স্টুডেন্টদের জন্য সেরা ৫ টি অনলাইন ইনকাম আইডিয়া! বিনা খরচে মোবাইল দিয়ে আয় করা শুরু করুন আজই

Level 6
শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর

অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার প্রচেষ্টা এখন কমবেশি সব স্টুডেন্টই করে থাকে। অনলাইনে কাজ করার নিয়ম ও আইডিয়া না থাকায় এই দিকে সফল হতে পারছেন না? তাহলে পুরো লেখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। রিয়েল অনলাইন জব ও বিনা পুঁজিতে অনলাইন বিজনেস করার অভিনব কৌশল শিখে নিন এখনই।

আজকের টিউনে আলোচনা করবো ৫ টি সেরা অনলাইন ইনকাম আইডিয়া সম্পর্কে। এই কাজগুলো আপনি লং টাইম করতে পারবেন। তাছাড়া এসব কাজে আপনাকে এক টাকাও বিনিয়োগ করতে হবে না। তাই দেরি না করে চলুন জেনে নেই অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করার আইডিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত।

১. এফিলিয়েট মার্কেটিং

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করুন

বর্তমানে বিনিয়োগ ছাড়াই ব্যবসা করার এক দারুন সুযোগ করে দিয়েছে এফিলিয়েট মার্কেটিলং। বিভিন্ন স্বনামধন্য কোম্পানি এই পদ্ধতিতে ব্যবসায় পরিচালনা করে। এতে তাদেরও বিক্রয় বৃদ্ধি পায় সেই সাথে অসংখ্য স্টুডেন্ট নিজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে নিতে পারে। মূলত কোনো কোম্পানির পণ্যের প্রচার করে নিজে দায়িত্ব নিয়ে বিক্রি করে দিয়ে তার বিনিময়ে কমিশন আদায় করাকে এফিলিয়েট মার্কেটিং বলে। যারা এই প্রচার ও বিক্রির দায়িত্ব পালন করে কমিশন আদায় করে তাদের বলা হয় এফিলিয়েট মার্কেটার।

আপনি চাইলে পার্ট টাইম জব হিসেবে এফিলিয়েট মার্কেটিং এর কাজ করতে পারেন। আপনার কাজ হবে অনলাইন মাধ্যমে কোনো কোম্পানির পণ্যের প্রচার করা ও অর্ডার সংগ্রহ করা। কোম্পানি নিজ দায়িত্বে পণ্য ক্রেতার কাছে পৌঁছে দেবে এবং আপনাকে আপনার প্রাপ্য কমিশন আপনাকে দিয়ে দিবে। এভাবে কোনো ধরনের বিনিয়োগ ছাড়াই অনলাইনে মোবাইল এর মাধ্যমে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

২. সোস্যাল মিডিয়া ম্যানেজার

সোস্যাল মিডিয়া ম্যানেজার হিসেবে আয় করুন

বর্তমানে স্টুডেন্ট দের জন্য একটি সুবর্ণ সুযোগ সোস্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট জব। সোস্যাল মিডিয়ার যে কোনো সেক্টর সম্পর্কে একটু ভালো জ্ঞান থাকলেই এই সেক্টরে কাজ করতে পারবেন। সোস্যাল মিডিয়া জগতে খুব বেশি জনপ্রিয় ব্যক্তিবর্গ তাদের অফিসিয়াল সাইট ম্যানেজ করার জন্য মডারেটর নিয়োগ করে। আবার বিভিন্ন বিজনেস সাইট তাদের সোস্যাল মিডিয়ার কাস্টমার ডিল করার জন্য সোস্যাল মিডিয়া ম্যানেজার নিয়োগ দেয়। এরকম জব অফার প্রায়ই চাকরির বিজ্ঞপ্তি দেয় এমন সব প্লাটফর্মে পেয়ে যাবেন।

আপনি যদি সব সময়ই মোবাইলে টাইম দিতে পারেন তাহলে এই কাজটি আপনার জন্য। এক্ষেত্রে চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এমন সাইটে নজর রাখতে হবে। অফার পাওয়ার সাথে সাথে নিজের সিভি জমা করে আবেদন করতে হবে। কেননা এই চাকরিতে যেমন খুব বেশি ঝামেলা নেই এবং বেতনও তুলনমূলক ভালো তাই অনেকেই অফার পাওয়ার সাথে সাথে হামলে পড়ে। নিজেকে যোগ্য প্রমান করতে পারলে অনলাইনে একটি ভালো চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

৩. কনটেন্ট রাইটিং

কনটেন্ট রাইটিং করে আয় করুন

স্টুডেন্ট দের জন্য একটি আদর্শ অনলাইন কাজ কনটেন্ট রাইটিং। বিভিন্ন ওয়েবসাইট তাদের সাইটে লেখালেখির জন্য রাইটার হায়ার করে। আবার অনেক সাইট টাকার বিনিময়ে লেখা কিনে নেয় নিজের নামে। কোনো কোনো সাইটে আপনি আপনার পছন্দ মতো লেখা জমা দিয়েও আয় করতে পারবেন। আবার অনেক স্বনামধন্য কোম্পানি তাদের কোম্পানির প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপণ মূলক লেখা কিনে থাকে।

আপনার যদি তথ্য সংগ্রহ ও লেখালেখির প্রতি আগ্রহ থাকে তাহলে আজই শুরু করতে পারেন কনটেন্ট রাইটিং। গুগল সার্চ করে জেনে নিতে পারোন লেখালেখি করে ইনকাম করার বিভিন্ন সাইট সম্পর্কে। তাছাড়া সোস্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কনটেন্ট রাইটিং গ্রুপে কাজের জন্য আবেদন করতে পারেন। মনে রাখবেন এই সেক্টরে যতো বেশি সময় দিতে পারবেন ততো দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। আর কনটেন্ট রাইটিংয়ে সফল হওয়ার পূর্বশর্ত নিজেকে দক্ষ করে তোলা।

৪. অনলাইন টিউশন

অনলাইন টিউশন করে আয় করুন

প্রযুক্তির ছোঁয়া এসে লেগেছে বর্তমানে পড়াশোনায়। আপনি যদি নিজেকে একজন যোগ্য টিউটর মনে করেন তাহলে অনলাইনে একটি টিউশন ব্যাজ শুরু করতে পারেন। গুগল মিট, জুম অ্যাপস কিংবা সোস্যাল মিডিয়ায় গ্রুপ কলিং এর মাধ্যমে স্টুডেন্টদের পাঠদান করতে পারবেন। বিশেষ কোনো বিষয়ের ওপর কোর্স করাতে পারেন কিংবা ক্লাসের পড়াশোনার ওপর ভিত্তি করেও পাঠদান করতে পারেন।

অনলাইন টিউশন শুরু করার জন্য আপনার সোস্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে এই বিষয়ে টিউন করতে পারেন। আবার পড়াশোনা সম্পর্কিত বিভিন্ন গ্রুপে জানিয়ে দিতে পারেন যে আপনি অনলাইনে টিউশন করাতে চান। প্রথমে অল্প সংখ্যক স্টুডেন্ট দিয়ে শুরু করলেও পরবর্তীতে দেখা যাবে অনেক স্টুডেন্ট নিয়ে ব্যাজ চালু হয়ে যাবে। আবার অনেক স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান অনলাইনে ক্লাস করানোর জন্য শিক্ষক নিয়োগ দেয়। সেসব প্রতিষ্ঠানে আবেদন করেও চাকরির ব্যবস্থা করে নিতে পারেন।

৫. প্রতিভা বিক্রি করুন

প্রতিভা বিক্রি করে আয় করুন

আপনার যদি কোনো বিশেষ প্রতিভা থাকে তার মাধ্যমে অনলাইনে আয় করতে পারবেন। আপনি যদি ভালো ফটোগ্রাফি পারেন তাহলে ছবি বিক্রি করে খুব ভালো পরিমানের টাকা আয় করতে পারবেন। যদি ভালো ছবি আঁকতে পারেন তাহলে ছবি বিক্রি করতে পারেন। হাতের কাজ জানলে তা বিক্রি করেও টাকা আয় করতে পারবেন।

আর আপনার সকল প্রতিভাকে ছড়িয়ে দিতে পারবেন অনলাইন মাধ্যমে। এখন আর কারো প্রতিভা চার দেয়ালে বন্দী হয়ে থাকে না। আপনার সোস্যাল মিডিয়া প্রোফাইল ব্যবহার করে ছড়িয়ে দিন নিজের প্রতিভা। প্রতিভা বিক্রি করে আয় করুন আর নিজের পড়াশোনার খরচ চালান নিজেই।

আশাকরি আপনি খুব শীঘ্রই অনলাইন মাধ্যম ব্যবহার করে আয়মূলক কাজ শুরু করতে পারবেন৷ আগে সিদ্ধান্ত নিন আপনার দ্বারা কোন কাজটি সবথেকে ভালোভাবে করা সম্ভব। আপনার আগ্রহের বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে কাজ শুরু করুন। যে কোনো একটি সাইটে চেষ্টা করে গেলে খুব সহজেই অনলাইন আয় করা শুরু করতে পারবেন।

Level 6

আমি শারমিন আক্তার। শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 3 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 88 টি টিউন ও 29 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস