হাত তোলেন কে কে C ড্রাইভ সিস্টেম ড্রাইভ বা যেকোন ড্রাইভের স্পেস বাড়াতে/কমাতে চান???আরো হাজারা ফিচার নিয়ে ফ্রিতে ডাউনলোড করুন EASEUS Partition Master Professional Edition 5.0.1 (giveaway)না পড়লে আজ না হয় কালকে পস্তাইবেন

ভুমিকা

আমাদের মাঝে অনেকেই সি ড্রাইভের স্পেস নিয়ে চিন্তিত থাকুন আবার অনেকে সি ড্রাইভের স্পেস কম বলে উইন্ডোজ সেভেন সেটাপ দিতে পারতেছেন না অথবা সি ড্রাইভের স্পেস লো দেখাচ্ছে।ব্যাপারটা আমি একটা উদাহরন দিয়ে ক্লিয়ার করছি।আমি যখন উইন্ডোজ সেটাপ দিলাম তখন আমার এক ফ্রেন্ড এসে বলল সেও উইন্ডোজ ৭ সেটাপ দিবে কিন্তু সমস্যা হচ্ছে তার C ড্রাইভ বা সিস্টেম ড্রাইভ হচ্ছে মাত্ত ৭ গিগা।কিন্তু উইস্ডোজ সেভেন সেটাপ দিতে মিনিমাম ১০-১৫ গিগা লাগে + বিভিন্ন সফটওয়্যার ইন্সটলশন স্পেসতো আছেন ।আমি উইন্ডোজ ৭+ সফটওয়্যার সেটাপ দেবার পর জায়গা লেগেছে ১৫ গিগা যদিও আমার c ড্রাইভ ২৫ গিগা।এখন আমার ফ্রেন্ডের c ড্রাইভের স্পেস বাড়ানোর জন্য আমি একটা সলিউশন খুজতেছিলাম।পুরো হার্ডডিস্ক ফরমেট করে করা যায় কিন্তু এটা কি সম্ভ??অনেক ধরনের পার্টিশন ম্যানাজার আছে যেগুলোর ফ্রি ভার্সনে c ড্রাইভের পার্টিশন বাড়ানো যায়না কিন্তু পেইড ভার্সনে বাড়ানো যায়।

আসল কথা

আজকে একটা সাইটে দেখলাম EASEUS Partition Master Professional Edition 5.0.1 Full version
ফ্রীতে ডাউনলোড করার সুযোগ দিচ্ছে।এইসব সুযোগ খুবই কম দেয়া হয়।সফটওয়্যারের জনপ্রিয়তা বাড়াতে সাধারনত মাঝেমাঝে এই্সব সুযোগ দেয়া হয়।
অনেক বকবক করে ফেলেছি এবার চলুন আসল কাজে মনোযোগ দেই।একনজরে দেখে নেই এই সফটওয়্যারটি দিয়ে কি কি করা যায়।

  • খুব সহজে C ড্রাইভের স্পেস বাড়াতে বা কমাতে পারবেন।
  • যেকোন ড্রাইভের সাইজ ছোট / বড় করতে পারবেন
  • নতুন পার্টিশন তৈরী করতে পারবেন।
  • পার্টীশন ফরমেট করার পর অথবা ডিলিট করার পর ডাটা রিকভারি করতে পারবেন।
  • নতুন উইন্ডোজ ইন্সটল ছাড়াই ব্যাকআপ এবং কপি করতে পারবেন সমস্ত ডাটা।

এছাড়া একটা প্রফেশনাল পার্টিশন ম্যানাজারে যত ধরনের ফিচার আছে সবগুলোই এতে পাবেন।
আমার মনে হয় আপনার এতক্ষনে বুঝে গেছেন এই সফটওয়্যারটা কত কাজের একটা সফটওয়্যার ।
আরও বিস্তারিত জানতে এবং ডাউনলোড করতে নিচের লিংকে টোকা দিন।

এখন কথা হচ্ছে কি করে আপনি সি ড্রাইভ বা অন্য যেকোন ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন???

প্রথমে কম্পিউটারের সব এ্যাকটিভ সফটওয়্যার বন্ধ করুন এবার EASEUS Partition Master চালু করুন ।এবার যেকোন ড্রাইভ কে রিসাইজ করে আপনার প্রয়োজনমত স্পেস তৈরী করুন ফাকা স্পেস টি Unallocated space হিসেবে দেথা যাবে।এবার নিচের চিত্তে দেখানো মত unallocated space এর আগের ড্রাইভটির উপরে মাউসটি রেখে ডানদিকে ড্রাগ করুন তাহলে Unallocated স্পেসটি বামদিকে সরে আসবে এভাবে সি ড্রাইভের পরেই Unallocated স্পেস টি নিয়ে আসুন।এবার সি ড্রাইভ এর resize এ যান তারপর মাউসটি ডানদিকে ড্রাগ করুন তাহলে দেখবেন স্পেস বেড়ে গেছে।আর কোন সমস্যা হলে এই্ লিংকটিতে টোকা দিন এখানে আরও বিস্তারিত ভাবে দেওয়া আছে।বুঝতে সমস্যা হলে মন্তব্য করুন আমি জানিয়ে দেব।

null

আরেকটা জরুরি কথা আপনার ফাইল সিস্টেম যদি এনটিএফএস থাকে তাহলে রিস্টার্ট লাগবেনা আর যদি ফেট হিসেবে থাকে তাহলে রিস্টার্ট লাগবে এবং ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন শুধুমাত্ত এই মাসের ২০ তারিখ পযর্ন্ত তার পরে আর অফারটি থাকবেনা।

Level 0

আমি বিল্লাহ মামুন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 15 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 142 টি টিউন ও 1447 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

করি মায়ের ভাষায় চিৎকার........ http://bloggermamun.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

খুব ভালো সফটয়ার। অনেক গুলা ধইন্যা।

    ওই মিয়া পইড়া ধন্য দিলা নাকি না পইড়্যাই অন্ধ তীরন্ধাজের মত মাইরা দিলা ধইন্য

    পইড়া, ডাউনলোডাইয়া, কাজ কিরে তারপর দিসি।

    ওই মিয়া এ্‌ইটাতো ৪০ মেগার মত তুমি এত তাড়াতাড়ি ডাউনলোডাইলা ক্যামতে??

    হে হে, আমাদের কি নেট এর কানেকশন কি ফ্রি নিসি নাকি? টাকা দিয়া নিসি মিয়া। 😛

    টাকা দিয়া নিছ মানে কি ???এক মিনিটে ৪০ মেগা ডাউনলোড করছ??

    হুম

ভাই খুবই দরকারি জিনিস। ধন্যবাদ আপনাকে ।
এখন আমার একটা প্রশ্ন ? একটা কম্পিউটারে যদি ড্রাইভ গুলো NTFS, FAt দুটিই থাকে এটাকে কিভাবে শুধু NTFS বা শুধু FAt করব ?
আরেকটি প্রশ্ন কোনটি ব্যবহার ভাল NTFS না FAt ? দয়া করে জানাবেন।

    খোকন ভাই।ফাইল সিস্টেম হিসেবে NTFS ভালো।আপনি ড্রাইভকে NTFS থেকে Fat or FAT to NTFS করতে প্রথমে ড্রাইভটির উপরে মাউসটি রেখে রাইট বাটনে ক্লিক করে ADVANCED তারপর CONVERT তারপর OK.

অনেকদিন কমেন্ট করার মত টিউন পাইনা আজকে গত কয়েকদিনের কমেন্টের বন্ধ্যাত্ব ঘুচলো আমার, তাই ধইন্যা আর ধইন্যাপাতা সহ পুরা ধইন্যা গাছই দিয়া দিলাম

    ১মত

    শাকিল ভাই প্রশংসা শুনতে সবারই ভাল লাগে ।ভাই ভালো লাগলো ।ধইন্যা গাছটা যত্নে রাখব।ভাল থাকবেন।

Unallocated করেছি কিন্তু সি ড্রাইভের পরে সেটা নিতে পারিছ না।
কিভাবে নিব ?

    খোকন ভাই,দেখুই দুইভাবে ড্রাইভগুলো দেখাচ্ছৈ একদম উপরে বাম থেকে ডানে আর তার নিচে উপর থেকে নিচের দিকে।আপনি একদম উপরে বাম থেকে ডানের দিকের গুলোর আনলোকেটেড স্পেস এর আগের ড্রাইভটিতে মাউসটি রেখে ডানদিকে ড্রাগ করুন দেখবেন স্পেসটি বাম দিকে সরে গিয়েছে ।এইভাবে সি ড্রাইভের পরে স্পেসটি নিন।টিউনের চিত্তগুলো খেয়াল করুন সব বুঝতে পারবেন।আর কোন সমস্যা হলে জানাবেন।

ওহে মামুন……..

nice tune download completed kono somosai porla janabo. thanks………

Level 0

awesome,awesome&awesome(500% working) thanks bro

ভাই এইটা করতে কি অনেক সময় লাগে?

    Fat ফাইল সিস্টেমে কিছুটা সময় লাগে কিন্তু NTFS এ সাথে সাথেই হয়ে যায়।

Amar File gulo NTFS chhilo. matro 5 GB c te bariechhi. samay laglo 2 ghanta 25 minit.
Any way, khub voy hochhilo..Hard Disc crash na hoye jay !!!!!.

Thanks.

    কি বলেন???এত সময় ক্যান লাগবে ???আমারতো ২ মিনিটও লাগে নাই ।বুঝলাম না এত সময় লাগার কোন কারন নাই।

    Restart debar porei to Booting menu te ei time ta lagchhe.
    apnar ki onno kothao problem mone hochche ?

    বুটিং মেনুতে এত সময় লাগার কথা না ।তবে যেহেতু বুটিং এ সেটিং কনফিগার করতে লাগছে তাই চিন্তার কোন কারণ নাই।এরকম মাঝে মাঝে হতেই পারে।

Level 0

সাবটাইটেল মামুন ভাই, বুজি না হার্ডডিস্ক খাইতে চাই না
চালিযে যান

    ভাই ব্যাপারটা একেবারেই সহজ।হার্ডডিস্কের কোন ক্ষতিই হবেনা।কোন সমস্যা হলে আওয়াজ দিয়েন আমি আছি।

Ami xp chalai.amara jani je xp te higest space lage Hdd 1.8 gb ami jodi 2gb akta partition banai and shetate xp install die tahole ki system kono proverb felve ki?

    আপনি কি একসাথে দুইটা অপারেটিং সিস্টেম চালাবেন????এত কম স্পেস নিলেতো কম্পিউটার স্লো থাকবে।আর সফটওয়্যারগুলোও ইনস্টল দেয়া যাবেনা।এত কম স্পেস ক্যান নিতে চান??আপনার হার্ডডিস্ক কত জিবি??

Level New

মজা পাইলাম

ভাই…..drive resize করতে গিয়ে আমার একটা ড্রাইভ * দেখাচ্ছে easues er disk map location e আছে……কিন্তু computer এ show করছে না…কি করব……আর কাজের একটা software ধন্যবাদ।

    ড্রাইভটির উপরে মাউসটি রেখে রাইট বাটনে ক্লিক করুন।এবার এডভ্যান্স অপশন হতে change drive letter অপশনটা চেক করে দেখুন ।না হলে অন্য অপশনগুলো যেমন সেট একটিভ,চেক পার্টীশন অথবা হাইড,সু এই অপশনগুলো চেক করে দেখতে পারেন।তবে কোন সমস্যা হলে অ্যাপ্লাই না করে বরং আনডু করুন তাহলেই আগের অবস্হায় ফিরে আসতে পারবেন।আর কোন সমস্যা হলে জানাবেন।

Software tar full version ki karo kache ase? amar sathe ki kew share korben? I need it badly 🙁

Level 0

আমি এই সফ্টওয়ারটি ফুল ভার্সন চাই । মনে হয় দেরি করে এই পোস্টটি দেখার জন্য পস্তাতে হচ্ছে ।
আমার ইমেইলে কি জিপ ফাইলে করে এই সফ্টওয়ারটি ফুল ভার্সন পাঠানো যায়?

Level 0

my email address is [email protected]

please sent your full version Software of this copy.

Level 0

ভাই, দয়া করে এই software টি কোথাও আপলোড করে দিতে পারেন ? মানে ড্রপবক্স জাতীয় কিছুতে? আমি মিস করেছি ডাউনলোডের টাইম।