টেকটিউনসে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করুন মাসে ৩০ হাজার টাকা

প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 2
৯ম শ্রেণী, ইস্টার্ণ রিফাইনারী মডেল হাই স্কুল, চট্টগ্রাম

আস্সালা মুআলাইকুম, আর্টিকেল লিখে আয় করার ৩য় পর্বে সবাইকে স্বাগতম। আগের পর্বে আলোচনা করে ছিলাম সেরা ৫ টি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট সম্পর্কে চাইলে দেখে আসতে পারেন।

অনলাইয়ে আয়ের সবচেয়ে সহজ উপায় হলো কন্টেন্ট রাইটিং বা আর্টিকেল রাইটিং। একটা সময় ছিল যখন শুধু ইংরেজীতে আর্টিকেল লিখতে হতো। কারন তখন বাংলা আর্টিকলে লেখে আয় করার তেমন কোন মাধ্যম ছিল না বা থাকলেও বাংলা আর্টিকেল লেখা তেমন প্রচলিত ছিল না। তবে বর্তমানে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করা যায়।

দিন দিন বাংলা ব্লগ সাইট বেড়ে যাওয়ায় বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট এবং লেখার পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন বেশ কিছু বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট তৈরি হয়েছে, যেখানে আপনার পেমেন্ট বিকাশে নিতে পারবেন। সেই রকম একটি ওয়েবসাইট হলো টেকটিউনস।

তাই আজকে আমরা আলোচনা করব বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সেরা সাইট টেকটিউনস সম্পর্কে। জানাবো তাদের আর্টিকেল লেখার নিয়ম, আর্টিকেলের টপিক, আয়ের উপায় সমূহ, সুবিধা, শর্তবলী এবং পেমেন্ট মেথড সম্পর্কে।

১. টেক কন্টেন্ট লিখে আয় - টেকটিউনস

TechTunes

টেকটিউনস হলো বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক। টেকটিউনসের চেয়ে বড় ব্লগ সাইট বাংলায় বর্তমানে সম্ভবত একটিও নেই। তাদের মাসিক ভিজিটর সংখ্যা ১ কোটিরও বেশি। এই সাইটটিতে বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত হতে লেখকগণ তাদের লেখা পাবলিশ করে আসছে। বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করার সবচেয়ে ভালো সাইট বলা যায় টেকটিউনসকে। তাই আপনার যদি লিখে আয় করার ইচ্ছা থাকে, তবে টেকটিউনসে লিখতে পারেন।

টেকটিউনসে অরিজিনাল, রিচ ও হাই কোয়ালিটি কন্টেন্ট লিখে টেকটিউনস থেকে ‘ইনকাম’ করা যায়। টেকটিউনস থেকে ইনকাম ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ হিসেবে আপনার টেকটিউনস অ্যাকাউন্টে জমা হয়। টেকটিউনস ক্যাশ অর্থ সরাসরি টাকা। ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ সরাসরি পে-আউট হয় আপনার বিকাশ, রকেট, নগদ, ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। টেকটিউনস থেকে ইনকাম শুরু করতে টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হতে হয়।

ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে সকল আয় ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ হিসেবে আর্ন ও পে-আউট হয়। ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর সকল আর্ন ও পে-আউট History আপনার টিউনার প্রোফাইল এর Techtunes Cash থেকে লাইভ দেখা যায়।

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনাররা প্রতি মাসে গড়ে ২০ হাজার টাকা থেকে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেমেন্ট পেআউট করে থাকে। নিয়মিত টিউন প্রকাশের সাথে সাথে এবং ইউজার এনগেজিং বৃদ্ধির সাথে সাথে আপনার আয়ও বাড়তে থাকে। আপনার প্রতি মাসের আয় নির্ভর করে আপনি কত বেশি পরিশ্রম, মেধা, অরিজিনাল, কোয়ালিটি পূর্ণ ও এনজেগিং কন্টেন্ট তৈরি করতে পারেন তাঁর উপর। টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে আপনি আনলিমিড Money ইনকাম করতে পারবেন। কোন লিমিট নেই। তবে সেজন্য আপনাকে নিয়মিত ইউনিক, অরিজিনাল, হাই-কোয়ালিটি ও এনজেগিং কন্টেন্ট তৈরিতে পারদর্শি হতে হয়।

টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হিসেবে প্রতি টিউন ৫০০ শব্দের উপরে হতে হয়। ৫০০ শব্দের নিচের কোন টিউন ট্রাসটেড টিউন হিসেবে বিবেচনা করা হয় না।

টেকটিউনসে সম্পূর্ণ কপি-পেষ্ট মুক্ত ইউনিক আর্টিকেল লিখতে হয়। কপি-পেষ্ট করে আর্টিকেল লিখলে সে আর্টিকেল ডিলিট হয়।

আপনার প্রতিটি টিউন স্ট্যান্ডার্ড টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী হতে হয়। স্ট্যান্ডার্ড টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী নয় এমন টিউন ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে বিবেচিত হয় না।

২. টেকটিউনসে কোন কোন টপিকে আর্টিকেল লেখা যায়?

পূর্বেই বলেছি টেকটিউনস একটি সৌশল নেটওয়ার্ক।  টেকটিউনস যেহেতু একটি প্রযুক্তি, বিজ্ঞান, টেকনিক্যাল, কারিগরি সৌশল নেটওয়ার্ক তাই টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হিসেবে টিউন প্রকাশ করতে টিউনের 'টিউন টপিক' অবশ্যই প্রযুক্তি, বিজ্ঞান, টেকনিক্যাল, কারিগরি সম্পর্কিত হতে হয়। সেই সাথে টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হিসেবে যে কোন টিউন টপিক নিয়ে টিউন প্রকাশ করা যায় না।

বিস্তারিত দেখুন টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হওয়ার গাইডলাইনে।

টেকটিউনসে আপনি টিউনার আর্টিকেল শেয়ার করার পাশাপাশি ভিডিও আপলোড করে ‘ভিডিও টিউন’, অডিও আপলোড করে ‘অডিও টিউন’, লিংক শেয়ার করে ‘লিংক টিউন’, স্ট্যাটাস আপলোড করে স্ট্যাটস টিউন ও ফটো শেয়ার করে ‘ফটো টিউন’ প্রকাশ করতে পারবেন।

তবে শুধু মাত্র আর্টিকেল লিখে টেকটিউনস থেকে ইনকাম করা যায়। কোন প্রকার ভিডিও টিউন, অডিও টিউন, লিংক টিউন, স্ট্যাটস টিউন, ফটো টিউন ট্রাস্টেড টিউন হিসেবে গণ্য হয় না।

আর্টিকেল লিখে আয় করার পাশাপাশি আপনি আপনার নিজের ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক পেজ কিংবা ওয়েবসাইটও প্রমোট করার সুযোগ পাবেন। নিজের ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক পেজ কিংবা ওয়েবসাইটও প্রমোট করার জন্য আপনার প্রকাশিত আর্টিকেল কন্টেন্ট মার্কেটিং এর আওতায় থাকতে হবে এবং টেকটিউনস এর নির্দিষ্ট গাইলাইন মেনে করতে হয়। তবে নিজের ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক পেজ কিংবা ওয়েবসাইট প্রমোট করার আর্টিকেল এর জন্য কোন পেমেন্ট করা হয় না।

৩. টেকটিউনসে আর্টিকেল প্রকাশের নিয়মাবলী

টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হিসেবে টিউন প্রকাশ করার ক্ষেত্রে আপনার টিউন অবশ্যই বাংলা ভাষায় হতে হবে এবং টিউনসমূহ প্রযুক্তি, বিজ্ঞান, টেকনিক্যাল, কারিগরি ক্যাটাগরি সম্পর্কিত হতে হয়।

৪. টেকটিউনসে আর্টিকেল প্রকাশের শর্তাবলী

টেকটিউনসে ট্রাস্টেড টিউনার হিসেবে টিউন প্রকাশ করার ক্ষেত্রে আপনার টিউন হতে হবে-

  • ১. ১০০% প্লেইজারিজম মুক্ত (100% Plagiarism Free).
  • ২. ১০০% গ্রামাটিক্যালি কারেক্ট (100% Grammatically Correct).
  • ৩. ১০০% মেশিন ট্রন্সলেশন ও লিটেরাল ট্রন্সলেশন (আক্ষরিক অনুবাদ) মুক্ত (100% Machine Translation and Literal Translation Free).
  • ৪. ১০০% মৌলিক ও অরিজিনাল (100% Unique and Original).
  • ৫. ১০০% কন্টেন্ট রি-রাইট (Content Rewrite), কন্টেন্ট স্পিনিং (Content Spinning) ও কন্টেন্ট রি-মিক্সিং (Content Remixing) মুক্ত
  • ৬. ১০০% কপিরাইট কন্টেন্ট ম্যটেরিয়াল মুক্ত (100 % Copyright Content Material Free)
  • ৭. ১০০% স্পেলিং এরর মুক্ত (100% Spelling Error Free).
  • ৮. ১০০% টেকটিউনস টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী ফরমেটেড।
  • ৯. ১০০% টেকটিউনস টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী নির্দিষ্ট ডাইমেনশন ও লাইসেন্স অনুযায়ী কন্টেন্ট ম্যাটেরিয়াল যুক্ত।
  • ১০. ১০০% টেকটিউনস টিউন থাম্বনেইল টেম্বপ্লেট অনুযায়ী ও 100 % Copyright Material Free টিউন থাম্বনেইল যুক্ত।

কন্টেন্ট ম্যাটেরিয়াল = কন্টেন্টের যুক্ত করা ছবি, ফটো, ইমেইজ, স্ক্রিনসট, ভিডিও, গ্রাফ, ইনফোগ্রাফিক্স ও এম্বেডেবল অবজেক্ট

৫. টেকটিউনসে আর্টিকেল প্রকাশের সুবিধা সমূহ

টেকটিউনস আপনাকে আর্টিকেল লিখার ক্ষেত্রে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিবে। যেমন- ডেডিকেটেড কন্টেন্ট টিম, ডেডিকেটেক্ট সাপোর্ট টিম ইত্যাদি।

৬. ডেডিকেটেড কন্টেন্ট টিম

টেকটিউনসে আর্টিকেল লেখার সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে টেকটিউনসের রয়েছে ডেডিকেটেক্ট কন্টেন্ট টিম। আপনি টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হলে টেকটিউনসের ডেডিকেটেক্ট কন্টেন্ট টিম আপনার টিউনের মান ও অনন্যা বিষয়ের জন্য আপনাকে প্রতিনিয়ত প্রয়োজনীয় গাইডলাইন প্রদান করবে।

৭. ডেডিকেটেড সাপোর্ট টিম

টেকটিউনসে আর্টিকেল লেখার আরও একটি বড় সুবিধা হচ্ছে টেকটিউনসের রয়েছে ডেডিকেটেড সাপোর্ট টিম। টেকটিউনসের ডেডিকেটেক্ট সাপোর্ট টিম টেকটিউনস ডেস্ক এর মাধ্যমে আপনার যে কোন সমস্যা ও সাহায্যের জন্য প্রতিনিয়ত সাপোর্ট পাবেন। আপনার টেকটিউনস সংক্রান্ত সমস্যা ও সাহায্যের জন্য টেকটিউনস ডেস্ক এ Ask করলে। 'টেকটিউনস Site Ops' টিম অফিসিয়াল সাপোর্ট প্রদান করে।

৮. টেকটিউনসে আর্টিকেল লিখে কত টাকা আয় করা যায়?

টেকটিউনসে আপনি আর্টিকেল প্রতি ২০০ টাকা থেকে আর্টিকেল প্রতি সর্বোচ্চ ৫০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন। তবে আপনার লেখার মান খুবই এক্সক্লুসিভ হতে হবে এবং টিউনে লেখা ফরমেটিং, টিউনে টেকটিউনস গাইডলাইন অনুযায়ী ছবি যোগ ইত্যাদি টেকটিউনস গাইডলাইন অনুযায়ী হতে হয়। এই টাকা আপনি বিকাশ, রকেট, নগদ, ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাধ্যমে নিতে পারবেন। তবে, প্রথম আর্টিকেল থেকে এই টাকা পাবেন না। টেকটিউনস থেকে আয় করার জন্য আপনাকে টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হতে হবে।

৯. কিভাবে ট্রাস্টেড টিউনার হবেন?

টেকটিউনসের ট্রার্মস এন্ড কন্ডিশন মেনে ১০ টা আর্টিকেল পাবলিশ হতে হবে। এই ১০ টা আর্টিকেলের জন্য প্রাথমিকভাবে টাকা পাবেন না, তবে একাউন্টে জেমস জমা হবে। ১০ টা আর্টিকেল পাবলিশ করার পর আপনাকে ট্রাস্টেড ব্যাজ পাওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে।

আবেদন এপ্রুভ হলে আপনার পরবর্তী  আর্টিকেল গুলোর জন্য টাকা সরাসরি একাউন্টে জমা হবে।

বিস্তারিত দেখুন টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউনার হওয়ার গাইডলাইনে।

আমার এই পোস্টটি এতক্ষণ পড়ার জন্য ধন্যবাদ। কোন প্রশ্ন থাকলে টিউমেন্ট করে জানান। পরবর্তী আর্টিকেল এই সম্পর্কে আরো কিছু লিখব সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ।

Level 2

আমি মোহাম্মদ হাবিব উল্লাহ। ৯ম শ্রেণী, ইস্টার্ণ রিফাইনারী মডেল হাই স্কুল, চট্টগ্রাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 11 টি টিউন ও 14 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

৪০০ শব্দের কথা কোথায় পেয়েছেন? গাইডলাইনে এমন পেলাম না।তাছাড়া আরও কম শব্দের articleও রয়েছে এখানে।

৪০০ শব্দ কোথায় দেখলেন ওই খানে তো ৫০০ শব্দ লেখা রয়েছে। আর যা বললেন ৪০০ শব্দের নিচেও আর্টিকেল রয়েছে তা সত্য তবে তা ট্রাস্টেড টিউনারদের জন্য এপ্লিকেবল নয়।

অনেক ভালো লাগলো উপক্রিত হলাম ধন্যবাদ

অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিলেন,
পোস্ট পড়ে লেখার আগ্রহ বেড়ে গেলো ।
ধন্যবাদ