মজাই মজা [পর্ব-০১] :: কম্পিউটারের সাহায্যে বন্ধুকে বোকা বানানোর অভিনব পদ্ধতি।

মজাই মজা

একটি বিশেষ ঘোষনা, একটি বিশেষ ঘোষনা,

সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ ইহাকোন নন-টেকি টিউন না, জাস্ট ফর টেক ফান। আমরা মজা লইতে পছন্দ করি, যাহারা বন্ধুদের সাথে মজা লইতে পছন্দ করেন না তাহারা অতি সত্বর প্রস্তান গ্রহন করুন। আর যাহারা লেকচার দিতে পছন্দ করেন তাহারা আমাকে ফেসবুক বকা দিতে পারেন এইখানে বকা দিয়েন না (মান সম্মান আছে :D)।

যে অধম ব্যাক্তি বলেছে বিজ্ঞানে কোন রস নেই তাকে আমার সামনে এনে হাজির করান, তার রস আমি বের করবো 😀 রস খুঁজে না পেলে সেটা আপনার ব্যার্থতা তাই বলে পুরা বিজ্ঞানকে শুকনা বানিয়ে ফেলবেন? এটা কি মগের মুল্লুক নাকি!

টাইটেল পড়ে হয়তো বুঝতে পেরেছেন যে আজকে অনেকের ১২ টা বাঝবে 😛 সবাই জেনে যাওয়ার আগে আপনার বুদ্ধিমান বন্ধুকে দুনিয়ার সর্বনিম্ন লেভেলের বলদটা বানিয়ে ফেলুন তার কম্পিউটারের সাহায্যে।

প্রথম বলদ বানানোর পদ্ধতি হলো, আপনার বন্ধুর কম্পিউটারের কীবোর্ডের বাটন আপনার কথা মতো কাজ করবে। যেকোনো বাটনকে আপনি নির্দেশনা দিয়ে রাখতে পারবেন। যেমন আমি একজনের কম্পিউটারে কম্যান্ড দিয়ে রাখলাম যে কীবোর্ডের "S" বাটনটা চাপলে লেখা আসবে "SOHAG" আর "F" বাটনটা চাপলে লেখা আসবে "Die" 😀 কেমন হবে বেপারটা??  👿

কাজটা করার জন্য আপনার একটা সফটওয়্যার লাগবে নাম "AutoHotKey" সফটটির সাইজ মাত্র ২ এমবি, নিচের লিঙ্ক থেকে ফ্রী ডাউনলোড করে নিন।

আমি অনেক বিস্তারিত বলেছি বলে এতো বড় মনে হচ্ছে আসলে প্রসেসটা অনেক ছোট।

ডাউনলোড করা শেষ হলে ইন্সটল করার পালা। যেহেতু সফটওয়্যারটি কাউকে বোকা বানানোর জন্য ডেভেলপ করা হয় নি, সেহেতু ইন্সটলের সময় আমরা একটু অন্যরকম পথে যাবো।

ZIP থেকে ফাইলটা বের করে ডাবল ক্লিক করে ওপেন করুন। তারপর নিচের স্ক্রীনশটের মতো কাজ করুন।

এই স্ক্রীনটা আসলে Custom Installation সিলেক্ট করুন।

পরের স্টেপে প্রথম অপশনটা সিলেক্ট করুন "Unicode 32-bit" ক্লিক করার পর নিচের মতো আসবে।

এখানে Browse এ ক্লিক করে এমন একটা জায়গা সিলেক্ট করুন যেখানে আপনার বন্ধু কোনদিন ঢুকে না। যেমন C:/Windows/Cursors এখানে একটা ফোল্ডার বানান System নামে। এবার এই সিস্টেম ফোল্ডারটার ভেতর সফটওয়্যারটা ইন্সটল দিন।

নিচের ক্রস চিহ্নে ক্লিক করুন তাহলে স্টার্ট মেনুতে অ্যাড হবে না। এবার নেক্সটে ক্লিক করুন। পরের স্টেপে যেরকম আছে সেরকম রেখে ইন্সটলে ক্লিক করুন। এই স্টেপে এসে শেষের অপশন Exit-এ ক্লিক করুন।

এবার শুরু হবে ফাইনাল খেলা 😀

যে ফোল্ডারে সফটওয়্যারটা ইন্সটল দিয়েছেন সে ফোল্ডারে যান, আমি দিয়েছি C:/Windows/Cursors/System -এ, এখন মাউসের রাইট বাটনে ক্লিক করে New থেকে AutoHotKey Script তে ক্লিক করুন। নোটপ্যাড ওপেন হবে এবং অনেকগুলো লেখা থাকবে। সবগুলো লেখা কেটে দিয়ে আমার দেয়া কোড টুকু কপি করবেন।

#NoTrayIcon
*Space::Send,SOHAG

এই কোডটার মানে হলো, System Try তে কোন আইকন থাকবে না আর যদি যে কীবোর্ডের Space বাটন চাপে তাহলে লিখা আসবে "SOHAG"। এখন আপনি চাইলে আমার নামের জায়গায় অন্য কিছু লিখতে পারেন। আরেকবার,

#NoTrayIcon
*M::Send,KILL

মানে হল M চাপলে লেখা আসবে KILL আপনি চাইলে এরকম কোড আকাধিক বার লিখতে পারেন আলাদা আলাদা বাটনের জন্য।

লেখা শেষে যেকোনো নামে সেভ করুন। ধরে নিলাম আমরা Sys.ahk নামে সেভ করেছি। এখন এই ফাইলটা সিলেক্ট করে মাউসের রাইট বাটনে ক্লিক করে Compile Script -এ চাপুন। একটা নতুন Sys.exe ফাইল হবে। এবার পুরনো Sys.ahk ফাইলটা কেটে দিতে পারেন। এখন এই নতুন Exe ফাইল টা ডাবল ক্লিক করে ওপেন করলেই খেলা শুরু হয়ে যাবে। কিন্তু পিসি Restart দিলে আবার আগের মতো হয়ে যাবে। তাই খেলাটা ভালো জমানোর জন্য আরেকটা কাজ করবেন।

Sys.exe ফাইলটা কপি করুন। এবার Start Button-এ ক্লিক করে All Programs এ গিয়ে দেখুন Startup নামে একটা ফোল্ডার আছে ওই ফোল্ডারে রাইট ক্লিক করে Explore এ ক্লিক করুন। যে ফোল্ডারটা ওপেন হবে সেখানে রাইট ক্লিক করে Past Shortcut এ ক্লিক করুন (মনে রাখবেন, Past না Past Shortcut )। এখন তার কম্পিউটার স্টার্ট হওয়ার সাথে সাথে কীবোর্ড আপনার কথা মত কাজ করবে 😀

আপনার বন্ধু যদি বেশি চালাক হয় তাহলে আপনাকে মুরগি বানিয়ে দেবে, সে যদি Process থেকে AutoHotKey.exe বন্ধ করে দিতে পারে। তবে মজার বেপার হলো সে তো জানেই না কেন এরকম হবে তাহলে AutoHotKey কে সিস্টেমের কিছু একটা মনে করবে।

বন্ধ করতে হলে Startup ফোল্ডার থেকে Sys.exe-Shortcut ফাইল তা কেটে AutoHotKey টা আনইন্সটল করে রিস্টার্ট দিন।

আমি অনেক বিস্তারিত বলেছি বলে এতো বড় মনে হচ্ছে আসলে প্রসেসটা অনেক ছোট। তো শুরু করে দিন বলদ বানানো। যেকোনো সমস্যা হলে মন্তব্যে বলুন অথবা ফেসবুকে যোগাযোগ করুন। পোস্ট ভালো না লাগলে আমাকে বলদ বানানোর চেষ্টা করুন 😀

সময় পেলে ঘুরে আসবেন আমার ব্লগে।

আমার ব্লগ

ফেসবুকে আমি।

Level 0

আমি সোহাগ মিয়া। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 82 টি টিউন ও 694 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 26 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমার নাম সোহাগ। টেকনোলজির প্রতি চরম আকর্ষণ থাকা সত্ত্বেও পড়েছি বিজনেস নিয়ে। একটু একটু গাইতেও পারি, মাঝে মাঝে গীটার বাজাই। এক কথায়, টেকনোলজির সাথে প্রেম করি আর গানকে বিয়ে করেছি :D । আমার ইউটিউব চ্যানেল। আমার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন আমার ব্লগে। আমার গাওয়া গানগুলো শুনতে ভিসিট করুন: গানের ইউটিউব...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

সত্যিয় আপনার টিউন গুলো অসাধারন @ ধন্যবাদ

    @হোছাইন আহম্মদ: আপনাকেো ধন্যবাদ ভাই, সবসময় সাথে থাকার জন্য 🙂

Level 0

thanks shoag vai

Level 0

vai amar friend k ami beng banaite chai. ki korte hobe?

    @Sanebin: এই সিস্টেমটা ফলো করে আপনি আপনার বন্ধুকে ব্যাঙ, হাতি, গরু, ছাগল, গাধা, ঘুড়া সব বানাইতে পারবেন 😀

যে অধম ব্যাক্তি বলেছে বিজ্ঞানে কোন রস নেই তাকে আমার সামনে এনে হাজির করান, তার রস আমি বের করবো 😀 রস খুঁজে না পেলে সেটা আপনার ব্যার্থতা তাই বলে পুরা বিজ্ঞানকে শুকনা বানিয়ে ফেলবেন? এটা কি মগের মুল্লুক নাকি!

চরম লিক্সেন ভাই কথাটা

😀

Level 0

kub valo post. nuton r akta buddi matai pelam. thanks a lot vai.

    @skytipsbd: খুশি হলাম শুনে। ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য 🙂

খুব সুন্দর পোষ্ট…….

Level 0

Nice

😛