ইন্টারনেট আর্কাইভ [পর্ব-০৫] :: Wayback Machine: Webpage Compare – পার্থক্য করুন সময়ের ব্যবধানে কতটুকু চেঞ্জ হয়েছে নির্দিষ্ট ওয়েবপেজ

Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

ইন্টারনেট আর্কাইভ

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে। ইন্টারনেট আর্কাইভের এর আজকের পর্বে আমরা Wayback Machine এর কিছু সুবিধা এবং আপডেট সম্পর্কে ধারণা নেব।

Wayback Mechine কী?

ইন্টারনেট আর্কাইভের সর্বাধিক সুপরিচিত টুল হচ্ছে, "Wayback Mechine"। আমি বিশ্বাস করি সবাই এটির সাথে মোটামুটি পরিচিত অন্তত যারা আমার টিউন গুলো পড়েন তারা এটি সম্পর্কে অবশ্যই জেনে থাকবেন। এই সার্ভিসটির লক্ষ্য হল প্রতি মিনিটে পরিবর্তিত ওয়েবপেজ গুলোর ব্যাকআপ সংরক্ষণ করা, যাতে ব্যবহারকারীরা ভবিষ্যতে যে কোন সময় নির্দিষ্ট টাইম পয়েন্টগুলোতে ফিরে আসতে এবং পুনরুদ্ধার করতে পারে। প্রকৃতপক্ষে, আজকাল সার্চ ইঞ্জিনগুলোতে ও এই সমস্ত সার্ভিস রয়েছে।

সম্প্রতি Wayback Machine তাদের সার্ভিসে যুক্ত করেছে নতুন কিছু ফিচার। অফিসিয়াল ঘোষণার মাধ্যমে জানা যায় নতুন একটি Comparison টুলের মাধ্যমে টাইম পয়েন্টের ভিত্তিতে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের পরিবর্তন দেখা যাবে। এই আপডেটের পর Save Page Now ও কিছু পরিবর্তন এসেছে যেখানে নির্দিষ্ট লিংক প্রবেশ করে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের সকল intra-site অথবা off-site লিংক গুলোও কপি করতে পারবেন।

দারুণ এই সার্ভিস গুলোর মাধ্যমে আপনি যেকোনো ওয়েবসাইটের সকল তথ্য সেভ রাখতে পারবেন। যদি ওয়েবসাইটের মালিক কোন কন্টেন্ট ডিলিট করে দেয় তারপরেও সেটি সেভ থাকবে। কোন ওয়েবসাইট ডাউন থাকলেও আপনি সেটার তথ্য উদ্ধার করতে পারবেন।

Wayback Machine

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ Wayback Machine

কিভাবে ব্যবহার করবেন

ধাপ ১

প্রথমে Wayback Machine এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চলে যান। সেখানে আপনি দেখবেন কিছু ওয়েবসাইট রিয়েল টাইমে ইনডেক্স হচ্ছে চাইলে ক্লিক করে দেখতেও পারেন। হোমপেজে আরও পাবেন Save Page Now, ওয়েবসাইট ব্যাকআপ নেবার অপশন, এটি নিয়ে আমরা পরে আলোচনা করব।

যাই হোক আপনি উপরে ডান পাশের খালি বক্সে নির্দিষ্ট লিংক প্রবেশ করান।

ধাপ ২

নিচে দেখুন আমার দেয়া ওয়েবসাইটের রেজাল্ট দেখাচ্ছে। যেহেতু ওয়েবসাইটটি ২০২০ সালে শুরু হয়েছে সুতরাং ২০২০ সাল থেকে হিস্ট্রি দেখাচ্ছে।

ধাপ ৩

বিভিন্ন সময় ওয়েবসাইটে কি পরিবর্তন হয়েছে জানতে Change এ ক্লিক করুন। কালার গুলো খেয়াল করুন, এখানে নীল মানে হচ্ছে বেশি পরিবর্তন। এবার যেকোনো দুইটি পয়েন্টে ক্লিক করে তাদের মধ্যে পার্থক্য করতে প্রথমে যেকোনো দুটি পয়েন্টে সিলেক্ট করে উপর থেকে Compare এ ক্লিক করুন।

ধাপ ৪

এবার পার্থক্য দেখুন, দুটি ওয়েবপেজ থেকে হলুদ গুলো ডিলিট করা হয়েছে এবং নীল গুলো নতুন করে যোগ করা হয়েছে।

ধাপ ৫

এখানে নতুন আরেকটি ফিচার চালু হয়েছে যার নাম Collection। এর মাধ্যমে দেখতে পারবেন কখন কোন কোন Crawl দিয়ে আপনার সাইট ক্রাউল হয়েছিল। তাছাড়া বিভিন্ন টাইম পয়েন্টে ক্লিক করে কবে স্ক্রিনশট নেয়া হয়েছে এটিও জানতে পারবেন।

ধাপ ৬

আগেই বলেছি  Save Page Now আরও আপডেট হয়েছে। এখন থেকে এখানে লিংক দিলে এক্সাটারনাল ইন্টারনাল সকল লিংক সেভ হয়ে থাকবে। এর মানে হচ্ছে নির্দিষ্ট ওয়েবপেজে যত এক্সটারনাল লিংক থাকবে সেগুলোও সেভ হয়ে যাবে যাতে করে পরবর্তীতে সহজে সকল তথ্য দেখে নেয়া যায়। যাই হোক আপনি নির্দিষ্ট ওয়েবপেজ এক্সটারনাল লিংক সহ সেভ করতে পেজে চলে যান এবং নির্দিষ্ট লিংক দিন। আমি আমার একটা টিউনের লিংক দিলাম।

নির্দিষ্ট ওয়েবপেজের লিংক দেবার পর এটি স্ক্রিনশট তৈরি করবে এবং ওয়েবপেজের সমস্ত কন্টেন্ট হুবহু কপি করবে। এই প্রক্রিয়ায় আপনার ওয়েবসাইটের সকল এলিমেন্ট যেমন, Image, CSS, Javascript সব কিছু সেভ হয়ে যাবে।

ধাপ ৭

সব কিছু সেভ হবার পর আপনি টাইমলাইনের মাধ্যমে আগের সেভ করা ফাইল গুলোও দেখতে পাবেন। ব্যাকআপ হিস্ট্রি গুলো আপনি নির্দিষ্ট টাইম পয়েন্ট আকারে দেখতে পাবেন।

সুবিধা

চলুন Wayback Machine এর  কিছু সুবিধা জেনে নেয়া যাক

  • দুই সময়ের পরিবর্তনের মধ্যে পার্থক্য করতে পারবেন
  • কালেকশন দেখতে পারবেন
  • নতুন আপডেটের অফ-সাইট লিংক গুলোও সেভ করতে পারবেন।

শেষ কথা

ইন্টারনেটে ওয়েবসাইট ব্যাকআপ এর সর্বাধিক ব্যবহৃত টুল হচ্ছে Wayback Machine। কয়েক মিলিয়ন ওয়েবসাইট ব্যাকআপ করা আছে এই টুলের মধ্যে। তবে নির্দিষ্ট কাজের জন্য এই টুলটি বেশ উপকারী। ধরুন কোন ওয়েবসাইটে গুরুত্বপূর্ণ কোন আর্টিকেল রয়েছে সেটা আপনি এই টুলের মাধ্যমে সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন তাহলে যেটি হবে সেই ওয়েবসাইট ডিলিট হয়ে গেলে বা আর্টিকেলটি মুছে দিলেও আপনার কাছে একটি কপি থেকেই যাবে।

কেমন লাগল আজকেই এই টিউনটি তা অবশ্যই জানাবেন। এই টিউন পড়ে আপনার কি মনে হয় তা অবশ্যই টিউমেন্ট করুন।

পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন, আল্লাহ হা-ফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 568 টি টিউন ও 200 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 112 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস