পানির উপরে চলা হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ বাইক কিভাবে কাজ করে এবং এর দাম কত?

Level 9
এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা

আমরা তো প্রায় সকলেই রাস্তায় সাইকেল চালাতে পারি। এক্ষেত্রে রাস্তার ওপর সাইকেল চালানো আমাদের কাছে কোন ব্যাপারই না।

সাইকেল চালাতে আমাদের অনেকেরই ভালো লাগে। কল্পনা করে দেখুন তো, পানির উপর যদি সাইকেল চালানো যেত, তাহলে ব্যাপারটা কেমন হতো? ব্যাপারটি সাময়িক সময়ের জন্য আপনার কাছে একটু অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটি সত্য যে, বাস্তবেই এমন সাইকেল রয়েছে। এ ধরনের সাইকেল কে বলা হয় হাইড্রোফয়লার বাইক। বন্ধুরা, আজকের এই টিউনে আপনারা জানতে পারবেন, পানিতে চালানোর উপযোগী হাইড্রোফয়লার সাইকেল সম্পর্কে।

পানির উপরে চলা হাইড্রোফয়লার বাইক এবং এর দাম

হাইড্রোফয়লার বাইক

পানির উপরে চলা এই সাইকেলটির নাম রাখা হয়েছে হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ এবং বর্তমানে এটির বাজারজাত করছে Manta-5। যে কারণে এই সাইকেলটিকে Manta-5 ও বলে। এটি এক ধরনের ওয়াটারপ্রুফ ইলেকট্রিক বাইক। হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ ইলেকট্রিক সাইকেলটিতে রয়েছে বৈদ্যুতিক মোটর, ব্যাটারি, প্রোপেলার এবং সাধারণ সাইকেলের মতো প্যাডেল এবং এই সবকিছু চালানোর জন্য এতে রয়েছে ৪০০ ওয়াটের একটি ইলেকট্রনিক মোটর। চাকার বদলে বাইকে রয়েছে কয়েকটি হাইড্রো ফয়লার

এই হালকা যানটিকে মজবুত করে তৈরি করার জন্য মূল কাঠামো টি তৈরি করা হয়েছে কার্বন ফাইবার দিয়ে। ইলেকট্রিক সাইকেল হলেও এটি সম্পূর্ণ ব্যাটারি চালিত সাইকেল চালিত নয়। সাইকেলের প্যাডেল ঘুরিয়ে হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ সাইকেল টিকে চালাতে হয়। তবে পানিতে চলার সময় প্যাডেল ঘোরানো বন্ধ করলে কোন সমস্যা নেই। এতে সাইকেলটি একটু পানির নিচে যাবে এবং আবার প্যাডেল ঘোরালে পুনরায় চলতে শুরু করবে।

তবে এই বাইকটি কে একটি স্মার্ট বাইক ও বলা যায়। কেননা এই বাইকটির জন্য ডেডিকেটেড অ্যাপ ও রয়েছে, যা সহজেই স্মার্ট-ফোনের সাথে সংযুক্ত করা যায়। এছাড়া সাইকেলটির সাথে জিপিএস সংযুক্ত করা হয়েছে।

হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ বাইক

হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ সাইকেলটির ওজন ৩১ কেজি কেজি। এই সাইকেলটি প্রতি ঘন্টায় ২১ কিলোমিটার বেগে চালানো সম্ভব। এই সাইকেলটির দাম রাখা হয়েছে ৮৯৯০ মার্কিন ডলার এবং যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৭৬৪৫৫০ টাকা।

হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ সাইকেল টিকে দেখতে খুব সহজ মনে হলেও হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ বাইক চালানো অতটা সহজ নয়। রাস্তায় সাইকেল চালানোর চাইতে পানিতে এই সাইকেলটি চালানো সম্পূর্ণ আলাদা। এই বাইকের চাকা না থাকার কারণে ব্যালেন্স করার খানিকটা অন্যরকম। আপনি সাধারণ সাইকেল চালাতে পারলেও হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ বাইকটি চালানো আপনাকে নতুন করে শিখতে হবে।

Hydrofoil XE-1 bike

হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ সাইকেল চালানো শিখতে কিছুটা কষ্ট করতে হয়। এই সাইকেলের প্যাডেল ঘোরানো সাথে সাথে বৈদ্যুতিক মোটর সাইকেল টিকে উপরের দিকে উঠে আসতে সাহায্য করে। তারপর প্যাডেল ঘুরিয়ে সাধারণ সাইকেলের মতোই চালাতে হয়। প্যাডেল বন্ধ করলে অবশ্য ব্যাটারি থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়, ফলে সাইকেলটি ডুবে যেতে শুরু করে। তবে সাইকেলটি একেবারে সম্পূর্ণ তলিয়ে যায় না, বরং এটি কিছুটা পানির নিচে ডুবে যায় এবং প্যাডেল আবার ঘোরালে সাইকেলটি চলতে থাকে। তবে একবার অভ্যস্ত হয়ে গেলে, এই সাইকেল টিকে অন্যসব সাইকেল থেকে আলাদা মনে হবে না।

এটি চালালে মনে হবে, পানির উপর দিয়ে আপনি যেন উড়ে বেড়াচ্ছেন। হাইড্রোফয়লার বাইকের কারণে নদী বা সমুদ্র সাইকেল চালানোর নতুন ক্ষেত্র হয়ে উঠতে পারে।

শেষ কথা

প্রযুক্তি দিনদিন আপডেট হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় মানুষ রাস্তা থেকে পানিতে সাইকেল চালানোর ব্যবস্থা করেছে। ভবিষ্যতে যে পানির নিচে গিয়ে সাইকেল চালানো যাবে না, এটিও বলা যায় না। কেননা বর্তমানে পানির নিচে ভ্রমণ করার যান তৈরি হয়েছে, সেখানে সাইকেলের মতো বাহন তৈরি করতে কতক্ষণ। যেখানে আপনি প্যাডেল ঘুরিয়ে পানির নিচেও ভ্রমণ করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

আজ তবে পানির উপরে চলা হাইড্রোফয়লার এক্সই-১ বাইক সম্পর্কে এই পর্যন্তই। দেখা হবে আগামীর নতুন কোন টিউনে আরও চমৎকার কিছু বিষয় নিয়ে। ততক্ষণ পর্যন্ত টেকটিউনস এর সঙ্গেই থাকুন। ধন্যবাদ।

Level 9

আমি আতিকুর ইসলাম। এইচএসসি ২য় বর্ষ, জুমারবাড়ী আর্দশ ডিগ্রি কলেজ, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 মাস 2 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 186 টি টিউন ও 73 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 24 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষ পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ করে। তারপর কিছুদিন সুখ-দুঃখ ভোগ করে। তারপর মৃত্যুবরণ করে। এটাই মানুষের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস। আমিও সেরকম একজন


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস