ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম বা আর্থিক স্বাধীনতা কিভাবে অর্জন করা যায়?

টিউন বিভাগ অন্যান্য
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আসসালামু আলাইকুম, আশাকরি সবাই ভালো আছেন।

প্রথমেই কয়েকটি বিষয় ক্লিয়ার করে নিই।

১. wealth বা সম্পদ কাকে বলে?
২. ধনীব্যক্তি কে?
৩. ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম বা আর্থিক স্বাধীনতা কাকে বলে?
৪. Real Rich বা Real wealthy কে?

১. আপনার সময় আপনার সবথেকে বড় সম্পদ। কারণ "“Time is more valuable than money. You can get more money, but you cannot get more time.” - John Rohn
আপনি আরোও সম্পদ বাড়াতে পারবেন কিন্তু সময় বাড়াতে পারবেন না। তাই আপনার সময় আপনার সবথেকে বড় সম্পদ।

২. আমরা সচরাচর দুইটি ব্যক্তির মধ্যে যে ব্যক্তির কাছে বেশি টাকা থাকে তাকেই ধনী মনে করি। কিন্তু আসলে ধনীব্যক্তি শুধুমাত্র টাকা পরিমাণ দিয়ে নয় বরং টাকা, সময় এবং যেকোন সময় যেকোন জায়গায় ঘুরার স্বাধীনতার উপর নির্ভর করে। টাকা, সময় এবং যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় ঘুরার স্বাধীনতা একজনকে ধনীব্যক্তি বানায়।

৩. ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম হচ্ছেঃ কোনো কাজ না করলেও একবছরে যে টাকা খরচ হয় একটা পরিবারে সেই টাকাটা যে কোনো সম্পদ থেকে আসা। কারো মাসিক খরচ ৩০ হাজার তাইলে তার বছরে খরচ ৩০০০০×১২= ৩৬০০০০ হাজার টাকা। এখন যদি কোনোভাবে যেকোনো সম্পদ থেকে প্রতি বছরে ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা আসে তাহলে তাকে কোনো কাজ করতে হচ্ছে না। আর এটাই ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম।

৪. রিয়েল রিচ ও রিয়েল ওয়েলথি হচ্ছে সে যার ইনকাম সোর্স হচ্ছে পেসিব ইনকাম, যার কাছে পর্যাপ্ত সময় আছে জীবন উপভোগ করার এবং যার কাছে যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় ঘুরার স্বাধীনতা আছে।

তো এখন আপনি চিন্তা করুন যে আপনি ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম চান নাকি রিয়েল ওয়েলথি হতে চান? এই টিউটোরিয়ালটি ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম কিভাবে অর্জন করা যায় সেটার উপর।

ফাইন্যান্সিয়াল ফ্রিডম বা আর্থিক স্বাধীনতা যেভাবে অর্জন করা যায়

দা টোটাল মানি ম্যাকওভার (The total money makeover) বই এর মূলকথাঃ

এই বইয়ের লেখক আর্থিক স্বাধীনতা পেতে ৭ টি ছোটো ছোটো স্টেপ অনুসরণ করতে বলেছেন। শুধু অনুসরণ করলেই হবে না বরং এই স্টেপগুলো আপনার জীবনে এপ্লাই করতে হবে।

এই ৭ টি স্টেপ হচ্ছেঃ

১. Creating a emergency starter fund
লেখক বলেছেন যে সকলকেই জরুরি প্রয়োজনের জন্য সবসময় কিছু টাকা জমিয়ে রাখা উচিৎ। সবারই জীবনে যেকোন সময় এমন সময় আসে যখন হুট করে টাকার প্রয়োজন পড়ে যেমন কারো এক্সিডেন্ট হলো কিংবা কোনো কারণে আয় বন্ধ হয়ে গেলো। এইরকম পরিস্থিতিতে এই ইমার্জেন্সি ফান্ডের জামানো টাকা গুলোই কাজে লাগবে। লেখক বলেছেন আপনার জরুরি ফান্ডে সবসময় কম করে হলেও ১ লক্ষ টাকা রাখা উচিৎ।

২. Start paying off your debt অর্থাৎ আপনার উচিৎ আপনার সকল ঋণ পরিশোধ করে দেওয়া। লেখক বলেছেন একজন বড়লোকের একটি সাধারণ বাড়ি থাকে, একটি সাধারণ গাড়ি থাকে, তার জীবনযাপনের খরচও খুব কম হয় এবং তার উপর কোনো ঋণ বা লোন থাকে না।

৩. Grow your emergency fund অর্থাৎ আপনার উচিৎ ইমার্জেন্সি ফান্ডে যতটা সম্ভব বেশি করে টাকা জমানো।

৪. Invest 15% of your income in matual funds for your retirement অর্থাৎ আপনার উচিৎ আপনার ইনকামের ১৫% টাকা ম্যাচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা। যেনো আপনার শেষ বয়সে আপনি স্বনির্ভর থাকতে পারেন।

৫. Planning for your children education অর্থাৎ আপনার উচিৎ আপনার সন্তানদের সারাজীবনের পড়াশোনার জন্য কত টাকা প্রয়োজন হবে সেটা হিসেব করা এবং সেই টাকা জমানো।

৬. Paying off all your biggest loans and Become debt free অর্থাৎ আপনার উচিৎ আপনার সব বড় বড় লোন পরিশোধ করা এবং ঋণ মুক্ত জীবন যাপন করা। মানুষের জীবনের বড় বড় ঋণ সচরাচর হয় ঋণ নিয়ে বাড়ি করা, ঋণ নিয়ে গাড়ি কেনা। তাই লেখক বলেছেন আর্থিক চিন্তামুক্ত জীবনযাপন করতে চাইলে সব ঋণ পরিশোধ করুন এবং ঋণ মুক্ত জীবন যাপন করুন।

৭. Grow your wealth and Give away money (Enjoy) অর্থাৎ আপনার উচিৎ ব্যবসা করে ও বিনিয়োগ করে আপনার সম্পত্তি বাড়ানো। লেখক বলেছেন অবশ্যই আপনি জীবন উপভোগ করবেন। আপনার উচিৎ Financial Freedom বা আর্থিক স্বাধীনতা পাওয়া। লেখক বলেছেন দামি বাড়ি, দামি গাড়ি, দামি কাপড় ইত্যাদি দামি জিনিস তখনই কিনুন যখন এসব কিনতে আপনাকে কোনো ঋণ নিতে হবে না এবং এগুলো খুব দামি এটা চিন্তা আপনার মনে আসবে না।

ধন্যবাদ

(ভুল কিছু বললে জানাবেন)

লেখাঃ মোঃ রেজওয়ানুল হক স্বজন

Level 0

আমি মোঃ রেজওয়ানুল হক স্বজন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস