স্মার্টফোনকে চোরের হাত থেকে সুরক্ষায় জন্য ‘থিফগার্ড’ নামে যুগান্তকারী একটি অ্যাপ চালু করলো দেশীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান সফটালজি লিমিটেড

টিউন বিভাগ প্রযুক্তি কথন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 6
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন?

বর্তমানে আমাদের সকলের হাতেই স্মার্টফোন। আমাদের হাতে থাকায় স্মার্টফোনটি যদি কোন কারণে হারিয়ে যায় বা চুরি হয়ে যায় তবে আমাদের কিছুই করার থাকেনা। হারিয়ে যাওয়া এ স্মার্টফোনটি ফিরে পাওয়া প্রায় অসম্ভবই বটে। বলতে গেলে একেবারেই অসম্ভব।

smartphone

হারিয়ে যাওয়া স্মার্টফোন বা চুরি হয়ে যাওয়া স্মার্টফোন চোরের হাত থেকে সুরক্ষায় ‘থিফগার্ড’ নামে যুগান্তকারী অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ চালু করছে 'সফটালজি লিমিটেড' নামে দেশীয় একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। যে অ্যাপটির সাহায্যে হারিয়ে যাওয়া ডিভাইস শনাক্ত ও পুনরুদ্ধার করা যাবে। এছাড়া অ্যাপটিতে রয়েছে আরও অনেক ফিচার। বৃহষ্পতিবার (১৮ ই ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই অ্যাপটি চালু করা হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠানটি জানায়। বর্তমানে অ্যাপটি আপনারা তাদের ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবে। সেখানে তাদের অ্যাপে সম্বন্ধে বিস্তারিত বলা হয়েছে। এছাড়া আজকের এই টিউনে এই অ্যাপটির সমস্ত ফিচার নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। জানতে হলে সম্পূর্ণ টিউনটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে থাকুন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মোবাইল ফোন চুরি হলে চোরের ছবি ও লোকেশন জানতে সহায়তা করবে অ্যাপটি। চোর চাইলেও মোবাইলটি বন্ধ করতে পারবে না। এছাড়া চোর যদি মোবাইলের লক খোলার জন্য সেটি কম্পিউটারের সঙ্গে কানেক্ট করার চেষ্টা করে, সেটিও সে করতে পারবে না। মজার ব্যাপার হলো, চোর যদি মোবাইলের সিম কার্ডটি পাল্টে ফেলে তবে নতুন সিমের নাম্বার চলে যাবে আসল মোবাইলের মালিকের কাছে। প্রত্যেকটি চোরই কিন্তু মোবাইল চুরি করে সিম কার্ডটি পাল্টে ফেলে, এক্ষেত্রে মোবাইল চুরি করে সিম কার্ড পরিবর্তন করেও পার পাবে না। সে যে কোন সময় ধরা পড়ে যাবে।

এছাড়া শুধু চুরিই নয়, অনুমতি ব্যতীত কেউই কোন ডাটা এক্সেস করতে পারবে না এ অ্যাপটি মোবাইলে থাকলে। যদি কোনো কারণে মোবাইলটি চুরি হয়ে যায় তবে অন্য একটি কম্পিউটার বা স্মার্টফোন থেকে তাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করলেই চুরি যাওয়া মোবাইল এর ক্যামেরা চালু হয়ে যাবে, এবং সেইসঙ্গে সেই ব্যবহারকারী ছবি পাঠাতে থাকবে আসল মালিক এর ইমেইল। এছাড়াও যদি সে সময় মোবাইলের জিপিএস অন করা থাকে তবে ফোনটির লোকেশনও দেখা যাবে। এছাড়া মোবাইলটির আসল মালিক চাইলে সেখান থেকে তার মোবাইলে নতুন একটি লক দিয়ে দিতে পারবে।

অ্যাপটিতে যে সব ফিচার রয়েছে

অ্যাপটিতে যে সব ফিচার রয়েছে সেগুলো সবই ব্যবহারকারীর মন জয় করবে। তবে চলুন দেখে নেয়া যাক অ্যাপটিতে কি কি ফিচার রয়েছে।

ইনট্রুডার সেলফি

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চুরি যাওয়া মোবাইল কে আনলক করার জন্য চোর চেষ্টা করে থাকে। এ সময় যদি মোবাইলে পিন, প্যার্টান, পাসওয়ার্ড অথবা ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে মোবাইল টি খোলার চেষ্টা করে তবে তাৎক্ষণিক চোরের ছবি এবং অবস্থান আপনার ইমেইল আসবে। এছাড়া একাউন্টে যে নাম্বারটি দেওয়া রয়েছিল সে নাম্বারটিতে ও এসএমএসের মাধ্যমে চোরের লোকেশন জানাবে। ফোনটির সঠিক লোকেশন জানার জন্য অবশ্যই ফোনের জিপিএস সেসময় অন থাকতে হবে।

স্টপ শাট- ডাউন

এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনার অনুমতি ছাড়া আপনার মোবাইলটি অন্য কেউ বন্ধ করতে পারবে না। যেটি আপনার মোবাইলকে চুরি যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে এবং আপনার মোবাইলের ডেটা সংরক্ষণ করতে সহায়ক হবে। চোর কিন্তু সবসময় মোবাইল চুরি করে বন্ধ করার চেষ্টা করে। তবে আপনার ফোনে যদি এই অ্যাপটি থাকে, তাহলে আপনি আগে থেকেই মোবাইল বন্ধ না হওয়ার অপশনটি সেট করে রাখতে পারবেন। যার ফলে চোরটি মোবাইল নিয়ে বন্ধ করতে পারবে না। আর চোরটি যদি আপনার আশেপাশের হয় তবে সে খুব সহজেই ধরা পড়ে যাবে। যে কারণে এই ফিচারটি অনেক সহায়ক।

স্টপ পিসি কানেকশন

অনেক সময় আপনার মোবাইলটিকে নিয়ে পিসির সঙ্গে কেউ কানেক্ট করতে পারে। যার মাধ্যমে আপনার ডিভাইসের অনেক ডেটা স্থানান্তর করা যেতে পারে। 'স্টপ পিসি কানেকশন' ফিচারটির মাধ্যমে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য অথবা গুরুত্বপূর্ণ ফাইল অন্যজনার হাত থেকে বেঁচে যেতে পারে। যদি কেউ আপনার ফোনটি ইউএসবি ক্যাবলের মাধ্যমে পিসি (কম্পিউটার) এর সাথে সংযুক্ত করে, তখন আপনার মোবাইলটি অটোমেটিক লক হয়ে যাবে। মোবাইলটিতে সঠিক প্যাটার্ন/পিন/পাসওয়ার্ড প্রবেশ না করা পর্যন্ত মোবাইলে অ্যালার্ম বাজতে থাকবে। এ সময় আপনি যদি আসে পাশে থাকেন তবে আপনি এসে মোবাইলটি তাদের কাছ থেকে নিতে পারবেন। এই ফিচারটি আপনার ফোনকে চুরি থেকে বাঁচাতে এবং আপনার ফোনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বেহাল হওয়া থেকে বাঁচাতে সহায়ক হবে।

পকেট থেফট

এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনার ফোনটি আপনার পকেট থেকে বের করা হলে অথবা কোন কারনে বের হয়ে গেলে আপনার সেট করা বিকল্প নম্বরে একটি নোটিফিকেশন যাবে। এছাড়া সে সময়ে ফিচারটি চালু থাকলে এটি আপনাকে তৎক্ষণাৎ অ্যালার্ম বাজিয়েও সতর্ক করবে।

সাইলেন্ট ক্যামেরা

এই ফিচারটি ব্যবহার করে যেকোনও ডিভাইস থেকে আপনার ফোনে এসএমএস করে আপনার সংরক্ষিত পাসওয়ার্ড প্রেরণ করলে আপনার হারিয়ে যাওয়া ডিভাইসটি এসএমএস পাওয়ার পরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সামনের এবং পিছনের ক্যামেরা ব্যবহার করে চোরের ছবি তুলে আপনার ইমেইলে এবং সেই নাম্বারটিতে এসএমএস প্রেরণ করবে। যে ছবি গুলো আপনি ওয়েবে অ্যাডমিনের বিভাগের মাধ্যমে সংগ্রহ করতে পারবেন।

রিং সেটআপ

এই ফিচারটির কারণে আপনার ফোনটি সে সময়ে সাইলেন্ট বা ভাইব্রেটেড মুডে থাকলেও রিং বেজে উঠবে। যেমনটি গুগলের 'ফাইন্ড মাই ডিভাইস' ফিচারটির মাধ্যমে হয়। আপনার অজান্তেই যদি আপনার বাড়িতে ফোনটি কোন জায়গায় রেখে দেন, তবে এই ফিচারটির মাধ্যমে অন্য মোবাইল থেকে ডিভাইসটিকে অনুসন্ধান করতে পারেন। সেসময় আপনার ফোনটি সাইলেন্ট মুডে থাকলেও রিংটোন বেজে উঠবে। ফলে আপনি খুব সহজেই আপনার ফোনটি খুঁজে পেতে পারবেন।

জিপিএস সেটআপ

জিপিএস ফিচার এর মাধ্যমে আপনার ফোনের অবস্থান আপনাকে মোবাইল টেক্সটিং ব্যবহার করে জানাবে। এই মুহূর্তে আপনার ফোনটি কোথায় রয়েছে সেটি জানতে পারবেন এই ফিচারটির মাধ্যমে। তবে এজন্য অবশ্যই মোবাইলটিতে সেসময় জিপিএস/লোকেশন চালু থাকতে হবে।

মুভমেন্ট এলার্ট

'মুভমেন্ট এলার্ট' ফিচারটির মাধ্যমে আপনার ফোনটি এর অবস্থান সম্পর্কে জানা যাবে। আপনার ফোনটি যদি একটি জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সরানো হয় তবে তখনই আপনাকে সতর্ক করবে। আপনার মোবাইলটি এক অবস্থান থেকে অন্য অবস্থানে সরালে সেই সতর্কবার্তা টি অ্যাপ্লিকেশনটি জানাবে।

আনপ্লাগ চার্জার এলার্ট

এই ফিচারটির মাধ্যমে চার্জে রাখা অবস্থায় কেউ যদি আপনার ফোনটি চার্জ থেকে বিচ্ছিন্ন করে তখন অ্যাপ্লিকেশনটি আপনাকে এলার্ম দিয়ে সতর্ক করবে। অর্থাৎ সে সময় আপনার ফোনে নোটিফিকেশন অথবা রিং বেজে উঠবে। তাহলে আপনি খুব সহজেই জানতে পারবেন যে, সে সময় আপনার ফোনটি চার্জ থেকে ডিসকানেক্ট করা হয়েছে।

প্যাসিভ লোকেশন & ট্র্যাক ইওর ফোন

এই অপশনটি সেট করে আপনি যদি আপনার ফোনটি কোথায় হারিয়ে যান অথবা কোথাও ভুলে রেখে দেন, তবে আপনি এমনতো অবস্থায় আপনার ফোনটি খুব সহজেই শনাক্ত করতে পারবেন। এটি সেট করা থাকলে অ্যাপ্লিকেশনটিতে যে নাম্বারটি দ্বারা নিবন্ধন করা থাকবে, সে নাম্বারে প্রতি ৩০ মিনিট পরপর মোবাইলটির বর্তমান লোকেশন এসএমএসের মাধ্যমে আসতে থাকবে। আপনি ওয়েব এডমিন এর মাধ্যমে ফোনটির বর্তমান লোকেশন জেনে নিতে পারবেন।

সিম কার্ড সিকিউরিটি

এই ফিচারটি মোবাইলের সিম সুরক্ষার প্রমাণীকরণের জন্য। যদি কোন ব্যক্তি আপনার ফোন থেকে সিম কার্ডটি বের করে তবে অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফোনটি লক করে অ্যালার্ম বাজানো শুরু করবে। এবং সেইসঙ্গে অ্যাপটি নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে এসএমএস প্রেরণ করবে। এছাড়া অ্যাপটি নতুন সিমটিও ট্র্যাক করে আপনার ইমেইলে নতুন সিমের পুরো তথ্য প্রেরণ করবে। তবে এসব সুবিধা গুলো পেতে হলে অবশ্যই সেই মোবাইলে জিপিএস অন থাকতে হবে।

লক ডিভাইস

যদি কোন কারণে আপনার ডিভাইসটি হারিয়ে যায় তবে যেকোনও ডিভাইস থেকে আপনার ফোনে এসএমএস করে আপনার সংরক্ষিত পাসওয়ার্ড প্রেরণ করে ডিভাইস টি লক করে দেওয়া যাবে। আপনার সেই ডিভাইসটি এসএমএস গ্রহণ করার পরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ডিভাইসের স্ক্রিনটি লক হয়ে যাবে। ওয়েব অ্যাডমিন বিভাগের মাধ্যমেও আপনি স্ক্রিনটি লক করতে পারবেন।

এই অ্যাপটি এমনভাবে সাজানো হয়েছে যে, এটি বাজারের সেরা অ্যান্টি থেফ্ট অ্যাপ। এই অ্যাপটি এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ ফিচার দিয়ে সাজানো হয়েছে যাতে করে আপনার মোবাইলটিকে তৃতীয় চোখের মতো নজরবন্দি করে রাখতে পারবেন। এত সব ফিচার নিয়ে সদ্য উম্মুক্ত হওয়া অ্যাপটি সম্পর্কে সফটালজি লিমিটেড এর ব্যাবস্থাপনা পরিচালক বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে দ্রুত গতিতে স্মার্টফোনের ব্যবহার বাড়ছে।

আপনাদের ফোনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকতে পারে। প্রিয় এই স্মার্টফোনে অতিপ্রয়োজনীয় অনেক তথ্য, ফোন নাম্বার, ছবি সহ আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংরক্ষিত থাকে। তবে যদি কোন কারণে সেই ফোনটি হারিয়ে যায় অথবা চুরি হয়ে যায় তাহলে সেসব তথ্য ফিরে পাওয়া অসম্ভবই হয়ে ওঠে। সেসব তথ্য সংগ্রহ করা হয়ে ওঠে অনেক কঠিন। এছাড়া তিনি বলেন, আমাদের অ্যাপটি ব্যবহার করলে আগামীতে নির্ভয় ফোন ব্যবহার করা যাবে এবং সেইসঙ্গে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য ফোন নাম্বার এবং আপনার প্রিয় ফোনটি ও সুরক্ষিত থাকবে।

তবে এই আপনি সব এন্ড্রয়েড মোবাইলে সাপোর্ট করবে না। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড-৭ থেকে যেকোনো ভার্সনে ব্যবহার করা যাবে। অর্থাৎ অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ৭ এর উপরের ভার্সনগুলোতে রান করানো যাবে। আপাতত দুই বছর এবং এক বছর মেয়াদের এ অ্যাপটি সারাদেশের মোবাইলের দোকানে পাওয়া যাচ্ছে। তবে এই অ্যাপটি সম্পর্কে আপনি আরও বিস্তারিত জানার জন্য তাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে পারেন। সেখানে আপনারা বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাবেন।

বন্ধুরা আপনার-আমাদের অনেক তথ্যই আমাদের ফোনে থাকে। একটি ফোনের মূল্যের চাইতে সে সব তথ্যের মূল্য অনেক বেশি হয়ে যায়। তাই হারিয়ে যাওয়া ফোন টি উদ্ধার এবং নিজের কাছে থাকা ফোনটিকে সুরক্ষার জন্য এই অ্যাপটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করি। আপনাদের কাছে যদি অ্যাপটির ফিচার ভালো লেগে থাকে তবে আপনি ও এটি ব্যবহার করতে পারেন। তাদের ওয়েবসাইটে এ সম্পর্কে বিস্তারিত বলা রয়েছে। সেখানে আপনি কাস্টমার সাপোর্ট নেওয়ার জন্য নাম্বার পাবেন। কোন সাহায্যের জন্য তাদের সঙ্গে আপনি যোগাযোগ করতে পারেন।

নিত্যনতুন আরো নতুন কোন টিউন নিয়ে পরবর্তীতে হাজির হব ইনশাআল্লাহ। আজ তবে এ পর্যন্তই। আসসালামু আলাইকুম।

Level 6

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 122 টি টিউন ও 51 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 13 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস