আইফোন নিয়ে ২৩ টি ভুল ধারণা!

Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে। আজকে আমরা আইফোন নিয়ে ২৩ টি ধারণা সত্য না মিথ্যে সেটা জানার চেষ্টা করব।

আইফোন নিয়ে ২৩ টি ধারণা

চলুন আইফোন নিয়ে কিছু ধারণার সত্যতা যাচাই করা যাক,

১. কীভাবে ১০০% ব্যাটারি হেলদ মেইনটেইন করব

আইফোন নিয়ে অনেক বড় মিথ এটা। ইউটিউবে অনেক ভিডিও পাবেন যারা দাবী করে নির্দিষ্ট কাজ করলে ব্যাটারি হেলদ ১০০% থাকবে। এটা ভুল, ব্যাটারি ১০০% রাখার একটাই উপায় আছে সেটা হল আইফোন ব্যবহার না করা। অ্যাপল নিজেরা জানিয়েছে নির্দিষ্ট সময় ফোন চার্জ দেয়ার সাথে সাথে এর ক্যাপাসিটি কমতে থাকবে। আর প্রতিটি আইফোন আলাদা আলাদা ক্যাপাসিটি নিয়ে আসে, কোন কোন ফোনের ব্যাটারি হেলদ দীর্ঘদিন ভাল থাকতে পারে আবার কিছু ফোনের তাড়াতাড়ি ক্যাপাসিটি কমে যেতে পারে।

২. আইফোন ১০০% চার্জ দেয়া যাবে না

এটাও একটা মিথ যে ফোন ১০০% চার্জ দিলে ব্যাটারি ব্যাকআপ কমে যাবে। আপনি এটা মনে করতে পারেন কিন্তু এটা ভুল ধারণা। আপনি চাইলে আইফোন ১০০% চার্জ দিতে পারেন।

৩. সারারাত চার্জে দিয়ে রাখা যাবে না

আপনাকে প্রথমে ভাবতে হবে প্রযুক্তি এখন অনেক এগিয়েছে। সারারাত চার্জে লাগিয়ে রাখলে ফোন ড্যামেজ হতে পারে এটা একটা মিথ। এখনকার ফোনে এমন প্রযুক্তি দেয়া থাকে যে ফুল হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এটা চার্জ নেয়া বন্ধ করে দেবে।

৪. যেকোনো ফাস্ট চার্জার আইফোনে সাপোর্ট করবে

আইফোনে ফাস্ট চার্জ এর জন্য প্রয়োজন নিশ্চিত করতে হবে ক্যাবল আর এডাপ্টার আইফোনের কিনা। ফাস্ট চার্জের জন্য আপনার লাগবে একটি USB C টু Fast Lightning ক্যাবল এবং USB C সাপোর্ট এডেপটার।

৫. অ্যাপল ক্যাবল এবং অন্য ক্যাবলের কোন পার্থক্য নেই

আপনি যেকোনো ক্যাবল আইফোনে ব্যবহার করতে পারেন না। তবে ক্যাবল হিসেবে আপনাকে আইফোনের ক্যাবলই ব্যবহার করতে হবে এমন নয় আপনি MFI সার্টিফিকেশন আছে এমন যেকোনো ক্যাবল ব্যবহার করতে পারেন। MFI এর মানে হচ্ছে Made of iPhone।

৬. আইফোনে কাস্টমাইজ অপশন কম

এটাও এখন মিথে পরিণত হয়েছে কারণ iOS 16 আপনি পাবেন অনেক ধরনের কাস্টমাইজ অপশন। হোম স্ক্রিন কাস্টমাইজ সহ এখন চাইলে হোমে এড করতে পারবেন বিভিন্ন Widget।

৭. আইফোন App Store আবিষ্কার করে নি

হ্যাঁ, আইফোনের শুরু থেকে App Store কনসেপ্টটি ছিল না। এই কনসেপ্ট এসেছে ২০০৮ এর পর থেকে। আগে আইফোন গুলোতে ন্যাটিভ অ্যাপ থাকতো।

৮. যেকোনো ফোন সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান ছাড়া ৯১১ কল করতে পারে

হ্যাঁ এটা সত্যি। যেহেতু এটা ইমারজেন্সি নাম্বার কোন ফোনে সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান না থাকলেও ৯১১ এ কল করা যাবে।

৯. আইফোনে ভাইরাস ঢুকতে পারে না

এটা সত্যি যে আইফোন ভাইরাস, ম্যালওয়্যার প্রবেশ করার চান্স একদমই নেই। আইফোন তাদের সিকিউরিটি নিয়ে বেশ সচেতন এবং ভবিষ্যতে আরও থাকবে। তাছাড়া আইফোনের সিকিউরিটি ভেঙ্গে দেখাতে পারলে পুরস্কৃত করারও ঘোষণা আছে।

১০. আইফোন সব সময় আমাদের শুনে

এটা সত্যি নয় আইফোন সব সময় আমাদের শুনছে। অ্যাপল অন্য কোম্পানি গুলোর মতই টার্গেট করার জন্য ডেটা কালেক্ট করে কিন্তু সব সময় শুনে না।

১১. incognito মুডে প্রাইভেট ব্রাউজ করা যায়

এটা ভুল, আপনি প্রাইভেট ভাবে ইন্টারনেট ভিজিট করতে Incognito মুড ব্যবহার করলেও আপনার আইপি হাইড হয় না, এমনকি পাবলিক ওয়াই ফাই ব্যবহার করলে আপনার ডেটাও লিক হতে পারে।

১২. সিস্টেম আপডেট এর পর ব্যাটারি ব্যাকআপ কমে যায়

না, এটা ভুল ধারণা। iOS 15 প্রকাশের পর বিশ্বজুড়ে ইউজাররা এমনটি দাবী করেছিল, পরবর্তীতে অ্যাপল এই সমস্যা সমাধান করে দিয়েছে।

১৩. অ্যাপ ক্লোজ করলে আইফোনের চার্জ বেশি ব্যয় হয়

এটা ঠিক যে অ্যাপ ক্লোজ করে আবার ওপেন করতে সময় বেশি লাগে। এই মিথটি নিয়ে ভিন্ন মতামত আছে তবে আইফোন রেকোমেন্ড করে অ্যাপ না ক্লোজ করতে।

১৪. অটো ব্রাইটনেস ব্যাটারি বেশি ড্রেইন করে

না ভুল। অটো ব্রাইটনেস আইফোন খুব স্মার্টভাবে মেইনটেইন করে সুতরাং এখানে ব্যাটারি বেশি খরচ হয় না।

১৫. বেশি গরম এবং ঠাণ্ডায় আইফোনের ক্ষতি হতে পারে

এটা ঠিক। অ্যাপলের মতে অতিরিক্ত গরম তাপমাত্রায় আপনার আইফোন ড্যামেজ হতে পারে এবং অতিরিক্ত ঠাণ্ডায় আপনার আইফোনের ব্যাটারি ড্যামেজ হতে পারে।

১৬. ব্লুটুথ দিয়ে আইফোনে Lossless অডিও শুনা যায়

না, আপনি ব্লুটুথ দিয়ে সম্পূর্ণ মিউজিক শুনতে পারবেন না, কিছু ডেটা লস হবেই।

১৭. অ্যান্ড্রয়েড দিয়ে ভাল মিউজিক শুনা যায়

আইফোনে Lossless অডিও না শুনার কারণ ব্লুটুথ নয়, আইফোন নিজে। আইফোন নির্দিষ্ট লাইসেন্স না দেয়ার কারণে ব্লুটুথ দিয়ে Lossless অডিও শুনা যায় না তবে অ্যান্ড্রয়েড দিয়ে শুনা যেতে পারে।

১৮. আইফোনের স্ক্রিনে কোন স্ক্রেচ পড়ে না

এটা একটা ভুল ধারণা, যেহেতু আইফোনের স্ক্রিন গ্লাস ম্যাটারিয়েলে তৈরি সেহেতু এটাতে স্ক্র‍্যাচ পড়তেই পারে।

১৯. আইফোনের স্ক্রিন প্রটেক্টর জরুরি

না, আইফোনে স্ক্রিন প্রটেক্টর জরুরী না। আইফোনের স্ক্রিন যথেষ্ট শক্তিশালী তবে আপনি মানসিক প্রশান্তির জন্য স্ক্রিন প্রটেক্টর ব্যবহার করতেই পারেন।

২০. আইফোন ওয়াটারপ্রুফ

এটা ভুল ধারণা, আইফোন কখনই ওয়াটারপ্রুফ নয়। ডিভাইস অনুযায়ী আলাদা আলাদা Water Resistance স্ট্যান্ডার্ড রয়েছে যেগুলোতে নির্দিষ্ট সময় এবং গভীরতা পর্যন্ত আইফোন ড্যামেজ হয় না।

২১. মাইক্রো ওভেন দিয়ে আইফোন চার্জ হয়

এটা ভুল, কখনো এটা ট্রাই করতে যাবেন না। মাইক্রো ওভেন দিয়ে আইফোন চার্জ হয় না।

২২. iPhone 9 স্কিপ করে দেয়া হয়েছে

iPhone 8 এর পর একেবারে আসে iPhone 10 মাঝখানে 9 কোথায়? এটা আসলে অ্যাপলের মার্কেটিং স্ট্রেটেজি ছিল তারা iPhone 9 এর বদলে নিয়ে আসে iPhone X (10)। অ্যাপলের ১০ বছরপূর্তি উপলক্ষে আইফোন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

২৩. ব্যাগে ভরে চালের মধ্যে রাখলে পানিতে পড়া আইফোন ঠিক হয়

আইফোন অবশ্য এটা রিকোমেন্ড করে না, তারা বলেছে আইফোনের মধ্যে চাল ঢুকে এটি আরও বেশি ক্ষতির কারণ হতে পারে। তবে কখনো এটা কাজ করে, পানিতে পড়ে ড্যামেজ হবার আগেই এই পদ্ধতি ফলো করলে, চাল আর্দ্রতা শোষণ করে নিতে পারে ফলে ফোন ঠিকও হয়ে যেতে পারে।

শেষ কথা

আশা করছি আজকে অনেক গুলো ধারণা আপনাদের ক্লিয়ার করতে পেরেছি। তবে এটা বলা যায় আইফোন নিয়ে প্রচলিত সব ধারণা সঠিকও নয় আবার ভুলও নয়।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 569 টি টিউন ও 200 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 109 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস