আপনার ধারণা-ই নেই! এমন ১৫ টি ‘অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ হ্যাক’!

Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে।

আমরা ফোনে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কাজে অ্যাপ ব্যবহার করি। অনেক কঠিন কাজও সহজ করে দিতে পারে বিভিন্ন অ্যাপ। আজকের এই টিউনে আমি এমনই ১৫ টি অ্যাপ এর সাথে আপনাকে পরিচয় করিয়ে দেব যেগুলো আপনার অ্যান্ড্রয়েড অভিজ্ঞতা বদলে দেবে।

১. Black Screen

আমরা অনেকেই আছি যারা স্ক্রিন অফ রেখে গান বা বিভিন্ন অডিও শুনতে চাই। যেমন আপনি যদি ইউটিউবে কিছু প্লে করে স্ক্রিন করেন তাহলে ইউটিউব বন্ধ হয়ে যাবে। স্ক্রিন বন্ধ ব্যবহার করতে আপনাকে ইউটিউবের প্রিমিয়াম ভার্সন কিনতে হবে। কোন চিন্তা নাই আপনার জন্য রয়েছে Black Screen অ্যাপ।

অ্যাপটি ইন্সটল করে ব্ল্যাক স্ক্রিন এনেভল করে দিন। আপনার স্ক্রিনে একটি বাটন দেখতে পাবেন। চাইলে যেকোনো জায়গাতে এটি মুভ করতে পারবেন। এবার যেকোনো কিছু প্লে করে সেই বাটনটিতে ক্লিক করুন, আপনার স্ক্রিন বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এটা এমোলেট ডিসপ্লের জন্য উপযুক্ত।

Black Screen

প্লেস্টোর লিংক @ Black Screen

২. Screen Master

এখনকার ফোন গুলোতে চাইলেই লং স্ক্রিনশট নেয়া যায় তবে কয়েক বছর আগেকার ফোন গুলোতে এমন সুবিধা ছিল না। আপনার ফোনটি যদি একটু পুরনো হয় তাহলে Screen Master অ্যাপ ব্যবহার করে আপনিও লং স্ক্রিনশট নিতে পারেন।

অ্যাপটি ডাউনলোড করে ইন্সটল করুন। অ্যাপটি ওপেন করে ফিচারটি একটিভ করে দিন। স্ক্রিনে নতুন একটি আইকন দেখতে পাবেন। স্ক্রিনশট নিতে আইকনটিতে ক্লিক করুন।

Screen Master

প্লেস্টোর লিংক @ Screen Master

৩. Muviz Edge

আপনি যদি মিউজিক শুনতে শুনতে ফোনে লাইটিং দেখতে পছন্দ করেন তাহলে এই অ্যাপটি আপনার জন্য। ডিভাইসে মিউজিক বাজলে  স্ক্রিনের Edge গুলোতে আপনি লাইটিং দেখতে পাবেন। রয়েছে বিভিন্ন স্টাইল এবং ডিজাইন একই সাথে কাস্টমাইজেশনের ব্যবস্থা।

অ্যাপটি ইন্সটল করে ওপেন করুন এবং প্রয়োজনীয় পারমিশন দিয়ে পছন্দমতো ডিজাইন সিলেক্ট করুন।

Muviz Edge

প্লেস্টোর লিংক @ Muviz Edge

৪. Diffuse

আপনি যদি মিউজিকের সাথে Live Wallpaper ফিচার ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনার জন্য রয়েছে Diffuse। মিউজিকের সাথে আপনার ফোনের ওয়ালপেপার দারুণ সব ইফেক্ট পাবে এই অ্যাপ এর মাধ্যমে।

Diffuse ডাউনলোড করে ইন্সটল করুন। অ্যাপটি ওপেন করে Set Wallpaper এ ট্যাপ করুন, এবার স্ক্রিনের নিচের ডানপাশ থেকে আবার Set Wallpaper এ ট্যাপ করে হোম স্ক্রিন বা লক স্ক্রিন সিলেক্ট করুন। এরপর Live Beat সিলেক্ট করুন। এটা চাইলে আপনি বাড়াতে কমাতে পারবেন। এখন থেকে ফোনে মিউজিক প্লে করলে প্রতিটি গানের সাথে সাথে ভিন্ন ভিন্ন ওয়েলপেপার দেখতে পাবেন।

Diffuse

প্লেস্টোর লিংক @ Diffuse

৫. Snapdrop

আমরা সবাই জানি আইফোনে ফাইল শেয়ার করার জন্য আছে AirDrop কিন্তু অ্যান্ড্রয়েডে এমন কোন অপশন নাই। প্রায় একই সুবিধা পেতে আপনি এখন থেকে ব্যবহার করতে পারেন Snapdrop। এর মাধ্যমে আপনি আইফোন টু এন্ড্রয়েডেও ফাইল আদান-প্রদান করতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েডে অ্যাপটি ওপেন করুন এবং আইফোনে Snapdrop.net এ যান। এটি প্রতিটি ডিভাইসে আপনাকে আলাদা নাম দেয়া হবে। এবার যেকোনো ডিভাইসে ফাইল পাঠাতে ডিভাইসের নামে ক্লিক করুন। ফাইল আদান-প্রদানের জন্য আপনাকে একই নেটওয়ার্কের অধীনে থাকতে হবে।

Snapdrop

প্লেস্টোর লিংক @ Snapdrop

৬. Full screen Gesture

আপনার ফোনে এখন যোগ করতে পারবেন এডভান্সড লেভেলের Gesture। ফোনে দারুণ সব Gesture এড করতে আপনাকে সাহায্য করবে Full Screen Gesture।

অ্যাপটি ইন্সটল করে প্রয়োজনীয় পারমিশন দিন এবং পছন্দমতো কাস্টমাইজ Gesture সিলেক্ট করুন।

Full Screen Gesture

প্লেস্টোর লিংক @ Full Screen Gesture

৭. Super Status Bar

আপনি চাইলে এখন আপনার Status বার ইচ্ছে মত পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। এই কাজে আপনাকে সাহায্য করবে Super Status Bar। এই অ্যাপ দিয়ে কেবল স্ট্যাটাস বারই না আপনি বিভিন্ন Gesture ও এড করতে পারবেন।

অ্যাপটি ওপেন করে পছন্দমতো Gesture সিলেক্ট করুন এবং Start বাটমে ক্লিক করুন।

Super Status Bar

প্লেস্টোর লিংক @ Super Status Bar

৮. Media Bar

আপনি যদি কোন বাটন প্রেস না করে সহজে ভলিউম কমাতে বাড়াতে চান তাহলে আপনাকে সাহায্য করতে পারে Media Bar অ্যাপ। Status বার থেকে মিডিয়া কন্ট্রোল করতে পারবেন।

অ্যাপটি ইন্সটল করে ওপেন করুন। এবার ফিচারটি এনেভল করে দিন। Status বারে বাম দিকে একটি বার দেখতে পারবেন। এটা ডানে বামে Swap করে আপনি মিডিয়া কন্ট্রোল করতে পারবেন। আপনি চাইলে এই বারের কালারও চেঞ্জ করতে পারবেন।

Media Bar

প্লেস্টোর লিংক @ Media Bar

৯. Panels

আপনার ফোনে যদি সাইডবার না থাকে তাহলেও আপনি সাইডবারের সুবিধা নিতে পারেন Panels অ্যাপ এর মাধ্যমে। অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি স্ক্রিনে পেয়ে যাবেন একটি সাইডবার এবং এখানে চাইলে ইচ্ছে মতো অ্যাপ এড করতে পারবেন।

ফিচারটি এড করতে ফোনে Panels ইন্সটল করে ওপেন করুন এবং এটি একটিভ করে দিন। প্রয়োজনীয় পারমিশন এক্সেস দিয়ে দিলে আপনি একটি সাইডবার পেয়ে যাবেন।

Panels

প্লেস্টোর লিংক @ Panels

১০. Custom Volume Panels

একই ভলিউম প্যানেল দেখতে দেখতে বোরিং লাগছে! চেঞ্জ করে ফেলুন মুহূর্তেই Custom Volume Panels অ্যাপ দিয়ে। অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি পেয়ে যাবেন অনেক গুলো ভলিউম প্যানেল ডিজাইন।

অ্যাপটি ইন্সটল করে ওপেন করুন এবং প্রয়োজনীয় সব পারমিশন দিয়ে চেঞ্জ করে নিন ভলিউম প্যানেল।

Custom Volume Panels

প্লেস্টোর লিংক @ Custom Volume Panels

১১. WIFI AR

আপনি চাইলেই এখন জানতে পারবেন আপনার ঘরের কোথায় ভাল ওয়াইফাই সিগনাল রয়েছে। ঘরের ওয়াইফাই সিগনাল জানতে আপনাকে সাহায্য করবে WIFI AR অ্যাপটি।

WIFI AR ইন্সটল করুন এবং ওপেন করে প্রয়োজনীয় পারমিশন দিন। অ্যাপটি ওপেন করে ঘরের দিকে ক্যামেরা ঘুরাতে থাকুন, নির্দিষ্ট টাস্ক কমপ্লিট করার পর আপনি AR এর মাধ্যমে ওয়াইফাই সিগনাল দেখতে পারবেন। এখানে আপনি স্পীড এমনকি Ping ও দেখতে পারবেন।

WIFI AR

প্লেস্টোর লিংক @ WIFI AR

১২. Temp Mail

প্রতিদিন আমাদের বিভিন্ন কাজে ইমেইল এড্রেস এর প্রয়োজন হতে পারে। সব জায়গায় আসল ইমেইল ব্যবহার করাও নিরাপদ না। আপনি যদি প্রতিদিন আনলিমিটেড ইমেইল এড্রেস পেতে চান তাহলে ব্যবহার করতে পারেন Temp Mail অ্যাপটি।

Temp Mail অ্যাপটি ওপেন করুন আপনি সাথে সাথে পেয়ে যাবেন একটি ব্র‍্যান্ড নিউ ইমেইল এড্রেস।

Temp Mail

প্লেস্টোর লিংক @ Temp Mail 

১৩. Subscription

আমারা প্রতিমাসে বিভিন্ন অ্যাপে সাবক্রিপশন কিনতে পারি। আর এই সব অ্যাপের সাবক্রিপশনের খবরাখবর রাখতে আপনাকে সাহায্য করতে পারে Subscription অ্যাপ।

অ্যাপটি ইন্সটল করে ওপেন করুন। লিস্টে আপনি আপনার বিভিন্ন সার্ভিসের সাবস্ক্রিপশন এড করে রাখতে পারবেন। মাসিক, বার্ষিক আপনার খরচ সহ সব কিছু এক জায়গায় আপনি দেখতে পারবেন।

Subscription

প্লেস্টোর লিংক @ Subscription

১৪. Assistive Touch

আইফোন ইউজারদের কাছে বেশ দরকারি একটি ফিচার হচ্ছে Assistive Touch। যদিও এন্ড্রয়েডে এটার প্রয়োজন নেই তবে আপনি চাইলে এন্ড্রয়েডও এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

Assistive Touch অ্যাপটি ইন্সটল করুন এবং প্রয়োজনীয় পারমিশন দিয়ে ব্যবহার করুন দারুণ এই ফিচারটি।

Assistive Touch

ডাউনলোড লিংক @ Assistive Touch

১৫. Quick Cursor

ডেক্সটপের মতো অ্যান্ড্রয়েডে আপনি যদি কার্সর সুবিধা নিতে চান তাহলে আপনার জন্য আছে Quick Cursor সুবিধা। কখনো কখনো এটা বেশ দরকারি হয়ে যায়। এক হাতে ফোন ইউজ করার সময় যদি স্ক্রিনের উপর দিকে ট্যাপ করতে অসুবিধা হয়, তাহলে এই অ্যাপটি আপনার জন্য।

Quick Cursor অ্যাপটি ইন্সটল হয়ে গেলে ওপেন করে একটিভ করে দিন। এখন আপনি স্ক্রিনের যেকোনো জায়গায় ট্যাপ করে কার্সর নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

Quick Cursor

প্লেস্টোর লিংক @ Quick Cursor 

শেষ কথা

টিউনে উল্লেখিত কাজ গুলো করার জন্য অনেক অ্যাপই রয়েছে তবে আমি সেরা অ্যাপ গুলো তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। এই অ্যাপ গুলোর মধ্যে আমার কাছে সবচেয়ে পছন্দের হচ্ছে Temp mail। যেকোনো প্রয়োজনে দ্রুত একটি ইমেইল পেতে আমাকে সাহায্য করে এই অ্যাপটি। আশা করছি এই অ্যাপ গুলো ব্যবহার করে আপনার অ্যান্ড্রয়েড অভিজ্ঞতা আরও উন্নত করতে পারবেন।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 568 টি টিউন ও 200 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 116 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস