[পর্ব-২১] :: এই মুহূর্তে বাজারের সেরা IPTV বক্স গুলো

টিউন বিভাগ প্রযুক্তি কথন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

এই মুহূর্তে বাজারের সেরা

হ্যালো টেকটিউনস জনগণ, কেমন আছেন আপনারা সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন। এখন থেকে নিয়মিত আবার নতুন টিউন নিয়ে আমরা হাজির হলাম আপনাদের কাছে। আর টেকটিউনসের নিত্যনতুন টপিক আর সার্ভিস নিয়ে ভালো না থেকে আর উপায় আছে? আর এই নিত্যনতুন টপিক আর সার্ভিসের ধারা বজায় রাখার নিমিত্তে, আজকে আমি আপনাদের সাথে একদম নতুন একটি টপিক নিয়ে হাজির হলাম। আর আপনারা এই টিউনের মাধ্যমে জানতে পারবেন অনেক নতুন নতুন সব তথ্য।

বর্তমান সময়ে, খুবই কম মানুষ রয়েছে যারা টেলিভিশন ক্রয় করছে বা করতে চাচ্ছে। আর এর মূল কারণ হিসাবে রয়েছে অনলাইনে আপনি আপনার পছন্দমত কনটেন্ট (যেমনঃ মুভি ও অন্যান্য শো গুলো) বাছাই করে দেখতে পারছেন, তাই অতিরিক্ত খরচ করে কেনই বা টেলিভিশন কিনবেন এমন প্রশ্ন থাকতেই পারে। এছাড়াও স্ট্যান্ডার্ড ব্রডকাস্ট স্টেশনগুলো শুধুমাত্র আপনার পছন্দসই অনুষ্ঠানগুলো বা মুভিগুলো সম্প্রচার করার সময় আপনি তা উপভোগ করতে পারবেন। আমরা যখন নতুন যুগের সাথে তাল মিলাবো তখন যদিও আপনি Netflix এর ডাইহার্ড ফ্যান বা নতুন Disney Plus হোন না কেন অনলাইন স্ট্রিমিং সার্ভিসের কোন অভাব হবে না।

অবশ্যই টেলিভিশন দেখার আরও কয়েকটি উপায় আছে। IPTV- এর মানে হচ্ছে Internet Protocol Television - টেলিভিশন না কিনেই আপনার স্মার্টফোনে অথবা কম্পিউটারে টেলিভিশন দেখতে পারবেন অনায়াসেই। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে আপনি আপনার পছন্দের টেলিভিশন প্রোগ্রামগুলো অনায়াসেই দেখতে পারবেন সুতরাং লিমিটেড সিলেক্টশন অপশন অথবা আপনার প্রিয় শো মিসিং হওয়ার বিষয়ে আর চিন্তা করতে হবে না। এই বিপ্লবী প্রযুক্তিটি এখনও তার প্রাথমিক স্টেজে রয়েছে, তবুও বেশ করেকটি দুর্দান্ত IPTV রয়েছে যা আপনি আজই সংগ্রহ করতে পারেন। ২০২০ সালের বেস্ট IPTV বক্সগুলো নিয়ে আজকে এই টিউনে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।

১. Fire TV Stick


Amazon এ Fire TV Stick এর প্রায় 170, 000 রিভিও রয়েছে এবং রিভিও গুলো গড়ে প্রায়  4.5 রয়েছে। আর এর পাওয়ার, সিলেক্টশন, ভারস্যাটিলিটি এবং ফিল সবকিছুর উপর ভিত্তি করে Amazon এর স্ট্রিমিং স্টিকটি এই টিউনের শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছে।

শুরু থেকেই, Fire TV এর ডিজাইন এবং সাইজ অনবদ্য, একটি ছোট্ট স্টিক-আকৃতির বাক্সে অনেক শক্তি প্যাক করা আছে। এর ফিজিক্যাল কম্পোনেন্টসগুলো এই ছোট স্টিকের চারপাশে সেটআপ করা রয়েছে, যা আপনি আপনার HDTV তে প্লাগইন করলে একটি Alexa voice remote এর মাধ্যমে আপনি আপনার ভয়েস এবং সাধারণ বাটন প্রেস করে উভয় পদ্ধতিতে এটিকে কন্ট্রোল করতে পারবেন। আপনি এর বক্সে একটি পাওয়ার অ্যাডাপ্টার, দুটি AAA ব্যাটারি এবং একটি HDMI এক্সটেনডার পাবেন। এটি ব্যবহার করতে আপনাকে যা করতে হবে তা হল স্টিকটি আপনার টিভির সাথে যুক্ত করুন এবং মাল্টিপ্যাগে এর এর পাওয়ার অ্যাডাপ্টার স্থাপন করে এর সাথে যুক্ত করে দিন, এরপরে ইন্টারনেটের সাথে কানেক্ট করে দিন এবং উপভোগ করুন।

Netflix, Hulu, HBO NOW, YouTube, Amazon Video, NBC, WatchESPN, Disney Plus, এবং আরও অনেক সুবিধা সহ প্রায় 15, 000 এরও বেশি স্কিল, গেমস এবং অ্যাপ রয়েছে, ফলে এখন আপনার নখদর্পণের কাছেই প্রচুর এন্টারটেইমেন্ট থাকবে তা নিশ্চিত করেই বলা যায়। তবে এই সার্ভিসগুলোর বেশিরভাগই স্ট্যান্ডার্ড সাবস্ক্রিপশন ফি রাখে, এছাড়া IMDB TV এবং Pluto TV ফ্রি সার্ভিস দিবে কিন্তু আপনাকে ফ্রিতে বিনোদন দেওয়ার জন্য বিভিন্ন অ্যাড শো করবে।

এই প্রযুক্তির বিশ্বে, ভয়েস কন্ট্রোল এবং অ্যাক্টিভেশন ফিচারগুলোর ক্ষেত্রে আমরা আমাদের প্রাইভেসি নিয়ে সর্বদা সতর্ক থাকি, তবে Alexa Voice remote কন্ট্রোল দারুনভাবে কাজ করে। ফলে আপনাকে যা করতে হবে তা হল আপনার পছন্দের শো এর নাম জোরে বলুন এবং নিমিষেই উপভোগ করুন আপনার প্রিয় শো। এছাড়াও আপনি যদি ইতিমধ্যে Amazon Prime মেম্বার হয়ে থাকেন তাহলে আপনি Amazon Prime ভিডিও তে এর মাধ্যমে অ্যাক্সেস করতে পারবেন, ফলে আপনি অতিরিক্ত কোন ব্যয় ছাড়াই হাজার হাজার মুভি, এবং টিভি এপিসোড উপভোগ করতে পারবেন। আর এই ডিভাইসটি যেহেতু অ্যান্ড্রয়েডের মডিফাই ভার্সন এর মাধ্যমে অপারেট হচ্ছে তাই আপনি শুধু অ্যাপ্লিকেশান ইন্সটলার ব্যবহার করে আপনার ডিভাইসে প্রচুর পরিমাণে অন্যান্য কন্টেন্ট ইন্সটল করতে পারবেন। উদাহরণস্বরূপঃ Kodi হচ্ছে অন্যতম জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে আপনি থার্ড পার্টি সফটওয়্যার ইন্সটল করতে পারবেন, ফলে আপনি বিনদনের বাইরের সোর্সগুলোকেও এতে যুক্ত করতে পারবেন সহজেই।

Fire TV Stick বেশ কয়েক বছর ধরে সেরা পছন্দগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে, অবশেষে Amazon এই বছরে এর একটি নতুন ভার্সন বাজারে আনার ঘোষনা দিয়েছে। আর নতুন ভার্সনের নাম দেওয়া হয়েছে Amazon Fire TV 4K, এতে নতুন অনেক ফিচার যুক্ত করা হয়েছে যেমনঃ HDR10 (HDR10+ এবং Dolby Vision সাপোর্ট করে) সাপোর্টেড এবং 4K রেজুলেশনে স্ট্রিমিং করার ফিচার তো আছেই। এছাড়াও আপনি যদি মনে করেন এই Fire TV Stick এর কোন উন্নতিসাধন হবে না বা শেষ হয়ে গিয়েছে তাহলে আপনার ধারণা ভুল কেননা বেশ কয়েক বছর ধরেই 4K মডেলগুলোর উন্নতি সাধন করেন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করে বাজারজাত করা হচ্ছে।

সুবিধা

  • দামে সস্তা
  • রিমোট মধ্যেই Alexa সাপোর্ট

অসুবিধা

  • 4K ফিচার আরও ব্যয়বহুল

২. SkyStream 3+

আমরা জানি যে এটি Fire TV Stick এর মত দেখতে ছোট এবং সুন্দরও নয়, তবে Fire TV Stick কিছুটা ব্যয়বহুল বটে। কিন্তু আপনার বাজেট যদি কিছুটা কম হয়ে তাহকে তাহলে আপনি এটি দেখতে পারেন। আর এর নাম হচ্ছে SkyStream 3+ একটি ইম্প্রেসিভ ডিভাইস - এতে রয়েছে অনেক ফিচার এবং এই টিউনে নাম্বার ওয়ানে থাকা Fire TV Stick থেকেও বেশি ইউজার কন্ট্রোল রয়েছে।

আপনার সমস্ত পছন্দসই টিভি শো, মুভি অথবা অন্যান্য প্রোগ্রামগুলোতে অ্যাক্সেস করতে পারবেন এবং টেলিভিশনে থাকা HDMI পোর্ট ব্যবহার করে অনায়াসেই কানেক্টশন করতে পারবেন। আর একবার কানেক্ট করা হয়ে গেলে SkyStream TV Updater এর মাধ্যমে সহজেই সেটআপ করতে পারবেন, এবং আপনি SkyStream TV এর অ্যাপ্লিকেশান ব্যবহার করে সহজেই Sling TV, NBC News, ABC, CBS, এবং PBS মতো বড় চ্যানেলগুলো দেখতে পারবেন। এছাড়াও SkyStream ONE ব্যবহার করে আপনি 4K UHD রেজুলেশনে কন্টেন্ট স্ট্রিমিং করতে পারবেন - অর্থাৎ আপনি সত্যিকার লাইভ পিকচার কোয়ালিটিতে এবং আল্ট্রা রেজুলেশনে কন্টেন্ট উপভোগ করতে পারবেন আর এই সুবিধা Apple TV থেকে শুরু করে আরও অনেক IPTV বক্সেও আপনি পাবেন না। তাছাড়া SkyStream ONE এর স্ট্রিমিং লাইব্রেরি ক্রমাগতভাবে বাড়ছে, তাই নিশ্চিত করে বলা যায় আপনি আপনার পছন্দের প্রোগ্রাম এখন আর মিস হবে না।

SkyStream One এ রয়েছে বিল্টইন ভাবে High Efficiency Video Coding (HEVC) সাপোর্টেড ফলে, আপনি 1080p হাই-ডেফিনেশনে আগের চেয়ে চেয়ে আরও ক্রিস্টাল এবং ক্লিয়ার স্ট্রিমিং অভিজ্ঞতা পাবেন, এমনকি যদিও আপনার কাছে যদি 4K রেজুলেশনের টিভি নাও থেকে থাকে। আপনার কাছে যদি বাজেট কোন ব্যাপারই না হয় আর আপনি যদি Amazon এর ফ্যান না হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনি এই গ্যাজেটটি নিশ্চিন্তে কিনে ফেলতে পারেন।

সুবিধা

  • হাই-কোয়ালিটি স্ট্রিমিং সুবিধা
  • প্রচুর অ্যাপ্লিকেশান সাপোর্ট করে

অসুবিধা

  • তুলনামূলকভাবে ব্যয়বহুল
  • অন্যসব ব্রান্ডের থেকে কম পরিচিত

৩. MatrixBox

আপনি যদি Amazon এ সস্তার IPTV বক্স এর সন্ধান করেন, তাহলে VANKYO এর MatrixBox হবে সেরা পছন্দ। কেননা Amazon এ এমন অনেক IPTV বক্স রয়েছে যার কোন ব্রান্ড নেই অথবা কোয়ালিটিতেও নিম্নমানের, তবে অতিরিক্ত ব্যয় ছাড়াই Xiaomi এর Mi Box S এর মত অভিজ্ঞতা পাবেন VANKYO এর MatrixBox ব্যবহার করে। এই IPTV বক্সের দাম প্রায় $33 বা প্রায় ৩ হাজার টাকার মতো খরচ পরবে, Xiaomi এর Mi Box S এর সকল ফিচারই আপনি VANKYO এর MatrixBox এ উপভোগ করতে পারবেন। এতে রয়েছে 2GB র‍্যাম, 16GB স্টোরেজ এবং এক্সটার্নাল স্টোরেজের জন্য স্লট রয়েছে এবং এতে ব্যবহার করা হয়েছে Cortex A53 প্রোসেসর যাতে আপনি Xiaomi এর Mi Box S এর মত অভিজ্ঞতা পান প্রায় অর্ধেক খরচে। এমনি এর কমলা রঙয়ের প্যাকেজিংও দেখে Xiaomi এর মতই মনে হয়।

এছাড়াও VANKYO এর MatrixBox এর অফারটি Amazon এ অন্যান্য নাম না জানা ব্রান্ডের থেকে অনেকাংশে ভাল তবে কেনার আগে আপনি কি কিনছেন তা আপনার অবশ্যই জানা উচিত। একটু খেয়াল করলে দেখবেন, MatrixBox এর নতুন অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন দিয়ে একটু নতুন MatrixBox বাজারে রয়েছে তবে দুর্ভাগ্যক্রমে এটি Amazon এবং অন্যান্য মার্কেটপ্লেসে এখনও পাওয়া যাচ্ছে না। সুতরাং আপনি যদি MatrixBox কিনতে চান তাহলে পরামর্শ থাকলো আপনি অবশ্যই লেটেস্ট ভার্সনের MatrixBox কিনতে চেষ্টা করবেন।

সুবিধা

  • প্রচুর স্টোরেজ সিস্টেম রয়েছে
  • ফাস্ট এবং সহজেই ব্যবহার করা যায়
  • খুবই কম দাম

৪. MAG IPTV

আপনি যদি আগে কখনও IPTV বক্স নিয়ে রিসার্চ করে থাকেন তাহলে আপনি সম্ভবত এই নামটি চিনতে পারবেন। কেননা Informir এর MAG IPTV বক্সগুলো তাদের দক্ষতা, মান এবং পাওয়ারফুল ডিভাইসের কারণে সারাবিশ্বে সুপরিচিত। আর এই MAG IPTV বক্সটিতে প্রসেসর হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে 650MHz প্রসেসর (STiH207), রয়েছে 512MB র‍্যাম যা IPTV/OTT প্রজেক্টের জন্য যথেষ্ট। তবে এর দাম তুলনামূলকভাবে বেশি নির্ধারণ করা হয়েছে, তাই আমরা এই বক্সটি তাদেরকে রিকমেন্ড করবো যারা নিয়মিতভাবে প্রচুর ডেটা স্ট্রিমিং করেন।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি কোন ছোট ব্যবসা করে থাকেন যাতে হাই-ট্র্যাফিক ডেটা এবং ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করতে হবে, তাহলে আপনি এগুলোর মধ্যে যেকোন একটি বাছাই করতে পারেন। আর MAG 254 ইন্টারেক্টিভ অ্যাপ্লিকেশনগুলি ব্যবহার করতে এবং 3D ভিডিও সাপোর্ট করার জন্য তৈরি করা হয়েছিল - এটা ব্যবসায়ী, গেমার এবং টিভির দর্শকদের জন্য একটি ভাল অপশন বলে আমি মনে করি।

সুবিধা

  • 3D ভিডিও সাপোর্ট করে
  • গেমারদের জন্য বেস্ট অপশন

অসুবিধা

  • কিছুটা ব্যয়বহুল
  • খুবই কম র‍্যাম ব্যবহার করা হয়েছে

৫. Fire TV Cube

আপনি যদি আরও প্রিমিয়াম কিছুর খোঁজ করে থাকেন তাহলে আপনি Amazon এর Fire TV Cube ডিভাইসটি দেখতে পারেন। তবে Amazon এর Fire TV Stick ডিভাইসটি আমাদের IPTV লিস্টের এক নম্বর স্থানে রয়েছে। এছাড়া Fire TV Stick এর থেকে কিছুটা ব্যয়বহুল ডিভাইস হচ্ছে Fire TV Cube ডিভাইস। আমরা মনে করি যে অতিরিক্ত দামের কারণে আমাদের গড় গ্রাহকই এটা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে এবং Fire TV Stick এর ফিচারের সাথে এর তেমন বড় কোন পার্থক্য না থাকার কারণে এটি আমাদের লিস্টের পাঁচ নম্বরে রাখা হয়েছে।

এই IPTV বক্সটি 4K Ultra HD রেজুলেশনে ট্রু লাইফ পিকচার কোয়ালিটি সাপোর্ট করে, এবং আপনি 4K টিভি ছাড়াই Amazon Video, Netflix, YouTube, Hulu এবং আরও অনেক, 1080p হাই-ডেফিনেশনে স্ট্রিমিং করতে পারবেন। এটিতে আগের প্রজন্মের Amazon Fire TV প্রসেসর, একটি ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স ইঞ্জিন, আরও ভাল ওয়াইফাই সাপোর্ট, 2 GB র‍্যাম, 8 GB স্টোরেজ এবং 200 GB পর্যন্ত এক্সপান্ডেবল স্টোরেজ সুবিধা রয়েছে। আর এর থেকে ধারণা করা যায়, Fire TV Stick 4K এর দাম কিছুটা কম হবে এবং প্রায় একই অপশন এবং ফিচার অফার করবে, ফলে আপনি এই দুইটি অপশন থেকে একটি বাছাই করতে পারেন।

সুবিধা

  • 4K UHD রেজুলেশন সাপোর্ট করে
  • বেস্ট স্টোরেজ ক্যাপাসিটি

অসুবিধা

  • Amazon এর Fire TV Stick 4K এর থেকে কম দামে পাওয়া যায়
  • এটির সাইজ বড় হওয়ায় বেশি জায়গা দরকার হয়

৬. Roku 3

Roku এর কোম্পানিটি তাদের প্রথমদিকের IPTV বক্সগুলোতে বাগে ভরপুর ছিল এবং ফলে Apple TV মনে করেছিল এই IPTV বক্সটি তাদের কোম্পানির বদনামের কারণ হবে। অবশেষে, Roku তাদের সফলতা পেতে থাকল, কেননা ৩য় প্রজন্মের IPTV বক্সটিতে আগের প্রজন্মের বক্সগুলোতে থাকা সমস্যা গুলোর সমাধান করা হয়েছে। এই বক্সটিতে 2000 টিরও বেশি স্ট্রিমিং চ্যানেল রয়েছে, রয়েছে একটি হেডফোন সহ রিমোট কন্ট্রোল এবং গেমস খেলার উপযুক্ত ডিভাইস। এছাড়াও এতে রয়েছে casting ফিচার ফলে আপনি আপনার মোবাইল ডিভাইস দিয়েও স্ট্রিমিং করতে পারবেন এবং HDMI ক্যাবলের মাধ্যমে যেকোন টিভিতে এটি ব্যবহার করা যাবে অনায়াসেই। আর এতে রয়েছে ভয়েস সার্চ ফাংশন, যা খুবই পাওয়ারফুল।

সুবিধা

  • বিভিন্ন প্রাইস রেঞ্জে ডিভাইস রয়েছে
  • বেস্ট কোয়ালিটির রিমোট কন্ট্রোল

অসুবিধা

  • এত এত প্রোডাক্ট ভেরিয়েশন আপনি পছন্দ করতে হিমশিম করবেন
  • এটি ব্যবহার করতে আপনাকে একটু বেশিই খরচ করতে হবে

টিউন জোসস করুন, আমার টিউন শেয়ার করুন, টেকটিউনসে আমাকে ফলো করুন, আপনাদের মতামত জানান

আমি এরকম নিত্যনতুন কাজের সফটওয়্যার নিয়ে টেকটিউনসে হাজির হবো নিয়মিত। তবে সে জন্য আপনার যা করতে হবে তা হলো আমার টেকটিউনস প্রোফাইলে আমাকে ফলো করার জন্য 'Follow' বাটনে ক্লিক করুন। আর তা না হলে আমার নতুন নতুন টিউন গুলো আপনার টিউন স্ক্রিনে পৌঁছাবে না।

আমার টিউন গুলো জোসস করুন, তাহলে আমি  টিউন করার আরও অনুপ্রেরণা পাবো এবং ফলে ভবিষ্যতে আরও মান সম্মত টিউন উপহার দিতে পারবো।

আমার টিউন গুলো শেয়ার বাটনে ক্লিক করে সকল সৌশল মিডিয়াতে শেয়ার করুন। নিজে প্রযুক্তি শিখুন ও অন্য প্রযুক্তি সম্বন্ধে জানান টেকটিউনসের মাধ্যমে।

Level 8

আমি রায়হান ফেরদৌস। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 157 টি টিউন ও 128 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 52 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় সুপ্রিম টিউনার,

আপনার টিউনটিতে ভুল রয়েছে।

কারণ:

লিস্ট বেইসড টিউনে ফরমেটিং সঠিক হয়নি।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 হতে হয়।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয় এবং প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর টেকটিউনস গাইডলাইন ফরমেট অনুযায়ী হতে হয়।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে থাকতে হয়। অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
খেয়াল রাখুন

১. টিউনে H2, H3 বা H4 সহ যে কোন হেডিং কখনও বোল্ড করা যায় না ও লিংক করা যায় না।

২. লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর বাংলা নিচের ফরমেটে থাকতে হয়।

১. আইটেম ১
২. আইটেম ২

এখানে প্রথমে বাংলা ক্রমিক নম্বর, তারপর একটি ডট, ডটের পর স্পেস তারপর আইটেমের নাম।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের প্রতি আইটেমে হুবহু এই ফরমেটে ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

উদারহরণ সরূপ টিউন ১টিউন ২ লক্ষ করুন।

এখানে লিস্ট বেইড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 রয়েছে।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বরের ফরমেট টেকটিউনস গাইডলাইন অনুসরণ করে রয়েছে।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।

করণীয়:

গাইডলাইন অনুযায়ী টিউন সংশোধন করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

    উপরের নির্দেশনা অনুযায়ী সংশোধন করা হয়েছে, অনুগ্রহ করে চেক করুণ।