সকলের সদয় অবগতির জন্য……. টিউন প্রসঙ্গে কিছু কথা

নানা ব্যস্ততার কারণে গত দুইদিন আমি টেকটিউনসে আসতে পারিনি,আজ যখন এলাম তখনই দেখতে বসলাম গত দুইদিনে আমার Miss করা টিউনগুলো;সেই সাথে টিউনের কমেন্টগুলো।টিউনগুলো দেখে তো খুবই ভাল লাগলো কিন্তু প্রকাশিত টিউনে Positive-Negative মন্তব্যগুলো দেখে সত্যিই কিছুটা মর্মাহত হয়েছি।এই ব্যাপারটি মূলত ঘটে আসছে প্রায় সব টিউনেই!!তাই ব্যক্তিগত কোন ক্ষোভ থেকে আজ লিখছি না,টেকটিউনস পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে সকলের প্রয়োজনেই লিখছি;যাতে করে আমরা যারা সত্যিকার অর্থে টেকটিউনস পরিবারের অংশ তারা যেন আরো সচেতন হতে পারি।

টেকটিউনসে এখন প্রায়ই নতুন নতুন সব টিউনাররা আসছে এবং সেই সাথে হচ্ছে নতুন নতুন সব টিউন।কেউ খুব ভাল লিখছেন,আবার কেউবা ভাল মানসম্পন্ন টিউন করতে পারছেন না।আচ্ছা!আমাকে কি কেউ বলতে পারবেন যে আপনি কতদিনে হাঁটতে শিখেছেন?বা কতদিনে আপনি মায়ের ভাষায় কথা বলা শিখেছেন? নিজ নিজ মায়ের কাছে জিজ্ঞাসা না করলে আশা করি কেউই বলতে পারবেন না।তাহলে এই কথাটা কেন অনেকে বুঝতে চায় না যে আমাদের মতো অনুন্নত দেশে এখনো প্রতিদিন এমন ব্যক্তিরা ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত হচ্ছেন যাদের কাছে এটার ব্যবহার শেখা নতুন শিশুর হাঁটতে শেখার চেয়েও কঠিন মনে হয়।এটাতো শুধু ইন্টারনেট ব্যবহারের কথা বলছি,একবার ভেবে দেখুন যে ওরকম ব্যক্তিদের কাছে টিউন করাটা কত জটিল মনে হতে পারে!!!এটা বাদ দিলেও টেকটিউনসে যদি জরিপ চালানো হয় তবে আমার মনে হয় Regular টিউনাররা ছাড়া প্রায় সবাই বলবেন যে টিউন করা সত্যিই অনেক কঠিন।কারণ একটি টিউনের সাথে মানসম্মত তথ্য থাকার পাশাপাশি নানা ব্যাপার ছাড়া আরো জড়িত থাকে ভাল বাংলা টাইপের দক্ষতা।তাই অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায় টিউনে অসংখ্য বানান ভুল কিংবা কম মানসম্পন্ন টিউন।টিউনারের যথার্ত যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও কিন্তু এইরকম ভুল হওয়াটা স্বাভাবিক বলে আমি মনে করি।এর কারণ এরকমও হতে পারে যে,টিউনার তার ব্যস্ততার কারণে টিউনে তেমন সময় দিতে পারলেন না।ফলে,বানান ভুলের দিকে খেয়াল করতে গিয়ে তার টিউনের মান খারাপ হয়ে গেল।আবার সবাই যে ভাল লিখতে পারে তাও কিন্তু নয়।তাই মানবীয় দিক বিবেচনা করে আমাদের এগুলো মেনে নিতে হবে।তাই বলে কিন্তু বসে থাকলেও চলবে না।প্রয়োজনীয় উপদেশসহ যাবতীয় সহায়তা প্রদান করাও কিন্তু আমাদের দায়িত্ব।

আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই বলি,এখনো আমি মাঝে মাঝে আমার অনেক বিশ্ববিদ্যালয় সহপাঠীদের মোবাইল/কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্রাউজিং শিখিয়ে দেই,এছাড়া ইন্টারনেটের নানা সুযোগ সুবিধাগুলোও বুঝিয়ে দেই।শুধু তাই নয়,আমার সহপাঠী ছাড়াও ছোট-বড় যে যখন আমাকে বলে তাদেরকে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপারে সাহায্য করি।বলতে দ্বিধা নেই,তাদের অনেকেই আজ নিয়মিভাবে আমাকে বিভিন্ন কাজে সাহায্য করে  যাচ্ছে।তাদের অনেকে আবার আমি যা করে দেখাই তারচেয়েও অনেক ভাল কাজ করছে,ফলে তখন তাদের কাছ থেকেও আমি শিখতে পারছি।কোন কিছু শেখাতে কখনই লজ্জা করতে নেই,আমি তার চেয়ে বেশি জানি এই ভেবে যদি শিখতে না চাই তবে জ্ঞানার্জন কখনই সম্ভব নয়।আমাদেরকে সবসময়ই উদারভাবে শিখতে হবে এবং সেই সাথে উদারভাবে শেখাতে হবে।মানুষের সম্পদ অস্থায়ী,কিন্তু জ্ঞান হল চিরস্থায়ী।কাউকে কিছু শেখালে আপনার জ্ঞান বর্ধিত হবে বৈকি।তাই সবসময় কিছু পাওয়ার আশায় নয়,মাঝে মাঝে জানার আগ্রহেও শেখাতে হবে 🙂

আমার মনে হয় টিউন করার সময় প্রায় সব টিউনারের চিন্তা একটাই থাকে যেন তার টিউন দ্বারা কেউ উপকৃত হয়।যদি একজন ব্যক্তিও উপকার পেয়ে থাকেন তবে কি তা ভাল বলে মনে করছেন না!সবাই সবজান্তা নয়,তাই আমার মনে হয় সব টিউনই কারো না কারো উপকার করে।এছাড়া খারাপ টিউনগুলোও কিন্তু প্রকারান্তে আমাদের উপকার করছে 😀 কিভাবে জানেন?মানসম্পন্ন নয় এমন টিউনগুলো কিন্তু আমাদের সতর্ক হতে সহায়তা করে।আমরা আরো ভাল করে বুঝতে পারি যে কিভাবে টিউন করলে তা সর্বজনগ্রাহ্য হবে।কি?উপকার হল তো? 😉

এখন নতুন টিউনারদের সম্পর্কে কিছু বলি,মাঝে মাঝে দেখা যায় অনেক পুরনো টিউনারও নতুন টিউনারকে অনেক কটাক্ষ করে মন্তব্য দিচ্ছেন;যদিও টিউনে বলা থাকে যে এটা টিউনারের প্রথম টিউন।কেন ভাই?কেউ যদি তার দোষ আগে থেকেই স্বীকার করে তবে আমরা কি তার সাথে একটু সহানুভূতি নিয়ে মন্তব্য করতে পারিনা!!!আমরা কি তাকে একটু উৎসাহের সুরে সুন্দর করে বলে বুঝাতে পারি না যে আপনার টিউন এভাবে না করে ওভাবে করলে আরো অনেক ভাল হবে।টেকটিউনসে যারা প্রতিদিন আসছে আমার মনে হয় তাদের সবাই যথেষ্ট বোধ সম্পন্ন।সুতরাং উৎসাহ দিয়ে কথা কথা বললে সবাই পরবর্তীতে আরো দ্বিগুন যত্ন নিয়ে টিউন করবেন এই ব্যাপারে আমি ১০০% নিশ্চিত 🙂 ভাল ব্যবহার করতে পয়সা লাগে না কিন্তু তারপরও ওটা আমরা করতে চাই না।কেন?বলতে পারবেন কেউ আমাকে?আপনার বাড়িতে আসা ভিক্ষুকও কিন্তু আপনার কাছ থেকে ভাল ব্যবহার পাওয়ার অধিকার রাখে,হোক না যদিও সে একটু বেশীই কলিংবেল বাজিয়েছে।

আমরা আরো দেখে থাকি যে কোন টিউন করার পর মন্তব্যে পাওয়া যায়,"অনেক পুরানা টিউন,বহু আগেই দেখেছি/করেছি,পোলাপাইনের কাজকাম!আমার দরকার নেই"-এই যাবতীয় সব মন্তব্য।হ্যাঁ,আপনি জানেন;তাই বলে আপনি বলতেও পারেন।কিন্তু এমনভাবে কেন বলতে যাবেন যাতে টিউনার লজ্জা পায় বা মনে কষ্ট পায়! "ব্যাপারটি আগে জানতাম।তবে সবাইকে জানাবার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।আপনি অনেক ভাল লিখেছেন,নতুনদের অনেক উপকারে আসবে আপনার টিউন :)"-এভাবে বলতে কি খুব কষ্ট হবে আমাদের?অনেকে এরচেয়েও অনেক ভালভাবে অনেক সুন্দর করে লিখতে পারেন এবং সেইসাথে লিখেও আসছেন 😀 এটাও কিন্তু আমি বলতে ভুলে যাচ্ছি না।যখন কারো টিউনে এইধরনের ভাল কথাগুলো দেখি তখন সত্যিই অনেক ভাল লাগে 😀 এমন মন্তব্যকারীদের সালাম জানাই 🙂 আপনাদের মত মানুষের জন্য টেকটিউনসে আমরা টিকে আছি 😀

আজকে আপনার কথায় কোন ব্যক্তি টিউন করল না আর,হতে পারে একদিন হয়তো তিনি এমন কোন টিউন করতেন যা কিনা আপনার অনেক বড় কাজে লেগেছে।কিন্তু আপনার বোকামির কারণে আপনি নিজেই তা পেলেন না।সবাই তো সব কিছু জানে না এবং জানতেও পারে না।নির্বোধ লোকের কাছ থেকেও কিন্তু আমরা তথাকথিত সুবোধ লোকেরা মাঝে মাঝে অনেক কিছু শিখতে পারি,এটা ভুলে গেলে চলবে কেন!আমাদের উচিত অন্যদের মর্যাদা দিতে শেখা,তবেই তো আমাদেরকে অন্যরা মর্যাদা দেবে।

সবশেষে বলছি টিউন কপি-পেস্ট এবং এক টিউন বার বার করা প্রসঙ্গে।কপি-পেস্ট করা কখনই আমি ভাল বলছি না,এতে করে আপনার সৃজনশীলতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।আপনি যার কাছ থেকে কপি-পেস্ট করেছেন হয়তো তার চেয়েও আপনি অনেক ভাল করে লিখতে পারতেন।কোন টিউনের বিষয় এক হতে পারে,কিন্তু উপস্থাপনা যদি ভিন্ন হয় তবে আমার মতে দু'টি টিউন কখনই এক হবে না।এক্ষেত্রে যদি একই বিষয় যদি বার বার আসে তবে দোষের কিছু নেই।এই ব্যাপারে সাবটাইটেল মামুন ভাইয়ের একটা কথা আমার খুবই ভাল লেগেছিল।তিনি বলেছিলেন যে তার টিউন যে যখন খুশি টেকটিউনসে কপি পেস্ট করে নতুন টিউন হিসেবে করতে পারবে 😀 নতুন টিউনারদের অনুপ্রেরণা দিতে তার এমন সাড়া আমাকে সত্যিই অনেক অভিভূত করেছে :D।এমনিতেও সাবটাইটেল মামুন ভাইয়ের টিউন সংখ্যা ব্যাপক,তাই মাঝে মাঝে তার পুরোনো টিউনগুলো নতুনভাবে এলে সবাই অনেক উপকৃত হবে।এটা শুধু সাবটাইটেল মামুন ভাইয়ের টিউনের জন্য নয়,তিনি ছাড়াও সব টপটিউনারদের ক্ষেত্রেও হতে পারে।ইউনিক টিউন করা যদি শর্ত হয়,তবে আমার মনে হয় মাসে দু-একটি টিউন জমা পড়বে।তবে হ্যাঁ,একই টিউন যদি সপ্তাহে তিন-চারবার হয়ে যায় তাহলে অবশ্যই তা সকলের বিরক্তির কারণ হবে।এই ব্যাপারেও আমাদের টিউন করার ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।তবে আমার মনে হয় যারা নিয়মিত তারা কখনই এই ভুল করতে পারে না।কারণ সব লেটেস্ট টিউনতো তখনো মগজে গিজ গিজ করে 😉 হা হা হা...... 😀 আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কথা,মাঝে মাঝে টিউনে যদি রেফারেন্স হিসেবে যদি কোন কিছু কপি-পেস্ট করা হয় এবং সেই সাথে কপি-পেস্টের কথা উল্লেখ করা থাকে তাতেও কিন্তু খারাপ কিছু নেই।আমি এই ব্যাপারে ১০০% উৎসাহ দিচ্ছি 😀 ব্যক্তিস্বার্থ কখনোই জনস্বার্থের উপরে নয় 😀

অনেকক্ষণ আপনাদের আমি বক-বক শুনালাম,আর নয় 🙂 অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেন যে এই ছেলে নীতিকথা শুনানোর আর জায়গা পায় না।আমরা কেউই অতিমানব নই,তাই ভুল হতেই পারে।প্রতিদিন একটু একটু করে ভুলগুলো যদি সংশোধনের চেষ্টা করি তবেই হয়তো বদলে যাওয়ার দিন আর বেশি দূরে নয় 🙂 আমার ভুলগুলো ক্ষমাসুলভ দৃষ্টিতে দেখবেন 🙂 আমাকেও আমার ভুলগুলো সংশোধনের একটু সুযোগ তো করে দিন,আর হ্যাঁ;তা অবশ্যই গঠনমূলক মন্তব্যের সাথে 😀 সকলের দোয়াপ্রার্থী 🙂

Level 0

আমি Fortune Hunter। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 15 টি টিউন ও 278 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমি আপনার সাথে ১১০% সহমত রাসেল ভাই !!

    সর্বপ্রথমে মন্তব্য দেয়ার জন্য আপনাকে Special Thanks 😉 আর ১০০+১০=১১০% সহমতের জন্য একবার প্রাণভরে কোলাকুলি 😀

আপনি আমার মনের কথা গুলুই বলেছেন,তবে একটা কথা যাহারা টিউন করে তাহারা শিক্ষক আর যাহারা কমেন্ট করে তাহারা ছাত্র,ছাত্ররা উলটা পালটা প্রশ্ন করবেনই আর শিক্ষক ছাত্রকে সেটা বুঝিয়ে দিবেন তাই আমি মনে করি যাহারা সম্মানিত টিউনার আছেন তাহারা বিভিন্ন ধরনের কমেন্ট হজম করার মানসিকতা থাকতে হবে এবং প্রমান করতে হবে কমেন্ট খানা ভুল ছিল তবে প্রথম টিউন ছাড় পেতে পারে।ধন্যবাদ টিউনের জন্য।

    আপনার সদোপদেশ আমার অবশ্যই মনে থাকবে 😀 আরেকটা কথা,আপনাকে আমরা কিন্তু টেকটিউনসে গুরু হিসেবেই মান্য করি;সবাই এই ব্যাপারেও আমার সাথে ১০০% সহমত হবে।আর বাঁধন ভাই হবে ১১০+১০=১২০% সহমত 🙂

Level 0

আমিও আপনার সাথে সহমত ভাই।আপনার বক্তব্যটি আশা করি সব নতুন পুরানো টিউনাররা খেয়াল করবে। এবং সুন্দর সুন্দর টিউন উপহার দিবে।

    আপনাকে অনেক ধন্যবাদ এবং সেইসাথে আমিও একই কামনা করছি।আল্লাহতাআলা আমাদের আশা পূর্ণ করুন 🙂

ধন্যবাদ আপনাকে এবং সবাইকে যারা ধয্য ধরে পড়ছেন। আমি যখন থেকে টেকটিউসে আসতে শুরু করেছি, তখন থেকেই দেখেছি। মাঝে মঝে কিছু মন্তব্য নিয়ে এমন অবস্তার সৃষ্টি হয়ে ছিল, যা কোন ভাবেই হওয়া উচিৎ ছিলোনা। তবে এখন মোটামুটি সুন্দর চলছে, সুধু মাত্র দুই একটে জাব্বর (বিজয় কিবোডের জাব্বর) ছাড়া। তবে হ্যা, কপি পেষ্টের ব্যপারে সবাইকে একটু সতর্ক থাকতে হবে। কারন টেকটিস এর সদস্য, ভিজিটরস ও টেকিরা এত বেশি সচেতন যে, তাদেরকে ফাকি দেওয়া বড়ই কঠিন। মন্তব্য প্রদানের ব্যপারে এক মত, আমরা যারা মন্তব্য প্রদান করি, তারা একটু ইতিবাচক মন্তব্য করলেই ভাল হ্য়।

কথা সত্য বলেছেন।
অথচ এই টিউন মাত্র 33 বার দেখা হয়েছে | যেখানে অন্য টিউন গুলো ২০২ বার দেখা হয়েছে। মানুষ শুধু নিতে চায়, কোন কথা শুনতে চায় না।

    আপনিও খুব সত্য কথা বলেছেন।আমার স্কুলে একজন শিক্ষক আমাদেরকে সবসময় বলত,”মানুষের ধর্ম হল- পেতে বেশী,দিতে কম”।হি হি হি :p
    অসংখ্য ধন্যবাদ 🙂

ধন্যবাদ… আপনার সুন্দর টিউনের জন্য।
আশা করি অনেকের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন হবে আপনার এই টিউন দ্বারা 🙂

    তাই যেন হয় 🙂 ধন্যবাদ নাবিল ভাই।

সুন্দর কথা বলেছেন। আটাকে আমরা Yahoo messenger এর Chat room (খারাপ দিক) করতে দিতে পারী না।

    হা হা,মজার উদাহরণ দিয়েছেন 😀 মুরাদ ভাইকে ধন্যবাদ 😀

কথাগুলো বেশ ভাল লাগল ও যুক্তি সম্পুন্ন। আশা রাখি ভুলগুলো সবাই সংশোধনের চেষ্টা করবে।ধন্যবাদ এই টিঊনটি করার জন্য।

    হ্যাঁ,আমাদের তাই করা উচিত।আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ 🙂

আপনার সাথে ১০০% একমত। সাথে সাথে এ পোষ্টটি সবার অবগতির জন্য স্টিকি করার অনুরোধ জানাচ্ছি।
এধরনের পোষ্ট করার জন্য রাসেল ভাইকে অনেক ধন্যবাদ।

    সকলের সমর্থনই আমাদের পাথেয় 🙂 সমর্থনের জন্য আপনাকে আরেকবার ধন্যবাদ

কিছু মানুষ আছে যারা নিজেকে জ্ঞানী জাহির করতে ভালবাসেন। তেমন মানুষকে ধিক জানাই।
আপনার এত সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গির জন্য আপনাকে স্যালুট জানাই।
ধন্যবাদ আপনাকে।

    ঠিক বলেছেন।আমরা কে কি জানি,তা অবশ্যই মুখে না বলে কাজে প্রমাণ করা উচিত 🙂 অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকেও 🙂

রাসেল ভাই আমি আপনার সাথে ১০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০
০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০
০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০০%%%
একমত!!

    ১ এর সাথে কয়টা শূন্য দিসেন জানেন ?
    ৩১৯ টা। ৩১৯ শে কি রহস্য আছে বলবেন কি ?

    সব কিছুর জন্য প্রস্তুত হচ্ছি, এমনকি মৃত্যুর জন্য ব্রাদার………..প্রথমে আপনাকে টেংকিউ জানাই এতকষ্ট করে ০০০০০০০০০ গুলো গণনা করার জন্য!!!!!!
    আর ১ এর সাথে ৩১৯ টা ০ দেয়ার রহস্য হলো আমি চেয়ে ছিলাম কেউ একজন আমার কমেন্টের কতটা শুণ্য(০) দেয়া হয়েছে তা গণনা করুক!!! আপনার কমেন্ট দেখে এখন
    মনে হচ্ছে আমার উদ্দেশ্য সফল হয়েছে!! আপনাকে আবারও ধন্যবাদ জানাই আমার উদ্দেশ্য সফল করতে সহযোগীতা করার জন্য!!
    প্রকৃতপক্ষে বলতে গেলে বলতে হয়,,,,
    ১ এর পিছনে প্রতিটি শুন্য(০) এর ভিতর ছিল রাসেল ভাই এর টিউনের প্রতি আমার শতভাগ আস্থা আর বুক ভরা ভালোবাসা………..হা.হা……..হু..হু

    Level 0

    হা হা হা…..যেমন প্রশ্ন তেমন উওর। ঘুমন্ত সাহেব সুন্দর কমেন্ট করেছেন। আর টিউন টার সাথে আমিও একমত

    হা হা হা হা…………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………..
    আমিও ঠিক হাসতে হাসতে ৩১৯টি ডট দিলাম 😉
    এতো সুন্দর মন্তব্যের জন্য আপনাদের তিনজনকেই হৃদয় নিংড়ানো ভালবাসা এবং কৃতজ্ঞতা 😀

    Level 0

    হাহ হাহ হাহ
    মনে করছেন আমি হাসছি কেন??
    আপনার তিন জন বিশেষ করে সব কিছুর জন্য ভাই আপনি ভুল গনেছেন
    শূন্য ৩১১ টা আছে
    বিশ্বাস না হলে প্রমান দিতে পারব
    ধন্যবাদ

    তাহলে তো আমাকে আবার ৩১১টি ডট দিতে হবে 🙁

    Level 0

    কি আর করা দিয়েই দেন

ভাই অনেক সুন্দর কথা বলেছেন। আপনাকে ধন্যবাদ।

    আপনাকেও ধন্যবাদ মাহাবুব ভাই 🙂

Akmot na….Mon manusikota poribotton koren..Tahole sob thik hoye jabe..

    সবাইকেই একভাবে চিন্তা করতে হবে এমন কোন কথা নেই 🙂 আর হ্যাঁ,মন-মানষিকতা আসলেই পরিবর্তন করা উচিত।কোথাও অন্যায় হতে দেখলে আমাদের প্রতিবাদ করার মন-মানষিকতা গড়ে তুলতে হবে।এই পরিবর্তনটি মনে হয় আজকের দিনের প্রেক্ষাপটে আমাদের অতিশীঘ্রই করা উচিত।কে জানে!একই অপরাধ হয়তো কাল আপনার সাথেও হতে পারে!!
    আপনাকে ধন্যবাদ Sezan ভাই 🙂

আপনার সাথে সহমত।
এরকম একটা টিউন এখন সত্যই প্রয়োজন ছিল। কি আর বলবো আপনার টিউনসে মনের সব কথাগুলোই বলা হয়েছে।
এত কস্ট করে কথাগুলো লিখার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

টিউনটা কিছুদিন প্রথম দিকে রাখার দাবি জানাচ্ছি।

    শুনে অনেক ভাল লাগছে যে আমার ভাবনার সাথে অনেকেরই মিল 🙂 টিউনটি করতে আমাকে তেমন উল্লেখযোগ্য কোন কষ্ট করতে হয়নি,কিন্তু যেটুকু হয়েছিল তাও এখন স্বার্থক বলে মনে হচ্ছে 🙂 সত্যিই আমি আপনার এবং সবার কাছে কৃতজ্ঞ 😀

আপনারা যারা আজকে আমার মতামতগুলোকে সমর্থন করলেন তাদের সবাইকে অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাই 😀 এতোবেশী সাড়া পাব তা কল্পনাই করিনি 🙂 যাই হোক এখন আমরা একে কাজে লাগাতে পারলেই স্বার্থকতা 🙂

দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করুন জীবনটা পাল্টে যাবে । অনেক ধন্যবাদ

    ১০০% সত্য বলেছেন,তবে দৃষ্টিভঙ্গি অবশ্যই ইতিবাচক হতে হবে।নতুবা হিতেবিপরীত হয়ে যাবে 😀 আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ

Level 0

আপনাকে কি বলব
কমেন্ট করে করে , আকারে-ইঙ্গিতে কমেন্ট করতে করতে বিরক্ত হয়ে যাচ্ছিলুম; এবং তার সব কিছুই পরিনিত ভঙ্গিতে টিউন আকারে প্রকাশিত !!!!

আমি মনে করছি এটা টেক্টিউনসের জন্য Lucky-13

সকলের ব্যপারগুলো খেয়াল রাখা উচিত

Level 0

রাসেল ভাই,ভাল লাগল ধন্যবাদ…………..। কারণ কস্ট করে এত বড় লেখার জন্য

    হা হা হা,আপনাদের জন্য – আমাদের সবার জন্য এরকম হাজারো কষ্ট করতে আমাদের সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে। আমি না হয় একটু আগেই কন্ট্রিবিউট করলাম 🙂 আপনাকেও ধন্যবাদ balobashe ভাই

খুবই চমৎকার শিক্ষনীয় একটি টিউন । অসংখ্য ধন্যবাদ ।
তবে সবগুলো কথার সাথে একটি কথা বলতে চাই সেটা হলো আমরা অনেকসময় যেকোন provlem এ এডমিন প্যানেল কে অনেকে অনেক কথা বলে ফেলি । যেকোন provlem এ ধরেই এমন কিছু না বলে admin কে জানিয়ে কিছুটা সময় ধৈয্য ধরা উচিত । কারন ওনাদের নিরলস শ্রমের কারনে আমরা এত সুন্দর একটি সাইট পেয়েছি । এই সাইটটি সুন্দর থেকে সুন্দর করার দায়িত্ব কিন্তু admin panel এর পাশাপাশি আমাদের সবার ।

    একেবারে আপনার মতের উপরেও ১০০% সহমত 🙂 খুব ভাল একটি ব্যাপার আপনি বলেছেন,এই বিষয়টিও আমাদের খেয়াল রাখা উচিত।দুঃখিত যে এই ব্যাপারটি আমি লিখতে ভুলে গেছি 🙁 এডমিন প্যানেলের প্রতি কৃতজ্ঞতা আমাদের বলে শেষ করা যাবে না 🙂

Level 0

Jotiilllll…………..lol

রাসেল ভাই, আপনি জানেন কি, কমেন্টে টিউনের ভুল ধরিয়ে দেয়ায় অর্থাং ভুল ধরা পড়ার ক্ষোভে কোন কোন টিউনার টেকটিউনস্ ছেড়ে দিয়েছেন। এমন অন্ততঃ একজনকে আমি জানি। আবার শুধু নেগেটিভ কমেন্টের কারণে অনেক ভাল টিউন পেন্ডিং হয়ে রয়েছে। এমন কয়েকটি টিউন আমার মনে আছে। তাই আপনার টিউনটি পড়ে আমাদের সবারই একবার ক্ষমা চেয়ে নেয়া উচিত।

রাসেল ভাইকে এই মারাত্বক কথা গুলা এক নিঃশ্বাসে বলে ফেলার জন্য অনেক ধন্যবাদ। 😉