VPN ব্যবহার কতটা ক্ষতিকর

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম, বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশাকরি মহান প্রতিপালকের অশেষ দয়ায় ও মায়ায় সবাই নিজ নিজ স্থানে ভালো ও সুস্থ আছেন।

আমি নিশ্চিত আপনার হাতে একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল রয়েছে। আর যেহেতু আপনার হাতে একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল রয়েছে, তাই আপনি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঢুকে থাকেন। আর অনেক সময় বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় Vpn ছাড়া ঢুকেনা। বন্ধুরা আজ আমি এই টিউনে কথা বলব Vpn নিয়ে। বন্ধুরা আপনারা সবাই নিশ্চয় Vpn শব্দটি শুনেছেন। আমরা Vpn ব্যবহার করি মূলত মোবাইলের নেটওয়ার্ক স্পিড বাড়ানোর জন্য। অনেক সময় আমরা বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্কে ঢুকতে Vpn এর সাহায্য নেই। Vpn আসলে কি? এটি কিভাবে কাজ করে। এটা ব্যবহার করলে কি কি সুবিধা আছে, কি কি ক্ষতি হতে পারে এসমস্ত সব বিষয় নিয়ে কথা বলব আজকের এই টিউনে। বন্ধুরা Vpn একদিকে যেমন আমাদের অনেক উপকারে আসে, ঠিক তেমনি আমাদের মোবাইলের অনেক ক্ষতি ও করতে পারে। আমাদের অনেকের মাঝে Vpn নিয়ে অনেক ভ্রান্ত ধারণা আছে, এবং কিছু সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন আছে, আজকের এই টিউনে আমি এসমস্ত প্রশ্নের উত্তর শেয়ার করব আপনাদের মাঝে।

তাহলে চলুন আর দেরি না করে মূল টপিকে চলে যাই।

বন্ধুরা আমাদের বুঝতে হবে Vpn এর ব্যাপারটা যেহেতু ইন্টারনেটের সাথে জড়িত তাই আমাদের বুঝতে হবে ইন্টারনেট কিভাবে কাজ করে।

আমরা যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করে কোন একটা সাইটে ঢুকি, ফেসবুকিং করি অথবা ইউটিউবিং করি আসলে আমরা আমাদের ডিভাইস থেকে ওদের সার্ভারে কানেক্টেড হচ্ছি। আর এই কানেক্টেডের বিষয় হচ্ছে এই রকম আপনার মোবাইল থেকে যদি ওয়াইফাই ব্যবহার করেন তাহলে ওয়াইফাই রাউটারে যাচ্ছে, সেই সার্ভার থেকে যারা আপনাকে নেট সার্ভিস দিচ্ছে তাদের সার্ভারে যাচ্ছে সেখান থেকে অন্য কোন সার্ভারে যাচ্ছে এই রকম ভাবে এক পর্যায়ে ধাপে ধাপে ইউটিউব সার্ভারে বা ফেসবুক সার্ভারে যাচ্ছে। ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যখন মোবাইল ডাটা ব্যবহার করছেন তখন আপনার মোবাইল অপারেটর এর যে সার্ভারের আছে সেটা আগে ব্যবহার করছেন তারপর ধাপে ধাপে এক পর্যায়ে ফেসবুক কিংবা ইউটিউব/যে সাইট আপনি ব্যবহার করতে চাচ্ছেন সেখানে গিয়ে পৌছাচ্ছে। তারমানে এখান থেকে ওই সার্ভার গুলোতে যেতে অনেকগুলো ধাপ আপনাকে পার হতে হচ্ছে। জিনিসটা যদিও নিমিষেই হচ্ছে তাই আপনি বুঝতেই পারছেন না যে কতটা ধাপ পার হয়ে আপনার ওই সাইটে প্রবেশ হচ্ছে। বন্ধুরা চলুন এই ধাপগুলোর একটা উদাহরণ দেই। মনে করেন আপনি ১৫ তলা একটি বিল্ডিংয়ে ১৫ তলায় সবসময় যাতায়াত করেন। তাহলে এখানে কি হয় আপনি লিফট ব্যবহার করে সহজেই যেতে পারছেন। যদি আপনার ১০ তলা/১২ তলায় যেতে প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি লিফট ব্যবহার করে সহজেই যাতায়াত করতে পারছেন।

এখন এই ১৫ তলা বিল্ডিংয়ের লিফটে করে যাতায়াতের সাথে যদি আমি সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারের সাথে তুলনা করি। মনে করেন লিফট টি কোন একদিন কোন কারণে বন্ধ হয়ে গেলো বা আপনি যেখানে যেতে চাচ্ছেন সেখানে লিফট থামানো বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। মনে করেন আপনি ১০/১৩ তলায় যেতে চাচ্ছেন এখন এখানে লিফট থামবে না তখন আপনি কি করবেন। তখন কিন্তু একটাই অপশন থাকে যে আপনাকে যদি লিফট বন্ধ থাকে তাহলে আপনাকে লিফটের যায়গায় সিড়ি ব্যবহার করতে হবে।

Vpn এর বিষয় কিন্তু একি রকম কোন একটা সাইট যদি কর্তৃপক্ষ বা কেউ ব্লক করে রাখে, তখন কিন্তু আপনাকে অন্য সার্ভার ঘুরে ফেসবুক, ইউটিউব বা যে সাইটে যেতে চাচ্ছেন সেখানে যেতে হবে। তাহলে বন্ধুরা Vpn বিষয় হচ্ছে একদম সোজা রাস্তা যেটা থাকে, সেই রাস্তা যদি কোন কারণে বাধাগ্রস্ত হয় তাহলে আপনাকে অন্য রাস্তা দিয়ে যেতেই হবে। তাহলে বন্ধুরা Vpn বিষয়টা এই বিকল্প রাস্তা হিসেবে কাজ করে। আর স্বাভাবিক ভাবে আপনি যখন সোজা রাস্তা ছেড়ে কোন বাকা রাস্তা দিয়ে যাবেন তখন কিন্তু আপনার সময় বেশি লাগবে এবং এনার্জিও নষ্ট হবে। আর একারণেই আমরা যখন Vpn ব্যবহার করি তখন কিন্তু আমাদের নেট স্পিড অনেক কমে যায়। এখন কিন্তু স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন আসে? এখন এটার জন্য আমি যদি ঐ বিল্ডিং এর ৮ ও ১০ নাম্বার তলার কথা বলি। মনে করেন ৮ ও ১০ নাম্বার তলায় লিফট থামবে না। কিন্তু ওখানে আপনার কাজ আছে ওখানে আপনাকে যেতেই হবে। তখন আপনাকে কি করতে হবে হয় আপনাকে ৮ নাম্বার তলায় সিড়ি দিয়ে যেতে হবে, আর না হলে ৯ নাম্বার তলায় লিফটে গিয়ে পরে এক তলা সিড়ি দিয়ে নামতে হবে। মোট কথা সোজা রাস্তা দিয়ে আপনি যেতে পারবেন না। কিন্তু আপনাকে যেতে হলে বিকল্প রাস্তায় যেতে হবে। Vpn এর বিষয়টা কিন্তু এই রকম কোন সাইট যদি ব্লক থাকে তাহলে Vpn দিয়ে কানেক্ট করতে পারবেন। আর এটাই হলো Vpn এর সবচেয়ে বড় সুবিধা। কিন্তু এখানে একটা বিষয় খেয়াল রাখতে হবে কিছু কিছু দেশে Vpn ব্যবহার করা লিগেল না আমি যত দূর জানি সৌদি আরবে Vpn ব্যবহার করা লিগেল না। যেসব দেশে Vpn ব্যবহার করা লিগেল না ঐ সমস্ত দেশে Vpn ব্যবহার না করাটাই ভালো।

এখন বলি Vpn ব্যবহার করলে কি অসুবিধা এবং শেষের দিকে বলব Vpn ব্যবহার করলে কি কি ক্ষতি হতে পারে। কিছু দেশে এই লিগেল ব্যবহার করা কিছু সমস্যা হতে পারে। আর নেট স্পিড কমে যাবে এটা সব দেশেই হবে। এটাই হলো সবচেয়ে বড় সমস্যা। এখন বলি vpn ব্যবহার করাটা কতটা ক্ষতিকর। বন্ধুরা আমি নিজে আশাকরি কোন ক্ষতির সম্মোখিত হবেন না।

বন্ধুরা এই ছিলো আজকের মতো, আশাকরি সবার ভালো লেগেছে। এতক্ষণ ধৈর্য সহকারে আমার এই টিউন দেখার ও পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আজকের মতো এখানেই বিদায় জানিয়ে। সবাই নিজ নিজ স্থানে ভালো ও সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 4

আমি মাহবুব আলম তারেক। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 35 টি টিউন ও 107 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

I am a graphics designer, and have worked on a few other web sites 01616234154


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউনের কন্টেন্ট এ বানান ভুল করা হয়েছে ও অনেক বানান ভুল রয়েছে।

করণীয়:

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে টিউনের টিউন থাম্বনেইলে, টিউনের শিরোনামে ও টিউনের কন্টেন্টে কোন প্রকার বানান ভুল থাকা যায় না। প্রতিটি টিউন প্রকাশের আগে অভ্র স্পেল দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করে, নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হতে হয় যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

অভ্র স্পেল দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও পুরো টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করুন, সেই সাথে নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হোন যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউনের কন্টেন্ট এ বানান ভুল করা হয়েছে।

ভুল বানান গুলো: হাইরাইট, কিতু

এরকম আরও অনেক বানান ভুল রয়েছে।

করণীয়:

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে টিউনের টিউন থাম্বনেইলে, টিউনের শিরোনামে ও টিউনের কন্টেন্টে কোন প্রকার বানান ভুল থাকা যায় না। প্রতিটি টিউন প্রকাশের আগে অভ্র স্পেল দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করে, নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হতে হয় যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

অভ্র স্পেল দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও পুরো টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করুন, সেই সাথে নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হোন যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।