৬ টি ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স মেথড, যা একজন সফল লিডার কর্মীদের সাথে কাজ করতে ফলো করেন

টিউন বিভাগ টিপস এন্ড ট্রিকস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 31
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

আসসালামু আলাইকুম টেকটিউনস কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই? আশা করছি ভাল আছেন। বরাবরেই মত আজকেও চলে এসেছি নতুন টিউন নিয়ে। আজকে আলোচনা করব যোগ্য লিডারের কিছু ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সম্পর্কে, তো বেশি কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

ব্যক্তিগত তথা ব্যবসায়ীক ক্ষেত্রে ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স (Emotional Intelligence (EQ) এর সঠিক ব্যবহার অনেক গুরুত্ব বহন করে। আর যখন এখানে নেতৃত্ব বিষয়টি আসে তখন তো কথাই নেই। ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সব চেয়ে বেশি ম্যাটার করে যখন আপনি কারো সাথে নতুন সম্পর্ক স্থাপন করতে যাবেন এবং নির্দিষ্ট একটা গ্রুপ বা দলকে পরিচালনা করবেন।

আপনি যখন লিডার হিসেবে কোথাও দায়িত্ব পালন করবেন তখন অবশ্যই নিজের ইমোশন সম্পর্কে সচেতন হোন। এতে করে সহজে সহকর্মী এবং অধস্তনদের সাথে কানেক্ট হতে পারবেন এবং যেকোনো সমস্যার সমাধান বের করার সহজ হবে। আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রেখে বাস্তবের প্রেক্ষিতে আপনি ভাবতে পারবেন।

মানব জীবনের অন্যান্য বিষয়াদির মতই ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স বৃদ্ধি করাও দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া, এর জন্য প্রয়োজন নিয়মিত চর্চা। চলুন দেখে নেয়া যাক ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডার কর্মীদের সাথে কাজ করতে যে ছয়টি ট্রিক্স ফলো করেন,

১. নিজেকে সহকর্মীদের নিজের অবস্থানে ভাবে

ভাল লিডার সহকর্মীদের পরিস্থিতি সম্পর্কে ভাববেন। তাদের চ্যালেঞ্জ এবং হতাশা বুঝার চেষ্টা করবেন। সেই হতাশা এবং আবেগ গুলোতে নিজেকে বসিয়ে বিবেচনা করবেন। আর এই ধরনের মন মানসিকতা একটি গ্রুপে একে অপরকে সাহায্য সহযোগিতার পথকে সুগম করে দেবে। আর এটাই হতে পারে সফলতার অন্যতম একটি উপায়।

২. নিজের কঠিন অবস্থা শেয়ার করেন

লিডার হলেই যে একজন সব কিছু বুঝবেন এবং সবার উপরে সিদ্ধান্ত প্রয়োগ করবেন এমনটা হওয়া উচিত নয়। ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডার সবসময় কর্মীদের সাথে  বিভিন্ন সমস্যা শেয়ার করবে, তাদের কাছে সাহায্য চাইবে, এক সাথে সমাধানে পথ খুঁজে বের করবে, সর্বোপরি নিজেদের মধ্যে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করবে। করোনা মহামারিতে বিশ্বব্যাপী লিডারদের মধ্যে এই গুনটি পরিলক্ষিত হয়েছিল।

৩. কৌতূহল দেখায়

কৌতূহল দেখানো সব ক্ষেত্রেই ভাল। এবং লিডারের ক্ষেত্রে এমন গুণ বিশেষ কিছু সুবিধা দিতে পারে। গবেষণা বলছে কৌতুহলী মানুষরা অন্যের সাথে সহজে মিশতে পারে এবং দ্রুত সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে। যারা কৌতূহল প্রদর্শন করে তারা সহজে অন্যের দ্বারাও আকর্ষিত হতে পারে। ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডার \ কৌতূহল প্রদর্শন করবে এবং অজানাকে জানার আগ্রহ প্রকাশ করবে।

৪. অন্যের সমালোচনা করা থেকে বিরত থাকে

কিছু মানুষ আছে যারা অন্যের কাজে সব সময় সমালোচনা করে এবং এটা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়। এই ধরনের লোকের কাছে কেউ কখনো কোন পরামর্শ বা সমস্যা নিয়ে আসে না। আপনার মধ্যেও যদি এই অভ্যাস থাকে তাহলে দ্রুত এটা পরিবর্তন করুন কারণ এই ধরনের আচরণ সব সময় আপনাকে সহকর্মীদের থেকে আলাদা করে রাখবে। আর ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডার কখনো অপরের সমালোচনা করবে না।

আপনার জন্য পরামর্শ হচ্ছে কখনো পুরো ঘটনা না কথা না শুনে নিজেই এর উপসংহার টানবেন না। মনোযোগ নিয়ে শুনুন এবং ভাবুন, এটা আপনার কমিউনিকেশন স্কিল বাড়াতে সাহায্য করবে।

৫. নিজের ইমোশন লুকায় না

একটা কথা পরিষ্কার ভাবে মনে রাখবেন হাই ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডাররা কখনো নিজের ইমোশন লুকাবে না। নিজেকে বুদ্ধিমান প্রমাণ করতে অনেকে আছেন কঠিন পরিস্থিতিতেও কর্মীদের সাথে সহজ হতে পারে না বা হবার চেষ্টা করে না। তারা নিজেদের শক্ত অবস্থানে দেখাতে গিয়ে খারাপ ফলাফল নিয়ে আসে। এমনটি হওয়া উচিৎ নয়, একজন সঠিক লিডার হিসেবে আপনি এই মুহূর্তে কি ভাবছেন, আপনার কি ধরনের ভুল হয়েছে, আপনি কতটা বিচলিত, এই বিষয় গুলো কর্মীদের সাথে শেয়ার করুন। তাহলে প্রতিষ্ঠানে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একটা চমৎকার ফলাফল নিয়ে আসা সম্ভব হবে।

৬. সব সময় ধৈর্যের চর্চা করে

উচ্চ মাত্রার ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডার ধৈর্যকে সাফল্যের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে বিবেচনা করে। তারা ধৈর্য ধরে অন্যের কথা শুনে, অল্পতেও কোন কিছুতে মাথা ঘামানো থেকে বিরত থাকে। তারা ঠাণ্ডা মাথায় যৌক্তিক ভাবে চিন্তা করে যেকোনো বিষয়ের উপসংহারে পৌছায়। এটা তাদের অন্যের সাথে দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক স্থাপনে সহায়তা করে। হুটহাট সিদ্ধান্ত কখনোই ভাল ফল বয়ে আনে না সেটা আমরা জানি, তাই লিডার হিসেবে উচিৎ সময় নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া।

শেষ কথা

প্রতিষ্ঠানে লিডার হিসেবে অন্যদের সাথে কাজ করতে আপনি উপরের ছয়টি টিপস ফলো করতে পারেন কারণ ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ লিডাররা এই ট্রিক্স গুলোই ফলো করে। এগুলো আপনার ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স বাড়ানোর পাশাপাশি, আপনাকে যোগ্য লিডার হিসেবে গড়ে তুলবে।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Level 31

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 587 টি টিউন ও 196 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 87 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস