কিভাবে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানিং কাজ করে জেনে নিই?

টিউন বিভাগ প্রযুক্তি কথন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

হ্যালো টেকটিউনস জনগণ, কেমন আছেন আপনারা সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন। এখন থেকে নিয়মিত আবার নতুন টিউন নিয়ে আমরা হাজির হলাম আপনাদের কাছে। আর টেকটিউনসের নিত্যনতুন টপিক আর সার্ভিস নিয়ে ভালো না থেকে আর উপায় আছে? আর এই নিত্যনতুন টপিক আর সার্ভিসের ধারা বজায় রাখার নিমিত্তে, আজকে আমি আপনাদের সাথে একদম নতুন একটি টপিক নিয়ে হাজির হলাম। আর আপনারা এই টিউনের মাধ্যমে জানতে পারবেন অনেক নতুন নতুন সব তথ্য।

ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যান হচ্ছে জাদুর মতো! আপনি আপনার ফোনের স্ক্রিনের উপর স্পর্শ করলেন, তারপরে এতি আপনার আঙুলের ছাপ স্ক্যান করে নিল এবং অতঃপর তাৎক্ষণিকভাবে আপনার ফোনটি আনলক হয়ে গেল। আর এই টিউনে আমরা দেখবো এই জাদুবিদ্যার পিছনের প্রযুক্তি নিয়ে আলোচনা করা হবে।

ফিজিক্যাল স্ক্যানার হারিয়ে যাচ্ছে

ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানিং হচ্ছে অন্যান্য বায়োমেট্রিক রিকোগনিশন ডিভাইসের মতোই একটি কম্পিউটিং ডিভাইস, এটা নতুন কিছু নয়। আর এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার বেশ কয়েক দশক ধরেই ল্যাপটপে ব্যবহার হয়ে আসছে, আর ২০০৪ সালে প্রথম যে মোবাইলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার স্ক্যানার ব্যবহার করা হয়েছে তার নাম হচ্ছে Pantech GI100। এখন সেই পুরনো প্রযুক্তি নতুন করে স্মার্টফোনে ব্যবহার হওয়া শুরু হয়, তাছাড়াও আমাদের পকেটে থাকা ক্রমবর্ধমান ডেটা সুরক্ষার জন্য এই প্রযুক্তি বহুল ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

২০১৩ সালে, অ্যাপল আইফোন 5 এস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মার্কেটে প্রথম মোবাইল ডিভাইস ছিল যাতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার করার পাশাপাশি Touch ID ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও পরবর্তীতে অ্যাপল পর্যায়ক্রমে এই ফিচারের পাশাপাশি facial recognition ফিচার নিয়ে এসেছে, তবে বর্তমানে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সমস্ত স্মার্টফোনের একটি প্রয়োজনীয় ফিচারে পরিণত হয়েছে, যা ফোনে না থাকলেই নয়।

গত কয়েক বছর ধরে, অন্য স্মার্টফোন নির্মাতারা ফিজিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ফিচারটি তাদের ডিভাইএ রেখেছেন। আবার অ্যাপলের মতো কেউ কেউ পুরোপুরি ফিঙ্গারপ্রিন্ট ভেরিফিকেশন অপসারণ করেছে, তবে অন্যরা স্ক্রিনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার প্রতিস্থাপন করেছে। এই প্রযুক্তিটি আপনার ফোনের ডিসপ্লের একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আপনার আঙুলটি রেখে আপনার ফোনটি আনলক করতে পারবেন।

ইন-ডিসপ্লে স্ক্যানিং প্রসেস

সাধারণত, ফিজিক্যাল অথবা ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট উভয় ক্ষেত্রেই ফিঙ্গার প্রিন্ট প্রসেস আগের মতই আছে।

তবে, স্ক্রিনের একটি নির্দিষ্ট অংশের নিচে একটি স্ক্যানিং এরিয়া থাকে। আপনি যখন স্ক্যানারের উপরে আপনার আঙুলটি রাখবেন তখন এটি আপনার আঙুলের প্যাটার্নের একটি ক্যামেরা বা অন্য সেন্সরের সাহায্যে স্ন্যাপশট নিবে। অতঃপর এটি আপনার ফোনে সেভ থাকা বায়োমেট্রিক ডেটার সাথে মিলাবে। যদি ফোনে থাকা ফিঙ্গারপ্রিন্ট ডেটার সাথে ম্যাচ করে তাহলেই তাত্ক্ষণিকভাবে আপনার ফোনটি আনলক হয়ে যাবে।

ইন-ডিসপ্লে স্ক্যানার এর সবচেয়ে বড় সমস্যার গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে স্ক্যানিং এরিয়া তুলনামূলকভাবে ছোট। আর এটি প্রায়শই ডিসপ্লের নিচের অংশের একটি ছোট বৃত্তের মত হয়। তাছাড়া আপনার আঙুলটি কোথায় রাখবেন তা দেখানোর জন্য ফোন নির্মাতারা প্রায়শই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে একটি গাইড অন্তর্ভুক্ত করেন। আর এক্ষেত্রে আপনার ফোনের স্ক্রিনটি চালু থাকলে অথবা আপনার ডিভাইসে always-on displays ফিচার সাপোর্ট করলে এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট গাইড দেখতে পারবেন।

তবে ফিজিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের তুলনায় ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের স্ক্যানিং প্রসেস একটু ধীর গতির হতে পারে। আর এই কারনেই দুটি প্রযুক্তির মধ্যে একটি বড় পার্থক্য হয়ে যায়।

অপটিক্যাল বনাম আল্ট্রাসোনিক

দুই ধরনের ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার আছেঃ একটি অপটিক্যাল এবং অন্যটি আল্ট্রাসোনিক।

অপটিক্যাল স্ক্যানারগুলো আপনার আঙুলের উপর একটু উজ্জ্বল আলোক রশ্মি ফেলবে (এটি প্রায়শই অ্যানিমেশন হিসাবে অন স্ক্রিনে দেখা যায়)। আর এটি তখন আপনার আঙুলের ফিঙ্গারপ্রিন্টের একটি ছবি স্ক্রিনের নিচে থাকা ক্যামেরার মাধ্যমে নিয়ে যায় এবং এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর ডেটা ফোনে রেজিস্টার করা আছে কিনা তা নিশ্চিত করে। যদি ফোনে রেজিস্টার ফিঙ্গারপ্রিন্ট হত তাহলে ফোনটি আনলক করে।

অনেকে মনে করেন অপটিক্যান স্ক্যানার অন্য স্ক্যানার প্রযুক্তির চেয়ে ক সুরক্ষিত কারন এটি একটি ফিঙ্গারপ্রিন্টের ছবি ক্যাপচারের জন্য একটি সাধারণ ক্যামেরা ব্যবহার করে। তবে এটি প্রায়শই উল্লেখযোগ্য অন্য স্ক্যানারের থেকে ফাস্ট কাজ করে। এছাড়াও সফটওয়্যার অপ্টিমাইজেশানের উপর নির্ভর করে এটি কতটা পরিমান ফাস্ট কাজ করবে, অনেকক্ষেত্রে এটি ফিজিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের মতো দ্রুত কাজ করতে পারে। আপনি OnePlus ফোনে এবং অন্যান্য মিডরেঞ্জ ডিভাইসে অপটিক্যাল স্ক্যানার পাবেন।

আল্ট্রাসোনিক স্ক্যানার সাধারণত উপরের অন্য দুটি প্রযুক্তির চেয়ে ভাল হিসাবে বিবেচিত হয়। এটি আলোর পরিবর্তে, আল্ট্রাসোনিক সাউন্ড ওয়েভ ব্যবহার করে যার মাধ্যমে আপনার আঙুলের একটি নিখুঁত 3D ছবি ক্যাপচার করতে পারে। আর এই কৌশলটি মেডিকেল আল্ট্রাসাউন্ড মেশিনে ব্যবহৃত হয়।

আল্ট্রাসোনিক স্ক্যানার অপটিক্যাল স্ক্যানারের তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে বেশি সুরক্ষিত কারণ এটি আপনার ফিঙ্গারপ্রিটের 3D ছবি ক্যাপচার করে থাকে যা নকল করা অনেক বেশি কঠিন। আর এগুলো অপটিক্যাল স্ক্যানারের থেকে বেশি স্ট্যাবল এবং অনেক প্রতিকূল পরিস্থিতিতে এটি নির্ভুলভাবে কাজ করে থাকে যেমনঃ আপনার হাত ভেজা বা ময়লা থাকলেও এটি নির্ভুলভাবে কাজ করে থাকে। আপনি Samsung’s Galaxy সিরিজের হাই-এন্ড ডিভাইসে এই মিনি আল্ট্রাসাউন্ড ফিঙ্গারপ্রিন্ট খুঁজে পাবেন।

Seamless Tech এর ভবিষ্যৎ

ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারগুলো ফিজিক্যাল ডিভাইসের ব্যবহার কমিয়ে আনার জন্য স্মার্টফোন নির্মাতাদের একটি বৃহত্তর পরিকল্পনার অংশ। এর মধ্যে বাটন, ক্যামেরা, সেন্সর, স্পিকার, পোর্ত এবং অব্যবহৃত বেজেল ও রয়েছে।

ইন-ডিসপ্লে স্ক্যানারগুলো আসার পাশাপাশি কোম্পানিগুলো ডিসপ্লে-টু-বডি রেশিও উন্নত করতে পপ-আপ ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা যুক্ত করতে শুরু করেছে। আর হেডফোন জ্যাক গুলো অপসারণের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ফলে কোম্পানিগুলো প্রতিযোগিতা করে তাদের ফোনের জন্য ওয়্যারলেস ইয়ারবড তৈরি করছে।

ভবিষ্যতে আরও অনেক ফিচারই স্ক্রিনের নিচে স্থানান্তরিত হতে পারে। আন্ডার-ডিসপ্লে স্পিকার দিনে আপনি কোন ফিজিক্যাল স্পিকার গ্রিল ছাড়াই কল এবং স্টেরিও অডিও শুনতে পারবেন। এছাড়াও আন্ডার-ডিসপ্লে-ক্যামেরও রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি পোট্রেইট ছবি তুলতে পারবেন কোন ধরনের নচ, কাটআউট বা মেকানিক্যাল পপ-আপ ক্যামেরা ছাড়াই।

এই ফিচারের ফোন ইতিমধ্যে মার্কেটে রয়েছে। ২০১৯ এ Meizu এমন একটি ডিভাইস এর প্রদর্শনি দেখিয়েছিল যাতে ক্ষুদ্র বেজেল, দৃশ্যমান কোন সেন্সর, কোন চার্জিং পোর্ট এবং কোন বাটন নেই। বরং এটি ফিজিক্যাল বাটনগুলোর সংবেদন ঠিক রাকতে হ্যাপটিক ফিডব্যাক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছিল এবং কল এর সাউন্ড ও স্টেরিও সাউন্ড শোনার জন্য ইন-ডিসপ্লে-স্পিকার এর উপর নির্ভর করেছিল। এই ফোন চার্জ দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি। আর ঠিক এই বছরের শেষের দিকে Oppo একটি আন্ডার-ডিসপ্লে সেলফি ক্যামারে সহ একটি ফোন বাজারে এনেছিল।

আমরা দেখতে পাচ্ছি যে, seamless ডিজাইনগুলো এখন মূলধারার ডিভাইসে প্রবেশ করেছে। কেননা Samsung সম্প্রতি ঘোষণা করেছে যে, ভবিষ্যতে তারা তাদের ডিভাইসগুলোতে আন্ডার-ডিসপ্লে ক্যামারা প্রযুক্তি যুক্ত করার পরিকল্পনা করেছে। এছাড়াও গুজব রয়েছে, যে অ্যাপল তাদের iPhone এর চার্জিং পোর্ট সরিয়ে ফেলতে পারে এবং তাদের সকল ডিভাইসে ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে।

আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এই বিরামবিহীন পণ্যের ডিজাইনগুলি আরও মূলধারার ডিভাইসে প্রবেশ করে enter স্যামসুং ভবিষ্যতের ডিভাইসগুলিতে আন্ডার-ডিসপ্লে ক্যামেরা প্রযুক্তি সংহত করার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে। গুজব রয়েছে যে অ্যাপল আইফোনটির চার্জিং পোর্টটি সরিয়ে ফেলতে পারে এবং ওয়্যারলেস চার্জে অল-ইন হয়ে যেতে পারে। ম্যাগস্যাফ প্রযুক্তি অবশ্যই এতে সাহায্য করবে।

টিউন জোসস করুন, আমার টিউন শেয়ার করুন, টেকটিউনসে আমাকে ফলো করুন, আপনাদের মতামত জানান

আমি এরকম নিত্যনতুন কাজের সফটওয়্যার নিয়ে টেকটিউনসে হাজির হবো নিয়মিত। তবে সে জন্য আপনার যা করতে হবে তা হলো আমার টেকটিউনস প্রোফাইলে আমাকে ফলো করার জন্য 'Follow' বাটনে ক্লিক করুন। আর তা না হলে আমার নতুন নতুন টিউন গুলো আপনার টিউন স্ক্রিনে পৌঁছাবে না।

আমার টিউন গুলো জোসস করুন, তাহলে আমি  টিউন করার আরও অনুপ্রেরণা পাবো এবং ফলে ভবিষ্যতে আরও মান সম্মত টিউন উপহার দিতে পারবো।

আমার টিউন গুলো শেয়ার বাটনে ক্লিক করে সকল সৌশল মিডিয়াতে শেয়ার করুন। নিজে প্রযুক্তি শিখুন ও অন্য প্রযুক্তি সম্বন্ধে জানান টেকটিউনসের মাধ্যমে।

Level 8

আমি রায়হান ফেরদৌস। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 157 টি টিউন ও 128 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 52 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটিতে ভুল রয়েছে।

কারণ:

টিউনের শিরোনাম, টিউন থাম্বনেইল এ বানান ভুল করা হয়েছে।

জেনে নেই => জেনে নিই

করণীয়:

টিউনের শিরোনাম, টিউন থাম্বনেইল এ ভুল বানান ঠিক করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটিতে ভুল রয়েছে।

কারণ:

টিউন থাম্বনেইলে ইমেইজের সাথে মিলিয়ে, ইমেইজ থেকে জেনারেটকৃত কালার থেকে First Rectangle Element এ প্রাইমারি কালার ও Second Rectangle Element এ সেকেন্ডারি কালার সেট করা হয়নি।

টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট গাইডলাইন অনুযায়ী, ইমেইজ থেকে জেনারেটকৃত কালার থেকেই First Rectangle Element এ প্রাইমারি কালার ও Second Rectangle Element এ সেকেন্ডারি কালার সেট করে দিতে হয়।

করণীয়:

টিউন থাম্বনেইল টেমপ্লেট গাইডলাইন অনুযায়ী, First Rectangle Element ও Second Rectangle Element এর কালার এমন নির্বাচন করুন যেন তা ইমেইজের সাথে মানান সই হয়। যেন ইমেইজের সাথে একটি দারুন কালার হারমনি বা কালার স্কিম তেরি হয়। First Rectangle Element ও Second Rectangle Element এর কালার এমন নির্বাচন করবেন না যে তা দেখতে কটকটে দেখায়। First Rectangle Element ও Second Rectangle Element এর কালার যেন ইমেইজের সাথে মিলে একটি কালার স্কিম তৈরি করে যে অনুযায়ী Rectangle Element এর কালার নির্বাচন করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

    জ্বি থাম্বনেইল টেমপ্লেট সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। আলহামদুলিল্লাহ