প্রতিটা মানুষের ভিতরে আছে একটা অমানুষ

শততম পোস্ট লিখেছিলাম কিন্তু মনে হয় না ওই পোস্টটা আর কোনদিন দিতে পারব কারন জীবনে একবারই শততম পোস্ট হয় ।
একটা কাজে ব্যস্ত থাকায় অনেকদিন টেকটিউনস এ আসা হয় নাই।আজকে টেকটিউনস এ এসেই দেখি চরম বাজে অবস্হা দেখে অবাক হই নাই কারণ হইতে পারে এইরকম ।এটা কোন ব্যাপারনা।আমরা সবাই মানুষ আমাদের ভিতর আছে একটা অমানুষ মাঝে মাঝে অমানুষটা আমাদেরকে কাবু করে ফেলে ।আমরা হিংসা করি আমরা অহংকার করি।আমরা অহংকারে রাতে ঘুমাতে পারিনা আমরা হিংসায় ঘুমাতে পারিনা।
এই মূর্হুতে টেকটিউনস এ ঝগড়া শেষ কিন্তু আবার হবে এজন্য আমার এই পোস্ট তাই আমি কার দোষ কার পূর্ন্য এগুলো বলব না কারন আমি জানি মানুষ তার দোষ স্বীকার করেনা ।নিজের দোষ স্বীকার করা অনেক কঠিন কাজ সবাই পারেনা।
টেকটিউনস এ কেন টিউন করি জানেন???কারন টেকটিউনস এ একটা বন্ধুত্বপূর্ন পরিবেশ আছে ।এখানের মানুষগুলোকে আপন মনে হয় ।আমি টেকটিউনস ছাড়া আরও অনেক ব্লগেই লিখি ওইসব ব্লগে লিখার সময় ইচ্ছামত লিখি যা মনে চায় আর টেকটিউনস এ লিখার সময় সবসময় কোয়ালিটি টিউন করার চেষ্টা করি তাই বলে সবসময় পারিনা।আমার প্রথম দিকের টিউনগুলো অনেক বাজে ছিল দেখলেই বুঝতে পারবেন।কিন্তু এখন কার টিউনগুলো আগেরগুলো হতে মোটামুটি ভালই ।কিন্তু আমি যখন প্রথম প্রথম টিউন করতাম তখন আমাকে যদি বাঝে মন্তব্য করত তাহলে মনে হয় আজও রিডারই থাকত আর টিউনার হতাম না।প্রথম দিকে আমারও ভয় থাকত বাঝে মন্তব্য পাবার ভাবতাম বাঝে মন্তব্য পেলে আর টিউন করব না।এখন আর এইসব ভয় লাগেনা কারন ভালটাই দেবার চেষ্টা করি ।বাঝে মন্তব্য পেতে পারে এজন্য অনেক রিডার সারাজিবন শুধু টেকটিউনস রিড করেই যাচ্ছে অনেক কিছু দিতে চাইলেও আমাদের অমানুষটার জন্য দিতে পারতেছেনা।আমার এক বন্ধু সবসময় টেকটিউনস এ আসে কিন্তু বাঝে মন্তব্য পাবে বলে আজও টিউন করে নাই আমি অনেক চেষ্টা করেছি কিন্তু রাজি হয়না।আমাদের বাঝে মন্তব্যের জন্য অনেক টিউনার টেকটিউনস ছেড়ে চলে গিয়েছে এতে ক্ষতি আমাদেরই হয়েছে।হায়রে আমরা।আচ্ছা আমরা কি বাঝে মন্তব্য না করে পরামর্শমূলক মন্তব্য দিতে পারিনা।??একটা কথা সবসময় মনে রাখবেন মানুষকে হিংসা ঘৃনা ,আঘাত ইত্যাদি করলেও মনে শান্তি আসে কিন্তু মানুষকে ঘৃনা আর হিংসা করার মাধ্যমে মনে অমানুষটার সাময়িক সময়ের জন্য শান্তি মিলে আর মানুষকে ভালবাসার মাধ্যমে নিজের আত্নার শান্তি মিলে।মানুষের ভালবাসা পাওয়া যায়।মানুষ ভালবাসা চায় যেখানে ভালবাসা সেখানে মানুষ ১ টা বাঝে মন্তব্য পেলে আর কারোই টিউন করতে ইচ্ছা করবেনা কিন্তু প্রশংসা পেলে আরোও ভাল কিছু দেবার চেষ্টা করবে।আর মন্তব্য ??ভাল টিউন করেন মানুষ আপনাকে মনে রাখবেই।অনেক টিউনার অনেকদিন টিউন করেনা কিন্তু তাদেরকে এখনও সবারই মনে আছে যেমন আমিনুল ইসলাম সজীব ,Microkatar ভাই ।আর একটা কথা এই কথাটা সারাজীবন মনে রাখবেন “নিজেকে সবার মত ভাববেন না /নিজের লেবেল এর সাথে সবাইকে চিন্তা করেবেন না।প্রতিটা মানুষ তার জ্ঞানে চিন্তা ভাবনায় আলাদা।আপনি ওয়েবডিজাইন জানেন তাই বলে কি সবাই জানে???তাই মন্তব্য দেবার সময় ব্যাপারগুলো খেয়াল রাখবেন আপনি কি বলতেছেন ”অনেকে দেখি নানা আইডি নিয়ে ঝগড়ায় লিপ্ত হয় আমার হাসি আসে মানুষ নিজেকে কত চালাক ভাবে।আর কিছু বলার নাই সব শেষ।বুদ্ধিমানরা অবশ্যই ভুল থেকে শিক্ষা নেয় ।আর বোকারা ভূল আবার ভুল তারপর পুরা অমানুষ।
আসেন আমরা সবাই টেকটিউনস কে ভালবাসি আমরা সত্যিকারের মানুষ হবার চেষ্টা করি সত্যিকারের মানুষ হওয়া অনেক কষ্টের কাজ।হিংসা জিনিসটা যেদিন ৭০% কন্টোল করতে পারবেন সেদিনই পূর্নাজ্ঙ মানুষ হতে পারবেন।বাকী ৩০% থাকবেই এইটা বেসিক ।কথা বললে অনেক কিছু বলা যায়।বলবনা শেষ একটা কথাই বলি যদি কাউকে আপনার পছন্দ না এটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার ।আমার নিজেরও অনেকের মন্তব্য বিরক্ত লাগে কিন্ত এটা আমার ব্যক্তিগত বিরক্ত।এজন্য আমারটা আমার কাছেই থাক পাবলিকলি প্রকাশ করার কি দরকার।??
সবাই ভাল থাকবেন।

Level 0

আমি বিল্লাহ মামুন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 15 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 142 টি টিউন ও 1447 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

করি মায়ের ভাষায় চিৎকার........ http://bloggermamun.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 2

বড় বড় টিউনাররা একটু সংযোমী হলে প্রতিটা মানুষের ভিতরে একটা অমানুষ তৈরি হবে না।

    ভাই জন্মগত ভাবে প্রতিটা মানুষের ভিতরে অমানুষ আছে ।অমানুষটাকে কন্ট্রোল করাটাই মানুষের কাজ।অমানুষ না থাকলে মানুষ ফেরেশতা হত।

মামুন ভাই ঠিক আপনের মত । মিয়া এত ভালবাসি বলেই কি যাওয়ার আগে একবার বলে যাওয়ার প্রয়োজন মনে করলেন না ।

    আরে মিয়া রাগ কইরওনা একটা সমস্যায় ছিলাম তাই বলে যেতে পারিনি ।ভুল বুইঝনা আবার।

    অই হাসিব, মামুন দেখি কারিনা কাপুর এর টিপস নিয়া স্লিম হইয়া আসছে? Welcome back bro

Level 0

ধন্যবাদ আপনার সুন্দর মন্তব্যর জন্য

মিয়া এত সুন্দর কথা কি এই কয়দিন যাবত ধরে লিখছেন নাকি , জটিল হইছে । সেলুট দিলাম ….. হা হা হা

ধন্যবাদ মামুন ভাই।

অনেক ধন্যবাদ মামুন ভাই এত সুন্দর একটা টিউন উপহার দেবার জন্য……

Level 0

ধন্যবাদ

আমি শুধু কয়েকটা প্রশ্ন করেছিলাম অজানা কথা জানতে । ওটাকে বড় করেছে কারা জানতে চেষ্টা করুন । মানুষ তার নিজের ভুল নিজে ধরতে পারেনা , আপনার ছোট ভাই আপনার ভুল ধরতে পারে ।ছাএ তার শিক্ষকের ভুল ধরতে পারে । ভুল ধরে দেওয়াটা কি অন্যায় মামুন ভাই, মামুন ভাই প্রতিটা মানুষের ভিতরে আছে একটা অমানুষ শিখার করি তাই বলে প্রধানমন্তির যে তুলসি পাতার মত তা নয় । একে অন্যের যদি ভুল ধরে না দেই তাহলে তাহলে সবাই ভুল করতে তাকবে ,একদিন কি হবে ভেবে দেখেছেন দেখেননি । ভালবাসা সবার মধ্যে আছে ভালবাসা শুধু ভালবাসা দিয়ে তুলনা করতে হয় , টিউন দিয়ে নয় ,সত্যিকারের মানুষ হওয়া অনেক কষ্টের কাজ। শুধু শিক্ষা অর্যন করলে শিক্ষকিত বা ভাল মানুষ হয়না ,মনের মাঝে মনুষ্যও তাকতে হয় । কাউকে সাহায্যের হাত বাড়িযে সে ফিরে নেন তাহলে কেমন লাগে ,হিংসা বিদ্দেশ ভুলে গিযে হাতে হাত মিলিয়ে কাধে কাধ মিলিয়ে চলুন এগিয়ে নিয়ে যাই আমাদের টেক্টিউন্সকে , ।আর বোকারা ভূল আবার ভুল তারপর পুরা অমানুষ অটা শিখার করলামনা কারন বোকারা ভূল করে যখন ধরা পড়ে যায় তখন সত্যিকারের মানুষ হয় , আর সত্যিকারের মানুষরে অমানুষের লাইনে দাড়াইয়া রাখে ।সবশেষে ওই কথা বলব কারো টিউন ভাল না লাগলে মন্তব্য করবেননা । আর টিউন করলে কুনু কিছু গুপন না রাখার ছেষ্টা করবেন ।কারু টিউন মুছে দিবেননা ভাল না লাগলে বলবেন ।ــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــــ একটু আগে আমি এই কমেনট দিয়ে তিউন করেছিলাম মেহেদি হাসান ভাই মুছে দিলেন কারণটা কি জানতে চাই মেহেদি ভাই আমি আপনাকে বড় ভাই এর মত মনে করতাম ।

    চলেন ভাই ,হিংসা বিদ্দেশ ভুলে গিযে হাতে হাত মিলিয়ে কাধে কাধ মিলিয়ে চলুন এগিয়ে নিয়ে যাই আমাদের টেক্টিউন্সকে।

Level 0

আল্লাহ রে আমার প্রিয় সাইটে একি চলতেছে ???

    চিন্তা কইরেন না ভাই টেকটিউনস তার আপন আলোয় উদ্ভাসিত।

hummmmmmmm…. onek ojana kotha..

মামুন আমার বই এনেছ??

    ভাই মেইল চেক করেন মেইল পাঠিয়েছি।

মামুন ভাইয়া আপনার শততম টিউনে আপনাকে স্বাগতম। টিউনে আপনি অনেক জটিল আর সত্যি কথা বলেছেন।

    ধন্যবাদ ভাল থাক সবসময়

সেঞ্চুরি করার জন্য ধন্যবাদ। আরো সুন্দর টিউন চাই।

আপনার সত্য ও সঠিক বক্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আসলে কিছু টিউনার নিজেকে বেশী জ্ঞানী আর সবজান্তা ভাবার জন্যই মনে হয় এই সমস্যার সৃষ্টি। কেউ কেউ বাজে মস্তব্য করে টিউনারকে চোর, নকলকারী ও বাচ্চাদের বা নবীশদের টিউনার বলে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে তার মন ভেঙ্গে দিয়ে তার টিউন করার উৎসাহটাই নষ্ট করে দেয়। হয়তো বা কেউ একাই বেশী টিউনকারী হতে চেয়ে অন্যদের হেয় করে সরিয়ে দিতেই এমন করে কিনা জানিনা। কারো কারো মধ্যে হয়তো বা আবার অন্য টিউনারদের প্রতি হিংসাও কাজ করে। আসলে এ কারণেই হয়তো পুরানো অনেক টিউনার টিউন করা প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন। আমার নিজের টিউন করার ইচ্ছাও দমে যাচ্ছে এ কারণে।একটা কথা কেন কেউ বুঝতে চাচ্ছেন না, কেউ যখন টিউন করেন তার নিজের যেটুকু জ্ঞান বা মেধা আছে সেটা খাটিয়ে তার সেরা চেষ্টাটাই করেন। কিছু ভুলভ্রান্তি হয়তো তাতে থাকতে পারে। To err is human. অপমানিত বা কারো দ্বারা ছোট হতে নিশ্চয় কেউ টিউন করেন না।অনেক কষ্ট করে টিউন করে অপমানজনক মন্তব্য পেলে টিউনারের কেমন লাগে! এ ব্যাপারে একবার আগেও টিউনারদের অনুরোধ করেছিলাম। তাতেও আসলে কাজ যে হয়নি তাতো বুঝতেই পারছি। তাই এখন অনেক টিউনার টিউন করার সাথে সাথে আগাম মাফও চেয়ে নিচ্ছেন।যেন কষ্ট করে টিউন করে তিনি কত বড় অন্যায় করে ফেলেছেন!! হায় সেলুকাস, কি বিচিত্র এই দেশ! এই জন্যই মনে হয় টেকটিউনসে যেমন ভাল টিউনস কম হচ্ছে, তেমনি মন্তব্যও কমছে। এভাবে চললে টেকটিউনস তার সুনাম হারাবে। পরিণত হবে টেকনোলজির জ্ঞান শেয়ার করার অনন্য সাইটের বদলে অন্য আর দশটা সাধারণ সাইটের মত অশ্লীল ঝগড়ার সাইটে। টেকটিউনস কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ বিষয়টাকে গুরুত্ব দিন আর অপমানজনক বা বিরূপ কটু মন্তব্য সম্ভব হলে সাথে সাথে মুছে ফেলুন। টিউনারদের বলছি আপনাদের আগাম ক্ষমা চাওয়ার কোন দরকার নেই। কেউ খারাপ মন্তব্য করলে বুঝবেন, কয়লা ধুইলেও ময়লা যায়না আর চোরায় না শোনে ধর্মের কাহিনী। বেশী কথা বলে ফেললাম, কিছু মনে করবেন না। সকল টিউনার ও পাঠকদের অনেক অনেক ধন্যবাদ।