আপনারা যে কাজ করছেন, তা কি আসলেই কাজ নাকি অন্য কিছু?

Level 2
১ম বর্ষ, ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজ, ঠাকুরগাঁও

আসসালামুয়ালাইকুম বন্ধুরা। আশাকরি সকলে ভালো আছেন। আমি আজকে আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছি বিজ্ঞানের একটি অতি পরিচিত বিষয়। আপনারা কম বেশি সকলেই প্রায় কাজ সম্পর্কে জানেন। অনেকেই আপনারা বিজ্ঞান বিষয়ে পড়ালেখা করেছেন। তারা এই কাজ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানেন। কিন্তু অনেকেই আছে, যারা বিজ্ঞান নিয়ে পড়ালেখা করে নি, তারা "কাজ কী?" এটা সঠিক ব্যাখা জানে না। তাই সর্বোপরি সকলের জন্য আজকে আমি কাজ নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করব।

১. উদাহরণ

উদাহরণ

প্রথমে আসি উদাহরণে। এক ব্যক্তি সকালে অফিসে গিয়েছিল। সারাদিন সে কম্পিটারের সামনে বসে অফিসের তার যত কাজ আছে, সব সে শেষ করেছে। খরচ, আয়, ব্যয়, লাভ, লোকসান, ইত্যাদি হিসাব করে সে অফিসের জন্য একটি এক্সেল শিট তৈরি করল। তার পাশের ডেস্কে বসা একজন সহকর্মী ক্লাইন্টের সাথে যোগাযোগ, প্রোডাক্ট এর লিস্ট ইত্যাদি তৈরি করল। আর তাদের অফিসের সামনে একজন দারোয়ান সকাল থেকেই দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পাহারা দিচ্ছে। এখন আপনাদেরকে যদি প্রশ্ন করা হয়, এই ৩জনের মধ্যে কে বেশি কাজ করেছে?

অনেকেই বলবেন প্রথম ব্যক্তি, যে হিসাব নিকাশ করেছিল। অনেকেই বলবেন দ্বিতীয় ব্যক্তি, যে ক্লাইন্টের সাথে যোগাযোগ করেছিল। আবার অনেকেই বলবেন ৩য় ব্যক্তি, যে সারাদিন দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পাহারা দিয়েছে।

কিন্তু আমি যদি বলি এদের মধ্যে কেউই কাজ করে নি, তবে অনেকেই বলবেন, এটা আবার কেমন কথা হলো। প্রথম ২জন না হয়, বসে বসে কম্পিউটার টিপেছে। তাই তারা শারীরিক পরিশ্রম করে নি, এটা বলা যায়। কিন্তু, ৩য় ব্যক্তি সারাদিন দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পাহারা দিল, সে কেন কাজ করে নি, এটা কী করে বলছেন?

২. কাজ কী

কাজ কী

আসলে আপাত দৃষ্টিতে সকলেই কাজ করেছে। কেউ করেছে কায়িক শ্রম। আবার কেউ করেছে মানসিক শ্রম।
কিন্তু বিজ্ঞানের ভাষায়, বিশেষ করে পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায় কাজ করলেই কাজ হয় না। কেউ কাজ করে দাবি করতে পারবে না যে, সে কাজ করেছে। কাজ করার জন্য বা ক্যাজের জন্য নির্দিষ্ট কিছু শর্ত আছে। এই শর্তগুলো কী, তা আমি বলছি। তবে তার আগে কাজ কাকে বলে, তা জেনে নিই।

কোনো বস্তুর উপর বল প্রয়োগ করলে বস্তুটির যদি বলের দিকে সরণ ঘটে, তবে বল ও সরণের উপাংশের গুণফলকে কাজ বলে। অনেকেই হয়তো বুঝতে পারেন নি। তো চলুন জেনে নিই, শর্তগুলো। তাহলে সংজ্ঞাটা ভালো করে বুঝতে পারবেন।

  1. কাজ পেতে গেলে বা কাজ করেছি বলতে গেলে আপনাদের অবশ্যই কোনো বস্তুতে বল প্রয়োগ করতে হবে। অর্থাৎ, বল ছাড়া কোনো কাজ সঙ্ঘটিত হবে না। এখন অনেকেই বলতে পারেন বল কী? যারা জানেন না বল কী, তারা আমাকে টিউমেন্ট করতে পারেন। আমি পরের টিউনে বল নিয়ে কথা বলব।
  2. এরপরে যা লাগবে, তা হলোঃ বল প্রয়োগের পর বস্তুর সরণ ঘটাতে হবে। যেমনঃ আপনি যদি কোনো বিল্ডিং এ বল প্রয়োগ করেন, তবে বিল্ডিংটি কি সরবে? না, আপনার বল প্রয়োগে এতো বিশাল বিল্ডিং সরবে না। অর্থাৎ, আপনি বিল্ডিং এর সরণ ঘটাতে পারবেন না। ফলে কাজ হবে না। তাই সারাদিন ধরেও যদি বিল্ডিংকে ঠেলতে লাগেন, তবুও সরণ ঘটাতে পারবেন না বলে, আপনি দাবি করতে পারবেন না যে, আপনি কাজ করেছেন। অর্থাৎ, এক্ষেত্রে কোনো কাজ হবে না।
  3. বল কখনোই সরণের সাথে ৯০ ডিগ্রি এঙ্গেল তৈরি করতে পারবে না। কেননা এতে কাজ শুন্য হয়ে যায়। যেমনঃ পৃথিবী সূর্যের চারপাশে ঘুরছে। সূর্য যে বলে পৃথিবীকে আকর্ষণ করে, তার সাথে পৃথিবীর সরণ হয় ৯০ ডিগ্রি এঙ্গেলে। ফলে পৃথিবী যে ঘুরছে, তাতেও কোনো কাজ সংঘটিত হচ্ছে না।

উপরের ৩টি শর্ত পালন করলেই কেবল কাজ সংঘটিত হবে।

৩. উদাহরণের ব্যাখ্যা

উদাহরণের ব্যাখ্যা

এবার আসি উদাহরণের ব্যাখ্যায়।
প্রথম ও দ্বিতীয় ব্যক্তি বসে ছিল। কোনো বল প্রয়োগ করেনি, কিংবা কোনো সরণ ঘটেনি। ফলে তাদের কোনো কাজ হয়নি। আবার তৃতীয় ব্যক্তি, যে পাহারা দিচ্ছিল, সেও কোনো কাজ করেনি। কেননা, সে দাঁড়িয়েই ছিল। বল প্রয়োগ করে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যায়নি। ফলে কাজও হয়নি।

কিন্তু তারা যদি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেত, তাহলে তাদের পিছনের পা দিয়ে মাটিতে বল প্রয়োগ করতে হতো। ফলে সরণ ঘটত। আর এর ফলে তাদের কাজও সংঘটিত হতো।

আশাকরি, সকলে বুঝতে পেরেছেন। তাহলে বন্ধুরা, আপনারা যদি এরকম নিত্য নতুন টিউন পেতে চান, তবে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন।

আপনারা যে কাজ করছেন, তা কি আসলেই কাজ নাকি অন্য কিছু?
টিউমেন্ট করে জানিয়ে দিন। আর টিউনটি ভালো লাগলে জোস দিন।
ধন্যবাদ সকলকে।

Level 2

আমি মো মিরাজ ইসলাম। ১ম বর্ষ, ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজ, ঠাকুরগাঁও। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 18 টি টিউন ও 25 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 7 টিউনারকে ফলো করি।

আমি মোঃ মিরাজ ইসলাম। আমি আর্টিকেল লিখতে ও পড়তে ভালোবাসি। এছাড়া ইউটিউবে ভিডিও কন্টেন্ট তৈরিও করি। আমি টেকটিউনসে টিউন লিখে আয় করার জন্য একাউন্ট ক্রিয়েট করেছি। ধন্যবাদ।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস