ছবি এডিট করার জনপ্রিয় ১০ টি সফটওয়্যার

মোবাইল ফোন এবং ডিজিটাল ক্যামেরার যুগে ছবি আমাদের  স্মৃতির অ্যালবাম।

এই স্মৃতিকে আরও সুন্দর করতে আমরা হালকা এডিট করলে অনেক সুন্দরভাবে এগুলো সংরক্ষণ করতে পারি।

এজন্য আছে অনেক সফটওয়্যার। আজকের এই টিউটোটিরিয়ালে আমরা দেখবো ছবি এডিট করার জনপ্রিয় ১০ টি সফটওয়্যার নিয়ে আলোচনা।

ছবি এডিট করার জনপ্রিয় ১০ টি সফটওয়্যার। -

গিম্পঃ 

গিম্প ছবি এডিটের জন্য অনেক জনপ্রিয়। এডিটের পাশাপাশি আপনি ছবি আঁকতে পারবেন এখানে।

বড় আকারে ছবি সম্পাদনার সুবিধাও পাওয়া যায় এখানে।

উইন্ডোজের এক্সপি, ভিসতা, ৭, ৮, ৮.১, ম্যাকের পাশাপাশি সফটওয়্যারটি মুক্ত অপারেটিং সিস্টেম লিনাক্সওে কাজ করে। ১৫ মেগাবাইটের এই সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করা যাবে এখান থেকে।

পিন্টাঃ

মাইক্রোসফট পেইন্টের সাথে এর অনেক মিল আছে।

ছবিকে আরো নিখুঁত করতে রয়েছে কালার ও কার্ভ এডিটর সুবিধা ব্যবহারের সুযোগ। উইন্ডোজ এক্সপি, ভিস্তা ও ৭-এর পাশাপাশি লিনাক্স ও অ্যাপলের ওএস এক্স অপারেটিং সিস্টেমেও এটি ব্যবহার করা যায়। এখান থেকে পিন্টা ডাউনলোড করা যাবে।

চাসিস ড্র আইইএসঃ

সফটওয়্যারটি মূলত ড্রইং, পেইন্টিং, ফটো এডিটর প্রোগ্রাম, ইমেজ ভিউয়ার, র এডিটর ও কনভার্সন টুল হিসেবে সহজেই ছবি সম্পাদনার সুযোগ দিয়ে থাকে।

ডাউনলোড করতে পারবেন এই লিঙ্ক থেকে।

পেইন্টডটনেটঃ

দ্রুত ছবি সম্পাদনার জন্য এতে আছে লেয়ার, লেভেল ও কার্ভ নামের তিন সুবিধা।

সফটওয়্যারটি এই লিঙ্ক  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ফটোগ্রাফিকসঃ

ফটোগ্রাফিকস দিয়ে ছবি সম্পাদনার প্রায় সব কাজই করা যায়। বেশ কিছু ইফেক্টস ব্যবহার করা যাবে। উইন্ডোজ এক্সপি, ভিস্তা ও ৭ অপারেটিং সিস্টেমে কাজ করা সফটওয়্যারটি এখান  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ভার্চুয়াল স্টুডিওঃ

রাতে ছবি উঠানোর সময় আকাশে চাঁদ নেই তো কী হয়েছে? ভার্চুয়াল স্টুডিওর মধ্যে থাকা মুনলাইট ইফেক্ট ব্যবহার করে ঠিকই প্রিয় মুহূর্তের সে ছবিতে চাঁদের আলো ব্যবহার করা যাবে।

সফটওয়্যারটি এখান থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ফটোস্কেপঃ

ছবি সম্পাদনার পাশাপাশি ছবিতে বিভিন্ন ইফেক্ট ব্যবহারে জুড়ি নেই ফটোস্কেপের।

সফটওয়্যারটি এখান  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ফটো-পোস-প্রোঃ

একবার যে কাজ করবেন সেই কাজের ধারা সংরক্ষণ করা যাবে।

এখান  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ফটোফিল্টঃ

সহজে ও দ্রুত ছবি সম্পাদনার জন্য বিল্ট-ইন ইমেজ এক্সপ্লোরার ছাড়াও সফটওয়্যারটিতে রয়েছে ফাইল নেভিগেশন, পেইন্টিংসহ বিভিন্ন সুবিধা।

সফটওয়্যারটি এখান  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

তথ্য সুত্ত্রঃ কালেরকণ্ঠ

আশা করি ছবি এডিট করতে আপনারা আর সমস্যায়  পড়বেন না।

Level 0

আমি আইটি সরদার। Web Programmer, iCode বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 261 টি টিউন ও 1750 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 22 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি ইমরান তপু সরদার (আইটি সরদার),পড়াশুনা শেষ করছি কম্পিউটার প্রযুক্তিতে (২০১৮); পেশা প্রোগ্রামার। লেখালেখি করি নেশা থেকে ফেব্রুয়ারি ২০১৩ থেকে। লেখালেখির প্রতি শৈশব থেকেই কেন জানি অন্যরকম একটা মমতা কাজ করে। আর প্রযুক্তি সেটা তো একাডেমিকভাবেই রক্তে মিশিয়ে দিয়েছে। ফলস্বরুপ এখন আমার ধ্যান, জ্ঞান, নেশা সবকিছু প্রোগ্রামিং এবং লেখালেখি নিয়ে।...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

valona

গিম্প টা ভালো। ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

    @জুবায়ের আহমেদ: ধন্যবাদ ভাই। বাকীগুলাও খুব খারাপ না, ব্যবহার করে দেখবেন। তবে গিম্পটা অনেক ভালো।

http://www.sumopaint.com/home/#app
ভাই দেখেন তো কেমন?ছোট খাট কাজগুলো আমি এখান থেকেই সারার চেষ্টা করি।

    @প্রবাসী: ভাই দারুন। ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড বদলান যাই এমন কিছু আছে,ফটোশপ বাদে ?

ধন্যবাদ।

ফটো-পোস-প্রো টা বহুদিন ধরে Use করি ,এককথয় দারুন ।