RAM কী? RAM কি কাজ করে?

প্রকাশিত
জোসস করেছেন

RAM হচ্ছে কম্পিউটারের গুরুত্বপূর্ণ হার্ডওয়ার এর মধ্যে অন্যতম একটি। RAM যার পূর্ণরূপ হলো Random Access Memory।

RAM প্রধানত দুই প্রকার। যথা:

  1. Static RAM,
  2. Dynamic RAM।

 

  • Static RAM এর স্টোরেজঃ কম হয় যেটি খুব দ্রুত। Static র্যামে কম পাওয়ার ব্যবহৃত হয়। যেটি পরিবর্তন করা খুব কঠিন এবং দাম অনেক বেশি।
  • Dynamic RAM এ স্টোরেজঃ খুব বেশি থাকে। র্যামে বেশি পাওয়ার প্রয়োজন হয়। এই র্যাম ব্যবহার করা হয় মেইন ইউনিটে।

 

আমরা যখন নতুন কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন কিনি RAM এর বিষয়টা প্রত্যেককেই খেয়াল রাখি। বিশেষ করে RAM কত জিবি হবে সেই বিষয়টা। কারণ, আমরা সবাই জানি RAM Storage যত বেশি হবে, কম্পিউটারের Performance তত বেশি হবে। কিন্তু কম্পিউটার কেনার সময় RAM Storage গুরুত্ব দেওয়ার সাথে আরও কিছু বিষয় খেয়াল রাখা উচিত। যেমন: RAM type কেমন হবে?

 

RAM কে Main Memory, Primary Memory অথবা System Memory বলা হয়। RAM Storage কম হওয়া সত্ত্বেও কিভাবে বড় বড় ফাইল, ডাটা ও সফটওয়্যার সংরক্ষণ করে রাখে? যেমন: আপনি মিডিয়া প্লেয়ারে একটি ভিডিও চালু করলেন, ভিডিওটি অবশ্যই আপনার হার্ড ড্রাইভে আছে। আপনি ভিডিও টিতে ক্লিক করার সাথে সাথে CPU প্রসেস করা শুরু করে দেবে। মানে, আপনি যে ভিডিওটি চালু করতে যাচ্ছেন সেই কাজ শুরু করে দেবে। এই প্রসেস এর কাজ কিভাবে করে?

 

CPU বা প্রসেসর সরাসরি হার্ড ড্রাইভে প্রবেশ করে না। মানে, আপনি একটি ভিডিও চালু করলে প্রথমে সেই ইনস্ট্রাকশন RAM আসে। তারপর, RAM সেই ইনস্ট্রাকশন নিয়ে প্রসেস করে আপনাকে দেখায়। কারণ, হার্ডড্রাইভের স্প্রিড স্লো হয় RAM এর তুলনায়। তাই, কম্পিউটার দ্রুত কাজ করার জন্য CPU ইনস্ট্রাকশন গুলো হার্ডড্রাইভ থেকে পাঠায়। তারপর, RAM থেকে এক্সেস করে। এখন মনে করুন, আপনি একটি ভিডিও চালু করলেন যার সাইজ 3 জিবি আর আপনার কম্পিউটারের র্যাম আছে 2 জিবি। তাহলে এখানে আপনার কম্পিউটার কিভাবে কাজ করে? আপনি যখন ভিডিওটি চালু করেন তখন সেই ভিডিওটির সমস্ত অংশ একবারে চালু হয় না, কিছু অংশ চালু হয় এবং পরবর্তী অংশ গুলো আপডেট হতে থাকে। এই কাজগুলো খুবই দ্রুত হয় যার কারণে আমরা কিছুই বুঝতে পারিনা। কিছুটা বোঝা যায় যখন আমরা কম কনফিগারেশনের কম্পিউটারে অনেকগুলো কাজ একসঙ্গে করি বা বেশি রেজুলেশনের কোন ভিডিও চালু করি। কারণ, সেই কম্পিউটারের র্যাম কম থাকায় পরবর্তী ইন্সট্রাকশন গুলো আপডেট করতে সময় নেয় এবং যেসময় ইন্সট্রাকশন গুলো আপডেট হয়, সেই সময় আমরা বাফারিং দেখতে পায়।

 

 

এই রকম সমস্যা হয়না যখন আমাদের কম্পিউটারের র্যাম বেশি থাকে। হার্ডডিস্ক থেকে ডাটা আসে র্যামে তারপর, রুম থেকে ডেটা গুলো প্রসেস করে আমাদেরকে দেখায়। এর সবচেয়ে ভালো উদাহরণ হলো ইউটিউবে ভিডিও শুরুর সিস্টেমে। আপনি যখন কোন ভিডিও চালু করেন তখন পরবর্তী অংশগুলো ধীরে ধীরে লোড হতে থাকে। যদি আপনার ইন্টারনেট স্পিড কম হয় এবং আপনি দ্রুত ফরওয়ার্ড করেন তাহলে বাফারিং শুরু হয়ে যায়।

 

আশাকরি RAM এর কাজ কি সেটি বুঝতে পেরেছেন, যদি আরো অন্য কিছু জানতে চান তাহলে অবশই টিউমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

Level 1

আমি শাহারিয়ার কবির জয়। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 3 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 4 টিউনারকে ফলো করি।

আমি একজন প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য বিষয়ক লেখক।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস