টেকটিউনসকে ভালবাসি বলেই……………..

আসসালামু আলাইকুম, আমি টেকটিনসে আসার পর টিউন করতে গিয়ে, মন্তব্য করতে গিয়ে, আরও কয়েক ক্ষেত্রে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি । কিছু কিছু সমস্যা নিজে নিজে সমাধান করেছি আর কিছু সমস্যা এখনও ফেস করছি । সমস্যা গুলো নিয়েই আমার এই লেখা -

০১। টিউন করার জন্য তেমন একটা সময় পাইনা যেহেতু আমি একজন চাকুরিজীবি । তাই যখনই একটু সময় পাই তখনই টিউন করার চেষ্টা করি । ম্যাজিকে ম্যাজিকে বিজ্ঞান শিখি (৭ম পর্ব) লিখতে গিয়ে খুব সমস্যা হচ্ছিল । সমস্যাগুলো হল -

# টেকটিউনসে ঢোকার চেষ্টা করলাম কিন্তু ওপেন হল -

আবার চেষ্টা করলাম কিন্তু ফল একই । কয়েকবার চেষ্টা করার পর সফল হলাম । তারপর লেখা শুরু করলাম । কিছুক্ষণ লেখার পর আসল -

তারপর কিছুক্ষন লিখে সেভ করার জন্য ক্লিক করলাম । ব্যাস -

এমন সময় বিদ্যুত চলে গেল । আমাদের এলাকার বিদ্যুত নিয়ে একটি কথা প্রচলিত হয়ে গেছে - " বিদ্যুত যায়না, মাঝে মাঝে আসে ।" যখন বিদ্যুত আাসল তখন ওপেন করে দেখি টিউনের অর্ধেক লেখা আছে আর অর্ধেক নাই । এই সমস্যা নিয়েই টিউন লেখা শেষ করলাম । এর মাঝে অনেক বার এই সমস্যা দেখা দিল । যখন টিউনে ছবি যোগ করব তখন দেখা দিল এক সমস্যা -

এই সমস্যাটা অনেক দিন থেকেই ছিল এখনও আছে । পরে সেট ফিচারড্ ইমেজ অপশন ব্যবহার করে টিউনে ছবি যোগ করলাম । পরে প্রিভিউ দেখে টিউন পোষ্ট করার জন্য ক্লিক করলাম কিন্তু আবার সেই একই সমস্যা । কয়েক বার চেষ্টা করার পর সফল হলাম কিন্তু তখন আবার বিদ্যুত চলে যাওয়ায় বুঝতে পারলাম না টিউন পোষ্ট হল কিনা। তখন ছিল গভীর রাত । বসে না থেকে টেনসন নিয়ে ঘুমাতে গেলাম ।

# সকালে ঘুম থেকে উঠে টিকটিউনসে প্রবেশ করে দেখলাম টিউন প্রকাশিত হয়েছে । খুশি হলাম এবং মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে আবার সমস্যা -

আমি কম্পিউটার ও ইন্টারনেট বিষয়ে খুব ভাল জানিনা । এখন আপনাদের (টেকটিউনস কর্তৃপক্ষসহ) কাছে আমার প্রশ্ন এই সমস্যাগুলি কেন হয় ? এই সমস্যা গুলির সমাধান কি করা যায় না ?

০২ । আমার ম্যাজিকে ম্যাজিকে বিজ্ঞান শিখি পর্ব গুলো খুব সুন্দর করে সাজিয়ে দিয়েছেন মডারেটরগণ ।

এখানে প্রত্যেকটি পর্বের টিউন গুলো একটার পার একটা সাজিয়ে এবং টিউনের আন্ডালাইন, বুলেট পয়েন্ট করাসহ সব কাজ সুন্দরভাবে করে দিয়েছেন মডারেটর । কিন্তু আমি এরকম সুন্দর করে সাজাতে পারিনা । আমার মনে হয় অনেকের বিশেষ করে যারা নতুন টিউনার তারাও এরকম করে সাজাতে পারেনা ।

০৩ । অনেক সময় একটি ভাল মানের লেখা অগোছালো উপস্থাপনের কারণে ভাল লাগেনা । তাই একটি টিউন খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার জন্য -

যদি এর মেনু, টুলস এবং অন্যান্য সব অপশন গুলোর সঠিক ব্যবহার দেখিয়ে আমার মত কম জানা ও নতুন টিউনারদের জন্য টেকটিউনস কর্তৃপক্ষ বা কোন টিউনার টিউন করত এবং তা স্টিকি করে রাখা হত তবে কেমন হত ?

ছোট্ট একটা গল্প :

সুমাইয়া রহমান, একটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী । খুবই চঞ্চল হলেও অসম্ভব মেধাবী । জানার তীব্র আকাঙ্খা আছে তার মধ্যে । স্বাভাবিকভাবেই সকল শিক্ষকগণের নিকট খুবই প্রিয় । একদিন তার মা শ্রেণী শিক্ষকের নিকট তার সম্পর্কে একটা নালিশ করল । নালিশ ছিল এটা যে, সুমাইয়া ফেসবুকে অনেক সময় নষ্ট করে । শ্রেণী শিক্ষক সুমাইয়াকে কিছু না বলার জন্য তার মাকে বললেন এবং তিনি নিজে ব্যাপারটা দেখবেন ।

একদিন শিক্ষক সুমাইয়াকে ঢেকে কথা বললেন -
শিক্ষক : কেমন আছ ?
সুমাইয়া : ভাল, আপনি ভাল আছেন, স্যার ?
শিক্ষক : হ্যাঁ ভাল আছি । তোমার আব্বু আম্মু কেমন আছেন ?
সুমাইয়া : জ্বী স্যার, ভাল আছেন ।
শিক্ষক : তুমি নাকি খুব ভাল ইন্টারনেট ব্যবহার করতে জান ?
সুমাইয়া : একটু একটু পারি ।
শিক্ষক : ইন্টারনেটের কোন সাইটে সময় দাও বেশি ?
সুমাইয়া : ফেসবুকে ।
শিক্ষক : ও! তাই ! আমিও মাঝে মাঝে ফেসবুকে যাই ।
সুমাইয়া : স্যার ! আপনার ফেসবুক আইডি টা দেননা !
শিক্ষক : আচ্ছা দিব । ফেসবুকে কি কর ?
সুমাইয়া : মজার মজার ছবি আপলোড করি, কমেন্টস করি, বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেই ।
শিক্ষক : আর কি শিখ ?
সুমাইয়া : ফেসবুক থেকে স্যার তেমন কিছু শেখার নাই ।
শিক্ষক : ও আচ্ছা ! তোমাকে একটা ব্লগ সাইটের ঠিকনা দিব যেখন থকে তুমি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক অনেক কিছু জানতে পারবে, লিখতে পারবে, কমেন্টস করতে পারবে ।
সুমাইয়া : আচ্ছা স্যার ।
শিক্ষক : ঠিকানাটি হল http://www.techtunes.io
সুমাইয়া : থ্যাংক ইউ স্যার !
শিক্ষক : ওয়েলকাম ।
শিক্ষক : তোমার আম্মুকে এক সপ্তাহ পর স্কুলে এসে একবার আমার সাথে দেখা করতে বল ।
সুমাইয়া : ঠিক আছে স্যার বলব ।
শিক্ষক : আচ্ছা এখন তুমি যাও ।
সুমাইয়া : জ্বী স্যার, আসসালামু আলাইকুম ।
শিক্ষক : ওয়ালাইকুম সালাম ।

দুই দিন পর ......

সুমাইয়া : আসসালামুআলাইকুম স্যার !
শিক্ষক : ওয়ালাইকুম সালাম। কেমন আছ ?
সুমাইয়া : ভাল স্যার ! ব্লগটা দেখেছি স্যার ! আমার খুব খুব ভাল লেগেছে ।
শিক্ষক : তাই!
সুমাইয়া :জ্বী স্যার । লেখা গুলো অনেক ভাল কিন্তু একটা সমস্যা হল ব্লগে ঢুকতে গেলে প্রায়ই লেখা আসে - ওপস্ .....................ট্রাই এগেইন ।
শিক্ষক : তুমি সেখানে লিখতে চাও ?
সুমাইয়া : আমিতো জানিনা কিভাবে লিখতে হয়।
শিক্ষক : সামনে তোমার প্রথম সাময়িক পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষ হলে আমি তোমাকে বলে দেব কিভাবে লিখতে হয় । এখন ভাল করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নাও ।
সুমাইয়া : ঠিক আছে স্যার ।

এক সপ্তাহ পর সুমাইয়ার মা শিক্ষকের সাথে দেখা করতে এসে বললেন এখন আর সে ফেসবুক নিয়ে সময় নষ্ট করেনা । এজন্য তিনি শিক্ষককে অনেক ধন্যবাদ দিলেন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন ।

পরিশেষে বলতে চাই টেকটিউনস থেকে আমরা অনেক কিছুই জানতে ও শিখতে পারছি এবং এক অন্যের মধ্যে এক অদৃশ্য বন্ধন গড়ে উঠেছে। আজ যে সমস্যার কথা গুলো উল্লেখ করলাম তা শুধু আমার একার নয় অনেকের । আশা করি সকলের সহযোগিতায় সকল সমস্যার সমাধানের মাধ্যমে টেকটিউনস একটি মডেল ব্লগ হিসেবে গড়ে উঠবে । শেষ কথা হল -

টেকটিউনসকে ভালবাসি বলেই টেকটিউনসে আসি, টিউন করি, মন্তব্য করি । সমস্যা আছে, সমস্যার সমাধানেরও আশা আছে । আশা পূরণ না হলে না হয় সমস্যাগুলোকে ধৈর্য্য শিক্ষার একটি উপায় হিসেবে ধরে নেব

বি: দ্র: টিউনটি এডিট করা হয়ছে তাই নিচের মন্তব্য দেখে বিভ্রান্ত হবেননা ।

Level 0

আমি ছাত্র ও শিক্ষক। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 13 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 54 টি টিউন ও 1010 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

তুমি যদি শিক্ষিত হও,অশিক্ষিতকে আলো দেবে। না পারলে তুমি অহংকার করবেনা,তুমি দূর্ব্যবহার করবেনা,বিনয়ের সঙ্গে কথা বলবে,তুমি শিক্ষিত বলেই এ তোমার অতিরিক্ত দায়।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

vai ami comments a link jog kote parsi na

আর বইলেন না স্যার…।আজকে জীবনে প্রথম একটা টিউন করেছি।বার বার খালি আপনার ছবি দেয়া গুলো দেখায়।আমার নেটের স্পীড অনেক ভাল।মাঝে মাঝে ''oops server too load'' জিনিসটার প্রতি বিরক্ত হয়ে যাই।কৃর্তপক্ষকে কে সঠিক পদক্ষেপ নেওয়া দরকার এই সমস্যা সমাধান করার জন্য।যেহেতু আমাদের সবার প্রিয় একটি সাইট টেকটিউনস । 🙂

    সময় পাইনা । ১৫ দিন ছুটি পেয়েছি । ভাবছিলাম এই ফাঁকে ম্যাজিকে ম্যাজিকে বিজ্ঞান শিখি পর্ব গুলো এগিয়ে নিয়ে যাব ।
    কিন্তু আর হলনা । একটা লিখতেই অনেক সময় লেগে গেল ।

স্যার, আমাদের প্রিয় সাইট টিকে সুন্দর করার চেষ্টা করার জন্য আনেক ধন্যবাদ।

Level 0

ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ।

Apnar ses kothar shate ekmot.r sobar jana uchit je techtunes ekte olav jonok site.techtunes ekon alexa ranking 17.tai potidin je poriman visitor ase ta techtunes er bandwidth e kolaina tai eae obosta.ason amra techtunes ke egea nea jai

আমাদের techtunes এর সারভার একটা তো তাই এই সমস্যা।

ধরুন আপনার classroom এ ৪০ জন বসতে পারবে।এখন যদি ৭০ জন আসে তবে ৩০ জন দাঁড়িয়ে থাকবে ।

এখানেও একই সমস্যা।ধরুন techtunes এর এই ওয়েবসাইট এ একসাথে ৫০ জন ঢুকতে পারবে।যদি ১০০ জন এই website এ ঢুকতে চায়,তবে বাকি ৫০ জন ঢুকতে পারবে না।তাদেরকে (oops) এই massage দেখায়।

আগে আমাদের techtunes এর এতো visitor ছিলোনা।তাই এই সমস্যা হয় নি।এখন যেহেতু visitor বেশি তাই এই সমস্যা।

এর একটাই সমাধান আর তা হল নতুন server add করা।

    হুম বঝলাম ।
    বুঝিয়ে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ ।
    কিন্তু ছবি যোগ করতে গেলে যে সমস্যা হয় সেটা কেন ?

স্যার তাহলে আপনার টিউনের মাধ্যমেই বড় সুসংবাদটা দেই। কিছুদিন আগে টপ টিউনার সভায় এডমিন মেহেদি ভাই ঘোষনা করেছেন আগামি মে মাস অর্থাৎ আর আর এক মাস পরেই টিটি নতুন সার্ভারে স্থানান্তর করা হচ্ছে। 😀
তখন থেকে এই সমস্যা আর হবে না আশা করি।
ভিজিটরদের অত্যাধিক চাপেই এই সমস্যা হয়।
এ থেকেই বুঝতে পারি টিটিতে কত ভিজিটর আসে। 😀
আর হ্যা এমন করে সাজাতে আপনিও পারবেন। আপনি ফেসবুক ব্যবহার করলে আইডি দিন।

Level 0

সার্ভারের ব্যাপারে সমস্যার সমাধান হবে মে মাসের মধ্যে, এ আশ্বাস দেয়া হয়েছিল টেকটিউন্স কনক্লেভে। সুতরাং, আপাতত ধৈর্য ধরে থাকতেই হবে।
টিউন করার সময় যখন আপনি দেখতে পেলেন নিচের দিকে oops,server load….. এমন সমস্যা দেখাচ্ছে, তখনই আপনি যদি সাথে সাথে পুরো লেখাটি ctrl+A চেপে সিলেক্ট করে এম এস ওয়ার্ডে ctrl+V চেপে পেষ্ট করে সেভ করে রাখেন,তাহলে আর ডাটা হারানোর ভয় থাকবেনা। তবে আগে এম এস ওয়ার্ডে লিখে পরে তা টিটি তে পেষ্ট করাই ভালো,সরাসরি পোষ্ট না করে।
আপনার শেষের দুটি টিউন এখনো মডারেটরের চোখে পড়েনি হয়ত। সমস্যা নেই, পোষ্ট করতে থাকুন। কোনো একটা পোষ্ট তো মডারেটর দেখবেন। তখন আগের গুলোও এড করে দেবেন। চিন্তার কিছু নেই। উল্লেখ্য, কনক্লেভে বলা হয়েছে, অচিরেই, ধারাবাহিক টিউন বিন্যস্ত করার উপায় টিউনারদের হাতে ছেড়ে দেয়া হবে। সুতরাং, এক্ষেত্রেও নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন।
গল্পটা কি সত্যি ? সত্যি হলে মডারেটরগন আশা করি "oops" সমস্যা সমাধানের প্রয়োজনীয়তা কতটা বেশি তা বুঝতে পারবেন।
ধন্যবাদ।

    আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনার সুন্দর পরামর্শের জন্য ।
    হ্যাঁ গল্পটা সত্যি ।

গল্পটা কিন্তু হ্যাব্বি ভাল লেগেছে। তবে গল্পটা যে সত্যি এইটা ঠিক বুঝতে পেরেছি।
আমার অবশ্য টেকটিউনস্-এ ঢুকতে সমস্যা হয় না। যখন ঠিক করি যে টেকটিউনস এ এখন আমাকে ঢুকতেই হবে তখন কিবোর্ডে F5 নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ি।
তবে সার্ভারের এই সমস্যার কারণে টিউন করার বন্ধ রেখেছি। কারণ টিউন অটোসেভ হয় না। তাই পরে অর্ধেক আর নাহলে কিছুই দেখা যায় না।

এই সমস্যাটা ইদানীং খুব বেশী হচ্ছে, তাই মিঠু ভাইয়ের বলা পদ্ধতি বেছে নিয়েছি। এমনকি কমেন্টের জন্যও।

টেকটিউনসের নন-কমার্শিয়াল মহৎ এই ভেনচার বনাম স্টেট-অফ-আর্ট ব্লগ হবার ব্যাপারটি সংগত কারনেই পরস্পর বিরোধী। তাই আমি মনে করি (ব্যাক্তিগত মতামত) টেকটিউনসকে আর্থিকভাবে সাহায্য করবার একটা ভলান্টারী অপশন থাকতে পারে। পরিচালনা কর্তৃপক্ষ কিভাবে এই ব্লগটি আমাদের কোন আর্থিক অবদান ছাড়া এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তা আমাকে অবাক করে।

আমিও টি উন করতে চাইলে MsWord এ সব লিখে তারপর টিটিতে পেষ্ট করি। আপনিও এটাই করুন। আপনার টিউন নিয়মিত চাই।

    এম এস ওয়ার্ডে বিজয় দিয়ে লেখা কি কপি পেস্ট করে টিউন করা যাবে ?

এমন কি কোন টিউন প্রিওতে নিতে গেলেও একই অবস্থা।আবার রিলোড দিলে Opps Opps :@

যাকে ভালভাসি তার জন্য অপেক্ষা করতে ভালই লাগে। দু বছর ধরে অনেক সমস্যা দেখেছি তার সমাধানও দেখেছি। শুধু এইটার কোন গতি হল না। তবে যা শুনছি তা হলে টিটিকে কিভাবে স্বাগত জানাব তাই ভাবতে হবে। 😛

Level 0

ছাত্র ও শিক্ষক স্যার, টি,টি প্রতি ভাল লাগা মন্দ লাগা মিলিয়ে আমাদের চলতে হবে,ধন্যবাদ।

প্রথমত: হাসান ভাইয়ের দেয়া খবর টা শুনে ভাল লাগল।
দ্বিতীয়ত: 'বিদ্যুৎ যায় না, মাঝে মাঝে আসে' খুবই ভাল লাগল।
এই ধরণের টিউন করার জন্য আমাদের স্যারকে ধন্যবাদ।
শুভ কামনা রইল।