মোটিভেশনাল ভিডিও দেখে কি লাভ আছে?

আমরা প্রতিদিন বিভিন্ন সামাজিক মিডিয়াগুলোতে সাদমান সাদিক, আয়মান সাদিক, সোলায়মান শোখন, মুনির হাসানের মটিভেশনাল ভিডিওগুলো দেখি। তাদের কথা গুলো শুনে মনে হয় আমরা মনে হয় কাজ করে ফাটিয়ে ফেলতে পারবো। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই আর এসব কথা মনে থাকে না।

আবার অনেকেই আছে যারা সারাদিন শুধু ঐসব মটিভেশনাল ভিডিও দেখেই সময় পার করে দেয় কাজের কাজ কিছুই করে না।

আসলে সারাদিন মটিভেশনাল ভিডিও দেখে সময় পার করলে কেউ সফল হতে পারবে না যদি না সে কাজ করে।

আমরা তো মনে করে সফল হওয়া তো একরাতের ব্যাপার। সবাই তো এক রাতেই সফল হয়ে গেছে তাহলে আমরা পারবো না কেন।

হ্যাঁ এটা সত্যি যে সফল হওয়া একরাতের ব্যাপার কিন্তু একরাতে সফল হওয়ার জন্য যে কত রাত জাগতে হয় সেটা যারা সফল হয়েছে শুধু তারাই জানে।

বিলগেটস জীবনের প্রথম দিকে একটানা ১৩ বছর প্রোগ্রামিং করছেন। মার্ক জাকারবার্গ একটানা ৪৮ ঘন্টা কোডিং করে সম্পূর্ণ ফেসবুকের লেআউট পরিবর্তন করে ফেলেছিলেন। তারপরেই তারা একরাতে সফল হতে পেরেছেন।

 

বড় বড় মানুষদের মটিভেশনাল কথা গুলো হলো কোনো রাস্তা ছাড়া অনুপ্রেরণার মতো। আপনি যদি তাদের কথা অন্ধকারের ভিতর দৌড় দেন সফল হওয়ার জন্য তাহলে আপনি অবশ্যই দেয়ালে ধাক্কা খাবেন।

সফল হতে হলে এসব ভিডিওর থেকে নিজে কোন কাজ করতে ভালোবাসেন সেটা করেন।

আর যে কাজই করুন না কেন নিচের সর্বোচ্চ নিয়ে চেষ্টা করবেন। যদি আপনি চুরিও করেন তাহলেও ভালো ভাবে কাজ করবেন তাহলেও আপনি সফল হতে পারবেন।

 

নিজে কাজ করুন, নিজের কাজকে ভালোবাসুন।

Level 0

আমি Ridoy Hasan Alif। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস