Windows 11 এ স্লো স্টার্টআপ ইস্যু যেভাবে সলভ করবেন

টিউন বিভাগ টিপস এন্ড ট্রিকস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে। আজকে আলোচনা করব Windows 11 নিয়ে।

Windows 11 কে ফাস্ট অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে মার্ক করা হলেও এটিতে আগের অপারেটিং সিস্টেম গুলোর মতই রয়েছে স্লো স্টার্টআপ সমস্যা। মেমোরি ও হার্ডওয়্যার রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট উন্নত করে হলেও স্টার্টআপ ইস্যু ইউজারদের কখনো কখনো ফেস করতেই হয়।

আপনি যখন কোন অ্যাপ ইন্সটল করেন তখন বেশিরভাগ অ্যাপই স্টার্ট-আপে রান হওয়ার পারমিশন নিয়ে নেয়। স্টার্ট-আপে রান হওয়া খারাপ কিছু না। এমন অ্যাপ আছে যেগুলো স্টার্ট-আপে রান হওয়া জরুরী যেমন, এন্টিভাইরাস, নেট স্পীড মিটার, ইত্যাদি। তবে অনেক অ্যাপ আছে যেগুলো স্টার্ট-আপে রান হওয়া তেমন জরুরী নয়। অনেক বেশি অ্যাপ যখন স্টার্ট-আপে রান হতে চায় তখন র‍্যাম, CPU, হার্ডডিস্ক সব কিছুর উপর চাপ পড়ে ফলে স্টার্ট-আপ স্লো হয়ে যায়।

আজকের এই টিউনে আমরা কিছু সেটিংস নিয়ে আলোচনা করব যেগুলো কিছুটা হলেও আপনার এই সমস্যার সমাধান করতে পারবে।

সমাধানে যাবার আগে চলুন দেখে নেয়া যাক কী কারণে এমনটি ঘটে,

  • বিল্ড ইন এবং থার্ডপার্টি স্টার্টআপ অ্যাপ কনফিগারেশনের ফলে
  • উইন্ডোজ ইন্সটলেশন ও সিস্টেম ফাইলের ইস্যুর জন্য
  • ক্রুটি-পূর্ণ উইন্ডোজ আপডেটের ফলে
  • SSD বাদে গতানুগতিক হার্ডডিস্ক ব্যবহারের ফলে

 

চলুন এবার সমাধান গুলো কি হবে জেনে নেয়া যাক

১. অপ্রয়োজনীয় স্টার্টআপ অ্যাপ গুলো ডিজেবল করুন

যেমনটা শুরুতে বললাম, যখন আপনি নতুন কোন অ্যাপ ইন্সটল করবেন তখন হতে পারে এটা অটোমেটিক স্টার্টআপে রান হওয়ার জন্য সেট হয়ে যায়। তো একই সাথে অধিক অ্যাপ রান হতে চাইলেই স্টার্টআপে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

দুই ভাবে আপনি স্টার্টআপ অ্যাপ ডিজেবল করতে পারেন, Settings থেকেও করতে পারেন আবার টাস্ক ম্যানেজার থেকেও করতে পারেন।

Task Manager ওপেন করুন, Startup ট্যাবে ক্লিক করে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ গুলো Disable করে দিন। পিসি রিস্টার্ট দিন। কিছু কিছু অ্যাপ টাস্কবারে নাও শো করতে পারে, সেগুলোর ক্ষেত্রে অ্যাপে ঢুকে সেটা ডিজেবল করে দিন।

২. ক্লিন বুট করুন

উইন্ডোজকে নির্দিষ্ট কিছু ড্রাইভার এবং প্রোগ্রাম দিয়ে রান করা হলে সেটাকে ক্লিন বুট বলে। ক্লিন বুটে থার্ডপার্টি অ্যাপ রান হয় না। থার্ডপার্টি অ্যাপ সিস্টেমে কোন ঝামেলা তৈরি করলে ক্লিন বুট করা হয় সেগুলো আনইন্সটল করার জন্য।

স্লো স্টার্টআপ সমস্যা সমাধানেও ক্লিন বুট ভাল কাজ করে।

  • Win + R প্রেস করে Run ওপেন করুন
  • টাইপ করুন msconfig.msc এন্টার দিন এবং System Configuration ওপেন করুন
  • System Configuration ওপেন হলে Services ট্যাবে ক্লিক করুন
  • Hide all Microsoft services বক্স সিলেক্ট করুন
  • এবার Disable all বাটমে ক্লিক করুন
  • এবার Startup ট্যাব ওপেন করুন এবং Task Manager ওপেন করুন
  • Startup ট্যাব থেকে প্রতিটি আইটেমে ক্লিক করুন এবং ডিজেবল করে দিন।
  • Task Manager ক্লোজ করুন
  • System Configuration উইন্ডোতে OK ক্লিক করুন এবং পিসি রিস্টার্ট দিন।

যদি বুট টাইম ইম্প্রুভ করে তাহলে বুঝবেন অ্যাপেই সমস্যা। এবার ক্লিন বুট ডিজেবল করুন। পুনরায় পিসি ওপেন করে একেক করে দেখুন কোন অ্যাপ সমস্যা তৈরি করছে।

৩. উইন্ডোজ আপডেট করুন

উইন্ডোজের সিস্টেম সংক্রান্ত বাগের কারণে কখনো কখনো স্টার্টআপ ইস্যু দেখা দিতে পারে। পিসি স্টার্ট হতে অধিক সময় নিতে পারে। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে মাইক্রোসফট এই ধরনের বাগ পেলে সেটা দ্রুত সমাধান করে আপডেট দিয়ে দেয়। সুতরাং ভাল হয় আপনি কোন নতুন আপডেট এলে সেটা ইন্সটল করে নিন। নতুন আপডেট গুলো সব সময় পারফরম্যান্স ইম্প্রুভ নিয়ে আসে।

  • Windows 11 আপডেট করতে,
  • Win + I প্রেস করে Settings ওপেন করুন
  • বামপাশ থেকে Windows Update ট্যাবে ক্লিক করুন
  • Check for updates বাটমে ক্লিক করুন, আপডেট চেক করতে কিছুটা সময় দিন।
  • আপডেট পেলে ডাউনলোড এবং ইন্সটল বাটমে ক্লিক করুন। শেষ হলে পিসি রিস্টার্ট দিন।

কখনো উইন্ডোজ আপডেট উল্টো স্লো স্টার্টআপ ইস্যু তৈরি করতে পারে। সেক্ষেত্রে in-place আপগ্রেড করুন। এ বিষয়ে নিচে আলোচনা করা হয়েছে।

৪. উইন্ডোজ ফাস্ট স্টার্টআপ মুড এনেভল করুন

Shutdown এর পর দ্রুত উইন্ডোজ স্টার্ট হওয়াকে বলে Fast Startup। এটা Shutdown এবং Hibernation এর হাইব্রিড ভার্সন।

এটা যখন এনেভল করা হবে তখন এটি একটিভ সেশন গুলো সেভ রাখবে না এবং রানিং অ্যাপ গুলো ক্লোজ করে দেবে কিন্তু অপারেটিং সিস্টেম Hibernation মুডে চলে যাবে। ফলে সিস্টেম দ্রুত রান হবে।

আপনার সিস্টেম Hibernation, কম্পিটিবল হলে এমনিতেই Fast Startup এনেভল করা থাকে, তবে আপনি এটি ভুল করে ডিজেবল করে ফেললে আবার এনেভল করে নিতে পারেন। Fast Startup এনেভল করতে,

  • Win + R প্রেস করে Run ওপেন করুন
  • control টাইপ করে Control Panel ওপেন করুন
  • System and Security > Power Options এ যান
  • Choose what the power বাটনে ক্লিক করুন
  • Change settings that are currently unavailable এ ক্লিক করুন
  • Shutdown settings সেকশন থেকে, Fast Startup এনেভল করে দিন।
  • Save changes এ ক্লিক করে, পিসি Restart দিন।

তবে এই Fast Startup এর কিছু অসুবিধাও আছে যেমন এটি Encrypted Disk images, এর সাথে ঝামেলা করতে পারে, রেগুলার শাটডাউন স্কিপ করতে পারে, বুট ড্রাইভ লক করতে পারে এবং ডুয়েল বুটেও সমস্যা হতে পারে।

৫. Windows 11 কে In-Place আপগ্রেড করুন

In-Place আপগ্রেড এর মাধ্যমেও আপনি স্লো স্টার্টআপ সমস্যার সমাধান করতে পারেন। কোন প্রোগ্রাম এবং ফাইল ডিলিট না করে উইন্ডোজ রি-ইন্সটল করাকে বলা হয় In-Place আপগ্রেড।

যদিও ক্লিন ইন্সটল ভাল তবে পুনরায় সব কিছু সেটআপ করার ঝামেরা এড়াতে In-Place আপগ্রেডই ভাল।

  • প্রথমে Windows 11 এর ডাউনলোড পেজে যান
  • Windows 11 Disk Image সেকশনে যান
  • ড্রপডাউন থেকে Windows 11 সিলেক্ট করুন
  • Download বাটমে ক্লিক করুন
  • ল্যাংগুয়েজ সিলেক্ট করুন
  • Confirm এ ক্লিক করুন
  • Windows 11 ISO, ডাউনলোড করতে 64-bit সিলেক্ট করুন
  • ডাউনলোড হয়ে গেলে Windows_ISO.iso ফাইলে
    রাইট ক্লিক করে Mount সিলেক্ট করুন
  • Setup.exe ফাইলে ডাবল ক্লিক করে Windows 11 সেটআপ রান করুন
  • Change how Setup downloads updates এ ক্লিক করুন
  • স্ট্যাবল ইন্টারনেট কানেকশন না থাকলে Not right now এ ক্লিক করুন।
  • না চাইলে default রেখে দিন
  • Next এ ক্লিক করে Accept এ ক্লিক করুন
  • নিশ্চিত হোন Keep personal files and apps অপশনে টিক দেয়া আছে কিনা।
  • আপগ্রেড চালু করতে Install, এ ক্লিক করুন

কিছুক্ষণ সময় নেবে, আপগ্রেড হয়ে গেলে দেখুন স্লো স্টার্টআপ সমস্যা সলভ হয়েছে কিনা।

৬. বুট ড্রাইভ হিসেবে SSD সিলেক্ট করুন

স্লো স্টার্টআপ সমস্যার অন্যতম কারণ হতে পারে হার্ডওয়্যার। বুট ড্রাইভ দুর্বল হলেও স্টার্টআপ স্লো হতে পারে। এজন্য মডার্ন ল্যাপটপ গুলো দ্রুত বুটের জন্য NVMe SSD বুট ড্রাইভ ব্যবহার করে। আপনি যদি HDD ব্যবহার করে থাকেন তাহলে এখন সময় হয়েছে এটাকে SSD তে আপগ্রেড করুন।

SSD চেঞ্জ করা আপনার জন্য ব্যয়বহুল হতে পারে তবে পারফরম্যান্স উন্নত করতে এতটুকু আপনাকে করতেই হবে।

শেষ কথা

SSD যুক্ত মেশিনে স্লো স্টার্টআপ খুব বেশি দেখা যায় না। উইন্ডোজ আপডেট গত ঝামেলা, ফাইল এরর, মাত্রাতিরিক্ত স্টার্টআপ অ্যাপের জন্য স্লো স্টার্টআপ সমস্যা দেখা দিতে পারে। আশা করছি উপরের পদক্ষেপ গুলো আপনার এই সমস্যা সমাধান করে দিতে পারবে।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 539 টি টিউন ও 200 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 115 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস