Online Earning : মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম ৭টি দুর্দান্ত অ্যাপ

অনলাইনে আয় করার জন্য জন্য বর্তমানে অজস্র উপায় রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া বা ইউটিউব ঘাঁটলেই তা চোখে পড়বে। কিন্তু অনেক মাধ্যম রয়েছে যেখানে বাস্তবে কোনো টাকা উপার্জন হয় না। তবে বর্তমানে স্মার্টফোন আসার ফলে টাকা আয় করা অনেক সহজ হয়ে উঠেছে।

নানা অ্যাপ ব্যবহার করে মাস গেলে বেশ ভালো অঙ্কে টাকা আয় করছেন ইউজাররা। তবে এই সব অ্যাপগুলি আপনাকে রাতারাতি ধনকুবের করে তুলবে না। কিন্তু আপনার প্রতি দিনের যা যা খরচ (উদাহরণস্বরূপ, মোবাইলের বিল, কারেন্টের বিল এবং অন্যান্য খরচ) খুব সহজে আয় করতে পারবেন।

চলুন দেখে নেওয়া যাক সেই 7 অ্যাপ যেখানে অনলাইন টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

Foap

​ফটোগ্রাফি করতে ভালোবাসেন? তাহলে এখানে আপনি প্রতি ছবিতে 300 থেকে 500 টাকা আয় করতে করবেন। এর জন্য সবার প্রথম উক্ত অ্যাপে গিয়ে একটি ফ্রি অ্যাকাউন্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর আপনার ফোনের গ্যালারিতে থাকা ছবিগুলি আপলোড করতে হবে। যে সব গ্রাহক আগ্রহী হবেন আপনার ছবিতে তারা সেগুলি কেনার প্রস্তাব দেবে আপনাকে। তবে মনে রাখবেন এখানে অর্থের লেনদেন হয় Paypal এর মাধ্যমে।

mCent

ফোনে একাধিক অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করার বদলে আপনাকে টাকা দেবে এই অ্যাপ। যদিও এই টাকা রিওয়ার্ড পয়েন্ট হিসাবে পাবেন আপনি। যা দিয়ে মোবাইল রিচার্জ বা অন্যান্য বিল পে করতে পারেন। অ্যাপ ইন্সটল করার পাশাপাশি এখানে ভিডিও ফরম্যাটে বিজ্ঞাপণ দেখারও পয়েন্টস দেওয়া হয়। অন্যান্য ইউজারদের ইনভাইট করেও পয়েন্টস সংগ্রহ করতে পারেন।

Squadrun

এই অ্যাপে বেশ কিছু টাস্ক পূরণ করতে হবে। আপনার দক্ষতা অনুযায়ী যেটি পারবেন সেই অনুসারে বেশ কিছু টাস্ক অ্যাপে শো হবে। যেগুলি নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনে পূরণ করতে হবে। আর টাস্ক পূরণ করলেই আপনাকে নির্দিষ্ট পয়েন্ট দেওয়া হবে। যা পরে Paytm অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করার সুযোগ থাকবে। তবে টাকা ট্রান্সফার করার জন্য আপনাকে নূন্যতম 60 টাকা ইনকাম করতে হবে।

Slidejoy

অনলাইন আয়ের আরও একটি সহজ উপায়। এই অ্যাপ আপনার ফোনের লকস্ক্রিনের বদলে একটি বিজ্ঞাপণ সংক্রান্ত কন্টেন্ট শো করতে বলবে। যতগুলি বিজ্ঞাপণ দেখবেন ঠিক ততই টাকা পাবেন। তবে এই টাকা আসে ক্যারট রূপে। প্রতি 1, 000 ক্যারটে 1 ডলার পাবেন যা দাঁড়ায় প্রায় 68 টাকা। 15 দিন বাদ এই টাকা Paypal অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ট্রান্সফার করা যাবে।

Keettoo

এই অ্যাপে টাকা আয়ের পদ্ধতি হল এটি আপনার কি-বোর্ডে কিছু বিজ্ঞাপণ শো করাবে। ইন্সটল করার পরই সেই নোটিফিকেশন চলে আসবে। যত বিজ্ঞাপণ দেখবেন তত টাকা ক্রেডিট হবে। প্রতি বিজ্ঞাপণে 1 টাকা করে দেবে Keettoo। যা Paytm অথবা Mobikwik ওয়ালেটের মাধ্যমে অন্যান্য কাজে ব্যবহার করতে বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আনতে পারেন।

Yumchek

অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস উভয় ফোনেই কাজ করে এই অ্যাপ। এখানে আপনি যে যে রেঁস্তোরায় খাবার খেয়েছেন তার বিল আপলোড করতে হবে। তারপর 5 টাকা করে অ্যাপের ওয়ালেটে ক্রেডিট করা হবে। এই অ্যাপের আরও একটি সুবিধা হল আপনার লোকেশনের নিকটবর্তী কী কী রেঁস্তোরা রয়েছে তাও দেখা যাবে।

CrownIt

অফলাইন ব্যবসা যেমন রেঁস্তোরা, স্পা এই জাতীয় অংশীদারদের কাছ থেকে যখন কোনো অ্যাপ ইউজার পরিষেবা নেবে এবং তার বিল আপলোড করবে তারপরিবর্তে ক্যাশব্যাক দেবে এই অ্যাপ। 2014 সাল থেকে শুরু হয় CrownIt। এই অ্যাপে পাওয়া ক্যাশব্যাক অন্যান্য কাজে যেমন অনলাইন শপিং, সিনেমা এবং রিচার্জে ব্যবহার করতে পারেন।

আমার অর্জিনাল সাইট ঘুরে আসার অনরুরোধ রইলো:-👉 IT Melas

Level 1

আমি নাসিমুল ইসলাম। Ownar, Lsn Nasim, Khulan। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 মাস 3 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 2 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস