[পর্ব-২৮] :: এই মুহূর্তে বাজারের সেরা ভিডিও এডিটিং মাদারবোর্ড গুলো

টিউন বিভাগ পিসি বিল্ডিং
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 34
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

এই মুহূর্তে বাজারের সেরা

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে। আপনি ভিডিও এডিটে স্লো রেন্ডার স্পীডে বিরক্ত হয়ে গেছেন? তাহলে এই টিউনটি বিশেষ করে আপনার জন্য।

আসলে ভিডিও এডিটিং তখনই মাথা ব্যথার কারণ হয় যখন আপনার মাদারবোর্ড আপনার ক্রিয়েটিভিটি এফোর্ট করতে পারে না। আজকের এই টিউনে আমরা আপনার চাহিদা অনুযায়ী এডিটিং এর জন্য সেরা মাদারবোর্ড কোনটি হতে পারে সেটা জানব। সাজেশন দেবে সব এক্সপার্টরা। আপনি উপযুক্ত তথ্য উপাত্ত পেয়ে যাবেন ফলে ডিসিশন নিতে পারবেন আপনার কাজের জন্য কোন মাদারবোর্ডটি উপযুক্ত হবে।

তো বেশি কথা না বাড়িয়ে একে একে আমাদের সব গুলো মাদারবোর্ড দেখে নেয়া যাক,

১. বেস্ট ওভারঅল : ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero

আপনি যদি আপনার এডিটিংকে সম্পূর্ণ নতুন লেভেলে নিয়ে যেতে চান তাহলে আপনাকে সাজেস্ট করতে পারি ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero। নামের মতই হবে এর কাজ। টপ নচ পারফরম্যান্স এবং রিলাইবিলিটির কথা চিন্তা করে এই ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero মাদারবোর্ড ডিজাইন করা হয়েছে।

ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero মাদারবোর্ডে আপনি পাবেন ১২৮ জিবি DDR4 ম্যাক্সিমাম RAM যার ফলে আপনি বড় ভিডিও নিয়ে কাজ করতে পারবেন এবং রয়েছে প্রো লেভেলে মাল্টিটাস্কিং এর সুবিধা। এর রয়েছে 2nd এবং 3rd Gen AMD Ryzen প্রসেসর কম্পিটিবল একটি AMD AM4 সকেট।

হিট সমস্যা নিয়ে ভাবতে হবে না। ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero মাদারবোর্ডটিতে পাবেন কম্প্রিহেনসিভ থার্মাল ডিজাইন যাতে থাকবে একটি একটিভ PCH হিটসিংক, M.2 এলুমিনিয়াম হিট সিংক এবং, ROG কোলিং জোন। ব্যাপক চাপের মধ্যেও এটি আপনার সিস্টেমকে কুল রাখতে পারবে।

কানেক্টিভিটির কথা বলতে গেলে, এতে আছে অনবোর্ড Wi-Fi 6 (802.11ax), 2.5 Gbps Ethernet, এবং Gigabit Ethernet যার মাধ্যমে আপনি পাবেন দ্রুত গতির ভিডিও শেয়ার অভিজ্ঞতা। ক্লাইন্ট ও ফ্রেন্ডদের মধ্যে দ্রুত গতিতে ফাইল পাঠাতে পারবেন। সাথে আরও পাবেন NVMe SSD RAID এর সাথে Dual PCIe 4.0 M.2 স্লট সাপোর্ট।

সেরা পারফরম্যান্স বিবেচনায় এই ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero মাদারবোর্ডটি অপ্রতিদ্বন্দ্বী, তবে দামের দিক থেকে একটু বেশি। আপনার বাজেট কম হলে আপনার জন্য  অপশন রয়েছে তবে দামের তুলনায় আপনার বেস্ট ভ্যালু পাবেন এখানে। এর মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৮১ ডলার।

সুবিধা

  • ফুল ফিচারড মাদারবোর্ড
  • 2133MHz মেমোরি স্পীড
  • দুর্দান্ত কোলিং সিস্টেম
  • ম্যাচিউর চিপসেট

অসুবিধা

  • DDR5 এর মত টেকনোলজি নেই

ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero

২. সেরা মিনি ITX মাদারবোর্ড : GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus

ভিডিও এডিটিং প্রফেশনালদের জন্য বেস্ট রানার্স আপ মাদারবোর্ড হচ্ছে GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus। এই মাদারবোর্ডে রাখা হয়েছে ল্যাটেস্ট ইন্টেলের LGA 1700 সকেট যা 12th Gen Intel Core প্রসেসর গুলোতে সাপোর্ট করে। এটি জটিল জটিল এডিটিং এর ক্ষেত্রেও CPU এর সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে সাহায্য করে।

মেমোরির দিকে আসলে GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus মাদারবোর্ডটিতে আছে ডুয়েল চ্যানেল non-ECC আনবাফারড DDR4 RAM, যার ম্যাক্সিমাম ক্যাপাসিটি ৬৪ জিবি এবং স্পীড আপ টু 5333MHz। এটি কোন ধরনের ঝামেলা ছাড়াই রিসোর্স ইন্টেন্সিভ সফটওয়্যার রান করতে পারে যেখানে রেন্ডার টাইম কম থাকে এবং পারফরম্যান্স হয় স্মুথ।

মাদারবোর্ডটির 10+2+1 Phases Digital VRM সলিউশন সাথে 105A Power Stage স্ট্যাবল পাওয়ার ডেলিভারি নিশ্চিত করে। বেশি পাওয়ার দরকার এমন টাস্ক গুলোর ক্ষেত্রে চাহিদা মত পাওয়ার সাপ্লাই করতে পারে। কোলিং এর ক্ষেত্রে রাখা হয়েছে এডভান্সড থার্মাল ডিজাইন যাতে থাকবে Fins Array II এবং Thermal Guards III। দীর্ঘ সময় এডিটিং এর ক্ষেত্রে এটি পিসিকে কুল রাখতে সহায়তা করবে।

কানেক্টিভিটির দিক থেকে এই GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus মাদারবোর্ড এগিয়ে থাকবে এতে রয়েছে, PCIe 5.0, dual NVMe PCIe 4.0 x4 M.2 স্লট, এবং USB 3.2 Gen 2×2 Type-C যা দ্রুত ফাইল ট্রান্সফার নিশ্চিত করবে। আরও আছে Intel WiFi 6 এবং 2.5GbE LAN যা দেবে নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি অভিজ্ঞতা।

GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus এর একটি অসুবিধা হল এর মিনি ITX ফর্ম ফ্যাক্টর। যাতে এক্সপানশন অপশনে লিমিটেশন রয়েছে। তবে অনেক এডিটরের কাছে এটা পর্যাপ্ত হতে পারে। এক কথায় বলতে গেলে পাওয়ারফুল পারফরম্যান্স, হাই স্পীড কানেক্টিভিটি, এবং এডভান্সড থার্মাল ডিজাইনের জন্য GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus সেরা একটি মাদারবোর্ড।

মাদারবোর্ডটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে, ২৯২.২০ ডলার

সুবিধা

  • 12th Gen Intel Core প্রসেসর সাপোর্ট
  • এডভান্সড থার্মাল ডিজাইন
  • Next-gen কানেক্টিভিটি অপশন
  • ফাস্ট নেটওয়ার্কিং

অসুবিধা

  • Mini ITX ফর্ম ফ্যাক্টর যাতে এক্সপানশনের সুযোগ কম

GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus

৩. বিগিনারদের জন্য সেরা ASRock X570 Phantom Gaming-ITX

আপনি যদি এ ভিডিও এডিটিং জগতের নতুন হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য সেরা অপশন হতে পারে ASRock X570 Phantom Gaming-ITX। এটা নতুনদের জন্য টপ নচ একটি মাদারবোর্ড। ASRock X570 Phantom Gaming-ITX, AMD AM4 সকেট যেমন, Ryzen 2000, 3000, 4000 G-Series, 5000, and 5000 G-Series প্রসেসর সাপোর্ট করে। এর DDR4 মেমোরি টেকনোলজি আপটু 4533+ MHz পর্যন্ত মেমোরি স্পীড দিতে পারে।

কানেক্টিভিটি হিসেবে এই মাদারবোর্ডে পাবেন, Intel Wi-Fi 6 802.11ax (2.4Gbps) এবং Bluetooth 5.2। Intel Gigabit ল্যান নিশ্চিত করবে দ্রুত ফাইল শেয়ারিং অভিজ্ঞতা।

ASRock X570 Phantom Gaming-ITX মাদারবোর্ডের সম্ভাব্য একটি অসুবিধা হচ্ছে 64 GB RAM লিমিট। বড় প্রজেক্টের ক্ষেত্রে এটা কিছুটা সমস্যা তৈরি করতে পারে। তবে নতুনদের জন্য এটা যথেষ্ট হতে পারে।

হাই রেজুলেশন ফুটেজ নিয় কাজ করার জন্য রয়েছে বিল্ড-ইন Thunderbolt 3 Type-C পোর্ট। সহজেই আপনি হাই রেজুলেশন ভিডিও আদানপ্রদান করতে পারবেন।

Mini ITX এই মাদারবোর্ডে পাবেন একটি PCIe 4.0 x16 স্লট, চারটি SATA3 কানেকশন, এবং স্টোরেজ এক্সপানশনের জন্য একটি Hyper M.2 (PCIe Gen4 x4)। এই মাদার বোর্ডে টপনচ অডিও এর জন্য দেয়া হয়েছে, Realtek ALC1220 audio codec এবং Creative Sound Blaster Cinema 5।

সব মিলিয়ে বলা যায় নতুনদের মাদারবোর্ড হিসেবে ASRock X570 Phantom Gaming-ITX উপযুক্ত। এই মাদারবোর্ডটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে, ৩৪৯ ডলার।

সুবিধা

  • AMD Ryzen প্রসেসরের দারুণ কম্পিটিবিলিটি
  • Thunderbolt 3 Type-C পোর্টের হাই কানেক্টিভিটি
  • দারুণ অডিও এর জন্য Creative Sound Blaster Cinema 5 সাপোর্ট

অসুবিধা

  • 64 GB RAM লিমিট বড় প্রজেক্টের জন্য উপযুক্ত নয়
  • Mini ITX ফর্ম ফ্যাক্টর হিসেবে পরবর্তী আপগ্রেডের ব্যবস্থা নেই

ASRock X570 Phantom Gaming-ITX

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ ASRock X570 Phantom Gaming-ITX

৪. বেস্ট কোলিং হিসেবে : ASUS TUF Z390-Plus

বড় প্রজেক্টে কাজ করার সময় পিসি অতিরিক্ত গরম হয়ে পারফরম্যান্স স্লো হয়ে যাচ্ছে? আপনার জন্য রয়েছে বেস্ট কোলিং অপশন, ASUS TUF Z390-Plus। এর দুর্দান্ত কোলিং সিস্টেম আপনার নিরবচ্ছিন্ন এডিটিং নিশ্চিত করবে।

ASUS TUF Z390-Plus সাপোর্ট করবে 9th এবং 8th জেনারেশন Intel Core প্রসেসর। কানেক্টিভিটি হিসেবে দেয়া হয়েছে Dual M.2, Gigabit LAN, এবং USB 3.1 Gen2 পোর্ট। মাদারবোর্ডটিতে দেয়া হয়েছে মিলিটারি গ্রেড TUF কম্পোনেন্ট যা এর স্থায়িত্ব নিশ্চিত করে নিরবচ্ছিন্ন পাওয়ার ডেলিভারি করবে।

TUF Z390-Plus এ আপনি পাবেন ফ্লেক্সিবল কোলিং কন্ট্রোল পাবেন S Fan Xpert 4 এবং UEFI BIOS। সুতরাং আপনি ঘণ্টার পর ঘণ্টা এডিট করলেও আপনার সিস্টেম থাকবে কুল।

অডিও হিসেবে মাদারবোর্ডটিতে দেয়া আছে ৮ চ্যানেল HD gaming audio, TUF Gaming Headphone সাথে Realtek S1200A হাই ডেফিনিশন Audio codec। ভিডিও এডিটের সময় নিতে পারবেন দারুণ মিউজিক এক্সপেরিয়েন্স। চোখের শান্তির জন্য মাদারবোর্ডে দেয়া হয়েছে ASUS Aura Sync লাইটিং।

মাদারবোর্ডটিতে ছোট একটি সমস্যা রয়েছে, এখানে আপনি শুধু মাত্র একটি USB 2.0 পোর্ট পাবেন। এটা নিয়ে চিন্তার কোন কারণ নাই একটি USB হাব অথবা USB 3.1 আপনার এই সমস্যার সমাধান করে দিতে পারে।

সংক্ষেপে বলতে গেলে ASUS TUF Z390-Plus আপনাকে দিতে পারে, দুর্দান্ত কোলিং সিস্টেম এবং ASUS OptiMem II এর সাথে দারুণ এডিটিং অভিজ্ঞতা। মাদারবোর্ডটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৬১ ডলার।

সুবিধা

  • 9th এবং 8th জেনারেশন Intel Core প্রসেসরের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে
  • মিলিটারি গ্রেড TUF কম্পোনেন্ট দিবে ডিউরেবিলিটি ও স্ট্যাবিলিটি নিশ্চয়তা
  • Xpert 4 ফ্যান সাথে 8 Channel HD Gaming Audio

অসুবিধা

  • লিমিটেড USB 2.0 পোর্ট
  • 1000MHz পর্যন্ত মেমোরি স্পীড

ASUS TUF Z390-Plus

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ ASUS TUF Z390-Plus

৫. বেস্ট পারফরম্যান্স - MSI MPG X570S Carbon EK X

আপনার বাজেট যদি ডিসেন্ট হয় এবং সর্বোচ্চ পারফরম্যান্সটি আপনি চান তাহলে নিতে পারে MSI MPG X570S Carbon EK X। পাওয়ার হাউজ এই মাদারবোর্ডে আপনি পাবেন সেরা পারফরম্যান্স, স্টাইল এবং দুর্দান্ত কোলিং সিস্টেম।

মাদারবোর্ডটি AMD Ryzen প্রসেসর সাপোর্ট করবে, রাখা হয়েছে AMD 570X চিপসেট এবং AM4 সকেট। মাদারবোর্ডটির ডুয়েল চ্যানেল DDR4 মেমোরিতে ৫৩০০ MHz (OC) পর্যন্ত স্পীড সাপোর্ট করবে। ম্যাসিভ ভিডিও ফাইল গুলোও এটি সুন্দরমত ম্যানেজ করতে পারবে।

ক্যানেক্টিভি হিসেবে আছে Lightning Gen 4 x4 M.2 এবং USB 3.2 Gen 2, যা দ্রুত গতির ডেটা ট্রান্সফার নিশ্চিত করবে। M.2 SHIELD FROZR আপনার SSD এর পিক পারফরম্যান্স নিশ্চিত করে এটিকে রাখবে সুপার কুল। দারুণ ব্যাপার হচ্ছে এই মাদারবোর্ডে দেয়া আছে কাস্টম ডিজাইন EK মনোব্লক যা CPU এবং VRM পাওয়ার ডেলিভারি সেকশনকে কুল রাখবে। দীর্ঘ সময় ধীরে কাজ করলেও আপনার পিসি গরম হয়ে পারফরম্যান্স ড্রপ করবে না এবং ফ্যানে কোন নয়েজ পাবেন না।

এই মাদারবোর্ডের অসুবিধা হচ্ছে এখানে আপ টু ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি সাপোর্ট করে। এটা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এডিটিং এর জন্য যথেষ্ট হলেও আপনি যদি আলট্রা হাই রেজুলেশন ফুটেজ অথবা 3D এনিমেশন নিয়ে কাজ করতে চান তাহলে কিছুটা লিমিটেশন ফিল করতে পারেন। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ৬৪ জিবি এডিটিং এর জন্য যথেষ্ট

ল্যাটেস্ট AMD প্রসেসর, হাই স্পীড মেমোরি, আউটস্ট্যান্ডিং কোলিং ভিডিও এডিটরদের জন্য গেম চেঞ্জার হতে পারে। মাদারবোর্ডটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৮৯ ডলার।

সুবিধা

  • অসংখ্য AMD Ryzen প্রসেসরে সাপোর্ট করবে
  • আপ টু ৫৩০০ MHz (OC) স্পীডে DDR4 সাপোর্ট করে
  • Custom EK মনোব্লক, নিশ্চিত করবে সেরা CPU এবং VRM কোলিং
  • Lightning Gen 4 x4 M.2 এবং USB 3.2 Gen 2 সাপোর্ট করে

অসুবিধা

  • ৬৪ জিবি র‍্যাম লিমিট হাই এন্ড ভিডিও প্রজেক্টকে লিমিট করতে পারে।

MSI MPG X570S Carbon EK X

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ MSI MPG X570S Carbon EK X

৬. ফাস্ট মেমোরি স্পীড - MSI MPG Z790I Edge

কয়েক সেকেন্ডে হ্যাভি ফাইল এক্সেস করতে চান আপনার জন্য সেরা হতে পারে MSI MPG Z790I Edge। এটি আপনার কাজকে করবে আরও স্মুথ, ফাস্ট, এবং এফিসিয়েন্ট।

মাদারবোর্ডটি Intel Z790 chipset, এবং LGA 1700 CPU সকেটের সাথে 12th এবং 13th Gen Intel Core, Pentium Gold, Celeron প্রসেসর সাপোর্ট করবে। এটি DDR5 মেমোরিতে আপটু 8000+ MHz (OC) পর্যন্ত স্পীড দিতে পারে। কমপ্লেক্স কাজ গুলোও দ্রুত করে ফেলতে সাহায্য করবে মাদারবোর্ডটি।

MSI MPG Z790I Edge এসেছে দারুণ সব ফিচার নিয়ে যা ভিডিও এডিটিং এর জন্য এটিকে আপনি সেরা পছন্দ হিসেবে রাখতে পারেন। মাদারবোর্ডটির রয়েছে PCIe 5.0 স্লট, Lightning Gen 4 x4 M.2, এবং USB 3.2 Gen 2×2 ফাস্ট ডেটা ট্রান্সফার সুবিধা। পাওয়ার বুস্টের জন্য দেয়া হয়েছে ডিরেক্ট 10+1+1 পর্যায়ক্রমিক পাওয়ার, কোর বুস্ট, মেমোরি বুস্ট।

এই পর্যায়ে থার্মাল সলিউশন নিয়ে কথা বলা যাক, MSI MPG Z790I Edge এ আছে হিট পাইপের সাথে বড় হিটসিংক, 7W/mk রেটেড MOSFET থার্মাল প্যাড, অতিরিক্ত থার্মাল প্যাড এবং M.2 Shield Frozr। মাদারবোর্ডটির এই থার্মাল সিস্টেম নিরবচ্ছিন্ন ভিডিও এডিট নিশ্চিত করবে।

মাদারবোর্ডটির নেগেটিভ দিক হচ্ছে এতে মাত্র দুটি মেমোরি স্লট রয়েছে এবং ম্যাক্সিমাম র‍্যাম ক্যাপাসিটি ৬৪ জিবি। অধিকাংশ ভিডিও এর ক্ষেত্রে এটা যথেষ্ট হলেও হ্যাভি ফাইলের ক্ষেত্রে কিছু লিমিটেশন থাকতে পারে। এর DDR5 মেমোরি স্পীডও আরও ভাল উচিৎ ছিল কিছু ক্ষেত্রে।

সংক্ষেপে MSI MPG Z790I Edge মাদারবোর্ডটি তাদের জন্য উপযুক্ত হতে পারে যারা ফাস্ট মেমোরি স্পীড এবং টপ নচ পারফরম্যান্স চান। মাদারবোর্ডটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫০ ডলার।

সুবিধা

  • DDR5 মেমোরি আপ টু 8000+ MHz (OC) স্পীড সাপোর্ট করে
  • PCIe 5.0 slots, Lightning Gen 4 x4 M.2, এবং USB 3.2 Gen 2×2 ফাস্ট ডাটা ট্রান্সফার নিশ্চিত করে
  • সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স এর জন্য সেরা পাওয়ার ডিজাইন
  • সিস্টেম কুল ও স্ট্যাবল থাকার জন্য প্রিমিয়াম কোলিং ফিচার

অসুবিধা

  • মাত্র দুটি মেমোরি স্লট
  • RGB লাইটিং নেই

MSI MPG Z790I Edge

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ MSI MPG Z790I Edge

৭. সেরা RAM সাইজ - MSI MAG Z590 Tomahawk

আপনি যদি আলট্রা হাই রেজুলেশন ফুটেজ ও 3D এনিমেশন নিয়ে কাজ করতে চান তাহলে আপনার জন্য সেরা মাদারবোর্ড হতে পারে MSI MAG Z590 Tomahawk। এটা সত্যিই গেম চেঞ্জার, চলুন দেখে নেয়া যাক কী কী পাচ্ছেন এই মাদারবোর্ডে।

প্রথমত মাদারবোর্ড ওয়ার্ল্ডে এটিকে আপনি সুপারহিরো ভাবতে পারেন যা 11th এবং 10th উভয় জেনারেশন Intel Core প্রসেসর সাপোর্ট করে। এর 128 GB ম্যাক্স মেমোরি সাইজ ও DDR4 মেমোরি আপটু 5333 MHz (OC) স্পীড নিশ্চিত করে যা আপনাকে দেবে স্মুথ এডিটিং।

মাদারবোর্ডটিতে আছে Lightning Gen4, Turbo Gen3 M.2 স্লট, PCIe 4.0 x16 এবং 2.5G LAN কানেক্টিভিটি, যা স্লো ট্রান্সফারকে টাটা দিয়ে প্রোডাক্টিভিটি বৃদ্ধি করবে।

থার্মাল সলিউশন হিসেবে মাদারবোর্ডটিতে রাখা হয়েছে এক্সটেনডেট হিটসিংক ডিজাইন, এবং M.2 Shield Frozr। হ্যাভি এডিটিং এর পুরোটা সময় এটি থাকবে দারুণ কুল।

সব মাদারবোর্ডের মত এখানেও অসুবিধা থাকবে এটা স্বাভাবিক, মাদারবোর্ডটিতে ওভারক্লক করা হলে VRM গুলো কিছুটা গরম হয়ে যায় যা পারফরম্যান্স কিছুটা কমিয়ে দিতে পারে।

সংক্ষেপে বলতে গেলে MSI MAG Z590 Tomahawk একটি চমৎকার মাদারবোর্ড যাতে পাওয়া যাবে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স, হাই স্পীড কানেক্টিভিটি, এফিসিয়েন্ট কানেক্টিভিটি। কিছু অসুবিধা থাকলেও, সুবিধা গুলোর তুলনায় সেটা তেমন কিছু না। মাদারবোর্ডটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪৮ ডলারের মত।

সুবিধা

  • 11th এবং 10th Gen Intel Core প্রসেসর সাপোর্ট করে
  • হাই স্পীড DDR4 মেমোরি (আপটু 5333 MHz OC)
  • দারুণ থার্মাল সলিউশন
  • ফাস্ট কানেক্টিভিটি

অসুবিধা

  • ওভারক্লক করা হলে VRM এ হিট ইস্যু
  • RAM স্লটে অপর্যাপ্ত নিরাপত্তা

MSI MAG Z590 Tomahawk

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ MSI MAG Z590 Tomahawk

৮. বেস্ট মিড লেভেল পারফরম্যান্স - ASUS Prime H610M-A

মিড লেভেলের বাজেটের মধ্যে আপনি যদি সেরা ভিডিও এডিট অভিজ্ঞতা পেতে চান তাহলে আপনার জন্য রয়েছে ASUS Prime H610M-A।

Prime H610M-A আছে LGA 1700 সকেট যা 12th Gen Intel Core, Pentium Gold, এবং Celeron প্রসেসর গুলোতে সাপোর্ট করবে। DDR4 মেমোরি আপটু 2133 MHz স্পীড সাপোর্ট করে, RAM ক্যাপাসিটি ৬৪ জিবি।

মাদারবোর্ডটিতে পাবেন কানেক্টিভিটি হিসবে PCIe 4.0, Intel 1 Gb Ethernet, রেয়ারে USB 3.2 Gen 2 Type-A, সামনে USB 3.2 Gen 1 হেডার। কানেক্টিভিটি অপশন গুলো দ্রুত গতির ফাইল শেয়ার নিশ্চিত করবে।

মাদারবোর্ডটির একটি স্মার্ট ফিচার হচ্ছে ASUS এর সেলফ রিকোভারিং BIOS টেকনোলজি। এটি আপনার তথ্যের ব্যাক রাখতে সাহায্য করবে। একই সাথে ASUS Corporate Stable Model (CSM) নিশ্চিত করবে ৩৬ মাস সাপ্লাই, EOL নোটিশ, এবং ECN কন্ট্রোল।

মাদারবোর্ডটির ছোট একটি নেগেটিভ দিক হচ্ছে, i9-12900K প্রসেসরের ক্ষেত্রে মাল্টিথ্রেড লোডের ক্ষেত্রে কিছু Throttling ইস্যু দেখা দিতে পারে।

সব মিলিয়ে বলা যায় দাম বিবেচনায়, ভাল ভিডিও এডিটিং এর জন্য ASUS Prime H610M-A একটি ডিসেন্ট চয়েস হতে পারে। মাদারবোর্ডটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে, ১০৯ ডলার।

সুবিধা

  • 12th Gen Intel Core, Pentium Gold, এবং Celeron প্রসেসর কম্পিটিবিলিটি
  • ফাস্ট কানেক্টিভিটি
  • Self Recovering BIOS টেকনোলজি
  • ASUS Corporate Stable Model (CSM)

অসুবিধা

  • i9-12900K প্রসেসরে মাল্টিথ্রেডের ক্ষেত্রে Throttling ইস্যু

ASUS Prime H610M-A

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ ASUS Prime H610M-A

৯. বেস্ট প্রটেকশন ফিচার - ASUS Prime B550-PLUS AMD

আপনি যদি এমন মাদারবোর্ড খুঁজতে থাকেন যা আপনার ক্রিয়েটিভ চাহিদা পূরণ করতে পারবে তাহলে আপনার জন্য সেরা হতে পারে ASUS Prime B550-PLUS AMD। এই পাওয়ারফুল মাদারবোর্ডকে ডিজাইন করা হয়েছে আপনার কাজকে সাপোর্ট এবং প্রোটেক্ট করতে। আপনার ভিডিও এর নিরাপত্তা যখন নিশ্চিত হবে তখন আপনি সহজেই ক্রিয়েটিভ কন্টেন্ট ক্রিয়েশনে মনোনিবেশ করতে পারবেন।

AM4 সকেটের মাধ্যমে 3rd Gen Ryzen প্রসেসর সাপোর্ট করবে। PCIe 4.0 এবং 1Gb LAN এর মাধ্যমে এটি নিশ্চিত করবে নেক্সট জেনারেশন স্পীড। এর DDR4 মেমোরি দেবে আপটু 4400 MHz স্পীড। মাদারবোর্ডটির র‍্যাম ক্যাপাসিটি ১২৮ জিবি যা বড় প্রজেক্ট ম্যানেজ করতে সাহায্য করবে।

যদি ASUS Prime B550-PLUS AMD প্রটেকশন নিয়ে কথা বলি, মাদারবোর্ডটিতে পাবেন LANGuard এর সাথে 5X Protection III যা আপনাকে দেবে অলরাউন্ড সেফগার্ড, DRAM ওভারকারেন্ট প্রটেকশন, ওভার ভোল্টেজ প্রটেকশন, SafeSlot Core, এবং স্টেইনলেস স্টিল ব্যাক I/O। পুরো এডিটিং সেশনে আপনি পাবেন সেইফ একটা এনভায়রনমেন্ট।

Prime B550-PLUS মাদারবোর্ডের কোলিং অপশনটিও দারুণ। মাদারবোর্ডটিতে আছে একটি VRM হিটসিংক, চিপসেট হিটসিংক, হাইব্রিড ফ্যান হেডার, এবং Fan Xpert 2 ইউটিলিটি। সব কিছু মিলিয়ে আপনি এই মাদারবোর্ডে পাবেন দারুণ কুলিং এনভায়রনমেন্ট।

কানেক্টিভিটিতে আছে ডুয়েল M.2 স্লট (একটি PCIe 4.0 x4), USB 3.2 Gen 2 Type-A, HDMI 2.1, DisplayPort 1.2, এবং Thunderbolt 3 হেডার। সুতরাং ফাইল ট্রান্সফার এবং ডেটা হেন্ডেলিং হবে দারুণ স্মুথ।

মাদারবোর্ডটির সম্ভাব্য নেগেটিভ দিক হতে পারে, এটি স্পেসিফিক ভাবে AMD প্রসেসরের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যার ফলে ইন্টেল বেসড সিস্টেমে মাদারবোর্ডটি সাপোর্ট করবে না। মাদারবোর্ডটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১২৯ ডলার।

সুবিধা

  • 3rd Gen AMD Ryzen প্রসেসরের সাথে কম্পিটিবল
  • 128 GB RAM ক্যাপাসিটি এবং DDR4 মেমোরি সাপোর্ট
  • সিস্টেম সেফটির জন্য 5X Protection III
  • দারুণ কোলিং অপশন
  • Thunderbolt 3 সাপোর্টের সাথে আলট্রা ফাস্ট কানেক্টিভিটি

অসুবিধা

  • লিমিটেড AMD প্রসেসরে সাপোর্ট করে, ইন্টেলের সাথেও কম্পিটিবল নয়
  • লো এমাউন্ট VRM

ASUS Prime B550-PLUS AMD

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ ASUS Prime B550-PLUS AMD

১০. সেরা সাশ্রয়ী - MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen

আপনার বাজেট যদি টাইট থাকে এবং সাশ্রয়ী কোন অপশন খুঁজেন তাহলে আপনার জন্য সেরা হতে পারে, MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen। এই মাদারবোর্ডটি 1st, 2nd, and 3rd Gen AMD Ryzen প্রসেসরের সাথে কম্পিটিবল। এর এক্সটেনডেট হিট সিংক আপনার সিস্টেমকে কুল রাখতে সাহায্য করবে।

MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen মাদারবোর্ড সাপোর্ট করবে DDR4 মেমোরি যা দেবে আপটু 2133 MHz স্পীড। প্রো লেভেলে মাল্টিপল প্রজেক্ট আপনি রান কর‍তে পারবেন এই মাদারবোর্ডটি দিয়ে। মাদারবোর্ডটিতে কানেক্টিভিটি হিসেবে আরও পাবেন 1x Turbo M.2, AMD Turbo USB 3.2 Gen2, এবং StoreMI টেকনোলজি যা দ্রুত ফাইল শেয়ারিং নিশ্চিত করবে।

MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen মাদারবোর্ডটির নেগেটিভ দিক হচ্ছে এর 2133 MHz মেমোরি স্পীড আপনার জন্য পর্যাপ্ত নাও হতে পারে। তবে ওভারক্লকিং এর মাধ্যমে আপনি চাইলে এক্সট্রা স্পীড বুস্ট করতে পারেন।

সুতরাং বলা যায় টাইট বাজেটে বা সাশ্রয়ী মূল্যে এডিট জার্নি সহজ করতে পারে এই MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen মাদারবোর্ডটি। এটি বিভিন্ন AMD Ryzen প্রসেসরে সাপোর্ট করার পাশাপাশি, এর দারুণ হিট সিংক ডিজাইন আপনার সিস্টেমকে রাখবে কুল, দ্রুত ফাইল শেয়ারিং বাড়িয়ে তুলবে প্রোডাক্টিভিটি। MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen মাদারবোর্ডটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২১৮ ডলার।

সুবিধা

  • সাশ্রয়ী কিন্তু পাওয়ারফুল
  • দারুণ এক্সটেনডেট হিট সিংক ডিজাইন
  • বিভিন্ন AMD Ryzen প্রসেসর সাপোর্ট

অসুবিধা

  • মেমোরি স্পীড 2133 MHz এ লিমিট যা কিছু ইউজারদের জন্য স্লো হতে পারে
  • SLI সাপোর্ট নাই

MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen

অফিশিয়াল ওয়েবসাইট @ MSI Arsenal Gaming AMD Ryzen

ভিডিও এডিটিং এ জন্য সেরা মাদারবোর্ড

উপরে সেরা মাদারবোর্ড গুলো নিয়ে আলোচনা করলাম, এবার আপনি সিদ্ধান্ত নেবেন কোন মাদারবোর্ডটি আপনার জন্য উপযুক্ত। আপনার সিদ্ধান্ত নেয়াকে সহজ করে দিতে এই অংশটি।

CPU কম্পিটিবিলিটি এবং পারফরম্যান্স

এমন একটি মাদারবোর্ড সিলেক্ট করা জরুরী যা হাই পারফরম্যান্স CPU গুলো সাপোর্ট করে। হাই পারফরম্যান্স CPU এর জন্য ভাল হতে পারে 12th Gen Intel Core প্রসেসরের সাথে GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus অথবা AMD Ryzen এর সাথে ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero।

এই প্রসেসর গুলো রেডারিং এবং রিয়েল টাইম প্রিভিউয়ের জন্য সেরা। একই সাথে CPU সকেট ও মাদারবোর্ড চিপসেট কম্পিটিবিলিটিও বিবেচনা করতে হবে মাদারবোর্ড বাছাইয়ের ক্ষেত্রে।

RAM ক্যাপাসিটি ও স্পীড

ভিডিও এডিটিং এ বড় ফাইল নিয়ে কাজ করতে পর্যাপ্ত পরিমাণ RAM এর প্রয়োজন হয় যাতে স্মুথ ভাবে এডিটিং করা যায়। এমন একটি মাদারবোর্ড আপনার বাছাই করা উচিৎ যাতে কমপক্ষে ৩২ জিবি থেকে ১২৮ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম থাকে যেমন, ASRock X570 Phantom Gaming-ITX অথবা MSI MAG Z590 Tomahawk.

RAM এর স্পীডও যেন ঠিক আছে সে দিকেও নজর দিতে হবে। সেক্ষেত্রে ভাল হতে পারে DDR4 3200MHz বা তারও বেশি স্পীডের মেমোরি।

এক্সপানশন স্লট

ভিডিও এডিটরদের সব সময় ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ডের প্রয়োজন হয়, সুতরাং এমন একটি মাদারবোর্ড নির্বাচন করতে হবে যেখানে মাল্টিপল PCIe স্লট থাকবে যেমন MSI MAG Z590 Tomahawk অথবা ASRock X570 Phantom Gaming-ITX।

এক্সপানশন স্লট গুলো আপনাকে পাওয়ারফুল GPU এড করার মাধ্যমে হার্ডওয়্যার এক্সালেরেটেড রেন্ডারিং অফার করবে, PCle বেসড SSD এড করারও ব্যবস্থা করে দেবে।

স্টোরেজ অপশন

ফাস্ট স্টোরেজ সলিউশন ভিডিও এডিটিং এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ যা লোডিং টাইম এবং রেন্ডার টাইম কমাতে সাহায্য করে।

এমন একটি মাদারবোর্ড নির্বাচন করুন যা NVMe SSD, সাপোর্ট করে। NVMe SSD, ট্র্যাডিশনাল SATA ভিত্তিক SSD ও HDDs থেকে দ্রুত ডাটা রিড এবং রাইট করতে পারে। একই সাথে দেখতে হবে মাদারবোর্ডে সেকেন্ডারি ড্রাইভের জন্য পর্যাপ্ত SATA পোর্ট আছে কিনা।

কানেক্টিভিটি অপশন

ভিডিও এডিটিং এর জন্য হাই স্পীড USB এবং Thunderbolt পোর্ট জরুরী। কারণ ভিডিও দ্রুত ডাটা ট্রান্সফারের জন্য হাই স্পীড কানেক্টিভিটি প্রয়োজন হয়। বিভিন্ন ইনপুট ডিভাইসের জন্যও এই পোর্ট গুলো দরকার।

মাদারবোর্ড বাছাইয়ের সময় দেখুন এই পোর্ট গুলো আছে কিনা। একই সাথে HDMI, ও বিভিন্ন ভিডিও পোর্ট থাকা জরুরী যাতে করে মাল্টিপল মনিটর কানেক্ট করা যায়। এমন একটি মাদারবোর্ডের উদাহরণ হতে পারে ASUS Prime B550-PLUS AMD।

কোলিং সলিউশন

ভিডিও এডিটিং এর সময় সিস্টেম হিট হয়ে গেলে পারফরম্যান্সে ব্যাপক প্রভাব পড়তে পারে। এমন একটি মাদারবোর্ড সিলেক্ট করুন যার কোলিং সিস্টেম ভাল থাকবে। ভাল কোলিং সিস্টেমে থাকতে পারে, হাই কোয়ালিটি, VRM হিট সিংক, অতিরিক্ত ফ্যানের জন্য ফ্যান হেডার যেমন, ASUS TUF Z390-Plus।

পারফরম্যান্স স্ট্যাবল রাখতে ভাল মানের থার্মাল সিস্টেম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

বিল্ড ইন অডিও

ভিডিও এডিটিং এ জরুরী না হলেও একুরেট অডিও এডিট এবং মনিটরিং এর জন্য আপনার একটি ডিসেন্ট অডিও প্রয়োজন হবে। এমন একটি মাদারবোর্ড সিলেক্ট করতে পারেন যেখানে হাই কোয়ালিটি কম্পোনেন্ট থাকবে যেমন, আইসোলেট অডিও সার্কিট, প্রিমিয়াম ক্যাপাসিটর। এমন একটি মাদারবোর্ড হতে পারে ASRock X570 Phantom Gaming-ITX

ওভারক্লকিং সাপোর্ট

যদিও সব ভিডিও এডিটরদের ওভারক্লকিং প্রয়োজন হয় না। তবে ওভারক্লকিং ফিচার এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি BIOS সেটিংস আপনার সিস্টেম পারফরম্যান্সকে অপটিমাইজ করতে পারে।

এমন একটি মাদারবোর্ড সিলেক্ট করতে পারেন যাতে ওভারক্লকিং সাপোর্ট করে।

স্ট্যাবিলিটি ও রিলাইবিলিটি

সিস্টেম ক্র‍্যাশ ও ইনস্ট্যাবিলিটির মত সমস্যা আপনার এডিটিং এর ক্ষেত্রে ঝামেলা তৈরি করতে পারে। তাই এমন মাদারবোর্ড নির্বাচন করতে হবে যার ম্যানুফেকচারার সুনামধন্য কোন প্রতিষ্ঠান।

স্ট্যাবিলিটির জন্য দেখুন মাদারবোর্ডে হাই কোয়ালিটি ক্যাপাসিটর, চাঙ্গা PCIe স্লট, এবং শক্তিশালী পাওয়ার সিস্টেম রয়েছে কিনা। স্ট্যাবিলিটির জন্য ভাল হতে পারে ASUS Prime B550-PLUS AMD মাদারবোর্ডটি।

ভবিষ্যতের জন্য মানানসই

আপনার এমন মাদারবোর্ডের পেছনে ইনভেস্ট করা উচিৎ যা ল্যাটেস্ট ইন্ডাস্ট্রি স্ট্যান্ডার্ড ও টেকনোলজি সাপোর্ট করবে। এমন মাদারবোর্ড নির্বাচন করুন যা ভবিষ্যৎ সফটওয়ার এবং হার্ডওয়্যারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে।

PCIe 4.0, USB 3.2, Wi-Fi 6 এই ফিচার গুলো আছে কিনা নিশ্চিত হয়ে নিন। এমন একটি মাদারবোর্ড হতে পারে MSI MAG Z590 Tomahawk অথবা GIGABYTE Z690I AORUS Ultra Plus যা আপনার ওয়ার্ক স্টেশনকে আপ টু ডেট রাখবে।

FAQ

ভিডিও এডিটিং এর জন্য কি ভাল মাদারবোর্ড লাগবে?

হ্যাঁ, ভিডিও এডিটিং এর জন্য ভাল মাদারবোর্ড জরুরি। পিসির পারফরম্যান্স, স্ট্যাবিলিটি, এক্সপান্ডেবিলিটি কেমন হবে তার উপর ভিডিও এডিটিং নির্ভর করে। ভাল একটি মাদারবোর্ড হাই পারফরম্যান্স প্রসেসরের সাথে কম্পিটিবল হবে, পর্যাপ্ত RAM ক্যাপাবিলিটি থাকবে, ফাস্ট স্টোরেজ অপশন থাকবে এবং ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড এড করার ব্যবস্থা থাকবে

Ryzen অথবা Intel ভিডিও এডিটিং এর জন্য কোনটি ভাল?

হোক Ryzen অথবা Intel, ভিডিও এডিটিং এর ক্ষেত্রে উভয়রই শক্তিশালী দিক রয়েছে। AMD Ryzen প্রসেসর মাল্টিকোর পারফরম্যান্স অফার করে যা রেন্ডারিং এবং এনকোডিং এর জন্য বেশ উপকারী। অন্যদিকে সিঙ্গেল কোর পারফরম্যান্সে ইন্টেলও ভাল যা নির্দিষ্ট টাস্ক বা সফটওয়্যারের ক্ষেত্রে বেশ সুবিধাজনক।

ভিডিও এডিটিং এর জন্য কোন প্রসেসর ভাল?

ভিডিও এডিটিং এর জন্য হাই পারফরম্যান্স প্রসেসর যেমন, Intel Core i9 অথবা AMD Ryzen 9 প্রসেসর রেকোমেন্ডেড। এই প্রসেসর গুলো, রেন্ডারিং, রিয়েল টাইম প্রিভিউ, এবং বড় মাপের ফাইল গুলো নিয়ে কাজ করতে বেশ ভাল পারফরম্যান্স দেখাতে পারে। ভিডিও এডিটিং হয় স্মুথ ও নিরবচ্ছিন্ন।

ভিডিও এডিটিং এর জন্য গ্রাফিক্স কার্ড জরুরী?

হ্যাঁ, নিরবচ্ছিন্ন ভিডিও এডিটিং এর জন্য ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড প্রয়োজন। একটি শক্তিশালী গ্রাফিক্স কার্ড রেন্ডারিংকে নেক্সট লেভেলে নিতে পারে, রিয়েল টাইম প্রিভিউ সহ ওভারঅল পারফরম্যান্স উন্নত করতে পারে। বিশেষ করে হাই রেজুলেশন ফুটেজ এবং কমপ্লেক্স ইফেক্ট নিয়ে কাজ করাতে গ্রাফিক্স কার্ড জরুরী। তারপরেও আপনার গ্রাফিক্স কার্ড লাগবে কিনা এটা নির্ভর করে আপনি কী ধরনের কাজ করবেন তার উপর।

শেষ কথা

আশা করছি ভিডিও এডিটিং এ কী ধরনের মাদারবোর্ড প্রয়োজন এ নিয়ে পরিষ্কার ভাল একটি ধারণা আপনি পেয়েছেন। আজকে এই ১০ টা মাদারবোর্ডের মধ্যে জয়ী করব, ASUS ROG X570 Crosshair VIII Hero কে। সব দিক বিবেচনায় এটি সেরা। এবার আপনার জন্য আপনি সেরাটি বাছাই করুন।

তো আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

Level 34

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 569 টি টিউন ও 200 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 109 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস