপর প্রান্তের ব্যক্তির কাছ থেকে অটোমেটিক্যালি ডিলিট করে দিবে।

আপনি যদি হঠাৎ কোন গোপনীয় কথা কাউকে বলতে চান, কিংবা কোন গোপনীয় মেসেজ দেওয়ার জন্য Self-Destructing ফিচারটি কাজে লাগাতে পারেন। আমি মনে করি যে, হোয়াটসঅ্যাপে কথোপকথনের সময় নিজের প্রাইভেসি আরো উন্নত করতে এই ফিচারটি কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।

শেষ কথা

আমরা অনেক ব্যক্তিকে এমন সব গোপনীয় মেসেজ পাঠাতে চাই, সেগুলো যাতে তার কাছে রেকর্ড না থাকে। আর আপনি এরকম পরিস্থিতিতে হোয়াটসঅ্যাপের এই Self-Destructing সিলেক্ট করে ভয়েস মেসেজ পাঠাতে পারেন। এতে করে, অপর প্রান্তের ব্যক্তি আপনার মেসেজটি ওপেন করার পর শুধুমাত্র একবারই ভয়েসটি শুনতে পাবে।

এক্ষেত্রে পরবর্তীতে আর সেটি ওপেন হবে না এবং এমনকি তার কাছে মেসেজ পৌঁছানোর পর তা ডাউনলোড কিংবা কাউকে ফরওয়ার্ড ও করতে পারবে না। তাই আপনিও WhatsApp ব্যবহারের সময় নিরাপদ ও সুরক্ষিত চ্যাটিং এক্সপেরিয়েন্স নেওয়ার জন্য এই প্রাইভেসি ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন। ধন্যবাদ, আসসালামু আলাইকুম।

Level 12

আমি মো আতিকুর ইসলাম। কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 331 টি টিউন ও 93 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 59 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

“আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।” —হযরত মোহাম্মদ (সঃ)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস