আপনার অনলাইন রেপুটেশন Fix করবেন যেভাবে

টিউন বিভাগ টিপস এন্ড ট্রিকস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 15
কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা

বর্তমান প্রযুক্তির অগ্রগতি আমাদের অনলাইনে একে অপরের সাথে কানেক্ট হওয়ার প্রক্রিয়াকে করেছে আরো অনেক বেশি সহজ। আমরা প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে বিভিন্ন Post করে থাকি এবং নিজেরাও অন্যের Post - এ লাইক টিউমেন্ট করে থাকি। তবে, এই সব Social media কিংবা অনলাইন প্লাটফর্ম গুলো ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আমরা অনেকেই ভুলে যাই যে, আমাদের এসব অ্যাক্টিভিটি গুলো অসংখ্য মানুষ দেখছে।

ভুল করা জীবনের একটি অনিবার্য সত্য। ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও আপনি এরকম অনেক ভুলের সম্মুখীন হতে পারেন এবং আপনি চাইলেই সেই ভুল থেকে আবার বেরিয়ে ও আসতে পারেন। অনলাইনে আপনার করা কোন একটি Post অথবা আপনার কোন অ্যাক্টিভিটি চরমভাবে আপনার অনলাইন খ্যাতি ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।

যাই হোক, আজকের এই টিউনটিতে আমি আলোচনা করব, কীভাবে আপনি আপনার অনলাইন খ্যাতি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করবেন এবং কোনভাবে আপনার খ্যাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গেলে তা আবার পুনরায় ঠিক করবেন?

Online Reputation বা অনলাইন খ্যাতির ক্ষতি হওয়া থেকে প্রতিরোধ করা

অনলাইন খ্যাতির ক্ষতি হওয়া থেকে প্রতিরোধ করা

একটি কথা রয়েছে যে, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ করা ভালো। অনলাইনে আপনার খ্যাতি ধরে রাখার জন্য এই কথাটি প্রযোজ্য। এখানে নিচে এরকম কয়েকটি উপায় দেওয়া হলো: যেগুলো আপনি আপনার কাজে প্রয়োগ করার মাধ্যমে অনলাইনের বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার সুষ্ঠু ব্যবহার করতে পারবেন।

১. সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশি সময় ব্যয় করা থেকে বিরত থাকুন।

কোন একটি বিষয়ে খুব বেশি আসক্ত হয়ে যাওয়া অবশ্যই খারাপ জিনিস; আর সোশ্যাল মিডিয়ার ক্ষেত্রে এই কথাটি আরো বেশি সত্য। আপনি যত বেশি সোশ্যাল মিডিয়াতে সময় কাটাবেন, আপনার ক্ষেত্রে ততো বেশি সম্ভাবনা থাকবে ভুল কিছু করার; যে বিষয়টি আপনাকে পরবর্তীতে অনুশোচনা গ্রস্ত করতে পারে। আপনি যদি পারেন, তাহলে অনলাইনে আপনার উপস্থিতি কমিয়ে দিন এবং সম্ভব হলে প্রতিবারই আপনি আপনার ডিভাইস থেকে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করুন।

আর এই বিষয়টি আপনাকে আপনার সম্ভাব্য ভুল কমিয়ে দিবে না, তবে সম্ভবত এটি আপনাকে আপনার বিবেক বজায় রাখতে অনেকটা সাহায্য করবে। আর আপনি যত সোশ্যাল মিডিয়াতে কম থাকবেন, আপনি পরবর্তীতে তত বেশি দায়িত্বশীল ভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করতে পারবেন। অতিরিক্ত সময় Social media তে কাটানোর মানেই হল, আপনি সেখানে অহেতুক কাজে সময় নষ্ট করবেন।

২. আপনি Post করার আগে দুবার চিন্তা করুন

কোন Post করার আগে অবশ্যই এই কথাটি চিন্তা করবেন যে, আপনি যে Post টি করছেন, এটি হয়তো বা চিরকাল ইন্টারনেটে সংরক্ষিত অবস্থায় থাকবে। ইন্টারনেট বা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার ক্ষেত্রে এই বিষয়টি সবসময় অবমূল্যায়িত থাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনি যাই বলুন না কেন, এটি কিন্তু স্থায়ীভাবে সংরক্ষিত হয়ে যায়।

আপনি কোন Post করার কয়েক মিনিট পরেই হয়তোবা সেটির কথা ভুলে যেতে পারেন; কিন্তু আপনার সেই Post টি কয়েকদিন, এমনকি কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত দেখা যাবে। আপনি ইন্টারনেটে যা বলছেন, সেই বিষয়ে অবশ্যই সতর্ক থাকুন। কেননা, লোকেরা আপনার সেই কথাটি কিংবা সেই টিউনের কথা ভুলে যেতে কিছুটা সময় নিবে। আর সেই কথাটি যদি সেনসিটিভ টাইপের হয়, তাহলে এটি আরো দীর্ঘ সময় ধরে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে।

৩. আপনার পুরনো Post গুলো বারবার রিভিউ করার চেষ্টা করুন

সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার ক্ষেত্রে একটি ভালো অভ্যাস হলো, পুরনো Post গুলোকে মুছে ফেলা। যদিও আপনার একাউন্ট থেকে Post গুলো মুছে ফেললেও, সেগুলো স্থায়ীভাবে ইন্টারনেটে থেকে ডিলিট হবে না। কেননা, ইন্টারনেট একটি একক সত্তা নয়, লক্ষ লক্ষ কম্পিউটারের সমন্বয়েই এটি গঠিত। আর তাই, আপনার সেই Post টির ব্যাকআপ কোন এক জায়গায় থাকতে পারে।

তবে, আপনার বন্ধুবান্ধব কিংবা ফলোয়ারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে এমন পুরাতন Post গুলো আরেকবার চেক করা উচিত। যদিও আপনি ইন্টারনেট থেকে এগুলো Permanently delete করতে পারবেন না, তবে সেসব অবাঞ্ছিত পুরাতন Post গুলো মুছে ফেললে, আপনার অনলাইন রেপুটেশন আরো ভালো হবে।

অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষতি নিয়ন্ত্রণ

অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষতি নিয়ন্ত্রণ

আপনি যদি কখনো সোশ্যাল মিডিয়াতে কোন খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হন, তাহলে ক্ষতি নিয়ন্ত্রণের জন্য আপনাকে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। এ সময় আপনি অবশ্যই শান্ত থাকুন এবং আতঙ্কিত হবেন না। আপনি যৌক্তিকভাবে সমস্যা টি সমাধানের চেষ্টা করুন এবং সেই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করুন।

  1. একটি বিরতি নিন: অনলাইনে আপনি যদি কোন নেতিবাচক সমস্যার সম্মুখীন হন, তাহলে সর্বপ্রথম আপনার যা করা উচিত তা হল পিছিয়ে যাওয়া। আপনি আপনার পিসি বা মোবাইল ফোনটি বন্ধ করুন এবং তারপর অন্য কিছু করুন। আপনি অবশ্যই নিজেকে আবেগ আচ্ছন্ন হতে দিবেন না। আর আপনার যেন রাগান্বিত উত্তর না হয়, যে বিষয়টি পরিস্থিতিকে আরো বেশি খারাপ করতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি কিছুটা সময় নিয়ে তার একটি গঠনমূলক জবাব দিতে পারেন।
  2. আবেগ তাড়িত হয়ে তর্কে যাবেন না: আপনার জন্য সবচাইতে খারাপ হতে পারে, যদি আপনি আবেগ তাড়িত হয়ে কখনো তর্কের বিতর্কে গিয়ে কয়েকটি Post করেন। আপনি অবশ্যই এমন কিছু লিখবেন না, যা আপনাকে সমালোচিত করে এবং আপনার অনলাইন রেপুটেশন কে প্রভাবিত করে। একটি শান্ত এবং সুষ্ঠু বিতর্কে জড়ানো ভালো; তবে সতর্ক থাকুন যে, এই বিষয়টি যেন পরবর্তীতে আপনার নাম কিংবা পেজটিকে তুচ্ছ না করে।
  3. সোশ্যাল মিডিয়ায় কোন ব্যক্তিকে Ignore করুন, Block করবেন না: Social media ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনার কাছে অনেক ব্যক্তির Post ভালো নাও লাগতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি শুরুতেই তাকে ব্লক করে দিতে পারেন না। আপনি চাইলে তার Post Ignore করতে পারেন। এতে করে সেই ব্যক্তির কাছে কোন নোটিফিকেশন যাবে না এবং আপনিও তার Post গুলো আর নিউজ ফিডে দেখবেন না।
  4. ক্ষমা প্রার্থী হউন: আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন কিছু করেন, যার জন্য আপনার ফলোয়ার কিংবা ফ্রেন্ডদের মধ্যে আপনার সম্পর্কে খারাপ ধারণা তৈরি হচ্ছে; তাহলে আপনি আপনার ভুল স্বীকার করে নিতে পারেন এবং আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করুন। আর এ বিষয়টি আপনাকে আবার পূর্বের সম্মানে নিয়ে যেতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খারাপ অভিজ্ঞতা

সোশ্যাল মিডিয়ায় খারাপ অভিজ্ঞতা

কোন ব্যক্তির অনলাইন খ্যাতি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া, যে কারো জন্য একটি খারাপ অভিজ্ঞতা। তবে, কীভাবে এই খারাপ অভিজ্ঞতাকে প্রতিরোধ করা যায় বা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনার ক্ষেত্রে এরকমটি ঘটলে ঠিক কী করা যায়, সে বিষয়টি আপনাকে জানতে হবে। আর এই বিষয়গুলো জানার মাধ্যমে আপনি অনেক মানসিক চাপ থেকে বাঁচতে পারেন।

তাই, অনলাইন বা Social media ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনি সচেতনতার সঙ্গে প্রতিটি পদক্ষেপ গ্রহণ করুন; যাতে করে ভবিষ্যতে আপনাকে সেই কাজের জন্য অনুশোচনা করতে না হয়। আর সম্ভব হলে, অনলাইন রেপুটেশন ভালো করার জন্য আপনি সোশ্যাল মিডিয়াগুলো কম ব্যবহার করুন এবং বাস্তব জীবনে ফিরে আসুন। আপনি অনলাইনে যত বেশি সময় কাটাচ্ছেন, আপনি বাস্তব জীবন থেকে তত বেশি দূরে সরে যাচ্ছেন।

আপনি কি কখনো এমন পরিস্থিতিতে পড়েছেন, যেখানে আপনাকে আপনার অনলাইন রেপুটেশন ঠিক করতে হবে? আপনার এই প্রশ্নের উত্তরটি অবশ্যই নিচের টিউনমেন্ট বক্সে টিউনমেন্ট করে জানান এবং টিউনটি ভালো লাগলে জোসস করুন। ধন্যবাদ, আসসালামু আলাইকুম।

Level 15

আমি মো আতিকুর ইসলাম। কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 369 টি টিউন ও 93 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 61 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।

“আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।” —হযরত মোহাম্মদ (সঃ)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস