সকল সমাজ সচেতন মানুষ বিশেষকরে টেকিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি ।

আসসালামু আলাইকুম,

আমি একজন ভারতীয় নাগরিক । আমি যখন প্রথম টেক-টিউনের পোষ্টগুলি দেখতাম তখন বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম । বাঙ্গালিদের মধ্যে এতজন বিস্ময়কর প্রতিভা দেখে অত্যন্ত আনন্দিত হয়েছি । এখান থেকে শিখতে পেরেছি অনেক কিছু সেইজন্য টেক-টিউন ও টিউনারদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই ,আল্লাহ্‌ আপনাদের উত্তম প্রতিদান দিন ।

কাজের কথাই আসি, এখন বর্তমান বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় ও ব্যাবহারিক মিডিয়া হচ্ছে ইন্টারনেট মিডিয়া ।এর উপকারিতার কথা বলে শেষকরা যাবেনা । তবে এর উপকারিতাও যেমন অপকারিতাও যেন তার অধিক । এর অপকারিতার একটি বড় উদাহরণ হল Pron সাইট (অশ্লীল) গুলি । এখন  পৃথিবীর যুবক সম্প্রদায় মেতে উঠেছেন অশ্লীল ছবি,ভিডিও, পোষ্ট আপলোড ও ডাউন-লোড করতে এবং পড়তে । হাতের কাছেই পেয়ে যাচ্ছে নোংরা জিনিস গুলি । এর প্রভাবে সমাজে দ্রুত বাড়ছে ধর্ষণ , নারীপাচার, সমকামিতা,হস্তমৈথুন,ইফটেজিং । শুধু তাই নয় ধীরে ধীরে পুরুষেরা হারাচ্ছে তাদের পুরুষত্ব, কিশোররা  হারাচ্ছে তাদের কৈশোর-ত্ব । এর খারাপ প্রভাব পৌঁচে যাচ্ছে শহর থেকে গ্রামে ,গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে,প্রতিটি বাড়িতে ,প্রায় প্রতি জনের মধ্যে। এর ভবিষ্যৎ ফল অত্যন্ত মারাত্মক, ভয়াবহ। হয়তো সভ্যতার নামকরে  মানুষ তার মনুষ্যত্ব ভুলে যাবে এবং পশুত্ব রাজ করবে পৃথিবী ।

এই অশ্লীলতাকে কনও সভ্য ধর্মই স্বীকৃতি দেয় না । ইসলাম ধর্মে অশ্লীল ছবি দেখাটাকে জেনা (অবৈধ সঙ্গম)-এর সঙ্গে সমতুল্য। আর জেনার ভয়ঙ্কর কঠিন অত্যন্ত মারাত্মক শাস্তির কথা মুসলিম মাত্রই জানেন (ইসলাম ধর্মের কথাই বলছি কারণ আমি এক জন মুসলিম)।

তাহলে এই অশ্লীলতার সর্বনাশ থেকে পৃথিবী এবং মানুষকে বাঁচানোর জন্য চিন্তাশীল মানুষ হিসাবে আমাদের কছু কারা অবশ্যয় অবশ্যয় কর্তব্য । অসৎ কাজ প্রতিহত করার  প্রসঙ্গে একটি কোরানের আয়াত এবং হাদিস উল্লেখ করা যায় -"আর তোমাদের মধ্যে এমন একটা দল থাকা উচিত, যারা সৎকাজের প্রতি আহ্বান করবে, নির্দেশ করবে ভাল কাজের এবং বারণ করবে অন্যায় কাজ থেকে। আর তারাই হল সফলকাম।" (সূরা আলে ইমরান:১০৪)।। হাদিস- "আবু সাইদ খুদরী রা. বলেন. আমি রসূল সা.-কে বলতে শুনেছি। তোমাদের কেউ মন্দ কাজ হতে দেখলে (শক্তি প্রয়োগ করে) প্রতিহত করবে, সম্ভব না হলে (মুখের মাধ্যমে) প্রতিবাদ করবে। এও সম্ভব না হলে (মনে মনে) ঘৃণা করবে। আর এটি হচ্ছে ঈমানের সর্ব নিম্ন স্তর। "(সহি মুসলিম,হাদিস নং-৪৯)

এখন কথা হল এই অশ্লীলতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়া যায় কি ভাবে ?অনেক ভাবেই করা যেতে পারে,প্রথমত আমি টেকি ভাইদের আমার আবেদন করবো অনেক পোষ্টে অমি ওয়েব সাইট হ্যাকিং সম্বন্ধে পড়েছি,ঐ  ওয়েব হ্যাকাররা যদি অশ্লীলতার প্রচার প্রসারকারি ওয়েব সাইট ও একাউন্ট গুলি হ্যাক করে বন্ধ করতে পারেন তাহলে অনেকটাই সমাজ অশ্লীলতা মুক্ত হবে ।
এছাড়া অশ্লীলতার কুপ্রভাব গুলি সম্পর্কে আমাদের প্রচার করে সকলকে বোঝাতে হবে। দেশের সরকার যাতে বেশ্যাবৃত্তি ,অশ্লীল ছবির ব্যবসা,অশ্লীল সাইটের বীরুধে অত্যন্ত কঠোর আইন তৈরি তার জন্য অপ্রতিরোধ্য আন্দোলন গোড়ে তুলতে হবে। আমরা যদি সমাজকে মুক্ত করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যায় মহান সৃষ্টিকর্তা আমাদের উত্তম প্রতিদান দিবেন ইনশাল্লাহ ।।

ফেসবুকে আমি........https://www.facebook.com/nasim.firoz.5

Level 2

আমি নাসিম ফিরোজ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 49 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Masha allash… Arokom oshadharon gono sochetonota mulok post er jonno apnake onek dhonnobadh…… asha kori continue likhben…
Ar ” teki ” name ta onek awesome hoyese… :p

আপনাকেও পড়ার জন্য ধন্যবাদ । আপনাদের দোয়া পেলে আবার লিখতে হবে ইনশাল্লাহ ।

Level 0

ভালো লাগলো, পরবর্তী টিউন এঁর আশায় থাকলাম।

ইনশাল্লাহ ,আপনার আশা পূরণ করতে পারলে নিজেকে ধন্য মনে করবো ।

Level 0

ধ্যন্যবাদ

আপনাকেও অসংখ্য ধ্যন্যবাদ ।

Level 0

Kub valo tune…selection ta o valo…continue korben ae ashay roilam.

ইনশাল্লাহ ………..

ভালো লিখেছেন। দেখি হেকার ভাইয়েরা কি করে।

আমি আশা করি হ্যাকার ভায়েরা তাদের হ্যাকিং বিদ্যা এই ভালো কাজে ব্যাবহার করবেন ইনশাল্লাহ ।

Level 0

একটু আগে আপনার ফেসবুক পেজটা দেখলাম কিন্তু আপনার প্রফাইলের কোন ছবি নেই কারন টা কি ??
প্রোফাইলে ছবি না দেয়া বা কোনও ভুয়া ছবি দেয়া কোন ধরনের নৈতিকতা একটু বলবেন কি ??

    @newboy: আমার প্রোফাইলেও কোন ছবি নেই(http://www.facebook.com/kowsar89)। আর ফেসবুককে আমি আমার ছবি দিতে বাধ্য নই। নৈতিকতার সংজ্ঞা টা দিলে ভালো হয়

      Level 0

      @গাধাঁরেনিয়াম: আপনি প্রফাইল পিক মানে বুঝেন ?? আপনি যদি ফেসবুকে আপানার ছবু দিতে সমস্যা থাকে তাহলে দিবেন না। ঠিক আছে কিন্তু আপনি প্রফাইল পিকের স্থানে আপনার ছবি না দিয়ে নদি নালা খাল বিল পাহার পর্বত ফুলফল এসবের ছবি ব্যাব হার করবেন এটা মতেও ঠিক না এবং এটা স্পামিং এর আওতায় পরে কারন প্রফাইল পিক অপশনটা রাখা হয়েছে একাউন্ট হোল্ডারের ছবি রাখার জন্য। আপনি যদি না দিতে চান তবে সেটা আপনার ইচ্ছা। তবে আপনি নিজের প্রোফাইলে নিজের ছবি না দিয়ে অন্য কিছু ছবি দিলে সেটা হবে অনেকটা প্রতারনার সামিল।

        @newboy: “প্রফাইল পিক অপশনটা রাখা হয়েছে একাউন্ট হোল্ডারের ছবি রাখার জন্য”
        এই ছবি টা যে নিজের মুখমণ্ডল হতে হবে এই নিয়ম কি আপনার তৈরি করা, না ফেসবুকের?ফেসবুকের rules and regulation এ তো এমন কিছু দেখলাম না।
        “এটা স্পামিং এর আওতায় পরে”
        কিভাবে তা ব্যাখ্যা করলে উপকৃত হব।
        “নিজের ছবি না দিয়ে অন্য কিছু ছবি দিলে সেটা হবে অনেকটা প্রতারনার সামিল”
        কার সাথে প্রতারনা করলাম?আমি তো নদি নালা খাল বিল পাহার পর্বত ফুলফল এসবের ছবি দেখাইয়া কাউকে বলি নাই যে এইটা আমার মুখমণ্ডলের ছবি।

      Level 0

      @গাধাঁরেনিয়াম: আমি আশা করি যে বইয়ে অশ্লীল ছবি দেখাকে অন্যায় বলা হয়েছে সেখানে নৈতিকতার সংজ্ঞা ও দেয়া আছে। দয়া করে নিবেন।

newboy ভাই ফেসবুক প্রফাইলে ছবি না থাকাটা কেন অনৈতিক বুঝলাম না। তবে আমার ফেসবুক প্রফাইলেতো সুন্দর ছবি আছে আপনি হয়তো দেখতে ভুল করেছেন । দয়াকরে আরও একবার ভালো ভাবে দেখার কষ্ট করবেন ।

    Level 0

    @নাসিম ফিরোজ: প্রফাইল পিক অপশনটা রাখা হয়েছে একাউন্ট হোল্ডারের ছবি রাখার জন্য। আপনি যদি না দিতে চান তবে সেটা আপনার ইচ্ছা। তবে আপনি নিজের প্রোফাইলে নিজের ছবি না দিয়ে অন্য কিছু ছবি দিলে সেটা হবে অনেকটা প্রতারনার সামিল। আর আমি এজন্য বললাম যে, আপনি এখানে অন্যায় ও অশ্লীলতা ত্যাগ করার কথা বলেছেন আর আপনি নিজের অজান্তে নিজেই একটা অন্যায় কাজ করে বসেছেন। আপনি প্রফাইল পিক দিবেন না আপনার ইচ্ছা। এখানে আমার বা কারো কিছু বলার নেই। কিন্তু আপনি অন্য কোন ব্যাক্তি, বস্তু, জীব জন্তু বা স্থানের ছবিকে নিজের প্রফাইল পিক হিসেবে ব্যাবহার করবেন তাহলে এতাও একটা অন্যায় ও প্রতারনার অন্তর্ভুক্ত হবে। যে জায়গায় আপনি নিজের ছবি দেয়ার কথা সে জাইগায় আপনি কেন অন্য কোন ছবি ব্যবহার করবেন ?? আপনার যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে আপনি কোন ছবিই না দেন।

Nice Tune ^_^
I am also agree with this Tune.

Thanks, Moyan Hossain vai

Level 0

apnake onek dhonnobadh…

Level 0

নাসিম ফিরোজ – আপনাকে স্বাগতম বিদেশী এবং সুন্দর পোষ্টের জন্য । আমাদের কিছু গুন বা বেগুন আছে যেমন ১. কেউ শুনে শেখে, ২. কেউ দেখে শেখে, ৩. কেউ ঠেকে শেখে, ৪. আর গোয়ার রা ইচ্ছে করে শেখে না। বাংলাদেশে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা ধীরে ধীরে বেড়েই যাচ্ছে তার অন্যত্তম কারন সেক্স হীনতা। এবং এ ধরণের লোকরা বিয়ের পর ঠেকেই শেখে। খোদ আমেরিকাতে নো-এইড্স সার্টিফিকেট যার আছে সে নিজেকে বাদশা মনে করে। এইড্স এর ভয়াবহতা দেখেই অনেকে শিখবে। ধর্ম বির্দেশীরা না বুঝেই নিজেকে বাহাদুর মনে করে অথচ এইডস থেকে বেচে থাকার অন্যতম হাতিয়ার ধর্মীয় অনুশাসন যা বিবাহিত জীবনকে সুখের করতে পারে। ইঞ্জিন যতই ভাল হোক এক সময় সে অকেছো হয়ে যায়। ধর্ম মানুয়কে সঠিক পথে চলতে সাহায্য করে সেটা যেই ধর্মই হোক। সবাই কে ধন্যবাদ।

“কমেন্ট করতে ভয় পাই ঝগড়া করতে চাইনা”

ধন্যবাদ mahmud.tsc ভাই আপনার অসাধারণ কমেন্টের জন্য ।

আর newboy ভাই অজাথা যুক্তি দেখিয়ে লাভ কী ? আপনার নিজের টেকটিউন প্রফাইল পিকচার টা একবার দেখুন ।

Level 0

অনেক ধন্যবাদ ভাই। আশা করি নিয়মিত লিখবেন। দেখা যাক আমাদের হ্যাকার ভাইরা কি করতে পারেন আপনার জন্য।

ধন্যবাদ ভাই আপনার অসাধারণ টিউন এর জন্য। ইনশাল্লাহ আপনার আশা পূরণ হবে ।

bdfoysol ভাই ও মোঃ সাজজাদ হোসেন ভাই ধন্যবাদ কমেন্টের জন্য ।

তবে মোঃ সাজজাদ হোসেন ভাই হ্যাকারেরা কাজ করলে ইনশাল্লাহ সকলের উপকার হবে।