Walton Primo S8 Mini Vs Redmi 10C : কোন স্মার্টফোনটি সেরা?

বাজারে কোন কিছু যখন আমরা টাকা খরচ করে কিনতে যাই, তখন আমাদের মধ্যে একটু হলেও দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাজ করে যে, আমারা আমদের কষ্টের টাকা দিয়ে ভালো জিনিসটি কিনতে পাচ্ছি তো? বিশেষ করে আমরা যখন স্মার্ট-ফোনের মতন ডিভাইস কিনতে যাই বাজার থেকে তখন এরকম দ্বিধাদ্বন্দ্ব অনেক বেশি কাজ করে। আর এই জন্য উচিত স্মার্ট-ফোনের মতন ডিভাইস কেনার আগে আমাদের সম্পূর্ণ রূপে স্মার্ট-ফোন সম্পর্কে গবেষণা করে নেয়া।

স্মার্ট-ফোন কেনার আগে স্মার্ট-ফোন নিয়ে গবেষণার অন্যতম একটি সহজ উপায় হচ্ছে একটি স্মার্ট-ফোনের সাথে অন্যকোন স্মার্ট-ফোনের তুলনা করে নেওয়া। সঠিক উপায়ে সঠিক স্মার্ট-ফোনের সাথে তুলনা করতে পারলেই আমরা আমাদের কষ্টের টাকা দিয়ে একটি দারুণ স্মার্ট-ফোন কিনতে সক্ষম হব।

এই আর্টিকেলে আমরা ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনির সাথে শাওমির রেডমি সিরিজের ১০সি স্মার্টফোনটির তুলনা করব। আমরা কয়েকটি ধাপে তুলনা করে জানার চেষ্টা করব আসলে কোন স্মার্টফোনটি দাম এবং পারফরমেন্সের দিক দিয়ে এগিয়ে থাকছে।

সফটওয়্যার

প্রথমেই চলুন আলোচনা করি স্মার্ট-ফোন দুটির সফটওয়্যার নিয়ে। প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে পাওয়া যাবেন অ্যান্ড্রয়েড ১১ সংস্করণ। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনেও থাকবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ সংস্করণ। অনেকেই স্মার্টফোনে কাস্টম রম চান! তাদের জন্যেও দুটি স্মার্টফোনই কোনটি কোনটির চাইতে কম নয়! রেডমি ১০ সি তে যেমন মিইউআই ১৩ ব্যবহার করা হয়েছে; একইভাবে প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ভিস্মার্ট ওএস নামের একটি বিশেষ কাস্টম রম।

ওয়ালটনের এই ভিস্মার্ট ওএসটিও সম্পূর্ণরূপে শাওমির মিইউআই এর মতই। তাই সফটওয়্যারের দিক দিয়ে দুটি স্মার্টফোনই সমান অবস্থানে থাকবে।

ডিসপ্লে

ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। আর এই ডিসপ্লের রেজুলেশন ২৩৪০*১০৮০ পিক্সেল। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫৭ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে। রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোনের ডিসপ্লে রেজুলেশন ১৬৫০*৭২০ পিক্সেল। অর্থাৎ ডিসপ্লে সার্পনেস এবং রেজুলেশনের দিক দিয়ে ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনি এগিয়ে।

যদি ডিসপ্লে প্যানেলের কথা বলা হয়, প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে এলটিপিএস আইপিএস ডিসপ্লে প্যানেল। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে শুধু আইপিএস ডিসপ্লে প্যানেল। আর এইভাবে স্মার্টফোনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় ডিসপ্লের দিক দিয়ে এগিয়ে আছে প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোন।

ক্যামেরা

যদি ক্যামেরা সেকশনের কথা বলা হয়, প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে দেখতে পারব যে, এখানে দেয়া হয়েছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। যেখানে একটি ১৬ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর থাকবে, পাশাপাশি আরও থাকবে ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর।

অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে পাওয়া যাবে কেবল একটি ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ। বর্তমান সময় এসে যেখানে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপও খুবই সাধারণ একটি বিষয়, যেখানে ডুয়াল ক্যামেরা নিয়ে অনেক গ্রাহকই সন্তুষ্ট থাকতে চান না। রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে রিয়ারের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপে পাওয়া যাবে একটি ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর।

প্রিমো এস৮ মিনি সামনে এবং পিছনে উভয় পাশ দিয়েও ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট করে, যেটা রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোন করেনা। আর এই ভাবে ক্যামেরা রিয়ার ক্যামেরা সেকশনেও প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোন অনেক বেশি এগিয়ে রয়েছে।

যদি ফ্রন্ট ক্যামেরার কথা বলা হয়, সেখানেও প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোন এগিয়ে। প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোনের ফ্রন্টে পাওয়া যাবে একটি ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা সেন্সর। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোনের ফ্রন্ট প্যানেলে পাওয়া যাবে মাত্র ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা সেন্সর। ওয়ালটনের ১৩ মেয়াপিক্সেল সেন্সর সুন্দর ডিসপ্লের ভেতর পাঞ্চহোল কাট-আউটের ভেতর অবস্থিত। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি এর ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ভি-শেপড নচের মধ্যে অবস্থিত।

এইভাবে ফ্রন্ট ক্যামেরার দিক দিয়েও রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোনের থেকে এগিয়ে আছে প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোন।

হার্ডওয়্যার

ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ চিপসেট। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ চিপসেট। আর এইভাবে চিপসেটের দিক দিয়ে হালকা এগিয়ে আছে রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোন। তবে মেমোরি ইউনিটের দিক দিয়ে আবার দুটি স্মার্ট-ফোনের অবস্থান একই। দুটি স্মার্টফোনই ৪ জিবি র‍্যামের সাথে ৬৪ জিবি রম সহকারে আসবে। আর দুটিই ইউএফএস মেমোরি প্রযুক্তির।

ব্যাটারি এবং ফাস্ট চার্জিং

একটি স্মার্ট-ফোন ডিজাইন কিংবা ফিচারের দিক দিয়েই যতই এডভান্স হোক না কেন, যদি ব্যাটারির দিক দিয়ে কম হয়, তবে স্মার্টফোনটি ব্যবহার করে শান্তি পাওয়া যাবেনা। প্রিমো এস৮ মিনি এবং রেডমি ১০সি দুটি স্মার্টফোনেই দেয়া হয়েছে ৫০০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি। ব্যাটারি ক্যাপাসিটির সিক দিয়ে দুটি স্মার্ট-ফোনের অবস্থান একই হলেও, চার্জিং ক্ষমতার দিয়ে রয়েছে ভিন্নতা।

প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনটি ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি সাপোর্ট করে। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোন সাপোর্ট করে মাত্র ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। আর এইভাবে ব্যাটারি সেকশনের দিক দিয়েও রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোনের চাইতে এগিয়ে থাকছে প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্ট-ফোন।

পরিশেষে

আরও বিভিন্ন বিষয় রয়েছে যেমন, প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনে অতিরিক্ত নয়েস ক্যান্সেলিং মাইক্রোফোন রয়েছে; যেটা রেডমি ১০ সি স্মার্টফোনে নেই। এখন যদি দামের দিকে তাকাই…প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনটি ওয়ালকার্টে ১৩, ৯০৫ টাকা। অন্যদিকে রেডমি ১০ সি স্মার্ট-ফোনের দাম ১৩৯৯৯ টাকা। অর্থাৎ আপনার বাজেট যদি ১৩ থেকে ১৪ হাজার টাকার মধ্যে হয় আর আপনি যদি একটি ভালো স্মার্ট-ফোন কিনতে চান; তবে নিঃসন্দেহে প্রিমো এস৮ মিনি স্মার্টফোনটিকেই পছন্দ করতে পারেন।

Level 12

আমি Touhidur Rahman Mahin। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 326 টি টিউন ও 88 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 24 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

ভালোবাসি প্রযুক্তি নিয়ে লিখতে, ভালবাসি প্রযুক্তি নিয়ে ভাবতে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস