সত্যি অবাক করার মত ব্যাপার !!!!!

=> মনে মনে একটি সংখ্যা ধরুন

=> সেটাকে ইংরেজী ওয়ার্ডে লিখুন

=> ঐ ওয়ার্ডে যতটি লেটার আছে গুনুন

=> গুনে পাওয়া সংখ্যাটি লিখুন

=> পাওয়া সংখ্যাটি আবার ইংরেজী ওয়ার্ডে লিখুন

=> ওয়ার্ডটিতে কয়টি লেটার আছে গুনুন

এভাবে আপনি যতদূর এগোতে চান দেখবেন প্রত্যেক বারই ফোর এ গিয়ে শেষ হবে । সত্যিই অবাক করা ব্যাপার । পরীক্ষা করেই দেখুন ।

যেমন :

যদি মনে মনে সংখ্যাটি 1 ধরি -
1
one
3
three
5
five
4
four
4
four

আবার সংখ্যাটি যদি 100 ধরি -

100
one hundred
10
ten
3
three
5
five
4
four
4

আবার সংখ্যাটি যদি 1000 ধরি -

1000
one thousand
11
eleven
6
six
3
three
5
five
4
four
4

এভাবে আপনি যেকোন সংখ্যাই ধরেন না কেন ফল একই ।

অবাক না হয়ে কি পারা যায় .................

আগে প্রকাশিত আমার শিক্ষার আলো ব্লগে ।

Level 0

আমি ছাত্র ও শিক্ষক। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 13 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 54 টি টিউন ও 1010 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

তুমি যদি শিক্ষিত হও,অশিক্ষিতকে আলো দেবে। না পারলে তুমি অহংকার করবেনা,তুমি দূর্ব্যবহার করবেনা,বিনয়ের সঙ্গে কথা বলবে,তুমি শিক্ষিত বলেই এ তোমার অতিরিক্ত দায়।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

Darun majar to.

http://WWW.BONDHU.IN ER MAJAR GONIT
BIVAGE SHARE KORAR ONURODH ROILO.

ভাল টিউন…।

ভাই, কারণ টা তো খুবই সহজ, কারণঃ

১) FOUR লিখতে 4টা ডিজিট লাগে, অন্য এরকম কোন সংখ্যা নেই যেটার মান ও ডিজিট সংখ্যা সমান।
উদাহরণঃ যদি 2 কে এভাবে লেখা হতঃ TO, অথবা 5 এভাবে লেখা হতঃ PHYVE, তাহলে আর 4 এ আটকা পড়ত না।

২) পারস্পরিক এমন কোন সংখ্যাগুচ্ছ নেই, যাদের মধ্যে কোন লুপ তৈরী হয়।
উদাহরণঃ যদি 5 এভাবে লেখা হতঃ FYV, তাহলে 3 এবং 5 এর মধ্যে লুপ তৈরী হত, কারণ তাহলে 3 (THREE) লিখতে 5 টি ডিজিট এবং 5 (FYV) লিখতে 3 টি ডিজিট লাগত, এরকম তিন বা ততোধিক নাম্বারের মধ্যেও লুপ তৈরী হতে পারত, তাহলে আর FOUR এর মধ্যে আটকা পড়ত না।

    @Ishtiak Zaman: আপনি জানেন তাই আপনার কাছে সহজ । কিন্তু যারা জানেনা তাদের কাছে ?

      @ছাত্র ও শিক্ষক: যারা জানে না তাদের কাছে অজানা, তাই উচিত বিষয়টা কেন হয়, তা সবার কাছে জানিয়ে দেওয়া। অংকের মধ্যে অসংখ্য মজার মজার জিনিস আছে, কিন্তু অলৌকিক কিছু নেই, কোনটা কেন হচ্ছে তার সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা আছে। এরকম মজার মজার অংকের টিউন করে আপনি কারণটা বলে দিতে পারেন, কিংবা ধাঁধা হিসেবে জিজ্ঞেস করতে পারেন, আপনি অবাক হওয়ার ভান করলে সবাই ভাববে বিষয়টা অলৌকিক, তাই সমাধান করার চেষ্টাও করবে না। ধন্যবাদ আপনাকে এরকম সুন্দর একটা বিষয় উপস্থাপন করার জন্য।

      @ছাত্র ও শিক্ষক: ধন্যবাদ । বিষয়টা নিয়া মনে হয় কেউ অলৌকিক ভাব্বেনা কিন্তু অবাক হবে ।

Level 0

four e 4 ta character achhe, tai emon atke jay, share korar jono thnx bro

সত্যি অবাক করার মত ব্যাপার !!!!!
ধন্যবাদ।

ধন্যবাদ স্যার। তবে এটা খুব যে অবাক করার মত ব্যাপার ঠিক তা না। যেহেতু 4 লিখতে চারটি বর্ণ লাগে, তাই কোনভাবে 4 এলেই এটা লুপে পড়ে যায়। বাংলার বেলায় এটাকে এভাবে দেখানো যায়:
এক – দুই – তিন – তিন – তিন – তিন – ……
বাহাত্তর – সাত – তিন – তিন – তিন – তিন …….
একশত – চার – তিন – তিন – তিন ……
আটানব্বই – আট – তিন – তিন – তিন …..
দশ – দুই – তিন – তিন – তিন …….
এক হাজার – সাত – তিন – তিন – তিন …..
আবারো ধন্যবাদ।

কই ? হল নাতো কিছুই!!!!!!!!!! উদাহরণ : –

=> মনে মনে একটি সংখ্যা ধরুন 11

=> সেটাকে ইংরেজী ওয়ার্ডে লিখুন ELEVEN

=> ঐ ওয়ার্ডে যতটি লেটার আছে গুনুন 6 টি

=> গুনে পাওয়া সংখ্যাটি লিখুন 6

=> পাওয়া সংখ্যাটি আবার ইংরেজী ওয়ার্ডে লিখুন SIX

=> ওয়ার্ডটিতে কয়টি লেটার আছে গুনুন 3 টি

আপনার LOGIC টা তো কাজ করলো না………………………

Level 0

যদি মনে মনে 2 ধরা হয়, তা হলেও answer হবে 3।
ব্যাপারটা কিছুই-তো হল না! :O

Level 0

ওহ! এখন বুঝলাম। ধন্যবাদ 🙂

আসলেই মজার আর অবাক করার। আমি গণিত একদমই করি না, করতে ইচ্ছায় করে না। গণিত মানেই আজিব জিনিস। 🙁

Level 0

ami ar akta jure di. 0 theke 999 sonkha porjonto konotatei “a” nei. 😀

boss tune ta jotil hoyni

@ Tuner:
বাংলার বেলায় কার চিহ্নগুলোসহ গুণতে হবে।

ধন্যবাদ স্যার।

ভাল লাগল স্যার,ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।