গুগলের ২০২২ সালের জনপ্রিয় কয়েকটি সেবা এবং তাদের কাজসমূহ

টিউন বিভাগ অন্যান্য
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

ইন্টারনেটে কিছু সার্চ করা থেকে শুরু করে ভিডিও দেখার জন্য ইউটিউব মেইলে পাঠানোর জন্য জিমেইল এমনকি স্মার্টফোন এর অপারেটিং সিস্টেম এন্ড্রয়েড পর্যন্ত যেসকল কাজগুলো মানুষের দৈনন্দিন জীবনে লাগে তারপ্রাই সবই প্রভাইড করছে গুগল।

গুগল সার্চের পাশাপাশি গুগল ম্যাপ, গুগল প্লে-স্টোর, গুগল জিমেইল, গুগল ডকর্স এর মতো আরো ২৭১ এর মতো সার্ভিস রয়েছে গুগলের। এসব সার্ভিস এর বেশিরভাগই সম্পর্কে ইউজাররা হয়তো জানেই না। তো এমনি অজানা কিছু তথ্য জানাবো আজকের এই আর্টিকেল এ।

১.গুগল শপিং


বিশ্বব্যাপি ই-কমার্স বা অনলাইনে কেনাকাটা অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম হলেও এফ্রেডবল দামে পন্য কিনার জন্য গ্ৰাহককে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ভিজিটর করতে হয়। যা বেশ সময়সাপেক্ষ একটা কাজ।
গ্ৰাহকদের অনলাইন কেনাকাটার কষ্ট কে সহজ করার জন্য গুগল শপিং নামে একটি ফ্রি প্লাটফর্ম রয়েছে।

গুগল শপিং গ্ৰাহকদের জন্য বিভিন্ন পন্য সার্চ পন্য কম্পিয়ারিং এবং সেলারের ওয়েবসাইট থেকে সরাসরি পন্য কিনার দিয়ে থাকে।
গুগল শপিং এ কোন পন্য সার্চ করা হলে গ্ৰাহকের অতিতের এক্টিভিটি  ইনফরমেশন এবং পছন্দের উপর ভিত্তি করে রেজাল্ট শো করা হয়। ফলে কমদামে গ্ৰাহকের পছন্দের পণ্য খুঁজে পেতে সহজ হয়ে উঠে।
গুগল শপিং অনলাইন রিটেইলারদের পন্য প্রমোশনের জন্য একটি সেরা প্লাটফর্ম।

কেননা গুলের এড ফিচারটি ব্যবহার করে তারা তাদের টার্গেট গ্ৰাহকদের কাছে  পন্য প্রমোট করে তাদের বিক্রয় বাড়াতে পারে।

এবং এই প্লাটফর্ম টি তাদের রিটেইলারদেরকে ফ্রিতে পন্য লিস্টিং এর সুযোগ দিয়ে থাকে। যদিও প্রতিটা পন্য সেলের সময় একটা নির্দিষ্ট লভ্যাংশ কেটে রাখে।

২. গুগল পডকাস্ট
বর্তমান সময়ে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা থেকে শুরু করে বিনোদন এর জন্য পডকাস্ট বেশ জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হয়ে উঠেছে। স্পটিফাই, আইটিউন, অ্যাপল পডকাস্ট এর মতো বিশ্বের জনপ্রিয় পডকাস্টের পাশাপাশি গুগল পডকাস্ট নামে গুগলের নিজস্ব একটি পডকাস্ট মাধ্যমে রয়েছে।

প্লাটফরমটি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা ফ্রিতে  তাদের পছন্দমত  সেলিব্রিটিদের ইন্টারভিউ, গান থেকে শুরু করে সবধরনের অডিও কনটেন্ট শুনতে পারে। এছাড়া বিভিন্ন বড় বড় ব্রান্ড গুগলের পডকাস্ট ব্যবহার করে স্টোরি বলার মাধ্যমে তাদের টার্গেট ব্যবহারকারিদের কাছে পৌঁছাতে পারে।

 

গুগল পডকাস্ট এপটিতে ইউজাররা তাদের নিজস্ব অডিও লাইব্রেরী তৈরি করতে পারে। এছাড়া অডিও গুলো  ক্যাটাগড়ি গুলো আগে থেকেই রেডি থাকে বলে ইউজাররা তাদের পছন্দমত কনটেন্ট বেছে নিতে পারে।

গুগল পডকাস্ট এপটি তাদের এন্ড্রয়েড এবং আইফোন দুটি প্লাটফর্মে পাওয়া যায়।
এন্ড্রয়েড পুলিশের তথ্যমতে ২০২১ সাল শেষে প্রায় ১০০ মিলিয়নের মতো মানুষ এই এপটি ইন্সটল করেছে।
৩.গুগল গ্যারাজ
গুগলের ডিজিটাল গ্যারাজ প্লাটফরমটি মূলত একটি অনলাইন শিক্ষামূলক প্লাটফর্ম। যা ব্যবহারকারিদের ডিজিটাল মার্কেটিং, ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট, এবং কোচিং ও মেশিন লার্নিং এর মতো কোর্স  অফার করে থাকে।

এই প্লাটফরমটি ব্যবহার করে স্টুডেন্ট এবং বিজনেসম্যান রা ভিডিও টিউটোরিয়াল এবং সরাসরি ট্রেনিং এর মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্রাটেজি সম্পর্কে লিখতে পারে।

বর্তমানে ফিজিকাল গ্যারাজে প্রায় ১০০টির ও বেশি ফ্রি  এবং পেইড কোর্স রয়েছে। যা বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইম্পলয়ার ইন্ডাস্টি এক্সপার্ট  উদ্দোগতাদের সাথে একহয়ে  তৈরি করা হয়েছে।

প্লাটফরমটি ইউজারদের পছন্দ মতো লেসন ডিজাইন করার মতো অপশন দেয়। প্রতিটা লেসন শেষে ইউজারদের সেই লেনের উপর টেস্ট পরিক্ষা দাঁতে হয়। তার মাধ্যমে  গুগল ইউজারদের প্রগেস ট্রাক। করতে পারে।

স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেট ব্যবহারকারি চাইলে ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে বেসিক এবং পাশাপাশি গুগল এবং আইএবি ইউরোপের সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারবে।
৪.গুগল সার্ভ
গুগল সার্ভে তা গুগলের একটি বিজনেস নিজস্ব প্রডাক্ট, যা গুগলের বিজনেসম্যানদের রিসার্চ এর কাজে ব্যবহৃত হয়।
প্লাটফরমটি মূলত ইন্টারনেট এবং স্মার্টফোন ইউজারদের উপর সার্ভে করে।

প্লাটফরমটি ব্যবহার করে মার্কেন্টাররা  মূলত টারগেটেড ডেমোগ্ৰাফিক এর মাধ্যমে অনলাইন সার্ভের মাধ্যমে কনজ্যুমার বিহ্যাইবিহার এবং মার্কেট ট্রেন্ড সম্পর্কে জানতে পারে।

এর মাধ্যমে তাদের বিজনেসের দরকারি সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে
ইউজাররা এই প্লাটফরটিতে তাদের মাল্টিপল চয়েস এবং স্টার রেটিং এর মাধ্যমে সার্ভে প্রশ্ন ডিজাইন করে থাকে।

গুগল রিসার্চ এর তথ্য সূত্রে এই অনলাইন প্যানেল এ প্রতিদিন ১০ মিলিয়ন এবং মোবাইল প‌্যানেল প্রতিদিন ৪ মিলিয়ন ইউনিক ইউজার গুগল সার্ভে ব্যবহার করছে।

৫.ফ্লটার

ফ্লটার মুলত গুগলের একটি ফ্রি ওপেন সোর্স সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কিট। এপটি ব্যবহার করে এন্ড্রয়েড থেকে শুরু করে আইওএস, লিনাক্স, এবং ম্যাক এর মতো সব অপারেটিং এর জন্য খুব সহজে এবং পছন্দমত ইউজার ইন্টারফেস তৈরি করতে পারে।

এই কিট টিতে বেশ কিছু উইজেট রয়েছে তা গেমিং এর একটি অপরটির পাশে সাজিয়ে ডিজাইনাররা সহজে তাদের এসের জন্য লেআউট তৈরি করতে পারে।

এছাড়া ইউজাররা প্রয়োজন মতো  কাস্টমাইজ উইজেট তৈরি করে এক্সাইটিং উইজেটের সাথে তা মার্ক করতে পারে। জাভা স্ক্রিপ্ট এর মতো কোডিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানা না থাকলে এই এপটি ব্যবহার করে ডিজাইনাররা সহজে এবং স্বল্পসময়ে নিজের  পছন্দ মত গেমও তৈরি করতে পারবে।

সর্বশেষ
আপনার যদি গুগলের সম্পর্কে আরো বিস্তারিত তথ্য জানতে চান তাহলে টিউমেন্ট করুন এবং আর্টিকেল টি আপনার বন্ধুদের কাছে শেয়ার করুন

Level 0

আমি Tanvir Ahmed। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 সপ্তাহ 6 দিন যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 5 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

দরকারী উপকারী তথ্যমূলক আর্টিকেল উপহার দেয়ার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ।