কিভাবে ধনী হবো?

আসসালামু আলাইকুম, আশাকরি সবাই ভালো আছেন।

(The millionaire fastlane, The art of wealth building, Sonu Sharma, Rich dad poor dad এইসব জায়গা থেকে এই লিখাটি সংগ্রহ করা হয়েছে)

"একটি ব্যক্তি তার জীবনে কত টাকা ইনকাম করতে, কত টাকা খরচ করবে, কত টাকা পরের প্রজন্মের জন্য রেখে যাবে এটা টাকা-সম্পদের প্রতি তার কিরকম আর্থিক দর্শন সেটা নির্ধারণ করে"

আজকে আমি কথা বললো কিভাবে আসল ধনী হওয়া যায় সেই বিষয়ে। ওয়েট এ মিনিট আসল ধনী মানে? আসল ধনী, নকল ধনী বলেও কিছু আছে নাকি? জ্বি আছে।

আসল ধনী কাকে বলে?

আসল ধনী বিবেচনা করা হয় কোনো ব্যক্তির নেট-ওয়ার্থ (net worth) হিসেব করে। বুঝাই যাচ্ছে আসল ধনীদের নেট-ওয়ার্থ বেশি থাকে। আসল ধনী হওয়া মানে স্বাধীনতা পাওয়া যেকোনো সময়, যেকোনো জায়গায়, যেকোনো কাজ করার স্বাধীনতা পাওয়া টাকার কথা চিন্তা না করে।

নকল ধনী বিবেচনা করা হয় কোনো ব্যক্তির ল্যাভিস (lavish) লাইভ স্টাইল দেখে। বুঝাই যাচ্ছে নকল ধনীর নেট-ওয়ার্থ বেশি থাকে না কিন্তু নকল ধনীদের লোক দেখানো বড়োলোকি চাল-চলন থাকে। নকল ধনীদের বাড়ি, গাড়ি থাকে কিন্তু নেট-ওয়ার্থ কম থাকে। নকল ধনীদের এসেট থেকে আসা পেসিব ইনকাম থাকে না।

কিভাবে আসল ধনী হবো?

যদি এককথায় বলি আসল ধনী হয় বিভিন্ন এসেটের (asset) পেসিব (passive) ইনকাম থেকে। আসল ধনী হওয়া মানে ক্যালকুলেট হিসাব করা যে কতটাকা লাগবে কোনো ব্যক্তির তার ফাইন্যান্সিয়াল গোলস (financial goals) বাড়ি, গাড়ি, ব্যবসা ইত্যাদি অর্জন করতে। কত টাকা লাগবে তার সারাজীবনে জন্য, কতটাকা লাগবে তার সন্তানদের পড়াশুনা ও ইত্যাদি খরচের জন্য।

আমি চাই আপনি নিজেকে প্রশ্ন করুন যে আসল ধনী কাকে বলে?

আসল ধনী আমরা সবাই হইতে চাই কিন্তু আসল ধনীর সংজ্ঞা একেক জন ব্যক্তির কাছে একেক রকম। ১ম শ্রেণির ব্যক্তির কাছে ধনী হওয়ার মানে হচ্ছে কোনো ধার-দেনা থাকবে না, নিজের বাড়ি থাকবে, নিজের গাড়ি থাকবে এবং একটি সিকিউর ইনকাম সোর্স থাকবে।

২য় শ্রেণির কাছে ধনী হওয়ার মানে হচ্ছে অন্য কোনো লোকের থেকে যখন আমার কাছে বেশি টাকা থাকবে তখন আমি ধনী হয়ে যাবো। এরা সবসময় অন্যের সাথে নিজের তুলনা করতে থাকে।

৩য় শ্রেণির কাছে ধনী হওয়ার মানে হচ্ছে যখন আমি মা-বাবা আমার কাছে থাকি তখন আমি নিজেকে ধনী মনে করি। টাকা আজকে আছে কালকে নাই কিংবা টাকা কিছুই না আসল ধনী হচ্ছে ভালো আচরণ ইত্যাদি। ৩য় শ্রেণির মানুষরা টাকার থেকে সম্পর্ককে বেশি মূল্য দেয়৷ শুনতে ভালোই থাকে যে পৃথিবীতে এমন মানুষও আছে যারা টাকার থেকে সম্পর্ককে বেশি মূল্য দেয়। কিন্তু আপনি চিন্তা করুন তো সত্যিই কি টাকা অর্জন করা ও আসল ধনী হওয়াটা মেটার করে না? মাস শেষে বিদ্যুৎবিল খরচ, মাসের খাওয়া খরচ, বাচ্চাদের পড়াশুনার খরচ, আরোও বিভিন্ন চাহিদা যেসবে টাকা লাগে সেসব ক্ষেত্রে আপনি এটা ইগনোর কর‍তে পারবেন না যে জীবনের মোস্টলি অনেক ক্ষেত্রে আমাদের টাকার দরকার। তাই বলা যায় জীবনে আসল ধনী হওয়াটা মেটার করে।

যেহেতু ধনীর সংজ্ঞা একেকজনের কাছে একেকরমক তাই আমি আমার নজরে ধনী কে সেটা আপনাদের জানাতে চাই। এটা আমার একান্ত নিজের সংজ্ঞা কারো এই সংজ্ঞার সাথে দ্বিমত থাকতেই পারে।

(আমি এখানে আমার নিজের মতো করে ধনী, স্বচ্ছল, মধ্যবিত্ত, গরীব তুলনা করেছি এবং নিদিষ্ট অর্থ ধরিয়ে দিয়েছি)

কার কাছে কত টাকা থাকলে তাকে কোন শ্রেনীতে ফেলা যাবে আমার নজরেঃ

বড়লোকঃ সর্বনিম্ন ১০০ কোটি টাকার মালিক উচ্চ বড়লোক।

৫০ কোটি টাকা থাকলে মধ্যম বড়লোক।

১০ কোটি টাকা থাকলে নিম্ন বড়লোক।

মধ্যবিত্তঃ ৫ কোটি টাকা থাকলে উচ্চ মধ্যবিত্ত।

১ কোটি টাকা সম্পত্তির মালিক হলে মধ্যম মধ্যবিত্ত। ১ কোটির বেশি না সর্বোচ্চ ১ কোটি।

১০ লক্ষ থেকে ৫০ লক্ষ নিম্ন মধ্যবিত্ত।

গরীবঃ উচ্চ গরীব দিন আনে দিন খায় এবং সাধারণ শখের জিনিস আছে।

দিন আনে দিন খায় কিন্তু শখের জিনিস নাই তারা মধ্যম গরীব।

ঠিকমতো খাবারই পায় না নিম্ন গরীব।

* স্বচ্ছল পরিবার হচ্ছে তারা যাদের নেট-ওয়ার্থ ৫ কোটির উপরে কিন্তু ১০ কোটির নিচে।

আপনি একটি স্পোর্টস কার চালিয়ে কখন বেশি মজা পাবেন? ২০ বছর বয়সে নাকি ৫০ বছর বয়সে? ওয়াল্ডট্যুর করে কখন বেশি মজা পাবেন? ২০ বছর বয়সে নাকি ৫০ বছর বয়সে?

অবশ্যই আপনি আপনার যুবক বয়সে বেশি মজা পাবেন মানে ২০ বছর বয়সে।

তাই আমি চাই আপনি অল্প বয়সেই আসল ধনী হোন। আমাদের ছোটবেলায় খরগোশ আর কচ্ছপের গল্প শোনানো হয় যার মোরাল হচ্ছে "Slow and steady wins the race" কিন্তু আমি চাই আপনি এই চিন্তা থেকে বের হয়ে আসুন। এখন "Fast and furious" এর যুগ চলতেছে। এখন আমাদের মেনে চলা উচিৎ "Fast and steady wins the race"

আমি চাই আপনি এভাবে চিন্তা করুন যে আপনার ইনকাম সোর্স হবে এসেট থেকে পেসিব ইনকাম। আর আপনি যখন এসেট বানানো শুরু করবেন ও এসেট থেকে পেশিব ইনকাম আসতে থাকবে তখন প্রথম ৫-১০ বছর frugal lifestyle মেইনটেইন করুন এবং একের পর একের asset তৈরি শুরু করুন। আপনার উচিত সবসময় যেনো সময় বাড়ার সাথে সাথে আপনার এসেটের সংখ্যাও বাড়তে থাকে। আর এসেট বাড়লে আপনার পেসিব ইনকামও বাড়তে থাকবে আর পেসিব ইনকাম বাড়লে আপনার নেট-ওয়ার্থও বাড়তে থাকবে। আপনার উচিৎ এখন আপনার কাছে ১০ টাকা আছে সেটাকে কিভাবে ২০ টাকা করা যাবে এবং ২০ থেকে কিভাবে ১০০ করা যাবে এটা চিন্তা করা। এখন ১ লক্ষ আছে সেটাকে কিভাবে ৫ লক্ষ করা যাবে এবং ৫ লক্ষকে কিভাবে ৩০ লক্ষ করা যাবে এটা চিন্তা করা উচিত। এবং সেই চিন্তা অনুযায়ী এসেট তৈরি করা উচিৎ।

এসেট তৈরির প্রথম ৫-১০ বছর frugal lifestyle মেইনটেইন করুন তারপর থেকে lavish lifestyle মেইনটেইন করুন এবং সারাজীবন asset create করুন।

আপনার যেনো passive income আসতে থাকে আর আপনি যেনো আজীবন lavish lifestyle মেইনটেইন করে চলেন আর আপনি হবেন আসল ধনী মানে যেকোনো সময় যেকোনো কিছু কিনবেন এবং যেকোনো কাজ করবেন কিন্তু ইনকাম নিয়ে ভাবতে হবে না।

মাসে মাসে পেসিব ইনকাম থেকে টাকা আসতে থাকবে আপনাকে কোনো কাজ করতে হবে না। আপনি খাবেন-দাবেন, ঘুরে বেড়াবেন, ইচ্ছামতো শপিং করবেন, ইচ্ছামতো রেস্টুরেন্টে যাবেন, ইচ্ছামতো লাইবেলেটি কিনবেন, ইচ্ছামতো টাকা খরচ করবেন। আপনার মন যা চায় তাই করবেন কিন্তু টাকার চিন্তা করতে হবে না। ইচ্ছামতো টাকা খরচ করবেন কিন্তু এসেট থেকে পেসিব ইনকাম আসার কারণে সময়ের সাথে সাথে আপনার সম্পত্তি আরোও বাড়তে থাকবে।

*আপনার উচিৎ আপনার পরের প্রজন্মের জন্যও সম্পদ রেখে যাওয়া।

ধন্যবাদ

(ভুল কিছু বললে জানাবেন)

লেখাঃ মোঃ রেজওয়ানুল হক স্বজন

Level 0

আমি মোঃ রেজওয়ানুল হক স্বজন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস