মোবাইলে ব্যাক কভার ব্যবহারে যেসব ক্ষতি হয়, তা আপনার জানার বাহিরে

Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশা করছি আপনারা সকলেই আল্লাহর রহমতে অনেক ভাল আছেন। বরাবরের মতো আজও হাজির হয়েছে আপনাদের জন্য নতুন একটি টিউন নিয়ে। বর্তমানে আমাদের সকলের হাতে হাতে স্মার্টফোন এবং আমরা দিনের প্রায় বেশিরভাগ সময়ই স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি। তবে আমরা যারা স্মার্ট ফোন ব্যবহার করি, তাদের মধ্যে অনেকেই মোবাইলে ব্যাক কভার ব্যবহার করে থাকি।

আমাদের মধ্যে হয়তোবা এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া কষ্টকর হবে যারা কোন না কোন সময়ে স্মার্ট ফোনের ব্যাক কভার ব্যবহার করেনি। কিন্তু আমরা হয়তোবা অনেকেই জানি না যে, একটি স্মার্ট ফোনে ব্যাক কভার ব্যবহার করা সেই ফোনটির জন্য কতটা ক্ষতিকর। আজকের এই টিউনে আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরব ফোনের ব্যাক কভার ব্যবহার করা কতটা ক্ষতিকর। সেই সঙ্গে আমি এই টিউনে তুলে ধরবো কিভাবে আপনি ব্যাক কভার ব্যতীত আপনার স্মার্টফোনটিকে সুরক্ষিত রাখবেন। তো বন্ধুরা, কথা না বাড়িয়ে চলে যাব মুল টিউনে।

টিউনটি সম্পূর্ণ শুরু করার আগে আপনাকে বলে নিচ্ছি, আপনি যদি এখন পর্যন্ত আমাকে ফলো করে না রাখেন তবে এখনই ফলো করে রাখুন। এতে করে আমি ভবিষ্যতে আরো নতুন নতুন টিউন করার জন্য অনুপ্রেরণা পাবো। আর যদি টিউনটি সম্পূর্ণ দেখে আপনাদের কাছে এটি ভালো লেগে থাকে তবে টিউনটিতে একটি জোসস করতেও ভুলবেন না।

ব্যাক কভার ব্যবহার করলে আপনার স্মার্টফোনের যেসব ক্ষতি হয়

স্মার্ট ফোনের ব্যাক কভার ব্যবহার করলে প্রথম যে ক্ষতিটি হয় তা হচ্ছে, ফোনের গরম হওয়ার সমস্যা। আপনি যখন আপনার স্মার্টফোনের ক্যামেরা বেশিক্ষন চালু রাখবেন, গেম খেলবেন কিংবা অন্য কোনো ভারী কাজ অধিক সময় ধরে করবেন; তখন আপনার ফোন কিন্তু অধিক পরিমাণে হিট জেনারেট করে। যেখানে আপনার ফোনটি কিন্তু সেই গরম টি বের করে দেবার বেশি সুযোগ পায় না। যেহেতু আপনার ফোনের ভেতরের দিকে একটি ব্যাক কভার লাগানো থাকে এবং এজন্য আপনার ফোনের গরম টি আবার আপনার ফোনের মধ্যেই চলে যায়। যেখানে সেই গরম টি আপনার ফোনের মাদারবোর্ড পর্যন্ত চলে যায়।

আর যখন আপনার ফোনের মাদারবোর্ড পর্যন্ত হিট পৌঁছে যায়, তখন মাদারবোর্ডে থাকা সমস্ত পার্টস কিন্তু আস্তে আস্তে ড্যামেজ হয়ে যায়। যেখানে সবচাইতে বেশি ক্ষতি করে থাকে এর ব্যাটারির। আপনারা দেখবেন, অনেক সময় মোবাইলের ব্যাটারি ফুলে যায়। এর কারণ হচ্ছে, মোবাইল যখন অতিরিক্ত গরম হয় তখন সেই অতিরিক্ত গরম টি ব্যাটারীতে ক্রিয়া করে এবং সেখান থেকে হিট বের না হবার কারণে ব্যাটারি ফুলে যায়। যার কারনে দ্রুতই ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায়; তবে অন্যান্য কারণেও মোবাইলের ব্যাটারি ফুলে যেতে পারে।

এছাড়া ফোনের অন্যান্য যেসকল পার্টস রয়েছে সেগুলোতে ও যথেষ্ট পরিমাণে প্রেসার পড়ে যায়। যার কারনে আপনার ফোনটি কিন্তু ধীরে ধীরে ড্যামেজ এর দিকে চলে যায়। আপনি যদি একটি ফোন সাধারণভাবে দুই বছর ব্যবহার করতে পারেন, তবে ফোনটিতে ব্যাক কভার ব্যবহার করার ফলে আপনি ফোনটি এক থেকে দুই বছর ব্যবহার করতে পারবেন। এখন অনেকেই বলতে পারে যে, আমিতো দীর্ঘদিন থেকে মোবাইলে ব্যাক কভার ব্যবহার করছি; তবে আমাদের ফোনে তো সমস্যা হচ্ছেনা। আপনি হয়তো বা খেয়াল করলে দেখবেন যে, আপনি আপনার স্মার্ট ফোনের যে ব্যাক কভার টি ব্যবহার করছেন সেটি হয়তোবা অনেক সফট ছিল।

এছাড়া আপনি দীর্ঘদিন ব্যাক কভার ব্যবহার করে সমস্যা না হওয়ার পেছনে আরও কারণ থাকতে পারে। এর মধ্যে যেমনঃ আপনি হয়তো বা দীর্ঘক্ষন মোবাইল ব্যবহার করেন না, দীর্ঘক্ষন গেম খেলেন না, দীর্ঘক্ষন মোবাইলে কথা বলেন না অথবা মোবাইলের ক্যামেরা চালু রাখেন না। আপনার মধ্যে হয়তোবা এইসব বৈশিষ্ট্যগুলো ছিল। যে কারণে আপনার ফোনটি বেশি হিট হয়নি এবং আপনার ফোনটি তেমন ড্যামেজ ও হয়ে যায়নি। আপনি যদি ব্যাক কভার ব্যবহার করে Heavy ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন, তবে এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ফোনটি নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থেকে থাকে।

আর যারা এসির ভিতরে থাকে, তাদের ক্ষেত্রে তো তারা সবসময় ঠান্ডা বা সাধারণ তাপমাত্রায় থাকে; আর এখানে থেকে গেম খেললে কিংবা কোনো ভারী কাজ করলে ফোনটি অতিরিক্ত গরম হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পায়। তবে আমাদের দেশের ৯৯% মানুষের ঘরে হয়তোবা এসি নেই, যার কারণে বেশিরভাগ লোকের ক্ষেত্রে কিন্তু এই স্মার্টফোনের ক্ষতি হয় ব্যাক কভার ব্যবহারের ফলে। যার কারণে আমি বলব, অবশ্যই ফোনের ব্যাক কভার পরিহার করবেন। এছাড়া মোবাইল চার্জে দেওয়ার সময়ও ব্যাক কভার ব্যবহার করলে সেটি পরিহার করা উচিত। এতে করে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সময়, মোবাইল গরম হওয়া থেকে রক্ষা পায়।

এবার অনেকেই হয়তো বা বলতে পারে, ব্যাক কভার ব্যতীত কিভাবে আমি আমার স্মার্টফোনকে ভালো রাখবো? ব্যাক কভার ব্যতীত কিভাবে আপনি আপনার স্মার্টফোনকে ভালো রাখবেন এটি নিয়ে এই টিউনের শেষ পর্যায়ের দিকে আলোচনা করব।

আপনার ফোনের সৌন্দর্য বজায় রাখার জন্য ব্যাক কভার পরিহার করা উচিত?

এখানে এই কথাটি শুনে আপনার মনে হয়তোবা প্রশ্ন জাগতে পারে। যেখানে আমরা স্মার্টফোনে ব্যাক কভার ব্যবহার করে থাকি ফোনের সৌন্দর্য বজায় রাখার জন্য। আমাদের স্মার্টফোনে যেন কোন ধরনের দাগ না পড়ে এবং কোনো দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষার জন্য আমরা এই ব্যাক কভার কে ব্যবহার করে থাকি। তবে আমি এখানে বলছি যে, ব্যাক কভার ব্যবহার করলে আপনার ফোনের সৌন্দর্য নষ্ট হতে পারে। আমার থেকে এই কথাটি শুনে আপনার আজব লাগলেও আপনি নিজের ক্ষেত্রে এটি হয়তো বা লক্ষ্য করেছেন।

আপনি যদি একটি ফোনে বেশি দিন ধরে ব্যাক কভার লাগিয়ে রাখেন, তবে লক্ষ্য করলে দেখবেন স্মার্টফোনটির পেছনে কিছুটা দাগ পড়ে গিয়েছে। এক্ষেত্রে যদি আপনার স্মার্টফোনটি অনেক দামী ও হয় তবে দেখবেন ক্যামেরার চতুর্দিকে এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এর চতুর্দিকে কিছুটা হলেও দাগ রয়ে গেছে। এছাড়া পেছনের কিছু কিছু জায়গায় কিছুটা দাগ পড়ে যায়। যদিও ফোন ভেদে এই দাগটি কম বেশি হতে পারে। যেখানে আপনি আপনার ফোনটিকে সুরক্ষিত রাখতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সেখানে সুরক্ষার বদলে উল্টো ফল হয়ে যায়।

ফোনে ব্যাক কভার ব্যবহার করলে আপনি লক্ষ্য করবেন ফোনটির চতুর্দিকে যে সিলভার এর প্রলেপ রয়েছে সেগুলো আস্তে আস্তে উঠে যায়। এক্ষেত্রে আপনি যদি কোন মিড রেঞ্জের ফোনগুলো ব্যবহার করেন তবে সে ক্ষেত্রে সেই ফোনগুলো থেকে রং আরও দ্রুত উঠে যায়। আপনি যদি মাসের ২-১ বার হলেও ফোনটি খুলেন, তবুও দেখা যাবে ফোনটির চারদিক থেকে আস্তে আস্তে রং উঠে যাচ্ছে। আর যদি আপনি এভাবে করে ব্যাক কভার না খুলে একটানে রেখে দেন, তবুও বেশি দিন পর ব্যাক কভার খুলে দেখতে পাবেন পেছনে কিছু দাগ পড়েছে। যেটি আপনার স্মার্টফোন এর সৌন্দর্য নষ্ট করার পেছনে কাজ করছে।

আপনারা যারা ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাদের ক্ষেত্রে তো এরকম স্ক্র্যাচ পড়বেই। এছাড়া আপনারা যারা বাজেট ফোন ব্যবহার করছেন, তাদের ক্ষেত্রে সেসব ফোনে তো স্ক্র্যাচ পড়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি পরিমাণে থাকে। তবে এখানে অনেকেই বলতে পারে যে এটি একটি হার্ড ব্যাক কভার এবং এজন্যই এ ফোনটিতে দাগ পড়েছে। তবে আমি এখানে বলে নিচ্ছি, আপনি যদি সফট ব্যাক কভার ও ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রেও সমস্যা হবে। এক্ষেত্রে ক্যামেরার পেছনে কিছু দাগ পড়বে এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এর জায়গাতেও দাগ পড়ে যাবে।

আমি এরকম হার্ড ব্যাক কভার এবং রাবারের ব্যাক কভার ব্যবহার করে দেখেছি। যেখানে প্রত্যেকটি ব্যাক কভার দিয়েই দাগ পড়ে যায় বেশিদিন ব্যবহার করার ফলে। এক্ষেত্রে বিশেষ করে আপনি যখন সেই ব্যাক কভার টি খুলতে যাবেন, তখন আবারো চারদিকে দাগ পড়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। আর যখন দীর্ঘ দিন সেই রবারের তৈরি ব্যাক কভার কিংবা হার্ড ব্যাক কভার টি আপনার স্মার্টফোনের সঙ্গে লেগে থাকবে, তখন এমনিতেই সে জায়গাগুলোতে এক ধরনের দাঁগ পড়ে যাবে। এক্ষেত্রে আপনি যদি কিছুদিন পরপর আবার সে গুলোকে খুলতে যান তবে এক্ষেত্রে আরও বেশি পরিমাণে দাঁগ পড়ে যাবে।

প্রত্যেকবার ব্যাক কভার খোলার সময় যদিও এসব দাগ গুলো খুবই কম পরিমাণে হয়, কিন্তু এভাবে করে কিছুদিন পর পর বারবার খোলার পর সেটি অনেক বেশি পরিমাণে হয়। তো, আপনি চেয়েছিলেন আপনার ফোনটিকে ভালো রাখার জন্য একটি ব্যাক কভার ব্যবহার করার; কিন্তু সেখানে উল্টো ফল হল। তবে এটিরও কিন্তু একটি সমাধান রয়েছে।

এছাড়া আপনি যদি ব্যাক কভার ব্যবহার করেন তবে এক্ষেত্রে আপনার মোবাইলের ব্যাটারি ব্যাকআপ ও কম হতে পারে। কেননা মোবাইলটি ব্যবহার করার সময় যে হিট জেনারেট হয় সেটি মোবাইলের ভেতরে আটকে যাওয়ার কারণে তা ব্যাটারির ওপর প্রভাব ফেলে। যেখানে ব্যাটারি যদি অধিক তাপমাত্রায় থাকে তবে তার কার্যক্ষমতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে। যদি হয় একসময় গিয়ে ব্যাটারির কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়। তবে ব্যাক কভার এর কারণে সেটি হয় দ্রুত।

ব্যাক কভার ব্যতীত কিভাবে আপনাদের স্মার্টফোন ভালো রাখবেন?

আমরা আমাদের ফোনের ব্যাক কভার ব্যবহার করি ফোনকে সুরক্ষিত রাখার জন্য। যাতে করে হঠাৎ ফোনটা হাত থেকে পড়ে গেলে কিংবা কোন জায়গায় আঘাতপ্রাপ্ত হলে ফোনের ক্ষতি না হয়। এছাড়া ফোনে কোন ধরনের দাগ না পড়ার জন্যও আমরা ব্যাক কভার ব্যবহার করে থাকি। যেখানে ব্যাক কভার অনেক সময় আমাদের ফোনটিকে দাগ থেকে বাঁচানোর চাইতে আরো ফোনটিতে বেশি নষ্ট করে দেয়। তবে ব্যাক কভার ব্যতীতও আপনি আপনার স্মার্টফোনকে সুরক্ষিত রাখতে পারেন।

ব্যাক কভার ব্যতীত আপনার মোবাইলে নানা ধরনের দাগ করতে পারে। বর্তমানে বাজারে অনেক ধরনের গ্লাস প্রটেক্টর পাওয়া যায় যেগুলো আপনি মোবাইলের ব্যাক কভার এর পিছনে লাগাতে পারেন। আপনি যদি এই ধরনের গ্লাসগুলো লাগান তবে দুই ধরনের সুবিধা পাবেন; প্রথমে তো আপনি আপনার ফোনটিকে ১০০% সুরক্ষিত রাখতে পারছেন, দ্বিতীয়তঃ আপনার ফোনের সৌন্দর্য বজায় থাকছে। আপনি যদি মোবাইলে ব্যাক কভার ব্যবহার করেন তবে বাহিরে থেকে আপনার মোবাইলের কোন সৌন্দর্য ই প্রকাশ পায় না। আপনি এত টাকা দিয়ে মোবাইল কিনলেন, আর সেটি যদি মানুষকে নাই দেখান তবে ব্যাপারটি কেমন হয়। 🤣

আর মোবাইলের সামনের দিকে কিন্তু সবাই একটি করে স্ক্রিন প্রোটেক্টর লাগিয়ে থাকে। এছাড়া এবার অনেকে প্রশ্ন করতে পারে যে, আমার ফোনের সাইজ অনুযায়ী যদি প্রটেক্টর না পাওয়া যায় তবে কি হবে? বর্তমানে এরকমও কিছু মেশিন রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনার ফোনের সাইজ অনুযায়ী প্রটেক্টর কেটে বানিয়ে দেওয়া হয়। যেগুলোকে খোঁজ করলেই পাবেন। এক্ষেত্রে আপনার ফোনের সাইজ যেটাই হোক না কেন, আপনার ফোনের সাইজ অনুযায়ী Rear বা পিছন সাইড এর প্রটেক্টর আপনি বানিয়ে নিতে পারবেন।

কোন স্ক্রীন প্রটেক্টর মোবাইলের জন্য সবচাইতে ভালো

আপনারা বাজারে Rainboo-এর স্ক্রীন প্রটেক্টর পাবেন। অনেকেই হয়তো বা 9D, 7D ইত্যাদি অনেক ধরনের স্ক্রিন প্রটেক্টর দেখে থাকেন এবং এগুলোকে কিনে নেন। তবে এগুলোর চাইতে ভালো হবে আপনি যদি Rainboo-এর অরিজিনাল কোন প্রটেক্টর পান, তবে এটি আপনার মোবাইলের স্ক্রিনে লাগিয়ে নিবেন। যেখানে এটির প্রটেকশন অনেক বেশি ষ্ট্রং।

তবে আপনি চাইলে আপনার মোবাইলে ব্যাক কভার ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে যদি আপনার মোবাইলে কোন ধরনের দাগ না পরে এবং আপনার মোবাইলের ক্ষতি না হয়, তবে আপনি নিজে বিবেচনা করে আপনার মোবাইলের ব্যাক কভার ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। কিন্তু আপনি যদি বেশি দিন হার্ড এর তৈরি ব্যাক কভার ব্যবহার করেন, তবে এক্ষেত্রে মোবাইলের ব্যাক কভার খোলামেলা করার ফলে মোবাইলের পিছন সাইডে দাগ পড়তে পারে। তবে আপনি যদি চান এসব বাধা উপেক্ষা করেও আপনি ব্যাক কভার ব্যবহার করবেন, তবে হবে এটি করতে পারেন। যেখানে আমার কোন নিষেধ থাকবে না।

এছাড়া আমি এখানে আরো একটি কথা বলি; আপনারা যারা গেম প্লে করে থাকেন, আপনারা যে সময় গেম প্লে করবেন তখন ব্যাক কভার টি খুলে রাখবেন। এতে করে আপনি এক্সট্রা বেনিফিট পাবেন। এছাড়া যারা প্রচন্ড রোদের মাঝে ছবি তুলতে যান, তারাও সেখানে ব্যাক কভার টি খুলে ছবি তুলতে থাকবেন। এছাড়া আপনি যদি মনে করেন ফোনের দীর্ঘক্ষণ কথা বলবেন, তবে এক্ষেত্রে আপনি ব্যাপারটি খুলে তারপর কথা বলবেন।

শেষ কথা

আমরা আমাদের মোবাইলের নিরাপত্তার জন্য ব্যাক কভার ব্যবহার করে থাকি। তবে এটি অনেক সময় আমাদের মোবাইল এর জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে যেতে পারে। ব্যাক কভার মোবাইলে ব্যবহার করলে সে ক্ষেত্রে আমাদের মোবাইলে তাপমাত্রা আটকে যেতে পারে এবং এটি আমাদের ডিভাইসের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। এছাড়া ব্যাক কভার ব্যবহার করার পর মোবাইল খোলামেলা করলে এটি মোবাইলের সৌন্দর্য নষ্ট করে। এছাড়া ব্যাক কভার ব্যবহার করলে বাহিরে থেকে ও মোবাইলের সৌন্দর্য বোঝা যায় না, যা নিজের কাছেও খারাপ লাগতে পারে।

তো বন্ধুরা, আজকের টিউনটি এখানেই শেষ করব। আজকের টিউনটি কেমন লাগলো তা অবশ্যই টিউনমেন্ট করে জানাবেন। আসসালামু আলাইকুম।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 160 টি টিউন ও 55 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 15 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস