“আজ মহান মে দিবস”

আজ শ্রমিক দিবস, যেদিনটিকে আমরা মে দিবস হিশেবে জানি।  মে মাসের প্রথম দিনটিকে পৃথিবীর অনেক দেশে শ্রমিক দিবস পালিত হয়। আজ সরকারিভাবে ছুটি পালন করা হয়। এই দিনের প্রেক্ষাপট তৈরি হয় ১৮৮৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটে ৮ ঘণ্টা শ্রমদিনের দাবীতে আন্দোলন রত শ্রমিকের ওপর গুলি চালানো হলে, সেখানে ১১ জন শহীদ হয়। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে এই দিনটি পালন হয় সেপ্টোবরে।

এদিনের ঘটনাটি যদিও সারা পৃথিবীতে অনেক ঘটনাবহুল ও আলোচিত, নানাভাবে শ্রমিকের অধিকারের আদায়ের আন্দোলন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশেষ দিনের মর্যাদা লাভ করে। উনবিংশ শতাব্দীতে শ্রমিকদের প্রতি অমানবিকভাবে কর্ম ঘন্টা ছাড়াই কাজ করানো হত। শেষ পর্যন্ত শ্রমিকদের আন্দোলনের ফসল হিশেবে "দৈনিক আট ঘণ্টা কাজ করার" দাবী অফিসিয়াল স্বীকৃতি পায়। আর পহেলা মে বা মে দিবস প্রতিষ্ঠা পায় শ্রমিকদের দাবী আদায়ের দিন হিসেবে, পৃথিবীব্যাপী আজও তা পালিত হয়।

বর্তমান বাংলাদেশে এখনও সেই একই পদ্ধতিতে শ্রমিকদের অতিরিক্ত কর্ম ঘন্টা কাজ করতে হয়। এজন্য কোন ব্যবসায়ী বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কোন ধরনের সংকোচ করে না। আমাদের দেশে শ্রমিকের জন্য ১ দিন আর ব্যাবসায়ীদের জন্য বাকি সব দিন। আমরা আজও শ্রমিকদের সামান্য মর্যাদাপূর্ণ জীবন, ৮ কর্মঘন্টা ও নূন্যতম মজুরী বর্তমান বাজার অনুযায়ী শ্রমিকদের দিতে পারিনি। আমাদের সরকার ও ব্যাবসায়িকরা এই বিষয়ে উদাসীন এবং অঘোষিত বিরোধিতা করে চলছে। আমাদের দেশের গার্মেন্টস সেক্টর এই ধরনের অনিয়ম ও শ্রেনীবৈষম্যের অন্যতম উদাহরন। আগেও বহু সরকার শ্রমিকদের জন্য নির্বাচনের আগে বহু প্রতিশ্রুতি নিয়ে এসেছে, তবে সেগুলোর কোনটাই বাস্তবায়িত হয়নি। আবার দেখা যায় জাতীয় সংসদ সদস্য কিংবা বড় বড় পদ প্রাপ্তরা সেই সুবিধাভোগী মালিক শ্রেনিরা। আর এজন্যই এদেশের শ্রমিকের মর্যাদা পূর্ণ জীবন অবহেলিত ও বৈষম্যপূর্ণ।

শ্রমজীবী মানুষের সেই গৌরবময় আন্দোলন এদেশে শুধু কাগজে কলমেই আছে, বাস্তবতায় নাই বললেই চলে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে ১ লা মে বিশ্বব্যাপী পালন হচ্ছে, আমাদের দেশেও এদিনে কাজ বন্ধ থাকে, সরকারী ছুটি পালন করা হয় ইত্যাদি সবই। কিন্তু এই দিনের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি বা কোন দিন শ্রমিকের স্বপ্ন পূরণ হবে সেই লক্ষনও দেখতে পাচ্ছি না।

আমাদের সকল শ্রেনী পেশার মানুষের উচিত এ বিষয়ে সরকার ও মালিকপক্ষকে চাপ প্রয়োগ করে কিংবা দীর্ঘমেয়াদী আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে বাধ্য করা যেন শ্রমিকের প্রকৃত অধিকার অর্জিত হয়।

Level 1

আমি মোঃ আল আমীন। COO, Utpadok.com, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস