কিভাবে ব্লগারে একটি মানসম্মত টিউন করবেন?

Level 0
BBA -Honours (Accounting), Sitakunda Degree College, Sitakundu, Chittagong

বর্তমানে ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করার সবথেকে বেস্ট প্লাটফর্ম ব্লগার। ব্লগার দিয়ে খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় তাও আবার সম্পুর্ন ফ্রিতে। তবে ব্লগার থেকে ইনকাম করতে হলে লেখালেখি করা লাগবে। বর্তমানে সব ধরনের সার্চ ইঞ্জিন আর্টিকেল কে বেশি প্রাধান্য দেয়।

 ইনকাম করতে হলে আবার ওয়েবসাইটে বেশি ভিজিটর লাগবে। যেহেতু সার্চ ইঞ্জিন গুলো আর্টিকেল কে বেশি প্রাধান্য দেয় তাই আর্টিকেল যথাসম্ভব ভালো করতে হবে।

 আজ আমরা আলোচনা করবো কিভাবে ব্লগারে একটি মানসম্মত টিউন করবেন যেটি সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পেজে র‌্যাংক করবে। দেরি না করে চলুন শুরু করি।  
ব্লগারে মানসম্মত টিউন করার টিপস
১. প্রথমে আপনাকে এমন একটি কিওয়ার্ড বেছে নিতে হবে যেটি জনপ্রিয় এবং কম্পিটিশন অনেক কম। আগে আপনি কি জানেন তার উপর কিছু কিওয়ার্ড বেছে নিন। এরপর একটি কিওয়ার্ড রিসার্চ প্লাটফর্ম দিয়ে সার্চ করতে থাকুন।

যে কিওয়ার্ড আপনার পছন্দ মতো হবে সেটি বেছে নিন। বর্তমানে বেশিরভাগ কিওয়ার্ড রিসার্চ প্লাটফর্ম গুলো পেইড অর্থাৎ টাকা খরচ করে চালাতে হয়। তবে ফ্রিতেই প্রফেশনাল ভাবে গুগল কিওয়ার্ড প্লানার দিয়ে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারবেন।

এমনকি গুগল কিওয়ার্ড প্লানারে বাংলা কিওয়ার্ড সাপোর্ট করে যা অন্যান্য পেইড প্লাটফর্মে পর্যন্ত সাপোর্ট করে না।

২. এবার আপনাকে কিছু নির্দেশনা মেনে টিউন করা লাগবে। প্রথমত আপনার রিসার্চ করা কিওয়ার্ড দিয়ে একটি মানসম্মত এবং ইউনিক টিউন করা লাগবে। টিউন যথাসম্ভব বড় করার চেষ্টা করুন।

সাধারণত টিউন বড় করলেই র‌্যাংক করে না তবে বড় করে টিউন করলে চান্স বেড়ে যায়। সাধারণত একটি টিউন ৬০০ ওয়ার্ডের উপরে করা ভালো।

৩. এটি তেমন গুরুত্বপুর্ন নয় কারন সার্চ ইঞ্জিন গুলো বর্তমানে থাম্বনেইল দেখে টিউন র‌্যাংক করাই না। তবে থাম্বনেইল ব্যবহার করলে টিউনের গুনগত মান অনেক বেড়ে যায়।

থাম্বনেইল থাকলে টিউন সুন্দর দেখাই। একটি মানসম্মত থাম্বনেইল তৈরি করার চেষ্টা করুন সবসময়ই নিজে থাম্বনেইল তৈরি করার চেষ্টা করবেন। থাম্বনেইল কপিরাইট হলে র‌্যাংক হয় না।

মোবাইল ইউজার হলে পিক্সেলল্যাব নামক একটি এপ্লিকেশন থেকে সহজেই সুন্দর থাম্বনেইল তৈরি করতে পারেন। আর কম্পিউটারের ক্ষেত্রে তো অনেক টুল আছেই।

আবার অনেকেই লেখা গুলো খুব ছোট করে রাখে। আবার টিউনের মধ্যে কয়েকটি বাক্য পরপর ফাকা রাখতে পারেন এতে টিউনের গুনগত মান অনেক বেড়ে যায় সবসময় চেষ্টা করবেন টিউন গুলো ইউজার ফ্রেন্ডলি করার।

এরপর টিউনের মধ্যে একটি সুন্দর ফন্ট ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে টিউন গুলো অনেক সুন্দর দেখাবে এবং যে পড়বে তার কাছে ভালো লাগবে। একটা কথা সবসময় মনে রাখবেন টিউন করার সময় নিজের ইনকামের কথা মাথায় না রেখে যারা পড়বে তাদের বিষয় চিন্তা করে লিখুন।

দেখবেন তাহলে মানসম্মত টিউন উপহার দিতে পারবেন। আরেকটি কাজ সবসময়ই করার চেষ্টা করবেন। টিউনের মধ্যে জটিলতা কম রাখবেন। বানান এবং ব্যাকরণ সবসময় সঠিক রাখার চেষ্টা করুন।

৫. এবার সেটিংসে কিছু কাজ করা লাগবে। প্রথমত আপনার টিউনে লেবেল যোগ করুন অর্থাৎ আপনার টিউন কোন ক্যাটাগরির ভিতর অন্তর্ভুক্ত সেটা বেছে নিন এবং যোগ করুন। ক্যাটাগরি অনেক গুরুত্বপুর্ন কারন সার্চ ইঞ্জিন গুলো আপনার ক্যাটাগরি দেখেই টিউন গুলো ইনডেক্স করবে।

দ্বিতীয়ত পার্মালিংক দিতে হবে। বাংলা পার্মালিংক ব্লগারে সাপোর্ট করে না তাই ইংরেজিতে দিতে পারেন। আবার পার্মালিংক অটোমেটিক তৈরি হয়ে যায়। যদি অটোমেটিক পার্মালিংক ভালো লাগে তাহলে সেটা রেখে দিতে পারেন অথবা নিজে কাস্টম পার্মালিংক যোগ করতে পারেন।

কাস্টম পার্মালিংক এসইও এর ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপুর্ন। তারপর সার্চ ডিস্ক্রিপশন নামের একটি জায়গা দেখতে পারবেন সেখানে আপনার টিউনের কিছু মেন কিওয়ার্ড গুলো বসিয়ে দিন। এরপর সম্পুর্ন টিউন একবার রিভিউ করে নিতে পারেন। যদি কোথাও ভুল হয় তাহলে সেগুলো শুধরে নিন।

তো এই ছিলো আজকের আলোচনা। একটি মানসম্মত টিউন বদলে দিতে পারে আপনার জিবন। তাই সবসময়ই ভালো টিউন দেওয়ার চেষ্টা করবেন। ইনকামের কথা ভেবে নয় ভিজিটর দের কথা ভেবে টিউন করুন তাহলে আরোও মানসম্মত করতে পারবেন। তবে টিউনের পাশাপাশি এসইও এবং সাইটের ডিজাইন অনেক গুরুত্বপুর্ন। পরবর্তীতে এ বিষয়ে আরোও আলোচনা করা হবে। ততদিন সবাই ভালো থাকবেন এবং সুস্থ থাকবেন।

আল্লাহ হাফেজ।

Level 0

আমি মোঃ মনিরুল ইসলাম। BBA -Honours (Accounting), Sitakunda Degree College, Sitakundu, Chittagong। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 সপ্তাহ 6 দিন যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 1 টি টিউন ও 1 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস