৩ টি উপায়ে রিকভার করুন যেকোন অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ডিলিট হওয়া ফটো

Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম টেকটিউনস কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই? আশা করছি ভাল আছেন। বরাবরেই মত আজকেও চলে এসেছি নতুন টিউন নিয়ে।

ছবি বা ইমেজ শুধু মাত্র কয়েক এম্বির একটা ফাইল নয়, অনেকের কাছে নির্দিষ্ট ইমেজ আবেগের ভালবাসার। শত শত স্মৃতি জড়িয়ে থাকে ইমেজের মধ্যে। ফোন চুরি, ভেঙে যাওয়া, রিসেট হয়ে আমাদের ফোনে থাকা ফোটো ডিলিট হয়ে যেতে পারে। ছবি কোন কারণে হারিয়ে গেলে আমাদের মাথায় একটা বিষয়ই প্রথমে আসে আর সেটা হচ্ছে ফটো রিকোভারি। তো কিভাবে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ডিলিট হয়ে যাওয়া ইমেজ রিকোভার করবেন এটা নিয়েই আজকের টিউন।

আমরা একই সাথে কয়েকটা মেথড দেখাবো আশা করা যায় যেকোনো একটি আপনার কাজে আসবে।

ক্লাউড থেকে ফটো রিকোভার করা

গ্যালারি থেকে ইমেজ ডিলিট হয়ে গেলে তা সহজেই রিকোভার করা যায় কারণ সেখানে Trash বা Recycle Bin এর মত অপশন থাকে। ডেক্সটপ এর ক্ষেত্রেও বিষয়টি এক। ভুলবশত কোন ইমেজ ডিলিট করে দিলে সেটা আপনি Recycle Bin থেকে রিস্টোর করতে পারবেন।

বেশিরভাগ ক্লাউড সার্ভিস এবং ফটো অ্যাপ এ ইমেজ ব্যাকআপ অপশন থাকে। ফিচারটি এনেভল করে দিলে, আপনার ছবি ডিলিট করে দিলেও সেটা ব্যাকআপ হিসেবে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সেভ থাকবে।

আপনার যদি যেকোনো ক্লাউড ব্যাক আপ সার্ভিস অন করা থাকে তাহলে গ্যালারি থেকে ইমেজ ডিলিট করলেও সেটা চাইলেই ক্লাউড থেকে ব্যাক নিতে পারবেন। আপনাকে শুধু কষ্ট করে নির্দিষ্ট ক্লাউডে লগইন করতে হবে। Google Photos এর ক্ষেত্রে, অ্যাপটিতে যান ইমেজ ওপেন করুন এবং ডাউনলোড সিলেক্ট করুন। Dropbox, এর ক্ষেত্রে Export এ ক্লিক করে Save to device এ ট্যাপ করুন।

আপনি যদি ক্লাউড ব্যাকআপ থেকেও ইমেজ ডিলিট করে দেন তাহলেও সেখানে রিকোভার অপশন রয়েছে। অধিকাংশ ক্লাউড সার্ভিসে Recycle bin এবং Trash নামক ফোল্ডারে ডিলিট করা ছবি গুলো খুঁজে পাবেন।

Google Photos থেকে ইমেজ রিকোভার

প্রথমে Google Photos, অ্যাপটি ওপেন করুন, Library সিলেক্ট করুন এবং Trash অথবা Bin এ ক্লিক করুন। প্রতিটি ইমেজে কিছুক্ষণ চাপ দিয়ে ধরে থাকুন এবং Restore এ ক্লিক করুন। Restore এ ক্লিক করার পর আপনার ছবি লাইব্রেরিতে ফিরে যাবে। যদি Trash থেকে ৬০ দিনের মধ্যে ছবি রিস্টোর না করেন তাহলে সেটা পারমানেন্টলি ডিলিট হয়ে যাবে।

Microsoft OneDrive থেকে ইমেজ রিকোভার

প্রথমে OneDrive, ওপেন করুন, Me > Recycle bin এ যান। ফাইল সিলেক্ট করুন এবং রিস্টোর আইকনে ক্লিক করুন। OneDrive এ আপনার ডিলিট করা ছবি ৩০ দিন পর্যন্ত থাকবে এর মধ্যে রিস্টোর না করলে ইমেজ পারমানেন্টলি ডিলিট হয়ে যাবে। তবে এর আগেও ছবি ডিলিট হয়ে যেতে পারে যদি আপনার Trash টুটাল স্টোরেজের ১০ % এর বেশি হয়ে যায়।

Dropbox থেকে ইমেজ রিকোভার

Dropbox থেকে ইমেজ রিকোভারের জন্য আপনাকে পিসি থেকে লগইন করতে হবে ফোন থেকে করা যাবে না। প্রথমে Dropbox এ লগইন করুন, Files > Deleted files, এ যান এবং যেটা রিস্টোর করতে চান সেটাতে ক্লিক করুন। ফ্রি প্ল্যান নিলে এখানে আপনার ইমেজ ৩০ দিন পর্যন্ত সেভ থাকবে। পেইড প্ল্যানের ক্ষেত্রে ১৮০ দিন পর্যন্ত রিস্টোর সুবিধা পাবেন।

প্রায় সকল ক্লাউড সার্ভিস গুলোই একই ভাবে ফাইল Trash এ জমা রাখে। আপনাকে শুধু দেখতে হবে কোন সার্ভিস কত দিন পর্যন্ত আপনার ডিলিট ছবির দায়িত্ব নেবে।

SD Card কার্ড থেকে ইমেজ রিকোভার করা

আপনার যদি কোন ক্লাউড সার্ভিস এনেভল না থাকে তাহলে জানতে হবে গ্যালারি অ্যাপ থেকে কিভাবে ইমেজ রিকোভার করা যায়। সব চেয়ে ভাল হয় যদি আপনার ফোনে কোন মেমোরি কার্ড থাকে।

এই মেথড খুব বেশি সহজ নয় এবং এতে সাকসেস রেটও ফিফটি ফিফটি। রিকোভারের জন্য প্রথমে আপনার কার্ডটি পিসিতে কানেক্ট করতে হবে এবং পাওয়ারফুল কোন রিকোভারি অ্যাপ দিয়ে কাজটি করতে হবে। যদি মেমোরি এনক্রিপট না থাকে তাহলে ইমেজ রিকোভার হতেও পারে। তবে এখানে কোন গ্যারান্টি নেই যে রিকোভার হবেই।

মেমোরি কার্ড থেকে ইমেজ ততক্ষণ পর্যন্ত রিকোভার করা যায় যতক্ষণ পর্যন্ত সেখানে নতুন ছবি রিপ্লেস না করা হয়। তাই মেমোরি থেকে ইমেজ ডিলিট করার সাথে সাথে যতদ্রুত সম্ভব রিকোভার করার চেষ্টা করা উচিৎ।

তবে এই মেথডটি ইন্টারনাল স্টোরেজের ক্ষেত্রে কাজ করবে না। কারণ এখন অ্যান্ড্রয়েড ফোন গুলো আগের USB Mass Storage প্রোটোকল ব্যবহার করে না। তাই ইন্টারনাল স্টোরেজ থেকে ইমেজ রিকোভার করা বেশ কঠিন।

EaseUS Data Recovery Wizard দিয়ে ইমেজ রিকোভার করা

ডিলিট ডাটা রিকোভার করার সেরা ফ্রি সফটওয়্যার হচ্ছে EaseUS Data Recovery Wizard। আপনি সফটওয়ারটির Windows এবং Mac উভয় ভার্সনই পাবেন। ফ্রি ভার্সনে আপনি ২ জিবি পর্যন্ত ডেটা রিকোভার করতে পারবেন।

  • প্রথমে আপনার কম্পিউটারের সাথে মেমোরি কার্ডটি কানেক্ট করুন।
  • Data Recovery Wizard সফটওয়্যারটি ইন্সটল করুন এবং রান করুন
  • লঞ্চ করার পর সফটওয়্যারটি আপনার ডিভাইসের এভেইলেবল ড্রাইভ গুলো দেখাবে। মেমোরি কার্ডের ড্রাইভও দেখতে পাবেন।
  • Memory card সিলেক্ট করুন এবং Scan এ ক্লিক করুন। অ্যাপটি আপনার ফাইল গুলো স্ক্যান করা শুরু করবে। ফ্রি ভার্সনে ২ জিবি পর্যন্ত ফাইল আপনি রিকোভার করতে পারবেন। স্ক্যান শেষ হতে ২০ মিনিট লাগতে পারে, তবে স্টোরেজের উপর ভিত্তি করে এই বাড়তে বা কমতে পারে।
  • বাম পাশের প্যানেল সিলেক্ট করুন। ড্রাপডাউন থেকে Graphics এ ক্লিক করুন এবং JPG সিলেক্ট করুন। তবে আপনার ইমেজ অন্য ফরমেটে হলে সেটিই সিলেক্ট করবেন।
  • মাঝখানের উইন্ডোতে যে ইমেজ গুলো দেখাবে সেগুলো আপনি রিকোভার করতে পারবেন। যেটা রিকোভার করবেন সেটা সিলেক্ট করুন এবং Recover Now এ ক্লিক করে সেভ করার লোকেশন সিলেক্ট করে দিন।

কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন, ফাইল সেভ হয়ে গেলে, সেগুলো কপি করে ফোনে নিয়ে নিন।

EaseUS Data Recovery Wizard

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ EaseUS Data Recovery Wizard

Root ডিভাইসে ছবি রিকোভার করা

আপনি যদি ক্লাউড সার্ভিসও ইউজ না করেন এবং মেমোরি কার্ডও ইউজ না করেন, তাহলে আপনার জন্য ইন্টারনাল স্টোরেজ থাকে ছবি রিকোভার করা কষ্টকর হতে পারে। অনেক অ্যাপ ইন্টারনাল স্টোরেজ থেকে ইমেজ রিকোভার করতে পারে, এমন দাবী করলেও কোন অ্যাপের ইন্টারনাল স্টোরেজ স্ক্যান করার কোন পারমিশন থাকে না যদি না ফোনটি Root থাকে।

আপনার ডিভাইস যদি রুট করা থাকে তাহলেই এই মেথড ফলো করুন। নতুন করে রুট করে এই মেথড এপ্লাই করতে যাবেন না কারণ রুট করতে গেলে আপনার সব ডেটা ডিলিট হয়ে যাবে, এবং হতে পারে এতে ডিলিট ইমেজের স্পেসও রিপ্লেস হয়ে যেতে পারে।

DiskDigger দিয়ে ইমেজ রিকোভার করা

চলুন দেখে নেয়া যাক কীভাবে DiskDigger দিয়ে ইমেজ রিকোভার করা যায়,

  • প্রথমে প্লে-স্টোর থেকে DiskDigger Photo Recovery অ্যাপটি ইন্সটল করুন। এটা ইমেজ এবং ভিডিও রিকোভার করার দারুণ একটি ফ্রি অ্যাপ।
  • অ্যাপটি ওপেন করুন এবং পারমিশন গ্র‍্যান্ট করুন
  • এখানে আপনি Basic Scan এবং Full Scan অপশন পাবেন। প্রথম অপশনটি বাদ দিয়ে Full Scan অপশনটিতে ক্লিক করুন, Basic Scan এ ক্লিক করলে আপনি ইমেজের thumbnails ভার্সন খুঁজে পাবেন।
  • এবার ইন্টারনাল স্টোরেজ খুঁজে বের করুন। ডেটা টাইপ সিলেক্ট করুন। যেহেতু আপনি ফটো রিকোভার করবেন JPG অথবা PNG ফরমেট সিলেক্ট করুন।
  • OK তে ট্যাপ করুন. স্ক্যান শুরু হবে।
  • স্ক্যান হবার সময় এটি রিকোভার হওয়া ইমেজ গুলো thumbnail আকারে দেখাবে। তবে একটা বিষয় মাথায় রাখবেন এখানে শুধু মাত্র ডিলিটেড ছবিই দেখাবে না, ইন্টারনাল স্টোরেজের সব ছবি এখানে দেখতে পাবেন।
  • সেটিংস আইকনে ক্লিক করে আপনি স্ক্যান করা আইটেম গুলো ফিল্টার করতে পারবেন। মিনিমাম এবং ম্যাক্সিমাম ফাইল সাইজ সিলেক্ট করতে পারবেন। টাইম সিলেক্ট করে নির্দিষ্ট সময়ে তুলা ছবি গুলোও আলাদা করতে পারবেন।
  • DiskDigger সব ছবি পাবে এমন কোন গ্যারান্টি তারা দেয় না। ফাইল নষ্ট না হলে অবশ্যই ছবি রিকোভারের সুযোগ পাবেন। আপনার কাঙ্ক্ষিত ছবি পেলে, সেটা সিলেক্ট করুন এবং Recover এ ট্যাপ করুন।
  • কোন ফোল্ডারে সেভ করতে চান তা সিলেক্ট করে দিন।

DiskDigger

প্লে-স্টোর লিংক @ DiskDigger

পরবর্তী ঝামেলা এড়াতে ব্যাক আপ রাখুন

ডিলিট হয়ে যাওয়া ইমেজ রিকোভার করা মোটেও সহজ নয়, সেটা অন্তত বুঝতে পারছেন। সুতরাং পরবর্তীতে এমন ঝামেলা এড়াতে ছবি গুলো নিরাপদ ক্লাউড স্টোরেজে ব্যাকআপ রাখুন।

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য ক্লাউডে ব্যাকআপ রাখা অনেক সহজ। অ্যাপ গুলো নীরবে ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকবে এবং নতুন ছবি গুলো ব্যাকআপ নেবে। ইমেজ কখন আপলোড হবে এটাও আপনি চাইলে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। ডেটা এবং চার্জ বাচাতে আপনি, আপলোড টাইম, ওয়াইফাই এবং চার্জের সময় সিলেক্ট করতে পারেন।

শেষ কথা

আশাকরি ছবি রিকোভার করার মেথড গুলো সম্পর্কে আপনাদের পরিষ্কার একটি ধারণা হল। এই মেথড গুলো দিয়ে আপনি কেবল ছবিই নয় অন্যান্য দরকারি ফাইলও রিকোভার করতে পারবেন। রিকোভার করার চেয়ে সব চেয়ে ভাল আগে থেকে কোন ব্যাকআপ সার্ভিস এনেভল করে রাখা।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 625 টি টিউন ও 198 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 93 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস