ফ্রি! ডাউনলোড করুন! ছবি, ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এবং ভিডিও ফুটেজ কোনো কপিরাইট নেই!

প্রকাশিত
জোসস করেছেন

অনলাইনে অনেক ক্ষেত্রে আমরা ছবি, ভিডিও, কিংবা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক ডাউনলোড করে থাকি। সেসব ব্যবহার করি আমাদের ওয়েব পেজে বা ভিডিওতে। কিন্তু আমাদের ডাউনলোড করা সেই কন্টেন্ট যদি কোনো কপিরাইট বা কোনো লাইসেন্স এর অন্তর্ভুক্ত থাকে তবে সেগুলা ব্যবহারে অবশ্যই সচেতন হতে হবে। না দেখে শুনে অনলাইন থেকে ডাউনলোড করা এসব কন্টেন্ট ব্যবহারে হারাতে পারেন আপনার ওয়েবসাইট কিংবা আপনার ইউটিউব চ্যানেল।

করনীয়ঃ
অবশ্যই ছবি, ভিডিও, কিংবা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক ডাউনলোড করার পূর্বে সেগুলো ব্যবহারের জন্য কোনো শর্তবলী আছে কিনা দেখে নিন? কিংবা আপনি যা ডাউনলোড করেছেন; আপনার কাজে ব্যবহারের জন্য সেটাই কোনো কপিরাইট আছে কি না? বিশেষ করে এমন জিনিস যা আপনি অনলাইনে আপনার কোনো ওয়েবসাইটে শেয়ার করবেন বা ইউটিউবে আপলোড করবেন। কিংবা আরও অনেক কাজে হতে পারে। যদি অনলাইনে আপলোড করতে হবে না এমন জিনিস হয় সেক্ষেত্রে আলদা কথা। তবে সবসময় সাজেস্ট করবো নিয়ম মেনেই ডিজিটাল এসব প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন।

কেন এত গুরুত্বপূর্ণ এসব মেনে চলা?
আজকাল সব কিছুই ডিজিটাল প্রোডাক্ট ভিত্তিক হয়ে যাচ্ছে। এমনকি ফিজিক্যাল প্রোডাক্টও ডিজিটাল কন্টেন্ট হয়ে ধরা দিচ্ছে অনলাইন দুনিয়ায়। ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলোতে ঢুকলেই তা দেখা যায়। যায়হোক, এবার আসল কথায় আসা যাক। বর্তমান যুগ ডিজিটাল যুগ। সব কিছু এখন ডিজিটাল হয়ে যাচ্ছে। দিন কে দিন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম গুলো জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আর সে সাথে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন তত জোরদার হচ্ছে। তাই অনলাইনে একজনের সম্পত্তি ব্যবহারে অন্যকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে। আমদের বাস্তব দুনিয়াতেও এই বিষয় গুলো মেনে চলা হয়। ভালো করে খেয়াল করে দেখুন আপনি একজনের সম্পত্তিতে চাইলেও কিন্তু ভাগ বসাতে পারেন না। তবে হয়তো লিজ নিয়ে বা অন্যকোন উপায়ে যদি সম্পত্তির মালিক আপনাকে বিভিন্ন শর্ত দিয়ে সে অধিকার দেয়, তবেই কিন্তু আপনি সে সম্পত্তি ব্যবহার করতে পারেন। ডিজিটাল সম্পত্তিও অনেকটা এমন।

যায়হোক, এমন কিছু ডিজিটাল কন্টেন্ট নিয়ে আজ কথা বলবো যে কন্টেন্ট ব্যবহারে থাকছে না এমন কোনো বিধিনিষেধ। এমন কিছুর সন্ধান দিব, যা আমরা বাঙালি বলে থাকি সরকারি মাল।

ছবি/ ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজঃ
আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করেদিব এমন কিছু ওয়েবসাইট যা আপনাকে সরকারি মালের মত বিনামূল্যে অনেক দামী জিনিস দিয়ে যাবে, যা একজন কন্টেন্ট মেকারই জানে যা কত গুরুত্বপূর্ণ। এখান থেকে আপনি যেকোনো ধরনের ছবি, ব্যাকগ্রাউন্ড নামিয়ে নিতে পারবেন। অ্যাট্রিবিউট পর্যন্ত দেওয়ার প্রয়োজন নাই। এইগুলো আপনি আপনার যেকোনো কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। তাছাড়া এগুলা পরিবর্তন পরিমার্জন করে আপনি বিক্রিও করতে পারবেন। কেউ কোনো কপিরাইট ক্লেইম করতে আশাকরি।

ভিজিট করুনঃ Pexels.com

এখানে ক্যাটাগরি অনুসারে সুন্দর করে সাজানো আছে লাখো লাখো ছবি, ব্যাকগ্রাউন্ড। ডাউনলোড করুন, যেকোনো কাজে ব্যবহার করুন। কোনো কপিরাইট নেই, কোনো অ্যাট্রিবিউট দেয়া লাগবে না।

download free images, free image, CC0 images

ভিজিট করুনঃ Unplash

প্রচুর পরিমানে ছবি, ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ পেয়ে যাবেন। যে ধরনের ছবি লাগবে সার্চ করুন। কোন কপিরাইট নেই, কোন অ্যাট্রিবিউট দেয়া লাগবে না।

ভিজিট করুনঃ Pixabay

Pixabay ওয়েবসাইটটিও সম্পূর্ণ ফ্রিতে প্রিমিয়াম টাইপের ছবি, ভিডিও, ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ নামাতে দেয়। কোনো অ্যাট্রিবিউট পর্যন্ত দেয়ার জন্য জোর করে না। তবে সজেস্ট করে যদি দেন তো আপনার ইচ্ছে হলে দিয়ে দিতে পারেন একটা ক্রেডিট। তবে কোনো জোরজবরদস্তি নেই।

ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকঃ
ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক নামানোর ক্ষেত্রে আমি একটাই ওয়েবসাইট সাজেস্ট করবো আর তা হচ্ছে ইউটিউব মিউজিক লাইব্রেরি।

ভিজিট করুনঃ YouTube Music Library 

অনেক ওয়েবসাইট থাকতে পারে যেখানে ফ্রিতে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক নামাতে দেয়। কিন্তু সেসব গুলোতেই অ্যাট্রিবিউট বাধ্যতামূলক। কিন্তু এই একটা জায়গা পেয়েছি ইচ্ছে মত  ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক নামিয়ে নিন কোনো অ্যাট্রিবিউট দেয়া লাগবে না। আর অনেক অনেক ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক পেয়ে যাবেন। তাই মনে হয়না আর অন্য কোন ওয়েবসাইট সাজেস্ট করার দরকার আছে।

free Background music

ভিডিও ফুটেজঃ
ভিডিও ফুটেজের ব্যবহার নতুন না। একটি ভিডিও কন্টেন্ট বানাতে আমাদের বিভিন্ন ভিডিও ফুটেজ এর দরকার হতে পারে। এমন কিছু ওয়েবসাইট সাজেস্ট করবো যেখান থেকে আপনি নামিয়ে নিতে পারবেন এমন কিছু ভিডিও ফুটেজ যা ব্যবহারে কোনো রকম নিষেধাজ্ঞা নেই, নেই কোনো শর্ত। তাই মোটামুটি সব কাজেই আপনি অনায়াসে ব্যবহার করতে পারবেন। ছাড়াও এমন কিছু ভিডিও ফুটেজ আপনি পাবেন যা আপনার Intro/Outro বানিয়ে নিতে সাহায্য করবে।

ভিজিট করুনঃ Pixabay Videos

ভিডিওগুলো ফ্রি করে দেয়া হয়েছে। যেকোনো ভিডিও বানাতে আমাদের অনেক ফুটেজ এর প্রয়োজন হয়ে থাকে। আপনি আপনার চাহিদা মত সার্চ করে নামিয়ে নিতে পারেন। কোনো কপিরাইট নেই। একদম ফ্রি! অ্যাট্রিবিউট দিতে হবে না। একেবারে আপনার ইচ্ছের ওপর নির্ভর করবে। দিতে চাইলে দিবেন না চাইলে দিবেন না।

ভিজিট করুনঃ Pixel Videos

কপিরাইট ছাড়া একদম ফ্রি কিছু ভিডিও! ইউটিউব বা আমাদের বিভিন্ন প্রজেক্টের জন্য ভিডিও বানাতে হতে পারে। আর সে ভিডিও তে প্রয়োজন হতে পারে ফুটেজ। টাকা খরচ করে ফুটেজ বানানোর  কোনো দরকার নাই। সম্পূর্ণ ফ্রিতেই পেয়ে যাবেন অনেক অনেক ফুটেজ। ডাউনলোড করে ব্যবহার করুন।

আরও কিছু এক্সট্রা দিয়ে দিচ্ছি তবে সেসব পুরোপুরি ফ্রি নাও হতে পারে। হয়তো অ্যাট্রিবিউট দিয়ে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

Images:

https://stocksnap.io/

https://picography.co/

https://www.shutterstock.com/

Videos:

https://www.videvo.net/

https://www.lifeofvids.com/

https://wedistill.io/

Background Music:

https://www.bensound.com/

https://soundcloud.com/ 

পরিশেষে বলতে চায়, গুগল সার্চ করে যেকোনো জিনিস ডাউনলোড করে কমার্শিয়াল কাজে ব্যবহার করার বাতিক আমাদের অনেকের আছে। এমন কিছু ব্যবহারে আমাদের সচেতন হওয়া দরকার। কপিরাইট কিংবা কমন ক্রিয়েটিভ অ্যাট্রিবিউট সম্পর্কে জানা দরকার। যদি অনলাইনে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান তবে এই বিষয়গুলো মাথাতে রাখতে হবে। টিউন ক্যামন লেগেছে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু। টিউমেন্ট করে জানিয়ে দিন আপনার অভিমত। জোস দিয়ে ফলো করে সাথে থাকুন এমন দারুন, দারুন উপকারী বিষয় জানতে।

Level 0

আমি ফরহাদ আহমেদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 5 টি টিউন ও 6 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

নতুন সকালের স্বপ্ন দেখি। এক টুকরো তথ্য হয়তো এনে দিতে পারে নতুন সকাল কারো জীবনে। তাই ছুটে চলা তথ্যের খোঁজে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস