সফলতার সাথে নাসার দুই নভোচারীকে পৃথিবীতে ফিরিয়ে এনেছে SpaceX

২০০২ সালে Elon Musk এর প্রতিষ্ঠিত রকেট কোম্পানি SpaceX, মানুষকে মহাকাশে পাঠাতে এবং ফিরিয়ে আনতে সফলতা অর্জন করেছে।

গত ২ আগস্ট, নাসার নভোচারী Bob Behnken এবং Doug Hyrley কক্ষপথের চারদিকে ২৭ মিলিয়ন মাইল যাত্রা করার পর নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরে এসেছে। তারা SpaceX এর নতুন Crew Dragon স্পেসশিপে  যাত্রা করেছিল, রবিবার বিকেলে ক্যাপসুলটি ফ্লোরিডার পেনসাকোলার নিকট মেক্সিকো উপসাগরে অবতরণ করে।

নভোচারী দুইজন, ১৫০ বিলিয়ন ডলারের অন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে ৬৩ দিন অতিবাহিত করার পর, পৃথিবীর উদ্দেশ্য রওনা দেন। ক্যাপসুলটি পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের মধ্য দিয়ে ৩৫০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপ মাত্রায় ফিরেছিল। এই অভিযানটির নাম ছিল Demo-2 Mission।

রবিবার বিকেলে অবতরণ করার সাথে সাথে, SpaceX এবং NASA এবং তাদের নভোচারীদের জাহাজে তুলে নেয়।

 

Behnken এবং Hurley স্পেসশিপটির নাম দেন, Endeavour। স্পেসশিপটি ত্যাগ করার আগে Behnken বলেন, মানব স্পেস ফ্লাইটের সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং কঠিন কাজ, আমাদের কক্ষপথে পাঠানো এবং পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনার জন্য ধন্যবাদ, চমৎকার স্পেসশীপ Endeavour কে আবার ধন্যবাদ জানাচ্ছি"।

নাসার Commercial Crew Program এর সাথে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করে এই মহাকাশযানটি ডিজাইন, নির্মাণ এবং পরিচালনা করে SpaceX। এই চুক্তিটির ফলে SpaceX কয়েনটি মিশনে অর্থায়নও করতে পেরেছে।

নাসার নতুন এই অভিযান অথবা Demo-2 Mission সফলতার সাথে সম্পন্ন হওয়াতে, SpaceX, নাসার ISS পৌঁছানোর ক্ষমতাকে পুনরুত্থিত করেছে। সংস্থাটি এখন চাঁদে এবং মঙ্গল গ্রহে মানুষ পাঠানোর জন্য কাজ শুরু করবে বলে আশাবাদী।

নাসা জানায়, মানুষকে মহাকাশে পাঠানোর নতুন দিগন্তের উন্মোচন করেছে SpaceX, এবং নাসা পরবর্তীতেও SpaceX থেকে ফ্লাইট কেনার জন্য প্রস্তুত থাকবে।

মহাকাশযানটি অবতারণের পর Musk বলেন, "এটি এমনটি সময় যেখানে খুব বেশি সুসংবাদ পাওয়া যায় না, আমি মনে করি আপনি পৃথিবীর যেখানেই থাকুন না কেন এটি আপনার জন্য ভাল সংবাদ"।

তিনি আরও জানান, যদিও আমি খুব ধার্মিক নই, তবে আমি এটার জন্য প্রার্থনা করেছি।

কয়েকজন নভোচারী এবং মহাকাশ যানের অভিযান বিশেষজ্ঞরা এই ভ্রমণের প্রশংসা করেছেন। SpaceX এর পরের মিশন Crew-1 শুরু করতে যাওয়া নভোচারীMichael Hopkins বলেন, এটি দেখে মনেই হচ্ছিল না এটি নভোচারীদের নিয়ে প্রথম মিশন, এটি অত্যন্ত সাবলীলভাবেই চলছিল।

২০১১ সালের জুলাই থেকে দীর্ঘ ৯ বছর পর Demo- 2 এর মাধ্যমে আমেরিকার মাটি থেকে মানুষকে মহাকাশে পাঠানো হয়।

গত ৯ বছর নাসা মহাকাশে নভোচারী পাঠাতে রাশিয়ার এর উপর নির্ভর করতো। যা ক্রমশ ব্যয়বহুল হয়ে উঠছিল।

সময়ের সাথে সাথে রাশিয়া তাদের চার্জ বাড়িয়েই যাচ্ছিল। ২০০৮ থেকে এর ব্যয় বেড়েছে প্রায় ২১ মিলিয়ন ডলার।

Demo- 2 সফল ভাবে সমাপ্তির পর SpaceX প্রথম বারের মত মানুষকে মহাকাশে পাঠানো এবং ফিরিয়ে আমার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। এটি Elon Musk এর সামনের বড় পরিকল্পনা গুলোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। SpaceX মহাকাশে পর্যটক পাঠানোরও পরিকল্পনা করছিল।

SpaceX এর প্রাথমিক লক্ষ্য হচ্ছে চাঁদে মানুষকে পাঠানো, তারপর চন্দ্র পৃষ্ঠে অবতারণ করানো এবং পরবর্তীতে মঙ্গল গ্রহের দিকে অভিযান শুরু করা।

এমনও শুনা গেছে Tom Cruise, Elon Musk এর সাথে যুক্ত হয়ে মহাকাশে সিনেমার শুটিং করারও পরিকল্পনা করছে। ইতিমধ্যে স্পেস স্টেশনে শুটিং এর বিষয়টিতে নাসা সম্মতিও প্রকাশ করেছে।

মে মাসে মিশনটি উদ্বোধনের আগে Elon Musk বলেন, এটি একটি স্বপ্নের সমাপ্তি, স্বপ্ন সত্যি হয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য, ৩০ মে ২০২০, ফ্লোরিডা থেকে নভোচারী Bob Behnken এবং Doug Hyrley, Demo 2 মিশনে এর দিকে যাত্রা শুরু করে।

তখন Elon Musk তার এক সাক্ষাৎকারে খুবই আনন্দের সাথে জানান, তিনি নিজেও কখনো ভাবতে পারেন নি SpaceX কখনো পৃথিবীর কক্ষপথে রকেট পাঠাতে পারবে।

-
টেকটিউনস টেকবুম - ২৭ আগস্ট ২০২০

Level 2

আমি টেকটিউনস টেকবুম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 433 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস