২০১৪ সাল, প্রাণের টেকটিউনসকে হারানো ও ফিরে পাওয়ার বছর । নতুন বছরে শুভ কামনা রইলো সবার জন্য…..

নতুন আরেকটি বছর আমাদের দ্বারপ্রান্তে ।  হাসি কান্না, আনন্দ বেদনা আর দ্বিধাদন্দের বছর ২০১৪, পরবর্তী  বছর ২০১৫ । যাবতীয় প্রতিকূলতা পেরিয়ে আমরা যেন সামনে এগিয়ে যেতে পারি  সে প্রত্যাশা রেইলো ।  নতুন বছরের শুভেচ্ছা রইলো সবার প্রতি ।  এ বছরেরই শেষের দিকে আমাদের প্রাণের টেকটিউনস বন্ধ হয়ে গিয়েছিলো সপ্তাহ খানেক এর জন্য ।  ঐ সপ্তাহের প্রায় প্রতিদিনই টেক টিউনসে ঢুকতে চেয়েছিলাম, কিন্তু প্রতিবারই এসেছিলো সার্ভার নট ফাউন্ড ।  অবশেষে স্বপ্নের টেকটিউনস এর প্রত্যাবর্তন ঘটলো, টেকটিউনস শুধু চালুই হয়নি হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ প্রযুক্তি প্রেমীদের  জানে পানি চলে এসেছে, মরুভূমির প্রান্তরে  প্রাণের সজীবতার মতই আবার পূর্ণ  চঞ্চল্য  নিয়ে শুরু হলো টেকটিউনস ।  

এ বছরের যাবতীয় দুঃখ, কষ্ট আর সকল প্রতিবন্ধকতাকে পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় অঙ্গীকার সবার মাঝে প্রতিষ্ঠা হোক, এ কামনা রইলো ।  পাশাপাশি নতুন বছরে নতুনভাবে পথ চলাকে স্বাগত জানাই ।  শুরু হোক আপনার পথ চলা, শুরু হোক নতুনকে গ্রহণ করার ভিন্ন প্রয়াস, উন্মোচিত হোক নতুন কোন আবিষ্কারের লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়া  ।  সব মিলিয়ে সাফল্য বয়ে যাক আপনার জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে । নতুন বছর উপলক্ষ্যে কিছু টিপস দিতে চাচ্ছি সবাইকে, অনেকেই জানেন, যারা জানেননা তাদের কাজে আসবে ।
এখানে আমি কম্পিউটার রক্ষণাবেক্ষন বিষয়ে আলোচনা করবো তারপর করবো অনলাইনে আয় বিষয়ে ।
এ পর্যায়ে আগে আপনার কম্পিউটার ঠিক করুন তারপর করুন অনলাইনে আয়... 

চলুন প্রথমে কম্পিউটার রক্ষণাবেক্ষণ শুরু করি... 



১। আপনার কম্পিউটার যদি আপডেট মানের হয় তবে আপনাকে আর বেশী কিছু করতে হবে না, শুধু অতিরিক্ত ফাইলগুলো ডিলিট করে দিন । এজন্য স্টার্ট  মেনুতে গিয়ে রান গিয়ে টাইপ করুন temp এন্টার দিন, সকল ফাইল মুছে ফেলুন ।  একইভাবে লিখুন "prefetch"  "%temp%"  "recent"  "inf" একবার একবার করে লিখুন আর এন্টার দিয়ে সব ফাইল মুছে ফেলুন ।


২। অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ইন্সটল করে রাখবেননা ।  কন্ট্রোল প্যানেল এ গিয়ে রিমুভ করুন ।  ওয়ালপেপার রিমুভ করে দিন ।   থীম উইন্ডোজ ক্লাসিক করে দিন, এতে কম্পিউটারের স্পীড অনেক বেড়ে যাবে ।
৩। স্টার্টআপে প্রোগ্রাম জমিয়ে রাখবেন না, যত বেশী জমিয়ে রাখবেন, কম্পিউটার চালু হতে এবং বন্ধ হতে তত বেশী সময় নিবে ।  এজন্য এজন্য স্টার্ট  মেনুতে গিয়ে রান গিয়ে টাইপ করুন msconfig   এন্টার দিন, এখান থেকে স্টার্টআপের অপ্রোয়জনীয় অংশ আনচেক করে ওকে করুন । এতে  কম্পিউটার দ্রুত চালু ও বন্ধ হবে ।৪। ভালো একটি এন্টিভাইরাস ব্যবহার করুন, চেষ্টা করবেন লাইসেন্স কপি ব্যবহার করার জন্য, ইন্টারনেট থাকলে ক্যাসপারস্কাই এন্টিভাইরাস এক মাসের জন্য ট্রায়াল ইন্সটল করে নিতে পারেন, একমাস কম্পিউটার নিরাপদ থাকবে । এরপর লাইসেন্স কপি সংযোজন করতে পারেন।

৫। আপনার কম্পিউটার যদি আপডেট মানের না হয় তবে ধীরগতি নিশ্চয়ই আপনাকে খুব জালাচ্ছে ।  সেক্ষেত্রে উপরের কাজগুলো ফলো করুন ।  পাশাপাশি আপনার কম্পিউটারের ভার্চুয়াল মেমরি বাড়িয়ে রাখুন,  গ্রাফিক্স অপশন এবং অটোমেটিক আপডেট অফ করে রাখুন ।

৬।  আপনার কম্পিউটারে ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় মজিলা খাতুন ওরফে মজিলা ফায়ারফক্স ওপেন করলে  যদি কখনো আনট্রাস্টেড সার্টিফিকেট আসে, তবে ঘাবড়ানোর কিছু নেই, আপনার কম্পিউটারের তারিখ ও সময় ঠিক করে দিন এবং আবার ওপন করুন মজিলা খাতুন ওরফে মজিলা ফায়ারফক্স, এখন আনট্রাস্টেড সার্টিফিকেট আসবে না ।৭।  ইদানিং পেন ড্রাইভের মাধ্যমে দ্রুত কম্পিউটারে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে, পেন ড্রাইভে থাকা ফাইলগুলো শর্টকাট হয়ে যায়, সেক্ষেত্রে আপনার কম্পিউটারের টুলস এ গিয়ে ফোল্ডার অপশনে গিয়ে শো হিডেন ফাইল দিয়ে আইরিসেট সফটওয়ারটি ডাউনলোড ও ইন্সটল করে সেটি ওপেন করে হিডেন ফাইলগুলো সফটওয়ারটির ডায়ালগ বক্স এর মাঝখানে ড্রাগ করে ছেড়ে দিয়ে রিসেট-এ ক্লিক করলেই সব ফাইল ঠিক হয়ে যাবে ।  আপাতত সফটওয়্যারটি ছাড়া ফোল্ডার অপশন এর ভিউ ওকে করলে আপনি হিডেন করা ফাইলগুলো দেখতে পাবেন ।

 

এবার আসুন অনলাইনে কাজ নিয়ে আলোচনা করি  । 


১।  অনেকেরই খুব আগ্রহ অনলাইনে কাজ করার, কিন্তু কি কাজ করবে, কিভাবে করবে, কোথায় করবে সে বিষয়ে কোন নির্দেশনা না পেয়েই ভুল পথে হাটা শুরু করেন অনেকেই, তাই কাঙ্খিত সাফল্য না পেয়ে হাল ছেড়ে দেন ।  এসব ক্ষেত্রে আপনাকে আগে যাচাই করে নিতে হবে আপনি কি কাজ পারেন ।   যা পারেন তা কিভাবে প্রকাশ করবেন, আর যদি কিছুই না পারেন তবে আপনাকে শিখতে হবে, সেক্ষেত্রে কিভাবে শিখবেন কোথায় শিখবেন এটা আপনাকে জানতে হবে ।

২।  অনলাইন-এ কাজের জন্য ভালো মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করুন ।  কাজ না শিখে কোন কাজের জন্য কোন মার্কেটপ্লেসে বিড করতে যাবেননা, তাহলে আপনার প্রোফাইল ক্ষতিগ্রস্থ হবে ।  সবকিছু যাচাই করে দেখুন, বুঝে শুনে তারপর যখন বুঝতে পারবেন আপনি কাজটি পারবেন তখনই এপ্লাই করুন ।  ওডেস্ক কে আপাতত বেছে নিন, তারপর বাকীগুলোতে চেষ্টা করবেন ।

৩।  আপনার কম্পিউটার সম্পর্কে নূন্যতম জ্ঞান থাকলে আপনি ডাটা এন্ট্রি, ওয়েব রিসার্চ, এডমিনিস্ট্রেটিভ জবগুলো করতে পারেন, আর্টিকেল রাইটিং এর কাজও করতে পারেন ।  পাশাপাশি আপনার প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপ করুন ।

৪। অনলাইনে আপনি উজ্জল ক্যারিয়ার তৈরী করতে চাইলে অবশ্যই যেকোন একটি বিষয়ে আপনাকে অভিজ্ঞ হতে হবে।  গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, প্রোগ্রামিং, ব্লগিং, ইমেইল মার্কেটিং কিংবা এফিলিয়েট মার্কেটিং এসবের মধ্যে যেকোন একটি বিষয় আপনি পছন্দ করে কাজ শিখুন এবং সে অনুযায়ী কাজ শুরু করতে পারেন।

৫।   অনলাইন আর্নিং এর দিক নির্দেশনা সম্বলিত আমার একটি সাইট আপনাকে সহযোগীতা করতে পারে, আমার ১০ পর্বের চেইন টিউনটিও ফলো করতে  পারেন ।   এ পথ ধরেই সাফল্য চলে আসতে পারে সরাসরি আপনার হাতে ।


প্রাণের টেকটিউনসে আমার একটি লেখা আপনাকে অনুপ্রাণিত করতে পারে...

আর সেটি হচ্ছে...

অনলাইন আয়ের এ পথ সে পথ আপনি যাবেন কোন পথে । 

 

নতুন বছরে নতুন কিছু করার জন্য শুভ কামনা রইলো.....
 


সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

//

Level 2

আমি Obaid Ullah Aiman। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 350 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Computer Science & Engineering www.facebook.com/obaid.aiman


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাই আবার মনে করিয়ে দিলেন সেই দিনগুলোর কথা।
পাগল হইয়া গুগল, ইয়াহু, বিং সবগুলো দিয়া খুজেছিলাম টেকটিউনস কে।
ফেসবুকের পরেই আমি টিটিতে লগইন করি।
আশা করি আর কষ্ট পাইতে হইবো না আমাদেরকে।
লাভ ফর টেকটিউনস। 😀

আসলে কি হয়েছিল ওই এক সপ্তাহ? খুব চিন্তায় পরে গিয়েছিলাম যদি সত্যি সত্যি টেকটিউনস বন্ধ হয়ে যায় তাহলে আমাদের কি হবে?ধন্যবাদ টেকটিউনস এডমিনকে।