মডারেটর সহ সবার দৃষ্টি আকর্ষন (সামরিক পোস্ট)

টেকটিউনস কিছুদিন আগে সার্ভার পরিবর্তনের কারনে বিভিন্ন সমস্যার মধ্যদিয়ে গেছে। বড় বড় সমস্যা গুলো এখন অনেকটাই কেটে গেছে। সহজেই পেজ লোড হচ্ছে, ডাটাবেজ সবসময় আপ থাকছে এসব অনেক সাচ্ছন্দই পাচ্ছি।কিছু ছোট খাট সমস্যা অবশ্য রয়ে গেছে কিন্তু সেগুলোর সাথেও আমরা মানিয়ে নিতে পেরেছি। তাহলে কি বলার জন্য এ টিউন করলাম? আমি আসলে বলতে চাই

টেকটিউনস স্প্যামিং করার যায়গা না

ইদানিং প্রায়ই দেখা যায় কোন একটি টিউন শুধু মাত্র লাভের আসায় করা হয়। এক্ষেত্রে পাঠকের কমেন্ট প্রাপ্তি এবং শেয়ারিং আসল উদ্দেশ্য নয়। অর্থ উপার্যন বা পন্যের প্রচারই হল লক্ষ। কিছু কিছু টিউন দেখা যায় মডারেটররা রিমুভ করেন কিন্তু বেশিরভাগই থেকে যায়। আমরা(অন্তত আমি) শিথিল মডারেশন চাইনা। যেকোন প্রকার নীতিমালা ভঙ্গকারী টিউন পেন্ডিং করা হোক। এতে যদি আমার ১০-১২ টি টিউন পেন্ডিং করা হয় আমি কিছু বলব না। এভাবে আর কত চলতে দেয়া যায়? একেতো টেকনিক্যাল সমস্যা তার উপর স্প্যামিং! কিছু ভাল দিক অন্তত রাখা দরকার।

কর্তৃপক্ষের কাছে আমার প্রশ্ন, আপনারা অন্তত একটা দিক শক্ত রাখছেন না কেন? সবদিকে সমস্যা থাকার কারনে আজকাল আর ভাল টিউনারদেরকে দেখা যায় না। তাই ভাল টিউন খুব কম হয় বলে ভিজিটরও কমে গেছে। আগে দেখতাম মিনিটে মিনিটে টিউন হচ্ছে এখন দেখা যায় ২-৩ ঘন্টায় একটা টিউন, তাও স্প্যাম! যাহোক, আশা করি আপনারা একটু ভেবে দেখবেন।টিউনারদেরকে আমার অনুরোধ আপনারা যতটুকু সম্ভব মান সম্মত টিউন করার চেষ্টা করুন। শুধুমাত্র লাভের আশায় টিউন করবেন না। আমি জানি আমার এ টিউন মোটেও মানসম্মত হয়নি। তাই আমি আজ বিকালের দিকে ড্রাফটে নিয়ে নিব। আসলে এই

টিউনটা এই মাত্র আরেকটা টিউন দেখে করেছি। টিউনটি হলঃ

  • টিউনের নামঃ কার কার লাগবে IS এর ফ্রি ডোমেইন? (Funny পোষ্ট + ১০০% কাজের পোষ্ট)
  • মন্তব্যঃ ১০০% কাজের না আসলে ১০০% ফালতু পোষ্ট।
  • মূল উদ্দেশ্যঃ রেফারেল থেকে আয়।
  • উপস্থাপনঃ রেফারেল ক্লিক পাওয়ারও যোগ্য না। ভিজিটর কোথায় ক্লিক করবে বুঝতেই পারবে না। যে IS ডোমেইনকে নিয়ে টিউন করা হয়েছে সেটা সম্পর্কে আগে থেকে জানার পরও টিউ্নে বুঝতে পারিনি আসলে কি নিয়ে লিখা হয়েছে। যে জিনিষটা নিয়ে লিখা হয়েছে সেটা খায় না মাথায় দেয়। পরে ক্লিক করে is.com এর পেজ লোড হওয়ার পর আসল বিষয় বুঝতে পারলাম।
  • টিউনে যা লিখা ছিলঃ
    "ফ্রি ডোমেইন রেজিষ্টারের মধ্যে আমার প্রিয় রেজিষ্টার হলো IS।
    এদের সার্ভিস অনেক দ্রুত।
    হেল্প & সাপোর্ট খুব ভালো দেয়।
    ট্রাই করে দেখতে পারেন।
    যদি আপনার লাগে, তাহলে হাত উঠান……..
    আর না লাগলে হাত ধুয়ে আসেন…….
    DNS চেন্জ করতে ২মিনিটের ও কম সময় লাগে…………
  • টিউনারের প্রকৃতীঃ ভিতু স্বার্থান্বেষী। মন্তব্য করে দিয়েছে। পাছে সমালোচনা হয়।
  • প্রতিকৃয়াঃ সেটা না বলাই ভাল। এ মুহুর্তে ঐ টিউনারের সাথে যা করতে ইচ্ছা করছে সেটা বললে আপনারা আমাকে সন্ত্রাসী ভেবে বসবেন।

Level 0

আমি আদনান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 14 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 35 টি টিউন ও 1031 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

আপনার এই টিউনটি মোটেও মান সম্মত হয় নি, মানে। শুধু কি হ্যাকিং আর এন্টিভাইরাস নিয়ে টিউন করলেই মান সম্মত হয় না কি।
আপনার এই টিউনটি অবশ্যই অবশ্যই গুরুত্বপুর্ন টিউন। সঠিক সময়ে সঠিক টিউনটিই করেছেন। আপনার মত করে সবাই যদি ভাবত।
বড় দুঃখে কিছুদিনে জন্য টিটি ছেড়ে চলে গিয়েছিলম কিন্তু টিটি ছাড়া কি আর থাক যায়.? টিটির এরকম খারপ অবস্থা দেখে আমার দুঃখের অন্ত নেই। আগের অর্ধেকও ভিজিটর নেই। যদিও আস্তে আস্তে টিটি তার পুরোনো রুপ ফিরে পাচ্ছে, কিন্তু আগের সেই জৌলুস আর নেই, অনেকেই খেলনা মনে করে টিউন করে। অথচ আগে কারো টিউনে চুল পরিমন ভুল হলে টিউনারের অবস্থা কাহিল হয়ে যেত্। আর এখন যে যা খুশি তাই করে। আর শুধু এডমিন একা কি করবে, টিটির যারা নিয়মিত সদস্য আছে তার যদি বাজে টিউনের প্রতিবাদ করে তাহলেই হত। কিন্তু এখন এমন এক অবস্থা প্রতিবাদ করলে আরও উল্টো কথা শুনতে হয়।
কিন্তু আমি কি করতে পরি টিটির জন্য, যদি কিছু করার থাকতো তাহলে ঠিকই করতাম। টিটি নিয়ে আমার মথায় বিভিন্ন প্রশ্ন ঘুর পাক খাচ্ছিল কিন্তু কার কছে করব কোথায় করব। আমর মনে হয় কম্প্লেইন অথবা আপনার সমস্যা এরকম একটা পেইজ থাকলে ভাল হত।
ধন্যবাদ আপনাকে।

    আমিও একমত। যারা পুরনো টিউনার আছেন তাদের উদ্যেশ্য করে বলতে চাচ্ছি যে কেউ উল্ট পাল্টা কোন টিউন বা মন্তব্য করলে আপনারা তাদের দমন করতে এগিয়ে আসুন। আমরা তো আছিই।
    আর টেটির অডমিনের দৃষ্টি আকর্ষন করছি। আপনারা সময় না পেলে পুরনো ভাল টিউটারদের যারা নিজের ইচ্ছায় টেটিতে কাজ করতে চায় তাদের নিয়োগ দিন যাতে টেটির অনিয়ম দুর করা যায়।
    ধন্যবাদ।

    Level 0

    আপনারা সময় না পেলে পুরনো ভাল টিউটারদের যারা নিজের ইচ্ছায় টেটিতে কাজ করতে চায় তাদের নিয়োগ দিন যাতে টেটির অনিয়ম দুর করা যায়
    একমত

    লাকী ভাইয়ের সাথে একমত।

    আপনারা সময় না পেলে পুরনো ভাল টিউটারদের যারা নিজের ইচ্ছায় টেটিতে কাজ করতে চায় তাদের নিয়োগ দিন যাতে টেটির অনিয়ম দুর করা যায়
    একমত

    Level 0

    হাসান যোবায়ের (আল-ফাতাহ্) ভাই বিষয়টা নিয়ে একটা টিউনই করেই দিলাম যাতে সাবাই দেখতে পারে। দেখন তো কেমন হল । এই মাত্র করলাম।

Level 0

টিটি নিয়ে আমার কিছু কথা আছে। কেউ কি দয়া করে উত্তর দিবেন।
আচ্ছা টেকটিউনস সাইটটি তৈরী করে টিটির এডমিনের কি লাভ । ওনার কি কোন অর্থনৈতিক লাভ হচ্ছে? বা অন্য কোন ফাঁয়দা?
সরাসরি অর্থনৈতিক লাভ যদি না হয় তাহলে টিটির মাধ্যমে কি কোন কম্পানী বা কোন পণ্যের প্রচারনা হচ্ছে?
যেমন ব্লগটেকটুডেবিডি এই সাইটটির মাধ্যমে কিন্তু টেকনোলজী টুডে কম্পানির প্রচারণা হচ্ছে. তাদের পন্যের প্রচারণা হচ্ছে।
তাই আমি জানতে চাই টেকটিউনসের মাধ্যমে কোন কম্পানী বা কোন পণ্যের বিজ্ঞাপন হচ্ছে কি না? এডমিনের কি কোন লাভ হচ্ছে..?
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় টেকি সাইট, সব টেকিদের মিলন মেলা হচ্ছে টেকটিউনস, আর এ সাইটিটির দেখাশুনার জন্য অবশ্যই টিটির এডমিনের অনেক সময় শ্রম নষ্ট হয় তাছাড়া ডোমেইন+ হোস্টিং এর খরচ তো আছেই। আর এ জন্য সরকার থেকে বা কোন প্রতিষ্ঠান বা কোন কম্পানি থেকে কি টিটির এডমিন কোন অর্থনৈতিক সুবিধা বা অন্য কোন সুবিধা পাচ্ছে..?
যদি পায় সেটি কি এবং কত আমি তা জনতে চাই না। আমি শুধু জানতে চাই কোন সুবিধা পায় কি না এতুটুকুই।
টিটি নিয়ে আমার আরও কিছু প্রশ্ন এবং আরও কিছু কথা আছে কিন্তু ঘুমের ঘোরে কিছু লিখতে পরছি না। তাই আপাদত উপরের উত্তর টুকুই আমি চাই। বকি আবার কালকে বলব নে। আজকের মত ঘুম গেলাম।
বানান ভুল হলে ক্ষমা পার্থী ঘুেমর ঘোরে কি না কি লেখলাম আল্লাই জানে।

    Level 0

    যোক্তিক প্রশ্ন

    না টেটি কোন সরকারি অনুদান পায় না। আর অর্থনৈতিক লাভও কারো নেই। শাহজালাল ভাই সহ ব্যক্তিগত অর্থেই টেটি চলে।

    Level 0

    আমার মনে হয় ব্যাক্তিগত অর্থেই চলে বলেই টিটির এরকম অবস্থা। মানে টিটির প্রতি এডমিনের যেন কোন খেয়ালই নেই। আসলে খেয়াল থাকবেই কি কিরে এখান থেকে উনার কি আসছে.? নাম, যশ, খ্যাতি, অর্থ এর কিছুই যদি না আসে আমার ধারনা টিটির প্রতি এডমিনের যে ভালবাসা তা আর থকবে না। উনার কি খেয়ে দেয়ে আর কাজ নেই যে সারাদিন টিটি নিয়ে বসে থাকবে। নিজের খেয়ে পরের মেষ তাড়াবে। আসলে কোন প্রতিষ্ঠানকে যতই অলাভজনক প্রতিষ্ঠান, সেবামুলক প্রতিষ্ঠান বলে চিৎকার করা হোক না কেন, উক্ত প্রতিষ্ঠান থেকে যদি কোন ধরনের সুবিধা না আসে তাহলে উক্ত প্রতিষ্ঠানটি মুখ থুবরে পরতে বাধ্য। ভালবাসা বেশীদিন থাকে না।
    কানাডার জাতীয় প্রবৃদ্ধির ৮০% আসে সেবা খাত থেকে, কি এমন সেবা যে এত লাভ। বাংলদেশের টেকিদের তীর্থস্থান বলে খ্যাত টেকটিউনস সাইটিটি চিলিয়ে এডমিন অবশ্যই আমাদের সেবা করে যাচ্ছে। কিন্তু এই সেবার বিনিময়ে উনি কি পাচ্ছে/ কিছুই না। তাহলে আমার ধারনা এডমিনও আর আমাদের বেশিদিন সেবা করতে পরবে না।
    কিছুদন দিন আগে টিটির যে অবস্থা হয়েছিল, আবার সামনে যে এরকম অবস্থা হবে না বা বন্ধ হয়ে যাবে না তার গ্যারান্টি কি। আমরা যতই বলি টিটি আমাদের সাইট টিটি করও ব্যাক্তিগত সম্পত্তি নয় এর দেখা শুনার দায়িত্ব আমাদের, তাহলে টিটির যে অবস্থা হয়েছিল তার জন্য আমারা কি করতে পেরেছি ? কিছূই না। টিটি যদি আর ফিরে না আসতো তাহলে আমরা কি করতে পারতাম.? কিছুই না ( তখন সাবাই যার যার সাইট নিয়ে ব্যাস্ত থাকত) । টিটি যদি বন্ধ হয়ে যায় তাহলে আমারা কি করতে পারব.? কিছুই না।শুধু হা করে তাকিয়ে তাকিয়ে দেখাছাড়া কিছূই করতে পরব না। তাহলে শুধু শুধু বড় বড় কথা বলে লাভ আছে যে টিটি আমার সাইট.?
    তো এই সব বিষয় নিয়েই আমার মথায় কিছু আইডিয়া আসছে। আপনারা যদি বলার অনুমতি দেন তাহলে বলতে পারি।

    অবশ্যই আপনার মতামত শেয়ার করবেন।
    এছাড়া আমিও টেটির সমস্যা নিয়ে একটা টিউন করেছিলাম। ঐটিউনে শাহজালাল ভাইয়ের মোবাইল নাম্বার সহ একটা মন্তব্য আছে। আপনি ইচ্ছা করলে উনার সাথে কথা বলে দেখতে পারেন।
    টিউনটি এখানে
    https://www.techtunes.io/techtunes/tune-id/34620/

    বুলবুল ভাই, আপনার সুচিন্তিত মন্তব্যগুলোর জন্য ধন্যবাদ। আসলে ব্যাক্তিগত অর্থে চলাটা টেটির সমস্যাগুলোর সরাসরি কারন না। এটা ঠিক যে টেকটিউনসের অবস্থা আগের চেয়ে খারাপ। কিন্তু আমার মনে হয় টেকটিউনসের অ্যাডমিনরা আগে টেটিকে যতটুকু ভালবাসতেন এখনও ঠিক ততটুকুই ভালভাসেন। কিন্তু মূল কথা হল তারা কেউই প্রফেশনাল না। পড়াশুনা বা অন্যান্য কাজের ফাকে তারা টেটির দেখাশুনা করেন। টেকনিক্যাল সমস্যা গুলো ঠিক করার জন্য তারা চেষ্টা করছেন তা বুঝা যাচ্ছে কারন তা নাহলে নতুন সমস্যাগুলো আসতনা। সোর্স নাড়াচাড়া করার ফলেই আসলে সমস্যাগুলোর উদ্ভব হচ্ছে। টেটি কর্তৃপক্ষের মূল সমস্যা হচ্ছে তাদের নিরবতা। তারা সম্ভাবত আমাদেরকে টেটি পরিবারে সরাসরি না নিয়ে দুঃসম্পর্কের আত্বীয় স্বজন বানাতে চাইছেন। নাহলে সমস্যাগুলো তুলে ধরে আমাদেরকে সাহায্য করার সুজুগ দিতেন। হ্যা, আমি অপেন সোর্স টাইপের কিছু একটা করার কথা বলছি। টেটি কর্তৃপক্ষ টেকটিউনসের সোর্সকোড সো করে সমস্যা তুলে ধরলে অবশ্যই ওয়েব ডিজানিংএ অভিজ্ঞরা এগিয়ে আসবেন। আর আমরা অনাভিজ্ঞরা দরকার হলে নেট ঘেটে বা অন্যান্য মাদ্ধম থেকে সমাধান আনার চেষ্টা করব। এ জন্য একটি আলাদা বিভাগ খোলা যেতে পারে। পাশাপাশি টিউনার এবং পাঠকদের ভাল আইডিয়াগুলোও নেয়া উচিৎ। বুল্বুল ভাইকি আপনার আইডিয়াগুলো শেয়ার করবেন? আপনার আইডিয়াগুলো শোনার জন্যই এতক্ষন ধরে টিউনটি ড্রাফটে নেইনি।

    Level 0

    ধন্যবাদ আমাকে সহযোগিতা করার জন্য। টেকটিউনস নিয়ে আমার যে আইডিয়া তা নিচে উল্লেখ করা হল। দয়া করে কেউ আবার অন্য কিছু ভাববেন না এটা আমার একান্তই নিজস্ব মতামত।

    বর্তমান সময়ে টিটি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় একটি সাইট। কিন্তু এই সাইটটির শুধু জনপ্রিয়তা ছাড়া অন্য কোন দিক দিয়ে লাভাবান হচ্ছে না। এজন্য প্রথমেই টিটি কে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সমৃদ্ধ করলে টিটির এডমিনের টিটির প্রতি ভালবাসা ফিরে আসবে বলে আমার বিশ্বস। আর এরকম একটি জনপ্রিয় সাইট অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সমৃদ্ধ না হয়ে থাকতে পারে না।
    এখন আমি বলব কিভাবে টিটি কে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সমৃদ্ধ করা যায়। আর এতে কি লাভ লোকসান।
    =টিটি কে আমরা সত্যই খুব ভালবাসি এতে কোন সন্দেহ নেই। টিটির কাছে সত্যই আমারা ঋনী টিটি থেকে অনেক কিছুই আমরা শিখেছি। এখন দেবার পালা টিটিকে সামনের দিকে এগিয়ে নেবার সময়। তো কিভাবে আমরা টিটিকে দেব.?
    আমার মনে হয় টিটির নিজস্ব কোন ফান্ড নেই এজন্য।
    ১. টিটির প্রথম পেজে এলার্ট-পে, মানিবুকার্স এবং পেপালের ডোনেট বাটম স্থাপন করা যেতে পারে। আমি জানি টিটির দেশ বিদেশে অনেক ভিজিটর আছে। টিটির প্রতি কৃতজ্ঞতা সরুপ সবাই যদি টিটিকে মাসে ১ ডলার করেও দেয় তাহলে কিন্তু অনেক টাকা। আর প্রতি মাসে যে ১ ডলার করে দিতে হবে তার কোন বধ্যবাদকতা রাখা যাবে না খুশি হয়ে যে যা খুশি দিবে না দিলেও কোন প্রবলেম নেই। অনলাইন থেকে বিভিন্ন ভাবে অনেই কম বেশী আয় করতেছে, আর তাদের জন্য দুই এক ডলার টিটিকে দেয়া কোন ব্যাপারই না। আর এটা করলে টিটির প্রতি আমাদের একটা অধিকার চলে আসবে, টিটির কোন সমস্যা হলে আমরা আন্দোলন করতে পারব, আমার গর্বিত কন্ঠে বলতে পারব টিটি আমাদের সাইট। আর এতে করে সবাই টিটিকে সাহায্য করে তথা বাংলাদেশকে সাহয্য করতে পারে।( টিটিকে সাহায্য করলে বাংলাদেশকে কিভাবে সাহয্য করা হয় সেটা আমি নিচে বলতেছি)।
    ২. টিটিতে অনেকেই বিজ্ঞাপন ধর্মী টিউন করে। মুল উদ্দেশ্য থাকে তাদের সাইট, পণ্য অথবা তাদের কম্পানীর প্রচারনা করা।
    এজন্য্ টিটিতে বিজ্ঞাপনের জন্য আলাদা জায়গা করা যেতে পারে। সেখানে দিন, সাপ্তাহ, মাস, বছর, এই চুক্তিতে নির্দিষ্ট কিছু অর্থের বিনিময়ে বিজ্ঞাপন দেয়া যেতে পারে, তবে অবশ্যই টেকনোলজী রিলেটেড বিজ্ঞাপন হতে হবে। গরুর হাঁটের বিজ্ঞাপন দিলে হবে না। এটা করলে টিটির জনপ্রিয়তা আরও বাড়বে বলে আমার মনে হয়।
    টিটির আলাদা একটা ফান্ড থাকবে সব টাকা উক্ত ফান্ডে জমা থকবে।
    এখন প্রশ্ন টিটি যে টাকা পাবে ওই টাকা দিয়ে কি হবে বা কি করা যেতে পারে।

    প্রথমেই টিটিকে উন্নত করতে যা যা করা লাগে এডমিন তা করবে। এরপর
    বিভন্ন দিবসে যেমন, ১৬ই ডিসেম্বর, ২১ ফেব্রুয়ারী, পহেলা বৈশাখ, শ্রমিক দিবস, এইডস দিবস, শিশু অধিকার দিবস, পরিবেশ দিবস ইত্যাদি দিবসে টিটি বিভিন্ন কর্যক্রম গ্রহণ করতে পারে বা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করতে পারে।
    এছাড়া বনভোজন, ইফতার পার্টি, টিটি সদস্যদের মিলন মেলা ইত্যাদি কার্যক্রম করা যেতে পারে।
    আর এজন্য যে খরচ হবে সব টিটির ফান্ড থেকেই করবে।
    আর যদি সাহায্যের পরিমানটা বেশী আসতে থাকে তাহলে টিটিও তার কার্যক্রমের পরিধি বাড়াবে।
    যেমন, বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়ন মুলক কাজে অংশগ্রহণ করা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যেমন, ঘুর্নিঝর, বন্যা, শৈত প্রবাহ ইত্যাদি প্রাকৃতিক দুর্যোগে বাংলাদেশের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়তে পারে। প্রথম আলো যা করে আর কি।
    সবকিছুই নির্ভর করবে সাহয্যের পরিমানের উপর। সাহায্যর পরিমান যদি আরও বাড়ে তাহলে, স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মন্দির, রাস্তা ঘাট, আরও কত কি ইত্যাদি,,,,,, ইত্যাদি,,,,,,,, ইত্যাদি হাজারো সামাজিক উন্নয়ন মুলক কাজ করতে পারে।
    প্লিজ কেউ আবার আমাকে এডমিনের কাছের লোক মনে করবেন না। আমি তাকে চিনিই না। আমি শুধু আমার পাগলা মনের ধারনা বলে গেলাম। এ ব্যাপারে আপনারা কি বলেন আপনাদের চিন্তা কি টিটি নিয়ে তা জানতে আমার খুব মন চাচ্ছে।

    সকলকে ধন্যবাদ । ভুল হলে ক্ষমাপার্থী।

    বুলবুল ভাই অসাধারন মতামত ব্যক্ত করেছেন। আশা করি সবাই একমত হবে।
    আপনি পারলে আরও বিস্তারিতভাবে উপস্থাপনা করে একটা টিউন করে ফেলুন।
    তাহলে সবার নজরে আসবে বিষয়টা।
    ধন্যবাদ।

    বুলবুল ভাই অনেক গভীরে চিন্তা করেন।

    বুলবুল ভাইয়ের সাথে ১০০% সহমত এক্ষুনি টিটির জন্য কিছু একটা করার সাময় হয়েছে বলে আমার মনে হয়।

    Level 0

    হাসান যোবায়ের (আল-ফাতাহ্) ভাই বিষয়টা নিয়ে একটা টিউন করেই দিলাম যাতে সাবাই দেখতে পারে। দেখন তো কেমন হল । এই মাত্র করলাম।

আশা করি প্রশ্ন গুলোর উত্তর পব…….

ভাই এই টিউনটা পড়ে আমার ঘাম বের হয়ে গেল। আমি টেকটিউনসে আজ দেড় বছর ধরে আছি। ২ দিন আগে রেজিষ্ট্রেশন করেছি। আপনারা সবাই যেভাবে নতুন টিউনারদের(আমার মত) প্রতি আক্রমণাত্মক হয়ে উঠেছেন। আমি আসলেই ভয় পেয়েছি। আমার মনে হয় আপনাদের এত কড়া না হয়ে। আমাদের ভুলগুলো দেখিয়ে দেয়া উচিত। আমি ১.৫ বছর ধরে প্রায় প্রতিদিন এর সাথে আছি। এর সব নিয়মও জানি। তবু নতুন হিসিবে ভুল তো হতেই পারে। ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখলেই কি ভালো না।( একটা ফাজলামো করতে চাই, আদনান ভাই TT নীতিমালা ভঙ্গ করেছেন হা হা হা)।

    আপনার ঘাম বের হওয়ার কি আছে। নতুন টিউনারদের প্রতি কেউই আক্রমনাত্বক নয়। টেকটিউনসে আমরা সবাই আসি কিছু শেয়ার করতে বা কিছু শিখতে। কিন্তু বর্তমানে ভাল টিউনার আছেন মাত্র দুই একজন। ফলে শেয়ার করা গেলেও শেখা ইদানিং তেমন একটা হচ্ছেনা। তাই নতুন টিউনারদের মধ্য থেকে ভাল টিউনার বেরিয়ে এলে আমাদেরই লাভ। আমি যখন টেকটিউনসে এসেছিলাম তখন দেখতাম নতুন টিউনারদেরকে ভুল ধরিয়ে দিলে নতুন টিউনাররা সেটা পজেটিভলি নিত। কিন্তু এখন দেখা যায় এর উল্টো। ভুল ধরিয়ে দিলে টিউনাররা খেপে উঠে। এর পরও সকল পুরুনো টিউনারই চান নতুন টিউনারদেরকে ভাল টিউন করার জন্য গঠনমূলক সমালোচনা করতে। কিন্তু আজ-কাল একটি নতুন রেওয়াজ বের হয়ে সে পথও বন্ধ হয়ে গেছে। এখন টিউনাররা টিউনে কমেন্ট বন্ধ করে রাখে। ফলে উৎসাহ দেয়া, প্রশংসা করা বা ভুল ধরিয়ে দেয়া কোনটাই হয়ে উঠেনা। একটা জিনিষ বুঝিনা কমেন্ট বন্ধ করে দিলে টিউন করার মজাটা কোথায়! সত্যি কথা বলতে আমিতো কমেন্টের জন্যই টিউন করি। সকল টিউনারেরই উচিত তাদের টিউনে কমেন্ট খোলা রাখা।

মেহেদী ভাইকে ধন্যবাদ টিউনে একটি সুন্দর থাম্বানাইল যোগ করার জন্য।

আপনার এত সুন্দর বিষয়নির্ভর পোষ্টের শিরোনাম এ সাময়িক পোষ্ট না থেকে নির্বাচিত পোষ্ট হলে আরও ভাল লাগত। সত্যি আমরা সবাই টিটিকে নিজের বলে ভাবি, কিন্তু যিনি এটা চালান যদি তার কোন লাভই না হয় তাহলে এর প্রতি মনযোগ অতটা দেওয়া সম্ভব নয়। আমি একটা প্রস্তাব করতে পারি, এখানে যারা সিনিয়র ও বিশ্বাসযোগ্য আছেন তাদের মধ্যে দুই একজনকে কিছু কিছু দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে, এতে এডমিনের কাজের বোঝা অনেকটা কমবে। আর সবাই যেহেতু একবার হলেও টিটিতে আসে তাই একটু কাজ করতে কেউই আপত্তি করবেনা। এখানে আতাউর ভাইয়ের নাম নিদ্বিধায় বলতে পারি, পাশাপাশি আরও অনেক আছে। একটু কি খেয়াল করবেন?

খুব ভালো ভালো আলোচনা হচ্ছে এখানে। সরি একটু লেট করে আসলাম। যাই হোক। সবার মতামত পড়ছি। ভালো কিছু হলে সবার সাথে আছি আমি। যে কনো কাজে যে কেউ আমাকে ডাকবেন আপন মনে করে। ভালো থাকুন সবাই

    Level 0

    পিপি ভাই টিটির জন্য একটা কিছু করেন। এখনি সময়।

    হাহাহা, বুলবুল ভাই আমি তো আসলাম মাত্র ২০/২৫দিন হবে। আমি কি করব। আমার কিছু বলাটা অধিকারের বাইরে হয়ে যাবে এখানে অনেক পুরনো ও ভালো বুঝেন এমন অনেকেই আছেন। তাদের এগিয়ে আসতে হবে। তবে আমি আছি আপনাদের সাথে।

    Level 0

    পি পি ভাই বিষয়টা নিয়ে একটা টিউনই করে দিলাম যাতে সাবাই দেখতে পারে। দেখন তো কেমন হল । এই মাত্র করলাম।

    দেখলাম, রিপ্লাই দিলাম। খুব ভালো হয়েছে।