এন্ড্রয়েড গুরু[পর্ব-০১] :: এন্ড্রয়েড ডেভলপমেন্টের জন্য প্রয়োজনীয় টুল এবং প্রথম অ্যাপ্লিকেশন নির্মান

এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন ডেভলপিং এ আপনাকে আমন্ত্রন! 

আমি দেলোয়ার হোসেন দিহান, একজন নতুন টিউনার। আপনাদের সাথে থাকবো এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন ডেভলপমেন্টের জটিল সব টিউন নিয়ে।আমার টিউনগুলো পড়লে আপনি শিখতে পারবেন কিভাবে এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন তৈরী করতে হয়, কিভাবে জটিল সব ইউজার ইন্টারফেস তৈরী করতে হবে, কিভাবে ব্যবহারকারীকে সর্বোচ্চ সুবিধা দেয়া সম্ভব, কিভাবে মারাত্মক নকশার এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন তৈরী করবেন সে বিষয়ে জানতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড ডেভলপিং এর ক্লাস শুরু করার আগে অবশ্যই আপনাকে প্রয়োজনীয় কিছু সফটওয়্যার ইন্সটল করতে হবে।

প্রয়োজনীয় টুলঃ

Android SDK ডাউনলোড করুন ।

Eclipse এর জন্য ADT plugin  ইন্সটল করুন।

JDK(Java Development kit) ডাউনলোড করুন

দ্রষ্টব্যঃ আপনার প্রথম এপ তৈরীর আগে Android SDK এবং JDK এর সর্বশেষ সংস্করণ ব্যবহারের চেষ্টা করুন। নয়ত সব ক্ষেত্রে কোডগুলো কাজ নাও করতে পারে।

প্রথম এপ তৈরী করুন! 

দ্রষ্টব্যঃ আপনার কম্পিউটারে অবশ্যই Android SDK বা ADT plugin ইন্সটল করা থাকতে হবে। যদি আপনার কম্পিউটারে ইন্সটল করা না থাকে কিংবা কিভাবে ইন্সটল করবেন সেটা না বুঝতে পারেন তাহলে এই গাইড অনুসরণ করুন।

Eclipse দিয়ে আপনার প্রথম এপ তৈরী করুনঃ

1. File টুলবার থেকে New এ ক্লিক করুন।

2. প্রদর্শিত উইন্ডোর মধ্যে Android ফোল্ডার খুলতে Android Application Project নির্বাচন করুন, এবং Next ক্লিক করুন।

3. আপনার ইচ্ছানুযায়ী তথ্য দিয়ে প্রদর্শিত ফরম পুরণ করুনঃ

  •    Application Name হিসেবে My First App ব্যবহার করা হয়েছে, আপনি আপনার ইচ্ছামতো ব্যবহার করুন।
  •   Project Name হিসেবে আপনার Application Name এর মতো একটি নাম তৈরী হবে। আপনি ইচ্ছেমতো এটি পরিবর্তন করে নিতে পারেন।
  •   Package Name (জাভা প্রোগ্রামিং ভাষা প্যাকেজ হিসাবে একই নিয়ম অনুসরণ) আপনার অ্যাপ্লিকেশন জন্য প্যাকেজ নাম হয়। তবে আপনাকে      com.example.yourprojectname থেকে অবশ্যই com.example সরিয়ে দিতে হবে। কারণ এই  Package Name দিয়ে আপনি গুগল প্লে স্টোরে আপনার  এপ্লিকেশন প্রকাশ করতে পারবেন না।
  • তারপর এখান থেকে Required SDK আপনি মিনিমাম যে API লেভেল ইউস করতে চান, তারপর Target SDK সিলেক্ট করে দিন।
  • অন্যান্য অপশনগুলো পরিবর্তন না করলেও চলবে।

Next এ ক্লিক করুন।

প্রজেক্টের প্রথম ধাপ

4.পরবর্তী পৃষ্ঠাতে সবকিছু ডিফল্ট রেখেই Next এ ক্লিক করুন।

5.পরবর্তী পর্দায় আপনার অ্যাপ্লিকেশন জন্য একটি  আইকন তৈরি করতে পারবেন, সেগুলি কাস্টমাইজ করতে পারবেন। আপনার পছন্দমতো আইকন তৈরী করে Next এ ক্লিক করুন।

6.এখন থেকে আপনার অ্যাপ্লিকেশন নির্মান শুরু। আপনার Project এর জন্য BlankActivity নির্বাচন করুন এবং Finish এ ক্লিক করুন।

বিঃ দ্রঃ আমি আমার কোন টিউনে সরাসরি কোন এন্ড্রয়েড এপ তৈরী করা শেখাবো না। অর্থাৎ পুরোপুরি সমস্ত কোড বলে দিবো না। তবে কি করলে কি হয়, কিভাবে ইউজার ইন্টারফেস তৈরী করতে হয়, কিভাবে অ্যাপ্লিকেশন টেস্ট করতে হয়, কিভাবে অ্যাপ্লিকেশনে অ্যাকশন বার যুক্ত করতে হয়, কিভাবে একটি এপ্লিকেশন একাধিক ডিভাইসে চালানো যায়, কিভাবে একটি এপ্লিকেশনকে বিভিন্ন সাইজের স্ক্রীণে চালানো যায়, কন্টেন্ট শেয়ারিং এর মাধ্যমে কিভাবে এপস তৈরী করতে হয়, কিভাবে মাল্টিমিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন তৈরী করতে হয়, কিভাবে অ্যানিমেশনের সাহায্যে অ্যাপ্লিকেশন তৈরী করতে হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দেয়ার চেষ্টা করবো।

প্রথম অ্যাপ্লিকেশন হিসেবে আজ আমি আপনাদের দেখাচ্ছি কিভাবে আপনার প্রথম এন্ড্রয়েড এপ্লিকেশন তৈরী করবেনঃ-

আপনি যদি উপরের ছয়টি ধাপ সঠিকভাবে সম্পাদন করে থাকেন তাহলে MainAcivity.java এবং activity_main.xml নামে দুটি ট্যাব ওপেন হবে। এখন আপনি অ্যাপ্লিকেশনের গ্রাফিকাল ইন্টারফেজে Hello world লেখাটি দেখতে পাবেন।

Hello world লেখাটি যদিও খারাপ না তবুও আমরা বলতে চাই Hello Techtunes! 

Hello World থেকে Hello Techtunes লেখাটি পরিবর্তন করার জন্য  আপনাকে Hello Techtunes এর ফোল্ডার থেকে HelloTechtunes>res>values>string.xml ফাইলটি ওপেন করতে হবে ।

সেইবার সেখানে নতুন করে Hello Techtunes লিখতে হবে। এই লেখার কারণে ইরর মেসেজ শো করবে। তখন চিহ্নিত জায়গাটিতে  @string/app_name লেখাটি পেস্ট করে দিলে আর ইরর মেসেজ শো করবে না।

আমি এতটুকুই পরিবর্তন করলাম। আপনি ইচ্ছে করলে palette মেনু থেকে আপনার ইচ্ছেমতো অনেক কিছু যোগ করতে পারেন।

অ্যাপ্লিকেশন রান করানো

আপনার তৈরী অ্যাপ্লিকেশনটি রিয়েল এন্ড্রয়েড ডিভাইসে রান করানোর জন্য উন্মুখ হয়ে বসে আছেন? আর অপেক্ষা করতে হবে না। আমি আছি কি জন্য?

ইউএসবি ক্যাবলের সাহায্যে রান করাবার নিয়মঃ

  • আপনার ডিভাইসকে ইউএসবি ক্যাবলের সাহায্যে আপনার কম্পিউটারের সাথে যুক্ত করুন। এই জন্য আপনাকে ইউএসবি ড্রাইভার ইন্সটল করতে হবে যেন Android SDK আপনার ক্যাবলকে খুঁজে বের করতে পারে। ড্রাইভার ইন্সটলের জন্য এখানে দেখুন।
  • আপনার ফোনে USB debugging এনাবল করতে হবে। Android 3.2 অথবা তার থেকে পুরোনো ভার্সনের জন্য Settings > Applications > Development এখানে পাবেন এবং Android 4.0 এবং তার চেয়ে নতুন ভার্সনের জন্য পাবেন Settings > Developer options এখানে।
  • আপনি আপনার ফোনের জন্য সঠিক ড্রাইভার ইন্সটল করে আপনার ফোনে আপনার তৈরীকৃত অ্যাপ্লিকেশন রান করাতে পারবেন।

Eclipse থেকে রান করাবার নিয়মঃ

  • আপনার যেকোন একটি project's files ওপেন করুন এবং টুলবারে অবস্থিত Run  এ ক্লিক করুন।
  • Run as উইন্ডো শো করলে সেখান থেকে Android Application সিলেক্ট করে OK প্রেস করুন।

Eclipse আপনার কানেক্টেড ডিভাইসে অ্যাপ্লিকেশনটি রান করবে। তবে অবশ্যই আপনার ফোনের ড্রাইভার ইন্সটল থাকতে হবে। বিস্তারিত এখানে দেখুন

Emulator এ চালানোর নিয়মঃ

  • টুলবার থেকে Android Virtual Device manager এ ক্লিক করুন।
  • নতুন যে উইন্ডোটি ওপেন হবে সেখানে New এ ক্লিক করুন।
  • বর্ণনাগুলো সঠিকভাবে তথ্য দিয়ে পুরণ করুন। 
  • OK প্রেস করুন।
  • Android Virtual Device manger থেকে নতুন AVD সিলেক্ট করুন এবং Start বোতামে ক্লিক করুন।
  • লোডিং প্রক্রিয়া সম্পুর্ণ হলে Run বোতামে ক্লিকন করুন।

আজ এই পর্যন্তই। কোন রকম সমস্যা হলে মন্তব্য করতে ভুলবেন না।

I am nobody

Level 0

আমি দেলোয়ার হোসেন দিহান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 18 টি টিউন ও 79 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

শুরু তো করলেন, শেষ করবেন তো? প্রতি সপ্তাহে কটা পর্ব দেখা যাবে?

ভাইইয়া আপনি নিশ্চিত থাকতে পারেন, এই কোর্স এগিয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ।

অধির আগ্রহ নিয়ে বসে থাকবো

Level 3

এই কথাটা ভাল লাগল না…””আমি আমার কোন টিউনে সরাসরি কোন এন্ড্রয়েড এপ তৈরী করা শেখাবো না। অর্থাৎ পুরোপুরি সমস্ত কোড বলে দিবো “”। ধন্যবাদ চালিয়ে যান………

আশা করি নিয়মিত চালিয়ে যাবেন ! tnx for tune

Thank you so much